• মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • aranya | 162.115.44.103 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২৩:০২102705
  • অবশেষে, ৬ বছর পর 

  • বিপ্লব রহমান | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২৩:০৬102706
  • ধামাচাপাই প্রায়, সরকারের মুখ রক্ষা। নাটের গুরু মেজর জিয়া আরও ডজনখানেক ব্লগারের গলা কেটে অনেক  আগেই পগারপার! 

  • taslima | 24.55.32.185 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২৩:১১102708
  • "অভিজিৎ রায়ের ৬ জন হত্যাকারীর বিচার হলো আজ। এই বিচার অভিজিতের বাবা অজয় রায় দেখে যেতে পারেননি। মাও পারেননি। ৬ বছর লাগলো বিচার হতে। আনসারউল্লাহ বাংলা টিম নামের নতুন জিহাদি সংগঠনটির কিছু জিহাদিকে হাতকড়া পরাতে ৬ ঘণ্টা লাগার কথা ছিল। বিচার হতে ৬ দিন লাগার কথা ছিল, ৬ বছর নয়।

    হত্যাকারীদের উদ্দেশ্য ছিল দেশে ইসলামের সমালোচনা বন্ধ করবে, মুক্তচিন্তা বন্ধ করবে। তাই অভিজিৎ, অনন্ত, নিলয়, বাবু, দীপন, সামাদ -- এদের মেরে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চেয়েছিল। মানুষ যেন ভয় পেয়ে আর যে কোনও কিছুর সমালোচনা করলেও ইসলামের সমালোচনা না করে।
    আজকের রায় দেখে ইসলামের-সমালোচকদের খুন করা বন্ধ করবে জিহাদিরা? মোটেও না। কারণ তারা বিশ্বাস করে ইসলামে-অবিশ্বাসীদের খুন করলে তাদের বেহেস্তবাস হবে। আর যদি ধরা পড়ার পর তাদের মৃত্যুদণ্ড হয়, তাহলেও তাদের বেহেস্তবাস হবে। মৃত্যুদণ্ডের রায় বেরোনোর পর তাই খুনীরা হাসছিল। সম্ভবত আনন্দে এবং উত্তেজনায় হাসছিল, হুরদের সঙ্গে এই তো সঙ্গম শুরু হবে, এই তো বেহেস্তের শরাবান তহুরা পান করতে করতে। মনে আছে গুলশান ক্লাবের জিহাদিগুলো সারা রাত ধরে মানুষ খুন করার পর আনন্দে হাসছিল, কারণ পুলিশ এখন তাদের গুলি করবে, তারা মরবে, মরলেই অনন্তকাল সঙ্গমের জন্য পেয়ে যাবে অক্ষতযোনী হুরদের?
    জিহাদ করতে গিয়ে শহীদ হলে বিনাবিচারে বেহেস্ত। ধর্মপ্রাণ মুসলিমেরা এ তথ্য জানেন। সুতরাং ব্লগার হত্যাকাণ্ডে যে শাস্তি পাচ্ছে জিহাদি জঙ্গিরা -- সে শাস্তির নাম দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নয়। শাস্তির ভয়ে জিহাদিরা অপরাধ করা থেকে বিরত থাকবে না। বরং শাস্তি পাওয়ার জন্য তারা আরও উৎসাহিত হবে অপরাধ করতে, ইসলামের সমালোচকদের অর্থাৎ মুক্তচিন্তকদের হত্যা করতে উদ্যোগ আরও বেশি নেবে।
    ফাঁসি দিয়ে, যাবজ্জীবন দিয়ে তিন দশকের মগজধোলাই বন্ধ করা যায় না। দেশে জিহাদি কর্মকান্ড বন্ধ করতে চাইলে খুৎবা, ওয়াজ ইত্যাদি বন্ধ করতে হবে। যেসব মসজিদ মাদ্রাসা জিহাদের আঁতুড়ঘর হিসেবে ব্যবহৃত হয় --সেসব বন্ধ করতে হবে।"
  • বিপ্লব রহমান | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৪:০৪102717
  • তসলিমা, 


    শেষ বাক্যে খানিকটা একমত, মৌলবাদের উৎস বন্ধ করার পাশাপাশি চাই ধর্মের রাজনৈতিক ব্যবহার নিষিদ্ধ করা, অন্যথায় জিহাদ, ধর্মান্ধতা, উগ্র মৌলবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ইত্যাদি  বন্ধ করা মুশকিল। 


    আবার গলা কেটেও অভিজিতদের কন্ঠ রোধ করা যায় না, এ এক চেতনার নাম, যার মৃত্যু নাই! 


    আপনাকে ধন্যবাদ 

  • taslima | 24.55.32.185 | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৪:১৪102718
  • ওপরের পোস্টটা ফেসবুক থেকে কপি-পেস্ট | তসলিমা আজ পোস্ট করেছেন রায়ের পরে |

  • বিপ্লব রহমান | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৪:২৯102720
  • তসলিমা নাসরিন? আর আপনি? 


    যাহোক,  প্রথম মন্তব্যটিতে পুরো নয়,  আংশিক সত্য রয়েছে বলে চণ্ডালের অভিমত।  


    এছাড়া আরেকজনের কপি-পেস্ট মন্তব্যের বদলে নিজস্ব মত পেলেই ভাল হতো। 

  • taslima | 24.55.32.185 | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৪:৪৩102722
  • হ্যাঁ  তাসলিমা নাসরিন | ওনার মতামত প্রাসঙ্গিক মনে হলো তাই কপি-পেস্ট করলাম | আমার মতামত নেই | আমি বাংলাদেশ সম্পর্কে কিছু জানি না |

  • বিপ্লব রহমান | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৫:০০102723
  • সংযুক্তঃ  মুক্তমনা ব্লগ সাইটে বিবৃতি থেকে 


    "আমরা স্পষ্ট বলছি যে, বাংলাদেশ সরকার কেবলমাত্র অভিজিৎ রায় এবং অন্যান্য লেখকদের হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীদের ধরতে ব্যর্থ হয়নি, বরং ধর্মনিরপেক্ষতা প্রসারের ক্ষেত্রে বাক-স্বাধীনতা রোধ করেছে এবং এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।  প্রাচীনকাল থেকেই বাংলায় প্রচলিত ছিল অসাম্প্রদায়িক আধ্যাত্মিক মানবতাবাদ, যা দিক হারাচ্ছে সরকারের অদূরদর্শী ও হঠকারী নীতির ফলে। আমরা বিশ্বাস করি, দীর্ঘদিন থেকে দেশটির ইসলামীকরণ ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশ প্রজাতন্ত্রের মূল সংবিধানের মতাদর্শগত প্রতিশ্রুতিকে ব্যর্থতায় পর্যবসিত করছে এবং জঙ্গীবাদিদের উত্থান ঘটিয়েছে যার ফলে হত্যা করা হয়েছে অভিজিৎ রায় সহ জাতির অনেক সূর্যসন্তানকে।" 

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। কল্পনাতীত মতামত দিন