এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Amit | 120.22.207.158 | ২৭ মার্চ ২০২২ ০৭:৫৮505624
  • হেহে। সেই সাউথ এর আলুনি ঘন্টচচ্চড়ি ও ঠিকমতো বানাতে পারলে লোকে হাপুস হাপুস করে খায়। 
     
    এত সমালোচনা হয় , কিন্তু সেখানে তার পাশে বাংলা সিনেমার আঁতেল রা মুখে তোলার মতো আদৌ কিছু বানিয়ে উঠতে পারেন ? 
  • Jhuma Samadder | ২৭ মার্চ ২০২২ ১০:০৩505634
  • নাঃ। বাংলায় তো নুন, মশলা কিছুই নাই। কেবল অবশিষ্ট আঁতেলপনাটিই রয়ে গেছে।
  • Amit | 193.116.193.114 | ২৭ মার্চ ২০২২ ১০:০৮505635
  • একমত। ঐটাই আমাদের দৌড় এখন। আর ক্রমাগত বিলাপ যে বলিউড আর নেহেরু এসে বাংলা কে পথে বসিয়ে গেলো। আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম। 
  • santosh banerjee | ২৭ মার্চ ২০২২ ১৪:২০505642
  • একটু বিশ্ব বাঙলা চটপটি আর জয় শ্রী রাম গরম মশলা দিলে ভালো হতো না? লাইক করে বেল বটম টা টিপে দিতাম !
  • Sara Man | ২৭ মার্চ ২০২২ ২২:১৭505661
  • সন্তোষবাবু, আপনি কি সিনেমা টা দেখেছেন? আমি আজ সব ছানাপোনার দল নিয়ে Rise Roar, Revolt ছবিটা স্বচক্ষে প্রত‍্যক্ষ করেছি। ওখানে বিশ্ববাংলা থুড়ি সুভাষ বোস আর বাংলা সংলাপে গুপ্ত সভা আছে। এখানে জয় শ্রীরাম ও আছে। কেমন ভাবে আছে বলি শুনুন। সিনেমার প্রথমার্ধে ইংরেজের পুলিশ দপ্তরের বিশ্বস্ত অফিসার রাম ইংরেজ বিরোধী ভীমকে ধরিয়ে দেয়। দ্বিতীয়ার্ধে জানা যায় ইংরেজ তোষণ রামের ভান। সে ভীমকে ফাঁসিকাঠ থেকে পালাতে সাহায্য করে, কিন্তু নিজে ধরা পড়ে যায়। সীতার কাছ থেকে ভীম আসল ঘটনা জানতে পারে। ইংরেজ রামের হাড়গোড় ভেঙে দেয়। ভীম একা পিলপিলে ইংরেজ সৈন‍্য, হুহু গুলির তোড়, কামানের বিস্ফোরণ সবকিছুর মধ‍্যে রামকে কাঁধে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। জঙ্গলে রামের গায়ে জড়িবুটি লেপে দেয়। চারটে গেরুয়া পতাকা ছিঁড়ে রামের রক্তমাখা পুরোনো পোষাক পরিবর্তন করে গেরুয়া ধুতি পরিয়ে দেয়। এত করে ক্লান্ত হয়ে ভীম পুষ্করিণীতে জল খেতে যায়। এদিকে রাক্ষস বড়লাট স্কট গাদা পুলিশ পাঠিয়ে জঙ্গল ঘিরে নিয়েছে। একটা শয়তান পুলিশের এত সাহস ভীমের দিকে বন্দুক তাক করেছে। তখনই ভীমের হাঁ আর জলের ধারার মাঝখান দিয়ে একটা তীর আমার নাকে বিঁধেছে। না মানে থ্রি ডি তো, আমার নাক ছুঁয়ে শয়তানের গর্দানে বিঁধেছে। রাম গেরুয়া ধুতি পরে রামের মূর্তি থেকে তীর ধনুক নিয়েছে। সে অক্ষয় তূনীরের তীর শেষ হয়না। জড়িবুটির ম‍্যাজিকে তার সমস্ত ক্ষত কয়েক মিনিটের মধ‍্যে গায়েব। শেষে রাম আর ভীম, সঙ্গে রয়েল বেঙ্গল বাঘ, কম্পজ্বর  ভাল্লুক, চিড়বিড়ে চিতাবাঘ, চোখা ষনাক নেকড়ে, দৌড়বাজ হরিণ, গোন্ড উপজাতির শিকারী ভাই সবাই মিলে বড়লাটের বাড়ি উড়িয়ে দিয়ে সব ইংরেজ খতম করেছে। একমাত্র জেনি বলে ভালো মেয়েটা বেঁচে গেছে। যা হয়েছে সব ভালো হয়েছে, ইংরেজ হেরে গেছে, রাম সীতার দেখা হয়েছে, তাদের ভাঙা লকেট জুড়ে গেছে। সীতাকে রাম অগ্নিপরীক্ষা দিতে বলেনি, জেনি ভীমকে জড়িয়ে ধরেছে। বাচ্ছারা খুব নেচেছে। প্রচন্ড নাচগান করে সকলে সিনেমা শেষ করেছে। আমি অবশ হয়ে সীটে পড়েছিলাম। ভেবেছিলাম আমার হার্ট অ্যাটাক হয়ে গেছে, আমি আর বেঁচে নেই। কিন্তু পরে দেখলাম আমি বেঁচে আছি। ছোটবেলায় আমি রামকে খুব ভালোবাসতাম। সব বাক‍্যরচনা রামকে দিয়েই করতাম। বড় হয়ে জয় শ্রীরামের চাপে তাকে ভুলে গিয়েছিলাম। RRR কে ধন‍্যবাদ আমি সেই ছোটবেলার রামকে খুঁজে পেয়েছি। 
  • Sara Man | ২৭ মার্চ ২০২২ ২২:২০505662
  • চোখা নাক
  • Amit | 121.200.237.26 | ২৮ মার্চ ২০২২ ০৪:২৩505682
  • আম্মো দেখে এলুম কালকে সন্ধেবেলা। সপরিবারে। যাওয়ার আগে মুভি লিস্ট দেখতে বসলুম সবাই মিলে। চয়েস বলতে ছিল খান দুই হলিউড মুভি - সেরকম দেখার মতো কিস্যু না। আর ছিল মোদিজির প্রিয় কাশ্মীর ফাইলস। আর RRR. তো সবাই মিলে ঠিক হলো কাশ্মীর ফাইলস এর খুনোখুনি আর ফোবিয়া দেখে মেজাজ খারাপ করার চাইতে RRR ই দেখা যাক - মোদীজির দুঃখ হবে ভেবে আমার মনটা একটু খারাপ লাগছিলো বটে। কিন্তু আফটার অল সব কিছুর শেষে মুভি বিসনেস হলো গিয়ে একমাত্তর এন্টারটেনমেন্ট - এন্টারটেনমেন্ট - এন্টারটেনমেন্ট। বেশি দেশভক্তি ​​​​​​​বা ​​​​​​​আঁতেলগিরি ​​​​​​​কোনোটার ​​​​​​​ই ​​​​​​​এপেটাইট ​​​​​​​অমাদের ​​​​​​​বিশেষ নেই। 
     
    আর ​​​​​​​এরকম ​​​​​​​তো ​​​​​​​আসতেই ​​​​​​​থাকে। ​​​​​​​আমাদের ​​​​​​​কানাডিয়ান ​​​​​​​পাসপোর্ট ​​​​​​​হোল্ডার কিন্তু অন্তরে আর ব্যাঙ্ক ব্যালান্সের খাতিরে ​​​​​​​ইন্ডিয়ান  ​​​​​​​হিরো ​​​​​​​কিছুদিন ​​​​​​​অন্তর ​​​​​​​অন্তরই ​​​​​​​একখান করে ​​​​​​​হিন্দু ​​​​​​​ভারতের ​​​​​​​অতীত ​​​​​​​গর্ব ​​​​​​​মনে ​​​​​​​করিয়ে ​​​​​​​দেওয়ার ​​​​​​​জন্যে কাট ​​​​​​​পিস্ ​​​​​​​নামান। মোদীজি ​​​​​​​নিশ্চয় ​​​​​​​ভক্তের ​​​​​​​ভুল ​​​​​​​মাফ ​​​​​​​করে ​​​​​​​দেবেন। 
     
    আর ​​​​​​​গিয়ে ​​​​​​​খুব ​​​​​​​আনন্দ ​​​​​​​হলো ​​​​​​​দেখে ​​​​​​​যে ​​​​​​​আমরা ​​​​​​​একা ​​​​​​​নই - হল ​​​​​​​পুরো ​​​​​​​হাউসফুল। আর ​​​​​​​পাশেই কাশ্মীর ​​​​​​​ফাইলস ​​​​​​​এ ​​​​​​​কটি ​​​​​​​ডেডিকেটেড ​​​​​​​গেরুয়া চাড্ডি ভক্তিভরে ​​​​​​​মাছি ​​​​​​​তাড়াচ্ছে। 
     
    তো দেখলাম বটে RRR. গল্প যাই ভাটের হোক - পুরোপুরি 100-% পয়সা উসুল মশাই । সিজিআই , ড্রামা , একটু সেন্টি , একটু দেশভক্তি একটু ব্রিপুসভা আর বিশাল ধামাকা -  সব মিলিয়ে তিন ঘন্টা টুক করে কেটে গেলো দিব্যি। বেশ ভালো ফিলিংস নিয়ে হল থেকে বেরোলুম আর বাড়ি আসতে আসতে অদ্ধেক ভুলেও গেলুম। আবার কি চাই। 
     
    আর এইবার কেন , কাশ্মীর ফাইলস মতো চাড্ডিমার্কা মুভি আর এরকম এন্টারটেইনার এর মধ্যে বাছতে হলে আমি ১০০ র মধ্যে ১০০ বার রাজামৌলীর মুভি দেখতে রাজি আছি। 
     
  • Jhuma Samadder | ২৮ মার্চ ২০২২ ০৯:০২505691
  • বাবা রে! 'টুক করে'!!! আমার তো কাটতেই চাইছিল না। মাঝে মাঝে একটু করে ব্রেক নিয়ে আসছিলাম। 'ধুমতানানানা'র হাত থেকে কানটাকে একটু আরাম দিয়ে।
  • Sara Man | ২৮ মার্চ ২০২২ ১১:০৬505696
  • শুধু ধুমতানানানা বললে তো হবেনা ঝুমা ম‍্যাডাম। ঐ দেশি নাচের মধ‍্যে দিয়ে ইংলিশ জেন্টলম‍্যানেরা হেরে যাচ্ছিল, খাবি খাচ্ছিল, ব‍্যর্থ নকল করছিল। বয়েসে পঞ্চাশ পেরিয়েছি তো কী? আমি চেটেপুটে খেয়েছি। তিন তিনটে ঘন্টা কোন মাথা খাটাতে হয়নি। এসময়টা কি কম পাওয়া? 
  • santosh banerjee | ২৮ মার্চ ২০২২ ১১:১২505698
  • লেখা গুলো তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করছি। ধন্যবাদ।
  • | ২৮ মার্চ ২০২২ ১১:২১505699
  • ভাভাগো! পড়েই ডরাইসি। 
     
    কেউ গাঙ্গুবাঈ দেখলেন নাকি? 
  • Joshita Ghoshal | ২৮ মার্চ ২০২২ ১১:৩৯505701
  • পড়েই দেখতে ইচ্ছে করছে, কিন্তু উপায় নাইরে নাইরে নাই। :-(
     
     
     
  • Jhuma Samadder | ২৮ মার্চ ২০২২ ১২:৩৪505702
  • Sara man মাথা আর খাটবে কেমন করে? ঝাঁ ঝাঁ করছিল তো। তারপর অবশ হয়ে পড়ল। 'সবই মায়া' বলে হাল ছেড়ে দিল।
  • Jhuma Samadder | ২৮ মার্চ ২০২২ ১২:৩৬505703
  • Joshita Ghoshal এরপরেও দেখবেন? আপনাদের দেশে 'সময়ের দাম নেই'?
  • Sara Man | ২৯ মার্চ ২০২২ ০৮:৪৩505748
  • এই সিনেমা গুলো অনেক ভাবিয়ে তোলে ম‍্যাডাম, অতোটাও হতোচ্ছেদ্দা করবেন না দয়া করে।
    পরিচালকের আগের ছায়াছবি বাহুবলীতে তিনি বল্লালদেবের ষড়যন্ত্র অপশাসন ও অত‍্যাচার দেখিয়েছেন, এই ছবিতে শাসক ভিলেন ইংরেজ। বাহুবলীতে অত‍্যাচারী শাসক অমরেন্দ্রের স্ত্রী রানী ও রাজকন্যা দেবসেনাকে বন্দী করে রাখে, এখানে শাসক বন্দী করে গোন্ড উপজাতির এক সরল বালিকা মল্লিকে, যে স্বাধীন ভাবে জঙ্গল কে সমৃদ্ধ করে তার গান দিয়ে, কচি হাতে আঁকা ময়ূরের ছবি দিয়ে। দুটিতেই রাক্ষস পুরীতে বন্দিনী সীতার অনুষঙ্গ আসে। তবে রাজামৌলি চমকে দেন তাঁর কল্পনায়। কারণ বাহুবলীতে অদেখা বন্দিনী মাকে খুঁজে বেড়ায় তার সন্তান। আর এই ছবিতে এক অপাপবিদ্ধ দুখিনী বালিকাকে খুঁজে বেড়ায় তার ভাই। দুক্ষেত্রেই সতীত্ব রক্ষার প্রশ্ন অতলে তলিয়ে যায়।

    বাহুবলীতে ধর্মসঙ্কট বা উচিত অনুচিতের প্রশ্ন ওঠে। কাটাপ্পা অমরেন্দ্রকে হত‍্যা করে ঠিক না ভুল করল? যদি ঠিক হয়, তবে কেন, যদি ভুল হয়, তার কারণ কী? এখানে এই এথিকসের প্রশ্নটা সম্পূর্ণ অন‍্যভাবে এবং তীব্রভাবে পরিবেশন করা হয়েছে। কিন্তু প্রযুক্তির ঘনঘটার আড়ালে সব কিছু লুকোনো আছে। সংবেদনশীল হৃদয়ে বিঁধবে। যে অত ভাবেনা, সে শুধু ওপরের খোলসটা উপভোগ করবে। 
  • Sara Man | ২৯ মার্চ ২০২২ ০৯:০৯505749
  • আরও একটা কথা আছে। রাক্ষস কন‍্যা হিড়িম্বার বদলে ইংরেজ তনয়া জেনি ভীমকে বরণ করেছে। সিনেমার শেষ দৃশ‍্যে ভীম সীতার মাথায় হাত রেখে তাকে ভাই হিসেবে রক্ষা করার কসম খেয়েছে। ভীমকে তো আমরা চিনি। রাম আর সীতার ওপরে কোন অবিচার করতে সাহস পাবে না। এই একটি পয়েন্টে আমি যে কতটা খুশি হয়েছি, তা ঝুমা ম‍্যাডাম আমি আপনাকে বলে বোঝাতে পারবোনা। 
  • Jhuma Samadder | ২৯ মার্চ ২০২২ ১১:৩১505756
  • আমার মনে হয়, এমন রূপক কাহিনী যদি দেখাতেই হয়, তাহলে 'হায়দর' বা 'ওমকারা' হলেই ভাল। এত 'ধুমতানানানা'র আড়াল থেকে খুঁড়ে বের করে আনার দরকার হয় না। অথবা,  'ফিল্মিস্তানে'র মত সহজ সরল অথচ গভীর সিনেমা।
  • Amit | 121.200.237.26 | ২৯ মার্চ ২০২২ ১১:৫০505757
  • সারদা ম্যাডাম বেশ গুছিয়ে লিখেছেন। আমি তো ভুলেই গেছি দেখার পরে। :) 
     
    মুভি বা যেকোনো শিল্প-র তো পার্টিকুলার ফর্মুলা নেই। যার যা ভালো লাগে। যেখানকার টার্গেট অডিয়েন্সের জন্যে মুভিটা বানানো , তাদের ভালো লাগাটাই ডিরেক্টর প্রোডিউসার দের কাছে বেশি জরুরি। বাকিদের ভালো লাগলে সেটা জাস্ট বোনাস আর বেটার ক্যাশ ফ্লো। 
     
    শিল্পকলা, সোশ্যাল মেসেজ , পলিটিকাল মেসেজ ইত্যাদি যাবতীয় জিনিস ​​​​​​​থাকলেও ​​​​​​​দিনের ​​​​​​​শেষে ​​​​​​​তো এটা ​​​​​​​একটা বড়ো ​​​​​​​ইন্ডাস্ট্রি। ​​​​​​​বহু ​​​​​​​লোকের ​​​​​​​পেট ​​​​​​​চলে ​​​​​​​এর ​​​​​​​ওপর ​​​​​​​বেস ​​​​​​​করে। ​​​​​​​সুতরাং ফেস্টিভ্যাল এ ​​​​​​​অ্যাওয়ার্ড পাওয়াটাই শুধু নয়, কমার্শিয়াল মার্কেট ​​​​​​​সাকসেস ও ​​​​​​​একটা ​​​​​​​মেজর ​​​​​​​প্যারামিটার।  নাহলে কেও এমনি পয়সা ঢেলে মুভি বানাবে না। ইন ​​​​​​​ফ্যাক্ট ​​​​​​​অনেক ​​​​​​​ফেস্টিভ্যালে ​​​​​​​অ্যাওয়ার্ড ​​​​​​​পাওয়া ​​​​​​​মুভি ই ​​​​​​​হলে ​​​​​​​চালানো হলে মাছি ​​​​​​​তাড়ায়। 
     
    সেই কাজটা সাউথ আজকাল বলিউড এর থেকে অনেক বেটার করে দেখাচ্ছে গত কয়েক বছর ধরে। ইভেন তামিলে পুষ্পা মুভিটা কলকাতায় মাল্টিপ্লেক্স এ লোকে দেখে দেখে হিট করে দিয়েছে। কিছু একটা ফ্যাক্টর তো আছে এগুলোতে যেটা লোককে টানছে হলে ল্যাংগুয়েজ ব্যারিয়ার পার করেও ? 
     
    আর বাংলা ছবির কথা উঠলে সত্যি এখন পুরো সেই ঢাকার কুট্টির কেস -ঘোড়া ও  হাসবে- এতটাই হাস্যকর স্টেজে পৌঁছে গেছে। 
  • S | 2405:8100:8000:5ca1::11d:3674 | ৩০ মে ২০২২ ১৬:৩৬508244
  • RRR দেখলাম। এইটা সিনেমা? মাধ্যমিকের যতগুলো সাবজেক্ট ছিলোঃ ভাষা, সায়েন্স, ইতিহাস, ভূগোল, ফিজিকাল এডুকেশন, ওয়ার্ক এডুকেশান, এমনকি অ্যাডিশনাল সাবজেক্টগুলোর একটাও একদিনও পড়লে এই সিনেমা হজম করা অসম্ভব।

    মোটামুটি সাড়ে চার লাইনের গল্প। সেটা দিয়ে তিন ঘন্টার লম্বা সিনেমা বানিয়েছে। দর্শককে যাতে কিছুই ভাবতে নাহয়, তার জন্য প্রত্যেকটা সিনেই সবকিছু এক্সপ্লেইন করে দিয়েছেন লেখক-ডিরেক্টর। অ্যাক্টিং এতটাই অতিরন্জিত, রন্জিত মল্লিকও লজ্জা পাবেন। গানগুলো একটুও ভালো না। খাজা সিজিআই। জঘন্য অ্যাকশান সিকোয়েন্স। সাড়ে পাঁচশো কোটি টাকা খরচ করে এই সিনেমা বানানোর কি প্রয়োজন ছিলো, বুঝলাম না। এই রাজামৌলি নাকি আবার দক্ষিনের দারুন ডিরেক্টর।

    সাউথের সিনেমার হিরোদের যা ক্ষমতা দেখছি, তাতে ঐসব নিউক্লিয়ার সাবমেরিন বা এয়ারক্রাফ্ট কেরিয়ার না কিনে এদের একেকজনকে এক একটা ফ্রন্টের দায়িত্ব দিলে অন্যপক্ষ এমনিতেই পাইলে যাবে।

    অথচ দেশের স্বাধীনতা আন্দোলন (আর্মড কনফ্লিক্ট) নিয়ে প্রচুর রিয়েল ঘটনা-গল্প আছে। সেগুলো নিয়ে কেন সিনেমা বানালো না, মোটামুটি একটা আন্দাজ করতে পারছি। তাছাড়া হিন্দুত্ব, দেশপ্রেম, আর স্বাধীনতা আন্দোলনকে মেশাতে গেছেন চতুর পরিচালক। হিন্দিভাষীদের মধ্যে সিনেমা চালানোর জন্য কয়েকজন বলিউড অভিনেতাদের টোকেন রোলে নিয়েছেন।

    দেয়ার ইজ নাথিং গুড ইন দিস ফিল্ম।

    মাই রেটিংঃ ডবল ইয়াক।
  • :) | 2405:8100:8000:5ca1::2ea:224e | ৩০ মে ২০২২ ১৭:২৩508248
  • আহা বাংলা ছবি তো আর না। কাজেই সাত খুন মাপ। সাউথ আর বলিউডের কাছে সেন্সিবল ছবি কে আশা করে? কিছুক্ষণ গাঁজায় বুঁদ হয়ে থাকতেই যাওয়া।
  • a | 203.219.30.176 | ৩০ মে ২০২২ ১৮:৪০508249
  • লাল সিঙ্গ চাড্ডার ট্রেলার দেখলেন কেউ? বলে কয়ে ফরেস্ট গাম্প থেকে টুকেছে 
  • dc | 2401:4900:1f2b:2b7c:ad5a:51db:c07d:93f8 | ৩০ মে ২০২২ ১৯:৫৯508252
  • আমি ট্রেলারটা দেখিনি। সিনেমাটা দেখবোনা, কাজেই ট্রেলারও দেখিনি। RRR ও দেখিনি, সিনেমা বা ট্রেলার। 
  • S | 2405:8100:8000:5ca1::20a:4563 | ৩১ মে ২০২২ ০০:২৯508264
  • দেখলাম ট্রেলার। আমির খান অনেকদিন ধরেই টম হ্যান্কসের নকলে অভিনয় করে টরে। এবারে আর সামলাতে না পেরে আস্তো সিনেমাটাই টুকে দিয়েছে।
  • &/ | 151.141.85.8 | ৩১ মে ২০২২ ০০:৪২508266
  • আমি ভেবেছিলাম RRR এর ফুল ফর্ম হল রাম রাম রাম। ঃ-)
  • সিনেমাটাই টুকে দিয়েছে | 2405:201:8005:900c:1901:544d:c548:2165 | ৩১ মে ২০২২ ০১:১৪508267
  • "... It is an official adaptation of the 1994 American film Forrest Gump ..."
     
  • S | 2405:8100:8000:5ca1::234:32be | ৩১ মে ২০২২ ০১:৩৯508269
  • অফিশিয়াল অ্যাডাপটেশানের নামে ডায়ালগ বাই ডায়ালগ, সীন বাই সীন টুকে দিয়েছে। নতুন কিছুই না দেখানোর থাকলে অরিজিনাল সিনেমাটাই আধা পান্জাবী - আধা হিন্দিতে ডাব করে চালাতে পারতো। অন্তত অভিনয়টা বেটার হতো।

    লুপ লপেটাও অফিশিয়াল অ্যাডাপটেশান অব রান লোলা রান। কিন্তু একদমই আলাদা সিনেমা মনে হয় দেখলে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লাজুক না হয়ে প্রতিক্রিয়া দিন