• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। প্রবেশ করে দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
  • পাতা : 87 | 86 | 85 | 84 | 83 | 82 | 81 | 80 | 79 | 78
  • রাজনীতির জয়- পরাজয় আপাতত এক বিরাট মানবিক উদযাপনের মুখোমুখি

    - Bodhisattva Dasgupta
    বুলবুলভাজা | ১৯৩ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ১, লিখছেন (tester)

    উদ্দেশ্য আমার কাছে অন্তত খুবই স্পষ্ট ছিল। এন আর সি, সি এ এ এবং ছাত্র ছাত্রীদের উপরে পুলিশ তথা সরকার সমর্থক গুন্ডা দের হামলা ইত্যাদি নিয়ে সারা দেশে যে নানা প্রতিবাদ হচ্ছে, কলকাতায় থেকে তার যতটুকু আঁচ পাওয়া যায়, সেটা অনুভব করার , চাক্ষুষ করার চেষ্টা করা। এবং গুরুচন্ডালি তে লিখে ফেলা, যতটা পারা যায়।।

  • যাত্রাপথের আনন্দগান

    - Prativa Sarker
    বুলবুলভাজা | ৬৫৯ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ৭, লিখছেন (শক্তি , গ, Shibanshu De)

    পার্ক সার্কাসে গিয়ে কিছুক্ষণ দাঁড়ালেই আমার মনে পড়ে রক্তবীজের কাহিনী। আকাশ-চাটা আগুন-চিতায় সহমরণে মরতে যাওয়া মায়ের অসহ্য যন্ত্রণার চিৎকারের সঙ্গে সঙ্গে জরায়ু উন্মোচনে তার জন্ম। একফোঁটা রক্ত যেখানে পড়ে সেখানেই জন্ম হয় রক্তবীজের। এক থেকে একশ, হাজার, লক্ষ -- লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে তরুণাসুর রক্তবীজের সংখ্যা।    

  • এই দুনিয়ার সকল ভাল,
    আসল ভাল, নকল ভাল
    ডিটেনশন সেন্টারও ভাল।

    - জয়ন্ত ভট্টাচার্য
    ১০ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ২, লিখছেন (জয়ন্ত ভট্টাচার্য , গুরুচণ্ডা৯ )
  • চন্দ্রশেখর আজাদ

    - প্রতিভা সরকার
    বুলবুলভাজা | ৮০ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ৪, লিখছেন (Shibanshu De, বিপ্লব ব্যানার্জী, দ)
  • আমরা দেখে নেবোই : রোহিত ও নাজীবের জন্য

    - সায়ন্তন মিত্র
    nrc | ৩৫ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ২, লিখছেন (quark, লোহিয়া থেকে)

    এই লেখা লিখতে লিখতেই শোনা যাচ্ছে বিশ্বভারতীতে সঙ্ঘের পেটোয়া লোকজন নিয়ে ব্যবস্থা করা হয়েছিল এক সেমিনার যাতে সিএএ ও এনআরসির সুফল ব্যখ্যা করার কথা ছিল। সেখানকার ছাত্রছাত্রীরা তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় রড লাঠি নিয়ে প্রস্তুত হচ্ছে আরেক গুন্ডাবাহিনী। বিশ্বভারতী থেকে আসা এই খবর কোনদিকে গড়াবে আমরা জানি না, কিন্তু গোটা দেশজুড়ে যে সমস্ত ক্যাম্পাসগুলিতে আরেসেস এবিভিপির যাতায়াত ছিল সীমিত সেগুলিতেই নানা ফিকিরে ঝামেলার পরিবেশ তৈরী করে এক একটা ফেনোমেনন বানাতে চাইছে তারা। কিন্তু তাদের এই বর্বরতা কোনোভাবেই শেষ কথা হয়ে যে উঠবে না তার প্রমান প্রায় প্রতি মুহুর্তে দিয়ে চলেছেন এই দেশের ছাত্রছাত্রীসমাজ ও তাদের পাশে দাঁড়ানো সাধারণ মানুষ। আরেসেস বিজেপি যত হিন্দুরাষ্ট্র বা অন্যকে টুকরে গ্যাঙের নাম করে আসলে নানাভাবে ভারতের বিভাজনে ব্রতী হবে ততোই তাদের স্বরূপ উন্মোচিত হবে এবং অতীত থেকে ফ্যাসিবাদকে মোকাবিলা করার শিক্ষা তাদেরও দেওয়ার জন্য একত্রিত হবেন এদেশের সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ। যে আজাদীর স্লোগান উঠে এসেছিল বিক্ষুদ্ধ কাশ্মীর থেকে আজ তা শোনা যাচ্ছে কলকাতায় মুম্বইতে সব জায়গায় এবং তা দিচ্ছেন সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষ গৃহবধু বাচ্চা বুড়ো সবাই। ফয়েজের কবিতার বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি বসাতে বাধ্য হচ্ছে ভীতু কর্তৃপক্ষ।

  • প্রতিবাদের মিছিল মিটিং- কবে কোথায় কী হচ্ছে

    টাটকা খবর | ১ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ২১, লিখছেন (;), রায়গঞ্জ থেকে, এখন ধর্মতলা)

    এখানে আসতে থাকুক সব আপডেট। কোথায় কী হবে, কী হল।

  • দৃপ্তা ষড়ঙ্গীর জন্য - বন্ধুরা

    - উপমা নির্ঝরিণী, নির্নিমেষ ভট্টাচার্য,তনুজ সরকার
    nrc | ১ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ৯, লিখছেন (বিপ্লব রহমান , পারমিতা, de)

    দৃপ্তার কাছে অরাজনীতির বিলাসিতার সুযোগ ছিল। কিন্তু, ও শপিং মল, নেটফ্লিক্সের জীবনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সরাসরি ময়দানে নেমেছে। যখন ওর কাছে রাস্তায় নামার সুযোগ ছিল না, তখন ও ক্রমাগত উচ্চমানের রাজনৈতিক মীম বানিয়েছে। আর আজ এই সঙ্কটকালে ও কম্পিউটারের পর্দার আড়ালে লুকিয়ে পড়েনি। জামিয়ায় আক্রমণের খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে গেছে সেখানে।


    আজ সকালে এবিভিপির গুণ্ডাবাহিনি জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে ঢুকে হামলা করেছে। র আগে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে যখন তারা আক্রমণ করেছিল, তখন চোখের সামনে দেখেছি সাংবাদিকের মাথা থেকে টুপ টুপ করে পড়া রক্তবিন্দু ভাঙা কাচের গুঁড়োয় মিশে যাচ্ছে, চারদিকে আগুন জ্বলছে এবং এ টি এমের ভিতরে একলা মেয়েকে ঘিরে ধরে সঙ্ঘীগণ অত্যাচার চালাচ্ছে। তারপর ঘটে গেছে জামিয়া, আলিগড়ের ঘটনা। রাষ্ট্রের নৃশংসতার মাত্রা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পেয়েছে। উত্তর প্রদেশ ভয়াবহ অত্যাচার চলছে। আর কাশ্মীরের কথা তো আমরা জানতেই পারছি না। দেশজুড়ে আন্দোলনরত ছাত্রদের ক্রমাগত হুমকি দেওয়া হচ্ছে। দৃপ্তা নিজেও হুমকি শুনেছে। এই হুমকিগুলো আমাদের ভয় কাটিয়ে দিতে সাহায্য করে। আজ বিকেল বেলা দৃপ্তা যখন বলল ওকে ঘিরে ধরে লাঠিপেটা করা হয়েছে, তখন আমার হাড় হিম হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, বুঝতে পেরেছিলাম যে,

  • জাগ্রত শাহিন বাগ

    - ফরিদা
    nrc | ৪ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ৫, লিখছেন (প্রচুর পুলিশ, Rathindra Pal , শাহিনবাগ থেকে এস ও এস)

    ফিরোজ - দেখ, তোমায় তো বললাম জামিয়া আর 'জেএনইউ' এর ছাত্রছাত্রীরা শুরু করেছিল অবরোধের তা ক্রমে মানুষের প্রতিরোধে পৌঁছেছে। এর বেশিরভাগটাই সামলাচ্ছেন মহিলারা। আট থেকে আশি, এমনকি অন্তসত্ত্বা মহিলারাও রয়েছেন এই দলে। পালা করে তারা আসছেন। বাড়ির কাজ সামলে। পুরুষেরাও আছেন, তবে তাদের ভিড় বেশি সন্ধ্যার পর। আর এই জমায়েতে যে শুধু মুসলমানরাই রয়েছেন তা কিন্তু নয়। এতে অনেক হিন্দু শিখ এরাও রয়েছেন একসঙ্গে জোট বেঁধে।

  • জে এন ইউ তে ভয়াবহ হামলা

    - প্রতিভা সরকার
    টাটকা খবর | ৭ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ১০৩, লিখছেন (S, S এর বাপ কি এই ডাক্তার?, অর্জু)

    আজ মুখোশে মুখ ঢেকে বড় রড হাতে নিয়ে জেএনইউ হস্টেলে ঢুকেছে গুন্ডাবাহিনি, যা ছাত্রদের অভিযোগ অনুযায়ী এবিভিপির। রাষ্ট্রপোষিত গুন্ডা। ফি বাড়ানোর ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন, এনার্সি, সিএএ-র বিরুদ্ধে ছাত্রদের একতা, শাহিনবাগ ধর্ণা,গোটা দেশে বিশাল আন্দোলন, দেশবিদেশে বেইজ্জত হবার অপমান, আর কতো সইবে ফ্যাসিস্ট সরকার।

    জেএনইউয়ের অধ্যাপক, ছাত্র নির্বিশেষে আজ তাই রক্তাক্ত। নির্বাচিত ছাত্রসংসদ প্রেসিডেন্ট ঐশী ঘোষ সাংঘাতিকভাবে আহত। হাসপাতালে ভর্তি। অনেক সহযোদ্ধারও একই হাল। আহত অধ্যাপিকা সুচরিতা সেন।

    জোর করে জয়শ্রীরাম বলানো হচ্ছে, আর তাও নাকি হচ্ছে সংঘপরিবারঘনিষ্ঠ অধ্যাপকের অংুলিহেলনে।

  • সূচীপত্র

    - বছর শুরুর গুরুচন্ডা৯
    মোচ্ছব | ১১ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) |

    সূচীপত্র

  • টারজন

    - সাদিক হোসেন
    মোচ্ছব | ৩ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) |

    অণুগল্প

  • অবন্তিকাবানুর জন্য প্রেমের কবিতা এবং

    - মলয় রায়চৌধুরী
    মোচ্ছব | ২ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ২, লিখছেন (r2h, বিপ্লব রহমান )

    বললুম : এরকম মানে ? 

    এরকম মানে কেমন যেন বাউল বাউল
    দেহতত্ব তোমার কবিতা জুড়ে
    রসে-রসে টুপটুপে
    সেই প্রথম থেকেই লিখছ এই রকম কবিতা
    কেন গো ?
    জিগ্যেস করল তরুণী 

  • সময় অসময়ের কবিতা

    - চৈতালী চট্টোপাধ্যায়
    মোচ্ছব | ১৩ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ১, লিখছেন (বিপ্লব রহমান )

    সতীন

    পদ্মপাতায় জল -
    জল, তুমি কার?ওর না আমার?
    কলহে ব্যাপৃত হয়ে পড়ি।
    কাঁচা ইলিশের ঝোল পুড়ে যায়।
    চোখের নাগাল ছুঁয়ে নীলকন্ঠপাখি ঘুরে যায়।
    ফুলের আঘ্রাণ উড়ে যায়।
    কালো চাদরের মধ্যে ঢুকে যাচ্ছে জগৎসংসার।
    অজ্ঞান। দেখতে পাই না।আর,
    সেই অবসরে
    পদ্মপাতার থেকে জল খসে পড়ে

    উইমেন্স লিব্

    মাঝরাতে আলো জ্বেলে রাখতে ভালোই লাগে।
    আলমারি খুলি।
    কাপড়ের ভাঁজ ভেঙে ডানাদুটো বের করে এনে
    মেঝেয় বিছোই।
    মোমের পালিশ ঘষি।
    ফের তুলে রাখি।

    একদিন উড়ে যাব বলে

  • খুলো না ওর হাতের দড়ি

    - সোমনাথ রায়
    মোচ্ছব | ১ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ৪, লিখছেন (Kushan, শিবাংশু , রৌহিন)

    বিশ্বরূপে মোহিত হলে মাটি খাবে ঘরের ছেলে
    খুলো না ওর হাতের দড়ি আটকে রাখো রান্নাশালে
    কোন্‌ মথুরায় চলে যাবে এইবার যদি সুযোগ মেলে
    তখন দেখবে নন্দরানি শূন্য যে ঘর রাত পোহালে-

    বলে দিও দিব্যি কেটে ঐ যমুনা আর না পেরোয়
    পাড়ার মাঠেই খেলুক ঘুরুক নিজের পাঠে বসুক ভোরে
    ননীর অঙ্গে ছপটি মেরো বকলে যদি না করে ভয়
    যার অন্তরে জগৎ কাঁদে কাঁদাও তাকেই শাসন করে

  • দূরের জানালা দিয়ে যে মেয়েটিকে দেখা যায়, তার মন এবং

    - মণিশংকর বিশ্বাস
    মোচ্ছব | মন্তব্য : ২, লিখছেন (Prativa Sarker, সুকি)

    যাইনি কখনো ও বাড়িতে
    চানঘরে দেখিনি কখনো জল পড়ে যায়—
    অথচ শরীর ভেজেনি একটুও
    শুনিনি রবি ঠাকুরের গান বসবার ঘরে বসে
    শুধু দেখেছি সিঁড়ি ঘরে আলো—
    সিঁড়ি চলে গেছে
    উড়ন্ত পর্দা সরিয়ে
    ঘরের ভিতর
    আমি
    আর হিমরাত শুধু
    অন্ধকারে চোরের মতো দাঁড়িয়ে থেকেছি
    তোমার সুগন্ধের পাশে।

  • অনুপ্রবেশকারী

    - শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়
    কাব্যি |

    নতুন মালিক এলে গাছ গুলি ভয়ে জড়সড়

    আগাছা আপদ ভেবে যদি ওরা উপড়ায় মুল

    কিম্বা সাধের পাতা ছেঁটে কেটে বানায় অদ্ভুত

    সান্ত্বনা চেয়েছে ওরা মাথা নুয়ে মাটির উপর

  • পরিব্রাজিকা এবং

    - বেবী সাউ
    কাব্যি |

    তুমিও সহজ মতো বিশ্বাস করেছ সবকিছু। 
    সত্য ভেবে এ সংসার। ভাঙা চাল। ভাতের কাঁকর  

    নীরবে না-পাওয়া নিয়ে আমিও জপেছি রাধানাম  

    ঝড় এলে উড়ে যায় চাল, শস্য, তাও বলি --'তিষ্ঠ ক্ষণকাল'  

    যেভাবে বানের জলে ভাসে কৃষিকাজ 

    কৃষকের মন ভাবে প্লাবিত এ মাটি 
    অধিক ফলন সুখে 

    বর্ষশেষে ভেজা নারী 
    কোথা থেকে কোথায় বা যায়!  

  • রোধসূত্র এবং

    - তাপসী লাহা
    মোচ্ছব |

    রোধ নিভছে।

    পোড়া পায়ে তাকতবর মাটি 

    আহা,

    কষ্ট আছে

    দরকারে নরম চটির আংটায়

     লুকিয়ে রাখলে 

    গোপন কথারাও 
    ...

  • পোড়া মাটির পুতুল এবং

    - মানস ঘোষ 
    কাব্যি |

    দেশ জাতি দ্বেষ জাতি পোড়া 

    মাটির পুতুল দিয়ে

     চিত্রনাট্য,স্টেজ, আলো, পর্দা সব রেডি, 

    সেট সাজিয়েছি... 

    মৃত্যু উপত্যকার... 

     

    যাবতীয় আলো দর্শকের চোখে !

    মঞ্চ অন্ধকার |
    ...

  • নগিনা বাগ আর মেহর আলি

    - শিবাংশু দে
    মোচ্ছব | ৫ বার পঠিত (১৩ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে) | মন্তব্য : ২, লিখছেন (অরিন, সুকি)

    বারো বছর কাটার পর হঠাৎ একদিন গভীর রাতে সুলতান দেখেন তাঁর শোবার ঘরে দুজন অতি সুন্দর যুবক এসে পরিচয় দিলেন রামোজি আর লক্ষ্মোজি নামে। তাঁরা রামদাসের মুক্তিপণ হিসেবে ছ'লক্ষ টাকার সোনার মোহর আর সুদ হিসেবে ছ'লক্ষ টাকার রূপোর মোহর নিয়ে এসেছেন। মোহরগুলিতে রামচন্দ্রের নিজের নাম ছাপা আছে। সুলতানের তো চক্ষু চড়কগাছ। এভাবে মাঝরাতে তাঁর শোবার ঘরে দুজন ঢুকলো কী করে? অন্যদিকে তিনি এই দুজন আগন্তুকের ব্যক্তিত্বে মুগ্ধ। সুলতান রামদাসের মুক্তি পরওয়ানা স্বাক্ষর করে দিলেন। সেই রাতেই ঐ দুই যুবক কারাধ্যক্ষকে ফরমান দেখিয়ে রামদাসকে মুক্ত করে দিলেন।

    পরদিন সকালে হইহই ব্যাপার রইরই কাণ্ড। সুলতান ও রামদাস দুজনেই বুঝতে পেরেছেন ঐ দুজন যুবক কে ছিলেন? রাজা তো চমৎকৃত। আর রামদাসের বিলাপ বাধা মানেনা। তিনি বারবার বলছেন, রামলক্ষ্মণ ভক্তকে দর্শন না দিয়ে কেন যবন রাজাকে করুণা করলেন?

  • পাতা : 87 | 86 | 85 | 84 | 83 | 82 | 81 | 80 | 79 | 78
  • হরিদাসের বুলবুলভাজা : সর্বশেষ লেখাগুলি
  • মিষ্টিমহলের আনাচেকানাচে
    (লিখছেন... দীপক, tester, দীপক)
    আফজল গুরু – বিচারের বাণী নিরবে নিভৃতে কাঁদে?
    (লিখছেন... দ, Du, Du)
    রাজনীতির জয়- পরাজয় আপাতত এক বিরাট মানবিক উদযাপনের মুখোমুখি
    (লিখছেন... tester)
    যাত্রাপথের আনন্দগান
    (লিখছেন... শক্তি , গ, Shibanshu De)
    চন্দ্রশেখর আজাদ
    (লিখছেন... Shibanshu De, বিপ্লব ব্যানার্জী, দ)
  • টইপত্তর : সর্বশেষ লেখাগুলি
  • গুরুর নতুন লেআউট
    (লিখছেন... aranya, tester, এলেবেলে)
    আশমানি কথা : রাঘব বন্দ্যোপাধ্যায়
    (লিখছেন... tan, দ, রঞ্জন)
    কাগজ আমরা লুকাবো না
    (লিখছেন... র২হ, Anamitra Roy, r2h)
    বই মেলা এসে গেল, লিস্টি টি করা যাক...
    (লিখছেন... :-I, দ, অপু)
    গুরুচণ্ডা৯র প্রকাশিতব্য বইএর জন্য দত্তকের আহ্বান
    (লিখছেন... গুরুচণ্ডা৯, গুরুচণ্ডা৯)
  • হরিদাস পালেরা : যাঁরা সম্প্রতি লিখেছেন
  • রাওলাট সাহেবের ভূত!
    (লিখছেন... )
    দক্ষিণের কড়চা
    (লিখছেন... গুরুচণ্ডা৯, গুরুচণ্ডা৯, $#)
    প্লাবন
    (লিখছেন... Loton)
    মাই নেম ইজ অ্যান্থনি গঞ্জালভেজ
    (লিখছেন... b, :-(?), ন্যাড়া)
    মস্তি সেন্টার
    (লিখছেন... দ)
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তত্ক্ষণাত্ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ যে কেউ যেকোনো বিষয়ে লিখতে পারেন, মতামত দিতে পারেন৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...

  • যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত