• হরিদাস পাল  গপ্পো

  • # মেট্রো গল্প

    Mahua Dasgupta লেখকের গ্রাহক হোন
    গপ্পো | ২১ নভেম্বর ২০২০ | ২১৭ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • # জুতো আবিষ্কার


    #মহুয়া দাশগুপ্ত


    ঠিক যেন ময়ূর!’ শপিং মলের চলন্ত সিড়ি থেকে নামতে নামতে এই বাক্যটা প্রথমে মায়াবী আবেশ আর ঠিক তারপরেই হাড় কঙ্কাল বের হওয়া ঠাট্টার মতো কানে এসে বাজলো শ্রাবণীর। সত্যি! জমকালো সালোয়ারের সঙ্গে একশোটাকার বর্ষার চটিটা বড্ড বেমানান । ঠিক যেন ময়ূরের পা! কানটা গরম হয়ে গেলো। শপিং কমপ্লেক্সে আসবে বলে আসমানী রঙের সালোয়ার, ইন্দ্রানী বুটিকের দুল, দারুণ শেডের লিপস্টিক , চোখে  আই লাইনার কিচ্ছুটি দিতে ভোলে নি শ্রাবণী। শুধু জুতোটা ——


    নাহ্ ! একটা ভালো স্টাইলিশ জুতো কিনতেই হবে। খেয়াল করলো,  সকলের পায়ে পায়ে বেশ আনন্দ! মানে সুন্দর সুন্দর জুতো!শ্রাবণী  কখনো ভাবেই নি এইভাবে । নিজের জুতোজোড়া দেখে মনটা কুঁকড়ে  গেলো হঠাৎ।  নাহ্! সুন্দর জুতো চাই। আজই চাই।  এইসব ভেবেই সেকেন্ড ফ্লোরে আবার গেলো। বাইরে থেকে জুতোর শো রুমটায় নজর বুলিয়ে ভাবলো ঢুকবে কী ঢুকবে না ! আসলে এ টি এম কার্ডটা আছে। কিন্তু ক্যাশ অত সঙ্গে নেই। আসলে শপিং মলে ঘুরতে আসলেও চাইলেই দেদার খরচ করতে পারে না শ্রাবণী। মোটামুটি ভালো চাকরি করে ও, কিন্তু মধ্যবিত্ত একটা বেড়া মনের মধ্যে রয়েছে। হুট করে অনেকটা টাকা অপ্রয়োজনে বের করতে গেলেই মনে হয় জ্যাঠা বর্ষার দিনে দুটো ইলিশ কিনলে এক সপ্তাহ ছটা স্টপেজ হেঁটে বাড়ি আসতো। মা একটা গোলাপী ঢাকাই কিনবে বলে জীবনের তিরিশ বছর অপেক্ষা করেছিলো। বাবা একটা দামী মোবাইল  কিনে উঠতে পারার আগেই চলে গিয়েছিলো পৃথিবী ছেড়ে। শ্রাবণী এখন দেদার খরচা করে । কিন্তু কেন জানি না, মাথা থেকে পা অবধি খরচাটা নামাতে পারে না। জুতোটা চলছে বহুদিন! একশোটাকার দম আছে, কিন্তু মান নেই। আজ হুঁশ হলো। 


    ‘ ওই ব্রাউন জুতোটার কত দাম?’ শ্রাবণীর কন্ঠে একটি সুবেশা তরুণী ঘুরে তাকালো। শ্রাবণী দেখছে, কালো স্কার্ট টপ আর কালো পাম্পশুতে কী দারুণ স্মার্ট মেয়েটা। হাঁটু থেকে পায়ের পাতায় চোখ নামালেই ঝকঝকে পাম্পশুটা কেমন করে পায়ের পাতাকে জড়িয়ে আছে! মেয়েটার পা দুটো দেখেই  বেশ একটা দেহি পদপল্লবমুদারম টাইপ ভাব আসছে। । শ্রাবণী একটু বুঝি হাঁ করেই তাকিয়েছিলৌ। মেয়েটি এগিয়ে এসে বললো ,‘ ইয়েস ম্যাম!’ অত ইংরেজি বলতে পারে না শ্রাবণী। হাতে গোটানো রুমালটা দিয়ে মুখটা মুছে বলে ,‘ ওই যে ওই ব্রাউন জুতোটা, নাষনা ওই পাশের কালোটা দেখাবেন?’


     জীবনে হয়তো এই প্রথম এতো দাম দিয়ে জুতো কিনে ফেললো শ্রাবণী। একটা জুতোর দাম যে চারহাজার টাকা হতে পারে , ধারণাই ছিলো না ওর। অথচ কেমন একটা ঘোরের মধ্যে এটিএম কার্ড দিয়ে কিনেই ফেললো । মানে কিনে পরেই ফেললো। বাড়ি ফেরার পথ  হেঁটেই কাছে। কিন্তু রিক্সায় উঠলো। জুতোটা নোংরা হয়ে যাবে যে! বুকটা টিপটিপ করছে আনন্দে। আড়চোখে নিজের পায়ের দিকে চেয়ে মনটা অন্যরকম জাতে ওঠা টাইপ লাগছে। বাড়ির সামনে এসে রিক্সা থেকে নেমে যখন নিজের বাড়ির অন্ধকার  কুয়োপাড় দিয়ে ঘরের দিকে যাচ্ছিলো , তখন ও স্পষ্ট দেখলো ওর আদ্যিকালের মরে ভূত হয়ে যাওয়া  ঠাকুমা নেড়া মাথা ঘষে ঘষে শাড়ির আঁচল দিয়ে মুছে  চলেছে আর বিড় বিড় করে বলছে,‘ সেবার দুর্ভিক্ষের বছর বিয়া অইলো। মা বাপে অতি বড়ো কষ্টেও দুটো গরম বাত  খাইতে দিতো। শ্বশুরবাড়ি আইয়া কতদিন চিঁড়ে খাইছি। মুখ ফুটে কই নি কিছু। এখনকার ছুঁড়িদের ফুটানি দেহলে গা জ্বলে।  বলি পয়সা কি গাছে ফলে এহন?’ 


    বুকটা ধড়াস করে উঠলো শ্রাবণীর। চেয়ে দেখে চারদিক  শুনশান। কেউ কোত্থাও নেই।কুয়ো পাড়ে বাতাবিলেবুর গাছ মাথা দোলাচ্ছে। কথাটা ঠাকুমাই বললো ,না ওর মনের প্রাচীন সংস্কার কিছুই বুঝলো না। দুদ্দাড় করে ঘরে ঢুকে পড়লো। ওর মধ্যবিত্ত ঘরে দোর কপাট দিলো।  রাতের বাতাসে মুখ বেঁকিয়ে  খসমস করে কারা যেন হেঁটে গেলো। বললো,‘ ঢং’!

  • বিভাগ : গপ্পো | ২১ নভেম্বর ২০২০ | ২১৭ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
আরও পড়ুন
রাজা - Tapas Das
আরও পড়ুন
ভগীরথ - Vikram Pakrashi
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • | ২২ নভেম্বর ২০২০ ১০:৩৪100542
  • এই দ্বিধা দ্বন্দ্ব এই টানাপোড়েন খুব খুব চেনা। ভাল লাগল। 

  • | ২২ নভেম্বর ২০২০ ১০:৩৪100541
  • এই দ্বিধা দ্বন্দ্ব এই টানাপোড়েন খুব খুব চেনা। ভাল লাগল। 

  • Ranjan Roy | ২৩ নভেম্বর ২০২০ ১৪:২৬100568
  • ভালো লাগল । আমার প্রজন্ম  এই দোকানে এখনও  ভোগে।

  • Saswati Basu | ২৪ নভেম্বর ২০২০ ০৪:০৮100584
  • এই দ্বন্দ্ব আমাদের ভীষণ চেনা । কখনো প্রাপ্তি  নীরব স্তুতি কখনো  "ময়ূর"  । লেখাটি ভাল লাগলো।  

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ক্যাবাত বা দুচ্ছাই মতামত দিন