• হরিদাস পাল  গপ্পো

  • বাংলার ফুটবলে ক্যাটারিং শিল্পের অবদান

    Debayan Chatterjee লেখকের গ্রাহক হোন
    গপ্পো | ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৩১৩ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • ছোটনা ছিল আমার খেলার মাঠের বন্ধু। খেলার মাঠের বাইরে ছোটনার সঙ্গে আমার একবার ছাড়া আর কখনো দেখা হয়নি।


    আমার ছিল রোগাটে চেহারা কিন্তু স্পিডে দৌড়োতে পারতাম। পায়ে কাজ ছিল। উইংয়ে খেলতাম তাই। বাঁ পা ছিল না বলে রাইট উইং খেলতাম। পরে রোনাল্ডো ম্যান ইউয়ে লেফট উইং খেলায় বাঁদিকে চলে গেছিলাম। মস্কোর সেই বৃষ্টিভেজা রাত আজও মনে আছে।


    ছোটনা স্ট্রাইকারের একটু পেছন থেকে খেলতো। ধাক্কাধাক্কি এড়ানোর জন্যই বোধহয়। ওরও ল্যাগব্যাগে চেহারা। পা দুটো কেমন যেন বাঁকা বাঁকা, একটা কাকামার্কা সাইকেল চালিয়ে মাঠে আসতো। পায়ে শট ছিল না সেরকম। গায়েগতরে খেলা তো দূরের কথা। তবু গোলটা চিনতো। বক্সে বল পেলেই পায়ের ডগা দিয়ে টুক করে গোলে ঢুকিয়ে দিতো। মানস থাকলে বলতেন - সুযোগসন্ধানী স্ট্রাইকার। পল্লব থাকলে বলতেন - পরিভাষায় যাকে বলে, ফক্স ইন দ্য বক্স।


    গলায় বাঁশি ঝুলিয়ে পাড়ার এক ক্ষয়িষ্ণু কাকু মাঝেমধ্যে কোচ কাম রেফারিং করতে আসতেন। ওনাকে পেয়ে আমরা চূড়ান্ত প্যাশনেট হয়ে খেলতাম। এক বন্ধু একবার বল ট্র্যাপ করতে পারেনি বলে মা-বোন তুলে খিস্তি মেরেছিলাম। কাকু এসে বলেছিলেন এসব করলে পরদিন থেকে মাঠে ঢুকতে দেওয়া হবে না।


    ছোটনাও আমাকে খিস্তি মারতো প্রচুর। আমার অভ্যেস ছিল বল ধরে রাখার। কাটাতে ভালো লাগতো তাই বল ছাড়তে খুব দেরি করতাম। ফরোয়ার্ডের রাগ হওয়া স্বাভাবিক। থ্রু খেলা যায়, এমন জায়গায় গোলে মেরে দিতাম। মাইনাস করলে ভালো হয়, এমন জায়গা থেকে আউটসাইড করে সেকেন্ড পোস্টের টপ কর্নারে রাখার চেষ্টা করতাম। রোনাল্ডোর মতন। ছোটনা হেবি ক্ষেপে যেতো, ভালোবেসে বলতো - হারামির বাচ্চা।


    একদিন খেলা শেষে বাড়ি ফিরে একটা বিয়ের নেমন্তন্ন খেতে গেছি। বেবি নানের রিপিট এসেছে। নেবো কি নেবো না ভাবছি। বয় উসখুশ করে বললো - স্যার, আরেকটা বেবি নান?


    মুখ তুলে দেখি - ছোটনা! সাদা জামা কালো প্যান্টে গুঁজে পড়েছে। কালো মুখে চকচকে সাদা দাঁত। সেকি অপরূপ রূপ। আমি মুগ্ধ হয়ে দেখতে লাগলাম। ছোটনা আবার বললো - স্যার?


    এ ঘটনার পর থেকে আমার খেলা রাতারাতি শুধরে গেল। মানস থাকলে বলতেন - ছেলেটা কাঁটাকম্পাস দিয়ে মাপা ক্রস কিংবা ডিফেন্স-চেরা থ্রু, সবেতেই সিদ্ধহস্ত হয়ে উঠেছে।


    নিশ্চয়ই তাই, কারণ এ ঘটনার পর থেকে ছোটনা আর আমায় খিস্তি মারতো না।

  • বিভাগ : গপ্পো | ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৩১৩ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
আরও পড়ুন
ছায়া - Debayan Chatterjee
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Ranjan Roy | ১৫ এপ্রিল ২০২১ ১০:৪১104773
  • বেশ ভাল। 

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভ্যাবাচ্যাকা না খেয়ে মতামত দিন