এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Amit | 121.200.237.26 | ২৮ এপ্রিল ২০২২ ০৬:২৩506971
  • সন্দেহ হয় জার্মানি ফ্রান্স এরা রাশিয়ার সাথে আন্ডার দা টেবিল কোনো রুবল পেমেন্ট এরেঞ্জমেন্ট করেছে হয়তো। নাহলে রুবল এতটা পড়ে গিয়ে আবার এভাবে উঠে আসতে পারতোনা। প্রায় যুদ্ধের আগের লেভেলে পৌঁছে গেছে- যদিও এগুলো অফিসিয়াল এক্সচেঞ্জ রেটস। ব্ল্যাক মার্কেটে কি হচ্ছে কেও  জানেন - ? 
     
    এদের পক্ষে ​​​​​​​রাশিয়ার রিপ্লেসমেন্ট & সাস্টেনেবল এনার্জি ​​​​​​​সাপ্লাই ​​​​​​​এতো ​​​​​​​তাড়াতাড়ি ​​​​​​​খুঁজে ​​​​​​​পাওয়াও ​​​​​​​প্রায় ​​​​​​​অসম্ভব। প্রায় ​​​​​​​ব্ল্যাকমেলিং ​​​​​​​যাকে ​​​​​​​বলে। 
     
    তবে এটাও সত্যি যে ইন্টারন্যাশনাল ডিপ্লোম্যাসি ​​​​​​​আর ডোমেস্টিক ​​​​​​​ইন্টারেস্ট এর ​​​​​​​কনফ্লিক্ট ​​​​​​​হলে ​​​​​​​ওপরে ​​​​​​​সলিডারিটি ​​​​​​​দেখানো ​​​​​​​আর ​​​​​​​ভেতরে ​​​​​​​ভেতরে লুকিয়ে ​​​​​​​ডিক্টেটর ​​​​​​​রেজিমে গুলোকে সাপোর্ট ​​​​​​​দেওয়াটা ​​​​​​​খুব  বিরল একেবারেই নয়।  প্রায় সকলের হাতে কালি লেগে আছে। 
    ​​​​​
  • হীরেন সিংহরায় | ২৯ এপ্রিল ২০২২ ১১:৫৩506996
  • অমিত

    আপনি সবচেয়ে জরুরি প্রসঙ্গ তুললেন।ডলার/ রুবেলের এই অদ্ভুত স্পাইকটি আলোচনার অপেক্ষা রাখে ।

    দূরে কোথায় ১৩ নম্বর পর্বে  লিখেছিলাম “ গ্যাসের আমি গ্যাসের তুমি/ রুবেল দিয়ে যায় কেনা” । সব কনট্র্যাক্ট ইউরো বা ডলারে - ক্রেতা সেই সংখ্যাটি গাজপ্রমের নিউ ইয়র্ক বা ফ্রাঙ্কফুর্টের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউনটে জমা করে ঋণমুক্ত হয় । মুশকিল হল স্যাঙ্কশনের কারণে ওই দুটি মুদ্রায় ক্লিয়ারিং কঠিন . মহামতি পুতিন একটি উপায় উদ্ভাবন করেছেন ( ৩১শে মার্চের ডিক্রি ): তার মোতাবেক ক্রেতা ইউরো বা ডলার জমা দেবে গাজপ্রম ব্যাঙ্কে – তারা সেটি রাশিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কে জমা দিলে বিক্রেতা রুবেল পাবে .মজাটা এইখানেই – রুবেল/ ডলারের বা রুবেল /ইউরোর বিনিময় দর বাজার নয়, সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক নির্ধারণ করবে -আপনার গ্রাফে রুবেল ক্রমশ বলশালী হচ্ছে এই কারণেই।  এটাও মনে রাখুন গাজপ্রম ব্যাঙ্ক স্যাঙ্কশনের তালিকায় পড়েনি . ফলে এই  অনন্য রুবেল/ ইউরো লেনদেনেr প্রক্রিয়ায়  ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোনো বিধি ব্যহত হয় নি .প্রেসিডেন্ট উরুসুলা ফন ডের  লায়েনের মতো দুর্নীতিগ্রস্ত নেতৃর পক্ষে বলতে বাধে নি গ্যাস কিনছে বেসরকারি সংস্থা , তারা কি ভাবে দাম দিচ্ছে সেটা তাদের ব্যাপার স্যাঙ্কশন তো আর ভাঙ্গছে না। ধরি মাছ না ছুঁই পানির উৎকৃষ্ট উদাহরণ !

    কত রঙ্গ  জানো সখী কত রঙ্গ  জানো / চার রঙ দেখাতে পারো যাবো তোমার সঙ্গ !

    ঝামেলায় পড়লো পোল্যান্ড ( পে  গে নি গে , আমার সিটি ব্যাংকের আমলের  খদ্দের ) আর বুলগারিয়া – সে দুটি  দেশের গ্যাস ক্রেতা সরকারি মালিকানায় .যেহেতু এই দু দেশ স্যঙ্কশন সমর্থন করেছে , তারা আইনের পাশ কাটিয়ে রুবেলে দাম দেবে না। তারা বলেছে আমরা যে ভাবে কনট্র্যাক্ট সই করেছি সেভাবেই দাম দেব নিউ ইয়র্ক বা ফ্রাঙ্কফুর্টে।  অতএব মহামতি পুতিন বলেছেন তবে তোমাদের কল 
    বন্ধ !
     
  • হীরেন সিংহরায় | ২৯ এপ্রিল ২০২২ ১১:৫৭506997
  • অমিত আমার পরিচিতদের মারফত যতদূর জানি , মস্কো বা কাজানের গলিতে ডলারের দাম একশো দশের মতন ( সরকারি ৭২)। 
  • Amit | 121.200.237.26 | ২৯ এপ্রিল ২০২২ ১২:১৭506999
  • ইউক্রেনে মিলিটারিলি যতই ব্লান্ডার করুক এখনো অবধি , কিন্তু এইটা দেখে মনে হচ্ছে অয়েল ইকোনমিক্স টা ভালো মতো হোমওয়ার্ক করেই  তারপর লং হল খেলতে নেমেছে পুতিন। যদ্দিন জার্মানি ফ্রান্স এর মতো বড়ো কনসিউমার রা তেল-গ্যাস কিনে যাচ্ছে তদ্দিন অয়েল প্রোডাকশন এফেক্ট হবেনা। বরং তেলের দাম বাড়ায় রাশিয়া আরো বেটার ওয়ার ফান্ডিং চালিয়ে যেতে পারবে। জার্মানি তে ​​​​​​​কোনো ​​​​​​​গ্যাস রিগ্যাসিফিকেশন ​​​​​​​টার্মিনাল ​​​​​​​পর্যন্ত ​​​​​​​নেই। ​​​​​​​পাশে হল্যান্ড ​​​​​​​এ ​​​​​​​একটা ​​​​​​​মাত্তর। পুরোপুরি ​​​​​​​পাইপ ​​​​​​​লাইন ​​​​​​​গ্যাস ​​​​​​​এর ​​​​​​​ভরসায় ​​​​​​​চলছে। ​​​​​​​
     
    পোল্যান্ড এর মতো ছোট কাস্টমার দের বিপদ কারণ তাদের কোনো বার্গেনিং করার মতো কোনো কাপাসিটিই নেই। ঝি কে মেরে বৌকে শেখানোর মতো তাদেরকে একটু সবক শেখানো হবে মাঝে মাঝে। 
  • dc | 182.65.225.230 | ২৯ এপ্রিল ২০২২ ১৩:২৯507000
  • রুবল রিকভারির মনে হয় দুটো বড়ো কারন আছে। এক হলো আর্টিফিশিয়ালি প্রপআপ করে রেখেছে, আর দ্বিতীয় হলো বেশ কিছু দেশ বা কাস্টমার রুবলে তেল আর গ্যস কিনতে শুরু করেছে বা কেনার ব্যবস্থা করছেঃ 
     
    Some of Russia's biggest natural gas customers in Europe's are preparing to accept the Kremlin's new payment terms rather than risk being cut off by Moscow, a fate suffered by Poland and Bulgaria this week.
     
    কিন্তু কথা হলো, ইউক্রেনে রাশিয়ান আর্মি এতো বেশী করে নাকানিচোবানি খাচ্ছে যে যুদ্ধটা এসক্যালেট করার সম্ভাবনাও আরও বাড়ছে। পুটিনের যতো বেশী করে মুখ পুড়ছে ততো বেশী করে অন্য দেশ আক্রমনের সম্ভাবনা বাড়ছে। এদিকে নেটোর রেলিভ্যান্সও বাড়ছে, আগে যারা নেটো মেম্বার ছিল না তারাও মেম্বার হওয়ার কথা ভাবছে। আশা করা যায় যে নেটো-আমেরিকা ইউক্রেনকে আরও বেশী করে হেভি ওয়েপনস সাপ্লাই করতে শুরু করবে। অলরেডি জার্মানি বলেছে অ্যান্টি এয়ারক্রাফ্ট ট্যাংক সাপ্লাই করবে। লং টার্মে পুটিনের অবস্থা একেবারেই কাদায় চলে যাচ্ছে। 
  • guru | 103.135.229.179 | ৩০ এপ্রিল ২০২২ ২১:১০507038
  • হীরেন বাবুকে অসংখ্য ধন্যবাদ এই যুদ্ধের একটি মর্মস্পর্শী ছবি তুলে ধরার জন্য |
     
    একটু অন্য প্রসঙ্গে একটি প্রশ্ন রাখছি যেটি পুরোপুরি ভাবে আমাদের দক্ষিণ এশিয়ার ব্যাপার কিন্তু এর সূত্রপাত উক্রেনের যুদ্ধের থেকেই হয়েছিল |  যুদ্ধের ঠিক যেদিন ঘোষণা হয় ঠিক সেদিন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান রাশিয়া গেছিলেন সেখান থেকে কম দামে তেল ও গ্যাস কিনতে | কিন্তু তার পরেই তাকে গদিচুত্য হতে হল | অনেক বিশেষজ্ঞের মতে এটা আম্রিকি চাল যেহেতু ইমরান রাশিয়ার সঙ্গেই কম দামে তেল ও গ্যাস কিনতে চাইছিলেন | 
     
    হিরেনবাবু আপনি যেহেতু ব্রিটেনে আছেন , সেইখানে প্রবাসি পাকিস্তানিরা এই নিয়ে কি বলছেন ? আমরা এখানে ইন্টারনেটে দেখছি প্রবাসীরা ভীষণভাবে রাস্তাতে নেমে প্রতিবাদ করছেন এমন কি পাকিস্তানের বর্তমান সরকারকেও বলা হচ্ছে যে "ইমপোর্টেড হুকুমত ফ্রম আমেরিকা " |
     
    আপনার কি মনে হয় যে রাশিয়ার থেকে সস্তাতে তেল ও গম কিনতে চাইবার জন্যই আম্রিকা পাকিস্তানে এই রেজিম চেঞ্জ করলো ?
  • guru | 103.135.229.179 | ৩০ এপ্রিল ২০২২ ২৩:৪২507041
  • অমিতবাবু, পোল্যান্ডের এই যুদ্ধে ভারতের মতো নিরপেক্ষ থাকাই উচিত ছিল | আসলে ন্যাটোর কথা শুনে ইউক্রেইন্ কে অস্ত্র না পাঠালে আজকে সস্তাতে গ্যাস পেতেই পারতো রাশিয়া থেকে | আম্রিকার কাছ থেকে গ্যাস খেলে ও রাশিয়ার বিরুদ্ধে যাওয়ার জন্য এই দশা হতেই পারে | আসলে পোল্যান্ডের মতো দেশের নিজের দেশের নাগরিকের স্বার্থ আগে মাথাতে রাখা উচিত ছিলো | পোল্যান্ড ব্যাসিক্যালি একটা বুড়োদের দেশ যাদের সস্তাতে তেল ও গ্যাসের দরকার | উক্রেনের যুদ্ধটা অনেক আগেই থেমে যেত যদি পোল্যান্ড নিজেদের বর্ডার বন্ধ করে দিয়ে চুপচাপ রুবল দিয়ে তেল ও গ্যাস কিনতো | পোল্যান্ড যদি হাঙ্গরির ভিক্টর অর্বানকে দেখেও কিছুটা বাস্তববাদিতা শিখতো ! 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আলোচনা করতে মতামত দিন