• হরিদাস পাল  আলোচনা  রাজনীতি

  • হেফাজতে ইসলাম - ফ্রাঙ্কেনস্টাইন 

    Muhammad Sadequzzaman Sharif লেখকের গ্রাহক হোন
    আলোচনা | রাজনীতি | ৩০ মার্চ ২০২১ | ২৮৩ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • ক্ষোভ জমে ছিল অনেক দিন ধরেই। নরেন্দ্র মোদির কার্যকলাপ ক্ষোভ তৈরি করার মতোই, এ নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নাই। মোদি সাম্প্রদায়িক বিভাজন শুধু করে নাই সম্ভবত এক মাত্র নেতা এই অঞ্চলের যিনি তা নিয়ে গর্বও করেন। বাবরি মসজিদ কিংবা নাগরিকপঞ্জি তৈরি করা এসবের যে একটা প্রভাব আমাদের দেশে পরে তা আমরা বা এই উপমহাদেশে বাস করে এমন অনেকেই জানে। কোন অদ্ভুত কারণে এই ক্ষেত্রে সবাই একটা ভারসম্য তৈরির চেষ্টা করে। ওইদিকে মুসলিম মরেছে এদিকে দাও দুইটা হিন্দু মেরে! মসজিদ ভেঙেছে দাও মন্দিরে আগুন। এতে কবে কোথায় কোন মুসলিমের উপকার হয়েছে তা আমার জানা নাই। তবে এই ধারা যে চালু আছে তা আমরা জানি। সব মিলিয়ে মোদি বাংলাদেশে আসলে প্রতিবাদ হবে এইটা সহজেই অনুমান করা গেছে। 

    প্রতিবাদ হচ্ছিল। সরকারের চাপে হোক বা কৌশলে হোক হেফাজতে ইসলাম মোদি দেশে আসার আগে আগে জানাল যে তারা ২৬ তারিখ মাঠে থাকবে না। অন্য বাকি যে দল গুলো মানে সাকি, নুরুর দলের সারা জীবন লেগে যাবে এত মানুষ জোগাড় করে এত বড় আন্দোলন করা। ২৬ তারিখ ঢাকায় এরপরে যা হল তার দায় দায়িত্ব তবে কে নিবে? ঢাকায় পুলিস যে কড়া মনোভাব দেখাল তারও যুক্তি খুঁজে পাওয়া যায় না। বায়তুল মোকারম থেকে তাদের বের হতেই দেওয়া হল না। আর ধর্ম প্রাণ মুসুল্লিরা নামাজ শেষেই শান্তিপূর্ণ ভাবে লাঠি, ইট নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ল! এমন তরিকার শান্তিপ্রিয় মুসুল্লি পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। 

    মূল সংঘর্ষ হল চট্টগ্রামের হাটহাজারি আর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়র সরাইলে। উগ্র হয়ে উঠল মানুষ। তুমুল সংঘর্ষ। প্রাণ চলে গেল পাঁচজনের! কী ভয়ঙ্কর কথা! প্রাণ গেল কিসের জন্য? মোদি দেশে আসল বলে? এইটা হাস্যকর কারণ না একটা? প্রশাসনের যুক্তি কী আমি জানি না। কোন পর্যায়ে গেলে গুলি চালানো যায় এগুলা যারা বিশেষজ্ঞ তারাই হিসাব করুক। আমি কারণটা বুঝতে চাচ্ছি। মোদি দেশে আসলে বা না আসলে আমাদের মানে আমরা বাংলদেশি যারা আছি তাদের কী লাভ ক্ষতি হয়ে যেতো? মোদির সফর বাতিল হলে ভারতের মুসলিমদের সকল সমস্যার সমাধান হয়ে যেত? বাবরি মসজিদের রায় পাল্টে যেত? এই আন্দোলন থেকে আসলে কী চাচ্ছিল হেফাজত বা অন্য আন্দোলনকারীরা? বিশ্বকে জানান দেওয়া যে আমরা ওই দেশে যে অন্যায় হয়েছে তার প্রতিবাদ করেছি? তা তো হয়েছিলই, তাহলে?  আর কী চাচ্ছিল আন্দোলনের নেতারা? এই দেশে আন্দোলন করে দেশ যদি নরক বানিয়েও দেওয়া হয়, যদি টানা আন্দোলনে জনজীবন স্তব্দ করেও দেওয়া হয় তাহলেও কী ভারতের রাজনীতি বা তাদের পররাষ্ট্রনীতি পরিবর্তন করা সম্ভব? তাহলে কোন যুক্তিতে মোদিকে ফেরাতে আমার দেশে আগুন জ্বলবে? কেন আমার দেশের মানুষের প্রাণ যাবে? 


    এর উত্তরে আওয়ামীলীগের স্বভাব সুলভ যে উত্তর, কেউ কিছু করলে তা স্বাধীনতা বিরোধী বলে ট্যাগ দিয়ে দেওয়া সেই ট্যাগ লাইনেই আমাদের যেতে হচ্ছে। কিছু করার নাই, এদের কার্যক্রম বাধ্য করছে আমাদের ওই লাইনে চিন্তা করতে। আজকে গত শুক্রাবারের ঘটনার প্রতিবাদে হরতাল দিয়ে ছিল হেফাজত। ঢাকা মোটামুটি শান্ত ছিল। কিন্তু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যা হয়েছে তা রীতিমত চমকে দেওয়ার মত ঘটনা। এরা  সুরসম্রাট আলাউদ্দিন খাঁ সঙ্গীতাঙ্গনে আগুন দিয়েছে, সরকারি গ্রন্থাগারে আগুন দিয়েছে, রেললাইন উপড়ে ফেলেছে, দেশের সবচেয়ে আধুনিক ও অত্যন্ত জরুরি ট্রেন সোনার বাংলা এক্সপ্রেসের সমস্ত জানালার কাচ ভেঙেছে হরতাল সমর্থনকারীরা। কেউ কি আমাকে বুঝাবে এর সাথে মোদির সফরের সম্পর্ক কোথায়? কিংবা শুক্রবারের সংঘর্ষের সময়, যেদিন আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করছি গর্বের সাথে সেদিন কী করে কেউ বঙ্গবন্ধুর মুরালে আগুন দেয়? এখন কেউ যদি এর সাথে স্বাধীনতা বিরোধীদের যোগসূত্র খুঁজে পায় তাহলে দোষ দেওয়া যাবে? আমি অন্তত কোন দোষ খুঁজে পাব না এতে। 



    এখন কি হেফাজতের নেতারা খুশি। কারণ তারা তীব্র আন্দোলন তৈরি করেছে। মানুষ মরেছে, পুরো দুনিয়া দেখেছে মোদি আমাদের দেশে কত অজনপ্রিয়, মানুষ কত তীব্র ভাবে মোদির সফর ত্যাগ করেছে।পুলিসের ভূমিকায় তাদের এই কাজ সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে।  এখন? এর চেয়ে বড় প্রচার তো আর সম্ভব না, তাই না? পুলিস যদি চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকত, আপনারাও চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকলে তো এমন দৃশ্য পেত না কেউ, তাই না? হেফাজত বা আন্দোলনকারীরা যা চেয়েছে তা পেয়েছে, এখন কী হবে? যে পরিবার গুলো তাদের প্রিয়জন হারিয়েছে তাদেরকে কি হেফাজতের নেতারা গিয়ে বলবে আপনার সন্তানের, আপনার প্রিয়জনের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আমাদের আন্দোলন পুরো দুনিয়ার নজরে এসেছে? এবং এতে করে ওই পরিবারের সবার মনে শান্তি নেমে আসবে? সাথে এই নেতারা কি এটাও বলবে যে এই আন্দোলন আসলে কোন উপকারে আসে নাই। যে ঘটনার জন্য এই প্রতিবাদ তার উপরে খুব একটা প্রভাব পড়বে না! বরং এই দেশে কত উগ্র ধর্মালম্বীরা বাস করে এইটা প্রমাণ করে মোদি আরও বেশি করে সাম্প্রদায়িকতার প্রচার ও প্রসার করে যাবে! এমন কী এর প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের ফলাফলেও পার্থক্য তৈরি হতে পারে! এই খবরে নিশ্চয়ই নিহতের আত্মা শান্তি পাবে? 

    হেফাজতকে আজকের দিন পর্যন্ত আনার দায় আওয়ামীলীগের। ধীরে ধীরে ফ্রাংকেনস্টাইন তৈরি হয়েছে। আজকে যখন দানব হুঙ্কার দিতে চায় তখন সব দোষ দানবের। দানব তৈরি করল কে তার কোন দোষ নাই! হেফাজতেরও বুঝা উচিত অরাজনৈতিক তকমা লাগিয়ে নানান ইস্যুতে তারা যে ঝাঁপিয়ে পরে এবং প্রতিবারই যে আন্দোলন একটু বাড়তেই তা সরকার পতনের আন্দোলনে রূপ দিতে চেষ্টা করে কেউ, তা কেন করে এবং  তারা কারা? যখন তখন যে কেউ তাদের আন্দোলনের লাগাম নিয়ে নিচ্ছে আর ওরা বেদুম মার খাচ্ছে। লাভের গুড় কে খাচ্ছে তা বুঝতে না পারলে মুশকিল। 

    হেফাজতের উচিত তাদের অবস্থান পরিষ্কার করা। আসলে এরা কী চায়?  যদি জামাতের জায়গাই নিতে হয় তাহলে হেফাজতের উচিত জামাত থেকে শিক্ষা নেওয়া। আজকে জামাত কোথায় এটা নিশ্চয়ই কারো অজানা না! হেফাজতের মূল পুঁজি হচ্ছে ধর্ম। খুব অনুভূতিপ্রবণ মানুষ এদেশের। সুযোগ পেলেই এই অনুভূতি নিয়ে খেলা বন্ধ করতে হবে। সরকারেরও উচিত এদেরকে তাদের অবস্থান সম্পর্কে পরিষ্কার ধারনা দেওয়া। এই কাজ দ্রুতই করতে হবে, যত দেরি তত ক্ষতি। 

     

    ( ছবি - ডেইলি স্টার)

  • বিভাগ : আলোচনা | ৩০ মার্চ ২০২১ | ২৮৩ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Ranjan Roy | ৩০ মার্চ ২০২১ ০১:১৩104276
  • এই স্পষ্ট স্বর আরও দরকার। 

  • X | 47.11.65.50 | ৩০ মার্চ ২০২১ ১৪:১৫104295
  • এই মোচোল্মান গুলো একটাই ভাষা বোঝাা

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যুদ্ধ চেয়ে মতামত দিন