• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
    বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে।
  • প্রবাদ বনাম ঘটনাঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ

    হারভার্ড টি এইচ চ্যান স্কুল অফ পাবলিক হেল্থ ইন্ডিয়া রিসার্চ সেন্টার
    আলোচনা : বিবিধ | ০৩ এপ্রিল ২০২০ | ৪৩২ বার পঠিত


  • প্রবাদ বনাম ঘটনাঃ 

    প্রবাদ ১। রসুন, লেবু ইত্যাদি ঘরোয়া টোটকা, যা সাধারণ জ্বরে বা সর্দিকাশীতে কাজ দেয়, সেগুলি খেলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।
    ভুল। রসুন এমনিতে খুবই উপকারী এবং তার কিছু জীবানুনাশক ক্ষমতাও আছে। তেমনি লেবু বা ওই জাতীয় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবারেও মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। কিন্তু এখন অবধি রসুন, লেবু বা অন্য কোন খাবার খেয়েই করোনা ভাইরাসকে রোধ করা গেছে এমন কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই।

    প্রবাদ ২। নিয়মিত নুন-জল বা স্যালাইন ওয়াটার দিয়ে গার্গল করলে এবং কিছুক্ষণ পরে পরে জল খেলে করোনা ভাইরাসগুলি গলা থেকে ধুয়ে যায় এবং এভাবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব
    ভুল। নিয়মিত গার্গল করার ফলে করোনা ভাইরাস থেকে কেউ রক্ষা পেয়েছেন এরকম কোন প্রমাণ নেই। এতে আপনার গলাব্যথার উপশম হতেই পারে – কিন্তু এর ফলে ভাইরাস্টি ফুসফুসে প্রবেশ করা থেকে আটকাবে না – কিছুক্ষণ পরপর জল খেলেও না

    প্রবাদ ৩। উষ্ণ এবং জলীয় বাষ্পপূর্ণ অঞ্চলে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে না।
    ভুল। উষ্ণ এবং জলীয় বাষ্পপূর্ণ অঞ্চল সহ সমস্ত ধরণের এলাকাতেই কোভিড ১৯ ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে।

     প্রবাদ ৪। গরম জল পান এবং উপযুক্ত পরিমাণ সূর্যালোক করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কার্যকরী
    ভুল। উচ্চ উষ্ণতায় কোভিড-১৯ মরে যায় এরকম কোন প্রমাণ এখনো পর্যন্ত নেই। গরম জল পান বা উষ্ণ সূর্যালোক এমনিতে স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল। উদাহরণস্বরূপ, সূর্যালোক আমাদের ভিটামিন ডি সংশ্লেষণে সহায়তা করে। কিন্তু মনে রাখতে হবে খুব বেশী সূর্যালোকে আবার চামড়া ঝলসে যেতে পারে।

    প্রবাদ ৫। গরম জলে স্নান করলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচা যেতে পারে।
    ভুল। গরম জলে স্নান করার ফলে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ আটকাবে না। আপনি গরম জলে স্নান করুন বা না-ই করুন, আপনার শরীরের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রী থেকে ৩৭ ডিগ্রীর মধ্যেই থাকে। বরং খুব বেশী গরম জলে স্নান করলে তা অত্যন্ত ক্ষতিকরও হতে পারে কারণ তাতে আপনার গায়ে ফোসকা পড়তে বা পুড়ে যেতে পারে। নিজেকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করার সেরা উপায় হল বারবার আপনার হাতগুলি পরিষ্কার করা। এর ফলে আপনার হাতে লেগে থাকা ভাইরাসগুলি পরিস্কার হয়ে যায় এবং আপনি চোখে, নাকে বা মুখে হাত দিলে আপনার যে সংক্রমণের সম্ভাবনা তা কমে যায়।

    প্রবাদ ৬। হ্যান্ড ড্রায়ার করোনা ভাইরাসকে মেরে ফেলার ক্ষেত্রে খুব কার্যকরী।
    ভুল। হ্যান্ড ড্রায়ার আদৌ কোভিড-১৯ ভাইরাস মেরে ফেলার জন্য কার্যকরী নয়। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে হলে ঘন ঘন অ্যালকোহল বেসড স্যানিটাইজার দিয়ে অথবা সাবান এবং জল দিয়ে হাত ধুন। হাত ধোয়া হয়ে গেলে সেটা তোয়ালে দিয়ে অথবা ড্রায়ার ব্যবহার করে ভালভাবে শুকিয়ে নিন।

     প্রবাদ ৭। সারা শরীরে ক্লোরিন অথবা অ্যালকোহল স্প্রে করলে করোনা ভাইরাস মরে যায়
    ভুল। আপনার সারা শরীরে অ্যালকোহল অথবা ক্লোরিন স্প্রে করলেো যেসব ভাইরাস ইতিমধ্যেই আপনার শরীরে প্রবেশ করেছে তারা মরবে না। বরং এই ধরণের বস্তু স্প্রে করলে তা আপনার জামাকাপড় এবং শরীরের মিউকাস অংশ, যেমন চোখ বা মুখগহ্বরের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। মনে রাখবেন ক্লোরিন বা অ্যালকোহল কোন ভূমিতলকে জীবানুমুক্ত করার জন্য ব্যবহৃত হতে পারে কিন্তু তা সবসময়ে পেশাদারদের পরামর্শ মেনে করা উচিৎ।

    প্রবাদ ৮। নিউমোনিয়ার ভ্যাকসিন দিয়ে করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা সম্ভব।
    ভুল। নিউমোনিয়ার টীকা, যেমন নিউমোকক্কাল টীকা অথবা হিমোফিলিয়াস ইনফ্লুয়েঞ্জা টাইপ বি (hib) টীকা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে কোনরকম প্রতিষেধক নয়। এই ভাইরাসটি এতটাই নতুন এবং ভিন্ন ধরণের যে এটির জন্য একেবারে নিজস্ব প্রতিষেধকের প্রয়োজন। গবেষকেরা আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধক আবিষ্কারের জন্য, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) তাঁদের সবরকম সাহায্য করে যাচ্ছেন। তবে করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধে কার্যকরী না হলেও শ্বাসকষ্টজনিত বিভিন্ন টীকা বা ফ্লু এর টীকা নেবার পরামর্শ অবশ্যই দেব আপনার স্বাস্থ্যের কারণে।

    প্রবাদ ৯। এই নতুন করোনা ভাইরাস মশার কামড়ে সংক্রমিত হয়।
    ভুল। আজ অবধি এরকম একটিও প্রমাণ পাওয়া যায়নি যা থেকে মনে হতে পারে যে করোনা ভাইরাসটি মশাবাহিত। এই নতুন করোনা ভাইরাসটি মূলতঃ শ্বাসতন্ত্রের ওপর ক্রিয়াশীল যা আক্রান্তের কাশি, হাঁচি, নাক থেকে বার হওয়া কফ অথবা থুতু ইত্যাদির মাধ্যমে ড্রপলেট বা জলকণার আকারে বাহিত হয়ে এক ব্যক্তি থেকে অন্য ব্যক্তিতে সংক্রমিত হয়। তাই এর হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে বারবার অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার অথবা সাবান জল দিয়ে হাত পরিষ্কার করুন। এবং যে ব্যক্তির হাঁচি বা কাশি হচ্ছে তার খুব কাছাকাছি আসা এড়িয়ে চলুন।

    প্রবাদ ১০। করোনা ভাইরাস কেবলমাত্র বয়স্কদের আক্রমণ করে।
    ভুল। সমস্ত বয়সের সব মানুষই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন। বয়স্ক ব্যক্তিরা এবং যাদের আগে থেকেই অসুস্থতা (যেমন হাঁপানি, ডায়বেটিস বা হার্টের সমস্যা) আছে তারা এই ভাইরাসে বেশী করে ক্ষতিগ্রস্ত হন এবং প্রচণ্ড অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) সব বয়সের মানুষকেই এর বিরুদ্ধে সতর্কতা অবলম্বন করতে পরামর্শ দিচ্ছেন – যেমন হাতের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, শ্বাসনালী পরিষ্কার রাখা ইত্যাদি।


    World Health Organization (WHO) Myth busters
    Harvard University
  • বিভাগ : আলোচনা | ০৩ এপ্রিল ২০২০ | ৪৩২ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা

  • পাতা : 1
  • একলহমা | 162.158.186.167 | ০৩ এপ্রিল ২০২০ ০৯:৫৫91983
  • সব কটা প্রবাদকে এক জায়গায় পাওয়াটা খুব কাজের হয়েছে।
  • করোনা

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত