• হরিদাস পাল  ব্লগ

  • বোধ বৃক্ষ

    Rumela Saha লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৭৬৬ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • বাদামী রঙা আমি ক্রমশ গাছ হয়ে উঠতে থাকি।নির্লিপ্ত,অচল,নিরুত্তাপ,নিচেষ্ঠ। শ্যাওলাগুলো পরজীবীর মতো এখানে ওখানে জীবন খুঁজে নেয়। স্মৃতিরা শিকড়ের মত মাটির গভীরে রস খুঁজতে যায়।চিন্তাগুলো কচি পাতার মতো সবুজে সবুজে ছেয়ে যায়।সম্পর্কগুলো শাখা-প্রশাখায় নিজেকে ছড়িয়ে দেয়। আমি গাছ হয়ে দাঁড়িয়ে থাকি।
    চারপাশে আরও গাছ জন্মায়। সূর্যের আলোর ভাগ চায় সবাই কিন্তু ছায়ার ভার কেউ নেবে না।ছায়ার নিবিরতায় আরাম খোঁজে মানুষ। ডালে ডালে পাখি বাসা বাঁধে।মস্ত উড়ানের শেষে ডানা গুটিয়ে বসে।কোটরে কোটরে কত যে পোকামাকড় আশ্রয় নেয়, তার ইয়ত্তা নেই।
    বসুধা আমায় ধারণ করবে বলে সৃষ্ট হয়ে ছিল।আমার ফল থেকে, বীজ থেকে আরেকটা আমির জন্ম হয়।আস্তে আস্তে আমি ছেয়ে যাই সবখানে।আমি অমর হই। আমার ফুলে গন্ধ-বর্ণ-রস সৃষ্টি হয়। আমার মধু নিয়ে যায় মৌমাছিরা।আমি অমৃত দান করি।মাটির গভীর থেকে জলের সঙ্গে খনিজ পদার্থ টেনে এনে আমায় পুষ্ট করে শিকড়। আমি স্বয়ম্ভু হই।
    অবশেষে আমার ছায়ায় এক রাজপুরুষ আশ্রয় নেয়।চারদিকের অসংখ্য আমার মধ্যে সে আমাকেই বেছে নেয়। তার পৌরুষেও, রাজবিভা ভালো লাগে আমার।ভাবি তাকে অমৃতের সন্ধান দি। কিন্তু সে তো অমৃত চায় না।ভাবি তাকে অমর হওয়ার মন্ত্র বলি। কিন্তু সে অমর হতেও চায় না। ভাবি তাকে শেখাই কি করে স্বয়ম্ভু হতে হয়। না, সে তাও হেলায় নস্যাৎ করে।
    আস্তে আস্তে তার বস্ত্র ছিঁড়ে যায়। সুকুমার শরীরে ঝড়, বৃষ্টি,ধুলো, আলো সবই লাগে।ক্ষয় হয় তেজ, নিষ্ফলা বীর্য। তবুও সে খুঁজে চলে। সে যে কিছু হারিয়ে খুঁজছে তা নয়, বরঞ্চ কি-ভাবে হারানোর বোধ কে হারাতে হয় সেই তার অন্বেষণ।মনের গহনে, নিখিল মহাবিশ্বের অলিগলিতে চলে তার খোঁজ। এই পথে সে একা।
    শীর্ণ থেকে মৃতপ্রায় শরীরে জীবনের লক্ষণ প্রায় লুপ্ত।আমি তার শ্বাস গুনি রোজ। ভাবি ওই শরীরটা যখন মাটিতে মিশবে তখন আমি তাকে শ্যাওলা দিয়ে শিকড়ে আঁকড়ে রাখব। আরও কি কি করব...ভাবতে থাকি, ভাবতেই থাকি।
    তারপর একদিন একটি মেয়ে এলো। কোথা থেকে কে জানে। তার হাতে একবাটি পরমান্ন।কি জানি সেই পরমান্নে কি ছিল, সেই জীর্ণ মৃতপ্রায় শরীরে জীবন জেগে উঠল।তারপর... তারপর সব আলো। তীব্র এক আলোর বলয় তৈরি হল আমার চারপাশে।সে আলোর তেজ আছে কিন্তু দহন নেই। উজ্জ্বল্য আছে কিন্তু ঝলসায় না।আলোর মহাসমুদ্রে ভেসে চলি আমি।না, আমি স্থির, আলো ভেসে চলে।

    সেই মানবশ্রেষ্ঠকে তারপর আর কখনো দেখিনি।দেখিনি সেই অত্যাশ্চর্য পরমান্ন হাতে মেয়েটিকে। আর আমি ওই পরমান্নের এক কণার জন্য অমৃত দানের ইচ্ছে নিয়ে অপেক্ষা করি। সহস্র শতাব্দী কাটে, কেউ আসে না। শুধু ভাবি কি ছিল সেই পরমান্নে যা অন্ধকারকে আলোর পথ দেখাল। আমি স্বয়ম্ভু হতে চাই না,এক কণা পরমান্নের স্বাদ আস্বাদন করতে চাই। যে পরমান্ন সিদ্ধার্থ থেকে গৌতম বুদ্ধের যাত্রাপথের পাথেয় হয়ে রইল। আমি অপেক্ষায় থাকি আরও অনেক শতাব্দীর। আরও এক সিদ্ধার্থের, যে আমার ছায়ায় বসে পরমান্নের স্বাদ নেবে।আমি অমরত্ব চাই না, নির্বাণ লাভ করতে চাই। ওই এক কণা পরমান্নের জন্য অপেক্ষা করি ...

    সুজাতা তুমি আসবে তো ?
  • বিভাগ : ব্লগ | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৭৬৬ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
আরও পড়ুন
রুটি - Rumela Saha
আরও পড়ুন
কাঠাম - Rumela Saha
আরও পড়ুন
ক্ষমা - Rumela Saha
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • রঞ্জন | 122.162.96.204 | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৪৪96894
  • ভালো লেগেছে।

  • Biswabrata Mukherjee | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:৫৫97430
  • এরপর বোধিবৃক্ষ র কি হলো.... জানার অপেক্ষায় রইলাম।

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। বুদ্ধি করে মতামত দিন