• হরিদাস পাল  ব্লগ

  • অন্য যৌনতা ও HIV 

    Jaydip Jana লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ১৮ এপ্রিল ২০২১ | ৩৪১ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • " তোর সাথে থাকতে গিয়ে আমার জীবনটাই নষ্ট  হয়ে গেল " অভির কথাটা শোনার পর থেকে কিছুতেই  নিজেকে সামলাতে পারছে না রনি।  ও এইচ আইভি  পজিটিভ  জানার পরেও ওর সাথে সম্পর্কটা স্বাভাবিকভাবেই গড়ে উঠেছিল অভির সাথে। ডেটিং সাইটে  নিজের এইচ আইভি  স্ট্যাটাস লিখেই প্রোফাইলটা তৈরী করেছিল ও। সেখান থেকই আলাপ ওদের। তারপর থেকে এই তিন  বছরে রণির সাথে  একসাথে থাকতে থাকতে নিয়ম করে নিজের এইচ আইভি পরীক্ষা করাতে একবারও ভোলেনি অভি। যেমন রনি ভোলেনা নিজের সিডি৪ বা ভাইরাল লোড পরীক্ষা  করাতে আর এন্টিরেট্রোভাইরাল ওষুধ  খেতে।


    ওদের ওপেন রিলেশনটা যতটা ওপেন ততটাই  ওপেন রনির এইচ আইভি  স্ট্যাটাসটাও।  যদিও এটা নিয়ে অভির প্রচুর আপত্তি  আছে তাও কিছুতেই কোনও কথা শোনেনা রনি। আর তাই আজকাল নাকি অনেকেই  বলে বেড়ায় যে অভিরও এইচ আইভি  আছে। তাতে যদিও অভির খুব  একটা কিছু যায় আসেনা। ও মনে করে রনি ছাড়া বাকিদের সাথে কন্ডোম ছাড়া সেক্সএর প্লেজারটা তো ও পুষিয়েই নেবে। যদিও রনির যত্ন বা রনির প্রতি ভালোবাসায় কোনও খামতি রাখেনি ও। এভাবেই তিনটে বছর একসাথে কাটালেও  রনির ইউনিভার্সিটির পরীক্ষা  শেষ  হওয়ায়  রনি যেহেতু বাড়ীতে থাকে আজকাল দুপুরে অফিস কেটে অন্য কাউকে নিজেদের  ফ্ল্যাটে ডাকতে না পারাটা মনে মনে বিড়ম্বনা তৈরী করে ওর। যদিও উইকেন্ড পার্টিতে গুলোতে যাওয়া নিয়ে রনির সঙ্গে তুলকালাম অশান্তি  হয় মাঝে মাঝেই।  সেদিন রাতে এমনই এক ঝগড়ার সময় অভির মুখে এমন কথা শুনে স্তম্ভিত  হয়ে যায় রনি। আত্মসম্মানে লাগে ভীষণ। আর তাই ভোর বেলা এককাপড়ে বেরিয়ে পড়ে ও। 


    নিজের বাড়ি ফিরেই বাবার থেকে কিছু টাকা ধার নিয়ে অন্য শহরে চলে আসার পর একটা ছোটখাটো  কাজ জুটিয়ে নিয়ে রণি একা থাকতে শুরু করেছে কিছু দিন। যেকোনো শহরেই একা থাকলে জীবনে অনেক লোকজন হঠাৎ করে জুটেই যায়, যদিও প্রয়োজন হলেও প্রিয়জন তারা কেউ না। তাই  অফিস ফেরত  একাকীত্ব  আর নেশা এখন রনির নিত্যদিনের সঙ্গী । মাঝে মাঝে মাঝেই  নেশার ঘোরে কেটে যায় বাকী রাতটুকু।কখনও কখনও রাতের ওষুধটাও খেতে ভুলে যায় ও। 


    এমনই একদিন আবারও ফোন করে খোঁজ নিতে গিয়ে, যখন অভি জানায়, এখনও লোকে অভিকেই এইচ আইভি  পজিটিভ  মনে করে  অথচ ওর রিপোর্টটা নেগেটিভ। কি দরকার ছিল রনির নিজের এইচ আইভি  নিয়ে এত সবাইকে বলার, এত সতী সেজে ডেটিং অ্যাপে লিখে বেড়ানোর, তাহলে তো আর অভিকে কেউ এইচ আই ভি পজিটিভ  ভাবত না!   রনি কিছুতেই  বোঝাতে পারেনা এটাই হওয়া উচিত। এটা ওর দায়িত্ব।  আর তাই ফোনটা রাখার পর কান্নায় ভেঙে  পড়ে আর ভাবে, "দায়িত্বশীল হওয়াটা কি সত্যিই ভুল!"  ওতো অভিকে ভালো রাখার জন্যই অভির জীবন থেকে সরে এসেছে, তারপরেও....


    ভাবতে ভাবতে মাদক  অবলম্বন  করে ঘুমিয়ে পড়ে ও, সে ঘুম আর কখনও ভাঙেনি... 


    ( সব চরিত্র  কাল্পনিক হয় না)  


    পুনশ্চ - এইচ আইভি  আক্রান্ত  মানুষের জীবনে অ্যান্টিরেট্রোভাইরাল ওষুধে শরীর সুস্থ  থাকলেও, প্রতিদিন  মানসিক ভাবে ভালথাকাটাও  ভীষণ  জরুরি। অথচ আমরা  শারীরিক  স্বাস্থ্য  নিয়ে যতটা  ভাবি মানসিক স্বাস্থ্য কে সেভাবে গুরুত্ব  দিই না।  বহু মানুষ বিভিন্ন কারণে নিজের  শেষদিন পর্যন্ত  এইচ আইভি  রিপোর্টটাকে গ্রহণ করতে পারেন না। নিজের  বেড়েওঠার সময়ে তৈরী ব্যগেজগুলো বোঝা হয়ে দাঁড়ায়। যতই সরকারি  ভাবে প্রচারে সামাজিক বৈষম্য দূর করার চেষ্টা  চলুক না কেন, আত্মবৈষম্য বা সেল্ফ স্টিগমার কারণে আত্মবিশ্বাসের অভাবে  মানুষ যে কোনও সময় ভালনারেবল হয়ে উঠতে পারে।  সেখানে আমাদের মত অন্য যৌনতার মানুষের ভালনারিবিলিটি আরও বেশি।  সামাজিক নীতিপুলিশির  কারণে অনেকেই সেগুলো থেকে বেরোতে পারেন না। আজও বহু পুরুষ দাড়ি কামানোর ব্লেড বা সেলুন থেকে এইচ আইভি  সংক্রমণ হয়েছে বলে নিজের ডিফেন্স মেকানিজমে সেটাকেই বিশ্বাস করাতে ভালবাসেন বাকীদের কাছে, এটা জেনেও যে, "দাড়ি কামানোর ব্লেড থেকে এইচ আইভি  ছড়ায় না"।

  • বিভাগ : ব্লগ | ১৮ এপ্রিল ২০২১ | ৩৪১ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
আরও পড়ুন
কবিতা  - Suvankar Gain
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • π | ১৮ এপ্রিল ২০২১ ২৩:৩৪104897
  • এই লেখাগুলো আসুক। 

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খেলতে খেলতে প্রতিক্রিয়া দিন