এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  বইপত্তর

  • অ্যালেন গিন্সবার্গ-এর কবিতা 'ইগনু'

    Malay Roychoudhury লেখকের গ্রাহক হোন
    বইপত্তর | ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩২৪ বার পঠিত
  • 103 | 104 | 105 | 106 | 107 | 110 | 113 | 114 | 119 | 120 | 121 | 123 | 124 | 124 | 125 | 125 | 126 | 127 | 127 | 128 | 129 | 131 | 133 | 134 | 135 | 136 | 138 | 139 | 140 | 141 | 143 | 144 | 145 | 147 | 148 | 149 | 149 | 150 | 151 | 152 | 153 | 154 | 155 | 156 | 157 | 158 | 159 | 160 | 161 | 162 | 163 | 164 | 165 | 167 | 168 | 169 | 170 | 171 | 172 | 173 | 174 | 175 | 176 | 176 | 177 | 178 | 179 | 180 | 181 | 182 | 183 | 184 | 185 | 186 | 187 | 188 | 189 | 190 | 191 | 192 | 192 | 193 | 194 | 195 | 196 | 198 | 199 | 200
    লুই ফার্দিনাঁ সেলিনের সঙ্গে দেখা করে প্যারিসের বিট হোটেলে ফিরে অ্যালেন গিন্সবার্গ ‘ইগনু’ শিরোনামে এই কবিতাটা লেখেন। ‘ইগনু’ অভিধা নির্দিষ্ট ধরণের ব্যক্তিকে বর্ণনা করে, যিনি তাঁর অন্যান্য অসংখ্য গুণাবলীর মধ্যে, "শুধুমাত্র একবার এবং অনন্তকাল বেঁচে থাকেন এবং তিনি তা জানেন" এবং "প্রত্যেকের বিছানায় তিনি ঘুমোন।" গিন্সবার্গ ‘ইগনু’ কবিতায় তাঁর অনেককে ইগনাসের উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ইগনাস শব্দটি লাতিন যার অর্থ আগুন। সংস্কৃত অগ্নি বলতে যা বোঝায়।

    অ্যালেন গিন্সবার্গ-এর কবিতা ‘ইগনু’

    তার ওপর আপনি যদি আমাকে চেনেন তবে আমি আপনাকে একজন ইগনু ঘোষণা করব
    ইগনু পৃথিবীর কিছুই জানে না
    কারখানার একজন বিরাট অজ্ঞ, যদিও তিনি হয়তো তার মালিক বা তাদের অনুপ্রাণিত করতে পারেন এমনকি উৎপাদন ব্যবস্থাপকও হতে পারেন
    ইগনুর দেবদূতের জ্ঞান আছে আসলে ইগনু জোকারের আকারে দেবদূত
    ডাবলু সি. ফিল্ডস হার্পো মার্কস ইগনাস হুইটম্যান একজন ইগনু
    র‌্যাঁবো বালকদের প্যান্ট পরে স্বাভাবিক ইগনু
    ইগনু অদ্ভুত হতে পারে যদিও দয়ালু ইগনুর মত নয় অদ্ভুত রোমাঞ্চের জন্য দেবদূতদের উড়িয়ে দেয়
    একজন জ্ঞানবাদী মহিলা তাকে ভালবাসে অনেক মৃত কাকিমার জন্য খ্রিস্টের কম্পিত বীর্য উপচে পড়ে
    সে একজন বড় শিশ্নমানব ইগনুরা সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েদের পূজা করে
    হলিউের খুকিদের বা আইডাহোর একা মেরিদের প্রচারকামী ঢ্যাঙাপায়ের মহিলাদের আর গোপন গৃহিণীদের
    আরেক জীবনের ইগনুকে চিনতে পেরেছেন আর তাদের প্রেমিকদের মনে রাখে
    স্বামীরাও গোপনে তাদের বন্ধু ইগনুর প্রতি কোমল-হৃদয়
    পুরানো দিনের বন্ধুত্ব যা ইচ্ছে করতে পারে অসতী-বউয়ের স্বামী লোকটা মাতাল কাঁপছে আর আনন্দে ডগমগ
    ইগনু শুধুমাত্র একবার এবং অনন্তকাল বেঁচে থাকে আর সেটা সে জানে
    সে সবার বিছানায় ঘুমোয় সবাই ইগনুর জন্য একা কেননা ইগনু আগেই একাকীত্বের কথা জানতো
    তাই ইগনু হলো শিশ্নের এবং মনের এক আদিম
    একইভাবে ইগনু প্রচুর থাক-থাক ব্যক্তিগত বিমূর্ত অধিবিদ্যা লিখেছেন
    প্রতচ্ছবি যা চাঁদকে আঁচড়ে দেয় 'বিদ্যুৎঝলকের-স্ফূলিঙ্গে’' নগ্ন ভোজ ভাজা জুতা বিদায় রাজা
    দেবদূতের ছায়া উল্টো দিকে হাত নাড়ছে
    বুদ্ধিমত্তার ভোর টেলিফোনগুলোকে অদ্ভুত প্রাণীতে পাল্টে দেয়
    সে তার রহস্যময় কাঁচি দিয়ে গোলাপ বাগান ছাঁটাই করে স্নিপ স্নিপ স্নিপ
    ইগনু তার নিজের দীর্ঘ বিষাদ দিয়ে পার্ক এভিনিউকে রাঙিয়েছেন
    আর ইগনু তার ক্ষয়িষ্ণু ঘরে কালোদের হোটেলে টাকপড়া প্যারিসের শক্ত চেয়ারে বসে হাসছে
    ইগনু তার বুনো ন্যাতা নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে কলোসিয়ামের পাশ দিয়ে হাঁটছে
    কিটসের কবর থেকে একটা সপ্তপর্ণী পাতা এবং শেলির থেকে ঘাসের শীস তুলছে
    কোলরিজ জানতেন যে তারা লন্ডনে মেহগনি টেবিল ঘিরে মধ্যরাতে ফিসফিস করে আলোচনা করে
    পাশের রাস্তার ঘরে শীতকালে বৃষ্টির বাইরে কুয়াশায় ট্যাক্সিচালক তার হাত নাড়ায়
    ইগনু হয়ে জন্ম চার্লস ডিকেন্স শিশুর হাহাকার শুনতে পান
    ইগনু ব্রিজের নিচে রাত কাটায় এবং যুদ্ধজাহাজ দেখে হাসে
    ইগনু উত্তর সাগরে বন্দুকবিহীন একটি যুদ্ধজাহাজ হারিয়েছে হায় মুহুর্তের ফুল
    সে ভূগোল জানে যে সে সেখানে ছিল বেরোবার আগে মারা যাবে
    আরবীয় শোকপূর্ণ রসিকতার গুনগুন করতে থাকা দাড়িওয়ালা ইহুদি আবার জন্মায়
    মানুষ যার কপালে একটা তারা আর তার মাথের পেছনে জ্যোতিচক্র
    তার চুলে অমরত্বের চাঁদের আলো পাতার পতনে আনন্দে গান শুনছে
    সুফি দরবারে এটেবিল-ওটেবিল করছেন সবথেকে সূক্ষ্ম আচরণের সবচেয়ে মার্জিত কমরেড
    তিনি এমনকি সেখানেও ছিলেন না
    রাশিচক্রের নীল হাতাজামা আর জাদুকরের লম্বা চূড়াযুক্ত টুপি মাথায়
    একটা লাল তারার নীচে মধ্যরাতে একটি কুয়োর নীরবতার সাথে কথা বলেন
    রকফেলার সেন্টারের লবিতে প্যান্ট সহ বা ছাড়াই মনোযোগী বিনয়ী খালি চোখ উৎসাহী
    জ্যাজ শোনেন যেন তিনি একজন সাদা দেবত্বে আক্রান্ত নিগ্রো ইহুদি বিষণ্ণতায় ভুগছেন
    ইগনু লোকটা স্বাভাবিক তুমি তাকে দেখতে পাবে যখন তিনি বিমূর্তভাবে ট্যাক্সির ভাড়া মেটান
    অসম্ভব সন্তের পাকানো তাড়া খুলে টাকা দিচ্ছেন
    কিংবা তাঁর অদৃশ্য পয়সা গুনছেন সেই অদ্ভুত বাসচালককে দেওয়ার জন্য যার প্রশংসা করেন
    ইগনু আপনাকে খুঁজে বের করেছে সে ঈশ্বরের দয়া চায়
    আর ঈশ্বর প্রতি দশ বছর তার জন্য পৃথিবীকে ভেঙে দেন
    তিনি দিনের প্রকাশ্য আলোয় বিদ্যুৎ চমকাতে দেখেন যখন আকাশ নীল থাকে
    তিনি হারলেমের একটি ঘরে ব্লেকের বিচ্ছিন্ন কণ্ঠস্বর সূর্যমুখীর আবৃত্তি শুনতে পান
    তাঁর হাতা থেকে সাত লক্ষ পাগল পণ্ডিতে ঘেরা বাদলা পোকারা উড়ে যায়
    তিনি অনন্তকালে প্রবেশ করে উন্মাদ বিরতির পর মারা যেতে চান
    বেঁচে থাকেন এবং একজন বয়স্ক সাধুকে শেখান বা একটি ভ্রু-জোকারের কাছে ভেঙে পড়েন
    সমস্ত ইগনাস এক মুহূর্তের কথাবার্তায় একে অপরকে চিনে নেন আর একে অপর বুঝে ফেলতে পারেন
    সারা মহাদেশ জুড়ে আজীবন বন্ধু হিসেবে রোমান্টিক চোখ মেলে খিলখিল হাসেন
    দুঃখজনক মুহূর্ত ট্যাক্সিকে বিদায় জানিয়ে শহরের অন্য দিকে দ্রুত চলে যান
    দলের মধ্যে এক বা দুজন গোমড়ামুখ ইগনাস
    ডাঙ্গারি-পরা একজন হাসিমুখ সন্ন্যাসী
    একজন ডিমের কাপে তার ডিম ফাটিয়ে আনন্দে আত্মহারা
    একজন সারা রাত ধরে রক অ্যান্ড রোল গানে চিউইঙগাম চিবোয়
    পেটেনের অতিবৃষ্টি-অরণ্যে একজন নৃবিজ্ঞানী কোকিল
    একজন সারা বছর জেলে বসে কর্মফল ঘোড়দৌড়ের বাজি ধরে
    একজন ভৌতিক ফিল্মে ইস্ট ব্রডওয়েতে মেয়েদের তাড়া করে
    একজন তার প্যান্ট থেকে শুকনো আঙুর এবং পচা পেঁয়াজ বের করে
    একজনের বিছানার নীচে দর্শনার্থীদের আনন্দ দেওয়ার জন্য দুধেল ছাগল রয়েছে বাজে কথা দিয়ে দেয়াল রাঙায়
    কাঁকড়াবিছে হুইস্কি আকাশ ইত্যাদি যোগাড় করে পারলে সে চাঁদও চুরি করবে
    আমেরিকায় তা আগুন লাগিয়ে দেবে কিন্তু এগুলোর কোনোটাই ইগনু তৈরি করবে না
    আত্মাই সেই জিনিস যা শৈলীকে তার চিন্তার কোমল আতশবাজি করে তোলে
    পুরানো বন্ধুদের কাছে অদ্ভুত শহর থেকে চিঠির সৌহাদ্র্য
    আর বিদেশী বিছানায় সকালের নতুন দীপ্তি
    ব্যক্তিগত হওয়ার কমেডি তার গর্বিত দেবত্ব
    এলিয়ট সম্ভবত ইগনুদের মধ্যে এমন একজন যিনি খাবার সময় মজা করেন
    প্যাটারসনের উইলিয়ামস মারা যাচ্ছেন এমন একজন আমেরিকান ইগনু
    বারোজ একজন বিশুদ্ধ ইগনু তার চুল কাটার ক্রিম তার বাম আঙ্গুল
    প্রাথমিক বার্ধক্যজনিত কারণে কেটে ফেলা হয়েছে আধিভৌতিক বানান মনোবিশ্লেষণের সাথে প্রেমের মন্ত্র
    তার নেশাখোর জীবন এক মিলিয়ন ডলার দামের চেয়ে বড়ো কৃতিত্ব
    সেলিন নিজেই গদ্যের একজন পুরানো ইগনু
    আমি তাঁকে প্যারিসে দেখেছি নোংরা বুড়ো ভদ্রলোক
    লম্বা চুলের কাশি সহ তাঁর গলায় তিনটি মোটা সোয়েটার
    ঐতিহাসিক নখের নীচে বাদামী ছাঁচ
    বিশুদ্ধ প্রতিভা একটি ডুবন্ত জাহাজের ১৪০০ যাত্রীকে সারারাত মরফিন দিয়েছিলেন
    ''কারণ তারা সবাই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিল'
    কে আশ্চর্যজনক আপনি ইগনু আমার সাথে যোগাযোগ করুন
    বার্তা পাঠান পোস্ট টেলিগ্রাফ ফোন রাস্তায় অভিযোগ করে বা আমার জানালায় আঁচড় কেটে
    আর আমাকে একটা খাঁটি সংকেত পাঠান আমি বিশেষ ডেলিভারিতে উত্তর দেব
    মৃত্যু এমন একটি চিঠি যা কখনো পাঠানো হয়নি
    জ্ঞানের জন্ম ডাকটিকিট শব্দ মুদ্রা সঙ্গম জেল ঋতু মধুর উচ্চাকাঙ্ক্ষা নাইট্রাস অক্সাইডে
    উজ্জ্বল জানালায় একটি স্বর্গীয় দিন আঁকা সমুদ্রের সোনার আলোর আলোকচিত্রের ইতিহাস
    কালো মেঘের মধ্যে একটি চোখ
    এবং তুর্কি বাসের জানালা থেকে দেখা যায় বালিয়াড়িতে একা শকুন
    এটা নিশ্চয়ই একটা কৌশল । হাতে দুটি হীরা একটি কবিতা একটি দানছত্র
    প্রমাণ করে আমরা স্বপ্ন দেখেছি এবং বুদ্ধিমত্তার দীর্ঘ তলোয়ার
    যার জন্য আমি ছয় বছর বয়স থেকে আমার প্যান্টের মতো ক্রমাগত হোঁচট খাচ্ছি -- বিব্রত হয়ে।
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
    103 | 104 | 105 | 106 | 107 | 110 | 113 | 114 | 119 | 120 | 121 | 123 | 124 | 124 | 125 | 125 | 126 | 127 | 127 | 128 | 129 | 131 | 133 | 134 | 135 | 136 | 138 | 139 | 140 | 141 | 143 | 144 | 145 | 147 | 148 | 149 | 149 | 150 | 151 | 152 | 153 | 154 | 155 | 156 | 157 | 158 | 159 | 160 | 161 | 162 | 163 | 164 | 165 | 167 | 168 | 169 | 170 | 171 | 172 | 173 | 174 | 175 | 176 | 176 | 177 | 178 | 179 | 180 | 181 | 182 | 183 | 184 | 185 | 186 | 187 | 188 | 189 | 190 | 191 | 192 | 192 | 193 | 194 | 195 | 196 | 198 | 199 | 200
  • বইপত্তর | ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩২৪ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। বুদ্ধি করে প্রতিক্রিয়া দিন