এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • হেদুয়ার ধারে - ৫ 

    Anjan Banerjee লেখকের গ্রাহক হোন
    ০৭ আগস্ট ২০২৩ | ২৫৪ বার পঠিত
  •       
    সন্ধে ছটা বাজে । 
    শ্যামবাজারের কফি হাউসে তিনজন বহুক্ষণ ধরে বসে বসে ছক কষায় ব্যস্ত । স্নেহাংশু মিত্র, অমিতাভ সেন আর সুনির্মল বরাট । লিটল ম্যাগাজিনের ছক । শুধুই কবিতা পত্রিকা । একটা নাম আপাতত  আলোচনার মধ্যে আছে  ----  সংসপ্তক। নামটা স্নেহাংশুর পেশ করা । তবে নামটা এক কথায় খারিজ করে দিল অমিতাভ । বলল, ' দূ..র এসব চলবে না । বেশ মারকাটারি কিছু একটা চাই । ধর বুলেট বা গাঁইতি বা অন্ডকোষ বা কাতুকুতু বা গুঁতোগুঁতি এই ধরণের কিছু । সুনির্মলের প্রতিক্রিয়া দেখে মনে হচ্ছে সে অমিতাভর পাশেই আছে । একটা সিগারেট ধরিয়ে টেবিলে দুটো কনুই রেখে  একটা টান মেরে ধোঁয়া ছেড়ে মিটিমিটি হাসতে লাগল । 
    ------ ' আরে বাবা, ম্যাগাজিনের নাম ঠিক করতেই 
    যদি এক সপ্তা লাগিয়ে দিস তাহলে আর বাকি কাজ করবি কখন ? বাজেটের কথা ভেবেছিস কিছু ? যদি মাসিক করিস , তেমন জমাট কিছু দাঁড়াবে না , আর পাক্ষিক করলে তো হাতে হারিকেন । মাসে দুশোর মতো পড়ে যাবে । কত আর নিজের পেট কাটব ?' 
     সুনির্মল সামনের দিকে তাকিয়ে বলল, ' ওই দেখ .... শতদল ভৌমিক ঢুকছে ...'
    স্নেহাংশু আর অমিতাভ ঘাড় ঘুরিয়ে দেখল কলরব গোষ্ঠীর শতদল ভৌমিক ঢুকছে । গালে দাড়ি , চোখে সরু ফ্রেমের চশমা , পরণে প্যান্টের ওপর গেরুয়া রঙের পাঞ্জাবী । বোতাম খোলা । কোনের দিকে টেবিলের একধারের চেয়ারে বসে একটা বিড়ি ধরাল । 
    অমিতাভ বলল, ' ও হঠাৎ এখানে ! ওর ঠেক তো কলেজ স্ট্রিট কফি হাউস ... ' 
    ----- ' এখানেও একটা ঠেক বানাতে চাইছে হয়ত । 
    সেদিন দেখলাম প্রেসিডেন্সির গেটের পাশে দাঁড়িয়ে নীরেন  চক্রবর্তীকে কি সব বোঝাচ্ছে ... ' স্নেহাংশু বলল ।
    ----- ' দেখ গিয়ে আনন্দবাজারে লাইন লাগাবার চেষ্টা করছে কিনা । পেরিফেরি তো অনেকটা বাড়িয়ে নিয়েছে না .... ' 
    সুনির্মল বলল, ' এদিকে অ্যান্টি এস্ট্যাবলিশমেন্টের ধ্বজা ওড়ানো গ্রুপ চালাচ্ছে .... ইমপস্টার ... ' 
    অমিতাভ কথাটায় বাধা দিল, ' আরে , ছেড়ে দে না ওসব ... নীরেনদার সঙ্গে কি কথা বলছিল তোরা তো আর শুনিসনি।  না জেনে কেন  ভিলিফাই করছিস .... বাদ দে বাদ দে ওসব ... ও যা করেছে সেটা তো নিজের ক্যালিতেই করেছে ... '
    ------ ' কারেক্ট ।  কিছু করতে গেলে আমাদেরও ক্যালি দেখাতে হবে । আমরা এখনও পত্রিকার নাম ঠিক করতে পারলাম না ... কবে কি হবে কে জানে ... ' স্নেহাংশু অমিতাভকে সমর্থন করে । 
    স্নেহাংশু আরও বলে, ' হ্যাঁ ... শোন আমরা প্রথমে দু ফর্মার বেশি করতে পারব না । ক্যাপাসিটি হবে না।
    শুধু বাজেটের সমস্যা নয় । লেখা কালেক্ট করা একটা বিরাট সমস্যা । আমরা নিজেরা লিখে পাতা ভরালে তো চলবে না । অন্য নতুন পুরণো  অনেকের লেখা লাগবে  । নাহলে পত্রিকা ছড়াবে না । গোষ্ঠী তৈরীর জন্য যেটা জরুরী । গ্রুপ ফর্ম করতে না পারলে তো আমাদের লং টার্ম গোল অ্যাচিভড হবে না । কৃত্তিবাস পত্রিকা না জন্মালে সুনীলদা শক্তিদাদের লাইমলাইটে আসতে আরও অনেক সময় লেগে যেত । একটা প্ল্যাটফর্ম  তো চাই । আর ... কোয়ালিটি লেখা জোগাড় করা যে কত বড় সমস্যা তোরা তো জানিস । আর কোন নামী লেখক তাদের সেরা লেখাটা লিটল  ম্যাগাজিনের জন্য দেবে না এটাও জানা কথা ... '  
    ----- ' তাছাড়া প্রচ্ছদের ব্যাপারটাও আছে । প্রচ্ছদ ক্যাচি না হলে ... ' সুনির্মল বলল । 
    ----- ' ওটা করে নেওয়া যাবে । সঙ্কর্ষণ রায় আমার খুব পরিচিত । ও প্রচ্ছদ করে দেবে বলেছে । সুভাষ মুখোপাধ্যায় সঙ্কর্ষণের খুব পরিচিত । আমাকে কথা দিয়েছে ফার্স্ট ইস্যুর জন্য সুভাষবাবুর একটা কবিতা জোগাড় করে দেবে । '
    ----- ' সঙ্কর্ষণ রায় মানে ওই পরিচয় পত্রিকার .... '
    ---- ' হ্যাঁ ...কৃত্তিবাসেও আছে ... ও করে দেবে ...করে দেবে ... ' 
    ------ ' দেখিস কাঁচের জারে মাছ পোষার মতো অবস্থা না হয় ... ' সুনির্মল বলে ।
    ----- ' মানে ? '
    ----- ' ছোটবেলায় খুব শখ ছিল । ক'দিন পর পর মরে গেলে খুব কষ্ট হত ... '
    ------ ' না না .... কোনমতেই তা হতে দেওয়া যাবে না ... আমরা জিতেই ছাড়ব ... ' স্নেহাংশু জোর গলায় বলে । 

      এই সময়ে অমিতাভ বলল, ' ওই দেখ পর্ণমোচি-র 
    কমল দাস এসে বসেছে শতদলের ওখানে । নিশ্চয়ই আগে থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছিল । এরা সব এখানে এসে জুটছে কেন ? এরা তো কলেজ স্ট্রিট বাড়ির পাখি .... '
    ওরা দেখল শতদল ব্যাগ থেকে একটা লম্বা মতো 
    খাতা বার করে সেটা খুলে কমল দাসকে কি সব দেখাচ্ছে । 
    স্নেহাংশু বলল, ' কোন লেখার খসড়া টসড়া হবে । বোধহয় কোন বই বার করবে শিগ্গীর ... যাকগে ... '
    আরও প্রায় আধঘন্টা কাটল নানারকম এটা ওটা নানা পরিকল্পনার কথা বলতে বলতে ।  
     এবার স্নেহাংশু বলল, ' আটটা বাজতে চলল ।  আমাকে এখন যেতে হবে , টিউশানি আছে । আবার সামনের বুধবার আয় তোরা ... কিন্তু এর মধ্যে লেখা কালেক্ট করতে শুরু করে দিই আমরা .... ওতে কিন্তু প্রচুর সময় লাগবে .... ঠিক আছে চলি আমি ... ' বলে বেরিয়ে যাচ্ছিল । দরজার দিকে ঘুরতেই শতদল আর কমল দাসের মুখোমুখি পড়ে গেল  । ওরাও বেরিয়ে যাবার জন্য দরজার 
    দিকে যাচ্ছিল । 
    স্নেহাংশুর সঙ্গে শতদলের কিছুটা পরিচয় ছিল । 
    সে স্নেহাংশুকে দেখে বলে উঠল, ' আরে ব্রাদার .... কি খবর ? ও বাড়িতে আর দেখি না তো .... ' 
    ----- ' হ্যাঁ ... অনেকদিন যাইনি । এখন এখানেই বসি ... অমিতাভ আর সুনির্মলও আছে ... ওই যে ... ' 
    ------ ' ও আচ্ছা আচ্ছা ... কলেজ স্ট্রিটে এস একদিন তোমরা সবাই ... নতুন কি লিখলে শোনা যাবে ... আমাদের মধ্যে যোগাযোগটা তো দরকার .... কমলকে চেন তো ? ' 
    ----- ' হ্যাঁ হ্যাঁ ... ভালভাবে চিনি ... ' 
    কমল দাস স্নেহাংশুর দিকে তাকিয়ে হাসল । 
    বলল, ' আসুন একদিন কলেজ স্ট্রিটে , কথাবার্তা হবে । লেখা নিয়ে আসবেন । ওদেরও বলবেন লেখা নিয়ে আসতে । যোগাযোগটা খুব দরকার । ওটাই আসল ... চলুন বেরোই ... '
    তিনজনে বেরিয়ে এল রাস্তায় । 

         ( চলবে )
    ********************************************
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খারাপ-ভাল মতামত দিন