• হরিদাস পাল
  • খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে... (হরিদাস পাল কী?)
  • উঠে দাঁড়ালেন যেমন দাঁড়ায়

    Simool Sen
    বিভাগ : আলোচনা | ০১ জানুয়ারি ২০২০ | ৪২ বার পঠিত
  • উঠে দাঁড়ালেন যেমন দাঁড়ান

    ইরফান হাবিব শ্রদ্ধাভাজনেষু

    আপনার ছবিটা দেখছিলাম। কেরলের রাজ্যপাল, আদার ব্যাপারী তো, নামও মনে থাকে না ছাই, বলতে উঠে যথারীতি কী সব ভুংচাং দিচ্ছেন, আর পাশে আপনি। দাঁড়িয়ে। ঋজু, সটান, স্পর্ধিত। তার পর গোটা দেশ জুড়ে কী হইচই, রাজ্যপাল টুইট করলেন, আপনি না-কি ওঁকে মারধোর করতে গিয়েছিলেন। তাই, ইরফান হাবিব?

    সালাম রইল।

    আপনার ইতিহাস-ভাবনা, বোঝেনই তো একুশ শতকের মেট্রো সিটির ছেলেছোকরাদের ব্যাপার, ব্যাকডেটেড হিসেবে গণ্য করা হয় ইদানীং ক্লাসঘরে। সায়ও দিয়ে ফেলেছি তাতে বারংবার। শিক্ষক যে দিন বললেন বিশেষ প্রজাতির ইতিহাসবিদের কথা, যারা মৃত্যু পর্যন্ত একই কথা আউড়ে চলে একঘেয়ে নিদারুণ পৌনপুনিকতায়, আর উদাহরণস্বরূপ আপনার নাম উল্লেখ করলেন– বিশ্বাস করুন, আমিও হো-হো হেসেছিলাম। সেই আপনি আজ ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে আমন্ত্রিত বক্তার শীলিত আসনটি ছেড়ে উঠে দাঁড়িয়েছিলেন দেখে, ভাবছেন, অপরাধবোধে দষ্ট হব? উঁহু ইরফান হাবিব। কিংবা, আপনার প্রতিটি বক্তৃতায় 'নবাগত' (মানে সেও প্রায় চল্লিশ বছরের পুরোনো মামলা, দীর্ঘশ্বাস ফেলেছে তাও হতে চলল দশ বছর) অনুজ বেলাইন সাবঅলটার্ন স্টাডিজের কুশীলবদের ধমক, এই সব নিয়ে বিরক্তিসূচক অব্যয়, এবং যুগে যুগে বেড়ে যাওয়া অনির্বচনীয় দূরত্ব, উফ, মার্কসবাদ কী অশেষ ডাইনোসরবৃত্তি পয়দা করে ভেবে হাসাহাসি এবং ভিন্ন ক্যাম্পের শরণ।

    ইরফান হাবিব, আপনি উঠে দাঁড়ালেন বলে জিনিয়াস আপনার– যাঁর পিএইচডি থিসিস একা হাতে কাঁপিয়ে দিয়েছিল ইতিহাস গবেষণার ভরকেন্দ্র– নিশ্চল স্বতঃসিদ্ধান্ত অতএব ইস্তেমাল করছি ইতিহাসের ছাত্র হিসেবে? উঁহু না, তাও না ইরফান হাবিব, আপনি কী বললেন তা ঠিক প্রমাণিত হল না, কিন্তু কী ভাবে বললেন, তা ইতিহাস হয়ে রইল। অতএব সালাম শিরোধার্য, হাবিব।

    কত বয়স হল আপনার? অষ্টআশি সম্ভবত। এই বয়সে তামাম ভারতীয় বৃদ্ধ কী করে? হরিনাম গায়, তো? আর? যারা একটু ক্ষমতাকেন্দ্রের গায়ে গায়ে লেপ্টে থাকেন, একটু অ্যাকাডেমিয়া, অনেকটা তেলবাজি-র অঙ্কে অঙ্কে জীবন সাজান, সতর্ক থাকেন মনে হয়, মানে মরণেরও আগে যতটা গুছিয়ে নেওয়া যায় আর কী। সেই আপনাকে কী দেখলাম এই বয়সে? দেখলাম, রাজ্যপাল মশাই কী একটা বলছেন, আপনি উঠে দাঁড়ালেন। প্রতিবাদ করলেন। গর্জনও বলা চলে। বাঘ, বাঘের মত। আপনি কি দেখতে পেলেন হাবিব, এই এক উচ্চারণে গোটা দেশ মনে মনে উঠে দাঁড়াল? আপনি কি দেখতে পেলেন, আপনার শত থিসিস, যুক্তি, বাক্যস্রোতের ভিড়ে অক্ষয় অব্যয় অজর এই মুহূর্ত জমা হয়ে গেল ইতিহাসের অমোঘ সেই নথিতে?

    দম লাগে, হাবিব, তা একটু বুঝি। ছোট বৃত্তে, ক্ষমতার সঙ্গে আপস করেই শিরদাঁড়া নুইয়ে যায়। আপনার এই আগুন থেকে অনেকেই সেঁকে নিচ্ছেন নিজেকে, নিজেদের। শিক্ষিকা বলছিলেন তাঁর ছাত্রকে: 'যদি প্রোফেসর হাবিব পারেন, আমরাও নিশ্চয়ই পারব।' হ্যাঁ, মিনারসদৃশ উদাহরণ তো বটেই। তার পর: 'আমাদের প্রজন্মটা পচেহেজে গ্যাছে। পারলে তোরা পারবি।'

    বিনত সালাম রইল, ইরফান হাবিব।

    দিনকয়েক নাড়াঘাঁটা চলছে, শুনলে থুক্কু বলবেন কি, এডওয়ার্ড সাইদের একটি বক্তৃতা নিয়ে। বিশেষ আলোকসামান্য কিছু লাগে নি, নেহাতই কাজের দরকারে৷ বক্তৃতানাম: 'রিপ্রেজেন্টেশন অফ দ্য ইন্টেলেকচুয়াল।' মানে ইন্টেলেকচুয়ালের দায় আর কী। সাইদ, যিনি স্ট্রিট ফাইটে অংশ নিয়েছিলেন, নেটে ছবিও পাওয়া যায়, রাজপথে লড়াই, উনি পাথর কুড়িয়ে ছুড়ছেন। ও দিকে সম্ভবত দুর্মর অপ্রতিহত ইজরায়েলি সেনা। তুশ্চু এক বক্তৃতাবাজ অধ্যাপক, পাথর ছুড়ছেন।

    আপনি বেয়নেটের সামনে একা। একা শাহিন বাগের সেই মা, মাস-পেরোনো শিশুকে নিয়ে ১.২ ডিগ্রি তাপমাত্রায় যিনি রাত জাগছেন। দশকের ক্লান্তি আর জরা যুঝতে যুঝতে আমরা যখন বিমূর্ত রাষ্ট্রের পুতুল হতে হতে নিজেরা তো এক 'ব্যবহৃত শুয়োরের মাংস', আর রাষ্ট্রকে ধরেছি প্রতাপান্বিত সর্বেশ্বর, তখন কাউকে কাউকে তো পাথর ছুড়তে হয়, ইরফান হাবিব। পাথর, নুড়ি, বা জলের বোতল। যা থাকে হাতের সামনে। অষ্টআশি বছরের হদ্দ বুড়ো, দুর্দান্ত ইতিহাসবিদ, প্রথিতযশা গবেষক হলেও ছুড়তে হয়। পাল্টা। ছুড়তে গিয়ে ডানা গজায় নুড়িপাথরের। পক্ষীরাজ৷ দারুণ বিস্ফোরণে ফেটে পড়ে মলোটভ ককটেল।

    আমরা ধরেছিলাম, দশক শেষ হবে নৈরাশ্যময় অন্ধকারে, যেখানে গণতন্ত্রে ক্ষইতে থাকবে গণ, আর সে হয়ে উঠবে নামহারা মুখহারা ভোটারমাত্র, সিদ্ধান্ত রূপায়ণের মেশিনমাত্র। ভুলেছিলাম, আমাদের হক আছে ব্যবস্থায়।

    ভুলেছিলাম, আমরা ব্যবস্থা গড়েপিটে নিতে পারি।

    যেমন ভুলেছিলাম, উঠে দাঁড়াতে পারি আমরা।

    আপনাকে আপাতত ভালবেসে ফেললাম। বলছি বটে শ্রদ্ধাভাজনেষু, কিন্তু ভেতরে সেই ভালবাসা, ইরফান হাবিব। সাইদ ওই লেখাটায় বলছেন: গণবুদ্ধিজীবীরও আসলে ভেতরে কাজ করে ব্যক্তিগত অতীতের স্পন্দন। আপনারও কি মনে পড়ে না আপনার পদবি, দিনের পর দিন আপনার কৃতিকে ছাপানো পদবির ভার, অপমান, হেনস্তা? তাও এনডিটিভিতে তার পরের রাতে আপনাকে ধরা গেল। শান্ত, মার্জিত, সংযত, প্রবীণ সিপিএম হিসেবে যেটুকু বলছেন, তা কেরলের বাম সরকারেরই প্রতি। অন্য কোনও দলের সঙ্গে কথার দরকার নেই। তাদের ক্ষেত্রে উঠে দাঁড়াতে হয়, আপনি জানেন।

    প্রথিতযশা প্রৌঢ় হওয়ার থেকে/ অপমানিত বালক হওয়া ভাল/ হঠাৎ আলোর ঝলক হওয়া ভাল– আমরা জানি। যেমন জানি নয়া ব্যাকরণ, কী ভাবে সাধারণ লোক রুখতে গিয়ে হঠাৎ উঠে দাঁড়ায়: 'অনেক কালের চাপা বিদ্রোহ/ ফাটল এ বার ক্লান্ত বুকে।' দেখছি তো, হাবিব। শুধু শীলিত সেশনে নয়, স্ট্রিট ফাইটে একক ইন্টেলেকচুয়াল কখন বহুবচন হয়ে গেল, হাবিব। আপনাকে দেখলাম। আপনাদের দেখছি।

    এত কাল পর এক বার উঠে দাঁড়ানো! অবশেষে!
  • বিভাগ : আলোচনা | ০১ জানুয়ারি ২০২০ | ৪২ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • aranya | 236712.158.2367.4 (*) | ০২ জানুয়ারি ২০২০ ০৪:৩৬51312
  • বাঃ
  • | 236712.158.786712.185 (*) | ০২ জানুয়ারি ২০২০ ০৭:২৮51313
  • ইরফান হাবিব এর একটু পার
    সোনাল গপ্প ও লেখা উচিত। ওনার কাজের সাধারণ গ্রহণ যোগ্য তাই বাড়লে বাম আন্দোলন এর সুবিধা ই হবে, দাদু হ্যাজ টু রিয়ালাইজ দিস। বাবার সম্পর্কে এক দু প‌্যরা যা লিখেছেন, কমপ্যাসন আর রসবোধ কোনটাই কম না। আর মুখে বলা, আমাদের শোনা, গল্পে সিরিয়াসলি অতুলনীয় স্টক। আর কটা দিন ই বা বলার জায়গা থাকবে , লিখলে পারেন।
  • :) | 237812.68.9008912.198 (*) | ০২ জানুয়ারি ২০২০ ০৭:৫৫51314
  • K k Muhammad সেসব পারসোনাল গল্প লিখেছেন। পড়লে ভক্তি চটে যায়।
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত