• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
    বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে।
  • লকডাউন পরিস্থিতি নিয়ে কিছু কথা

    ডা. বিষাণ বসু
    বিভাগ : বুলবুলভাজা | ২৫ মার্চ ২০২০ | ৪৮৪৯ বার পঠিত
  • লকডাউন বিষয়ে কিছু কথা বলে নেওয়া যাক -

    ১. লকডাউন, সে যত দীর্ঘমেয়াদীই হোক না কেন (না, বছরখানেক ধরে লকডাউনের হিসেবে আনা হচ্ছে না), নিজে নিজেই কোনো সমাধান নয়। লকডাউনের মধ্যেই আমাদের নতুন করে আক্রান্তদের খুঁজে বের করতে হবে, তাঁদের সংস্পর্শে যাঁরা এসেছেন তাঁদের চিহ্নিত করতে হবে, আলাদা রাখার ব্যবস্থা করতে হবে - এগুলো না করা হলে স্রেফ লকডাউন দিয়ে বিশেষ লাভ হবে না। আর, লকডাউনের চোটে এই বেসিক কাজগুলো যদি বিঘ্নিত হয়, তাহলে লকডাউন উল্টে বিপদ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

    কথাটা আমার নয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হর্তাকর্তারা বলেছেন।

    ২. ন্যূনতম গণপরিবহন ব্যবস্থা চালু না রাখলে বাকি যেসব পরিষেবা চালু রয়েছে বলে জানানো হয়েছে, সেগুলোও ঝামেলায় পড়ে যেতে পারে। যেমন ধরুন, গত দুদিন ধরে, কাজের জায়গায় পৌঁছাতে স্বাস্থ্যকর্মীদের কালঘাম ছুটে যাচ্ছে।

    অল্পসংখ্যক সরকারি বাস চলুক - বাসে চাপার সময় দেখে নেওয়া হোক সচিত্র পরিচয়পত্র, যাচাই করে নেওয়া হোক সত্যিসত্যিই তিনি আপতকালীন পরিষেবার সাথে যুক্ত আছেন কিনা - কিন্তু, শহরের মধ্যে বাস চালু থাকা জরুরী।

    ৩. যেসব জায়গায় সফলভাবে লকডাউন কার্যকর করা গিয়েছে, সেখানে লকডাউনের দিনগুলোতে বাড়তি কিছু বন্দোবস্ত ছিল - যে ব্যবস্থাগুলো না থাকলে লকডাউন সফল হতে পারত না।

    সফল লকডাউনের মাধ্যমে অসুখ নিয়ন্ত্রণে আনার সেরা উদাহরণটি চিনদেশের - শুধু সেকারণেই সেদেশের উদাহরণ দিচ্ছি - চিনপ্রেমের পেছনে অন্য কোনো কারণ খুঁজতে বসবেন না, প্লীজ। সেদেশে, উহান অঞ্চলে, লকডাউনের সময় প্রতিদিন যাঁরা ঘরবন্দী ছিলেন, তাঁদের বাড়িতে বাড়িতে দুবেলা খাবার পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছিল। করোনার উপসর্গ ছাড়া অন্যান্য অসুস্থতার ক্ষেত্রে টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে অসুখের দাওয়াই জানানো ও ওষুধ বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছিল। এদেশে এই কাজগুলো এতখানি নিখুঁতভাবে করা সম্ভব কিনা জানি না - কিন্তু, অনুরূপ কোনো ব্যবস্থা ছাড়া লকডাউন ব্যর্থ হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা।

    ঘরবন্দী মানুষের প্রাত্যহিক প্রয়োজন মেটানোর কোনো বন্দোবস্তের উল্লেখ ছাড়া, দেশ জুড়ে শুধুমাত্র লকডাউনের কথা বলে দেওয়া, প্রায় নজিরবিহীন।

    ৪. শেষ পয়েন্ট হিসেবে বললেও, এটিই সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বের বাকি দেশগুলো, যেখানে লকডাউন নিয়ে ভাবনাচিন্তা হয়েছে - প্রায় প্রত্যেক ক্ষেত্রে সাথেসাথেই ঘোষিত হয়েছে লকডাউনের সময় কাজ হারানো মানুষগুলোর জন্যে বিকল্প বন্দোবস্ত - আর্থিক সহায়তা, খাবার, ভাতা ইত্যাদি। এদেশে এই কাজ আরো জরুরী, কেননা দেশের নাগরিকদের অধিকাংশই কাজ করেন অসংগঠিত ক্ষেত্রে - এবং কাজে না যেতে পারলে, তাঁদের আয়ও নেই। এই রাজ্যে, রাজ্য সরকার এধরণের কিছু ভাবনার কথা বললেও, দেশব্যাপী লকডাউনের ঘোষণার সাথে সাথে কেন্দ্রীয় স্তরেও এবিষয়ে কিছু ভাবনার উল্লেখ ছিল জরুরী - দুর্ভাগ্যজনক, তেমন কিছুই জানা গেল না। এই বন্দোবস্ত ছাড়া দীর্ঘ লকডাউন লাগু করার অর্থ - বিপুল সংখ্যার মানুষকে নিশ্চিত অনাহারের দিকে ঠেলে দেওয়া - এদেশে করোনা মহামারীর আকার নিলে কজন মারা যেতে পারেন, তার পূর্বাভাস দিতে না পারলেও, উপযুক্ত ব্যবস্থা ছাড়া গরীব মানুষের উপর দীর্ঘমেয়াদী লকডাউন নামিয়ে আনলে অনাহারে মৃত্যুর সংখ্যাটা তার চেয়ে কম কিছু দাঁড়াবে না। এবং, দ্বিতীয়ত, দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া অনাহারক্লিষ্ট মানুষ যে-করেই-হোক কিছু উপার্জনের আশায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়লে লকডাউনের উদ্দেশ্য ব্যর্থ হওয়া নিশ্চিত।

    আবারও বলি, লকডাউন নিজে নিজেই কোনো সমাধান নয়। লকডাউন অসুখ সারায়ও না, অসুখের বিরুদ্ধে সমষ্টিগত প্রতিরোধের ক্ষমতাও তৈরী করে দেয় না। বাকি সব ব্যবস্থাগুলোর সহযোগী হিসেবে ব্যবহার করা গেলে লকডাউন, অবশ্যই, খুব কার্যকরী ব্যবস্থা - কার্যকরী মহামারীর ভয়াবহতা ঠেকানোর ক্ষেত্রে, কার্যকরী একজন মানুষ থেকে অন্যজনের শরীরে সংক্রমণ ঠেকিয়ে রাখতে, কার্যকরী অসুস্থ মানুষের সংখ্যা কমিয়ে রাখতে, যাতে আমাদের পরিকাঠামো দিয়ে সেই সীমিতসংখ্যক মানুষের সুচিকিৎসার বন্দোবস্ত করা যেতে পারে - কার্যকরী, আরো প্রস্তুত হওয়ার জন্যে সময় কিনতে। কিন্তু, মনে রাখুন, এগুলো সবই হতে পারে - যদি লকডাউনের সাথে সাথে বাকি ব্যবস্থাগুলোও নেওয়া হয়, তবেই।

    লকডাউনের বিপদগুলোও কিন্তু মনে রাখুন। ফাঁকফোকড় রয়ে গেলে, বা কোনো না কোনো কারণে লকডাউন ভেঙে পড়লে আচমকা মহামারী ভয়ঙ্কর আকার নিতে পারে - একদিকে প্যানিকগ্রস্ত মানুষ আর অন্যদিকে মহামারী-অনাহার-দারিদ্র‍্য, দুইয়ে মিলে আইনশৃঙখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া সম্ভাবনাও প্রচুর।

    লকডাউন কার্যকরী অস্ত্র - বর্তমান অতিমারীর ক্ষেত্রে পরীক্ষিত অস্ত্রও বটে - কিন্তু, উপযুক্ত প্রয়োগপদ্ধতি ছাড়া এই অস্ত্র ভালোর চেয়ে খারাপ হয়ে দাঁড়ানোর সম্ভাবনাটিও মাথায় রাখুন।

    মুশকিল এই, গত কয়েকদিন ধরে শুধুই লকডাউন আর লকডাউনের মেয়াদ নিয়েই ঘোষণা শুনে চলেছি - আনুষঙ্গিক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপগুলোর কথা কিছুই কানে এলো না।

    নাকি, গুরুত্বপূর্ণ কথাগুলো আমিই শুনতে পাই নি?? একটু জানাবেন, প্লীজ??

  • বিভাগ : বুলবুলভাজা | ২৫ মার্চ ২০২০ | ৪৮৪৯ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • π | 162.158.22.225 | ২৫ মার্চ ২০২০ ১৪:৫৭91747
  • কেউ জানলে একটু এখানে জানাতে থাকুন!
  • Shibshankar Upadhayay | 162.158.23.4 | ২৫ মার্চ ২০২০ ১৬:০৪91750
  • Apnar kachei sunlam r keo to boolche na evabe,jene ektu sachetan holam।
  • Rajkumar RAychaudhuri | 172.69.135.219 | ২৫ মার্চ ২০২০ ১৬:৩৬91751
  • ওয়শিন্টন ডিসির সেণ্টর ফোর ডিসিস, ডাইনমিক্স, ইকোনোমিক্স ও পোলিসি অধিকোর্র্তআ রামনারয়ন লক্মীনারায়নের মতে সোবর জন্য আণ্টিবোডি টেস্ট দ্র্কার। এটা প্রাথমিক ভাবে বুঝতে সাহায্য করবে কে অক্রান্ত, কে নয়
  • π | 162.158.166.148 | ২৫ মার্চ ২০২০ ২১:১৩91754
  • এখানেও থাক।
    In a fresh order, MHA included the following in essential category - ATM management, cash management, pay and accounts staff of commercial establishments, veterinary hospitals and research labs, movement of LPG, manufacturing units of packaging material for food and medicines.
  • Raju | 172.69.55.57 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৪:৩১91758
  • ২ নম্বর প্যারাগ্রাফ মানলে তো কাগজ দেখাতে হবে । কিন্তু আমরাই তো বলেছি কাগজ আমরা দেখাবো না । স্ববিরোধ হয়ে যাবে না ?
  • Raju | 141.101.77.223 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৫:১০91759
  • লোকডাউন চলাকালীন যারা ভাইরাস এফেক্টেড তারা নিজের পরিবার ছাড়া আর কারো সংস্পর্শে আসবে কি? যদি না আসে তাহলে সেই কয়টি পরিবার কে আলাদা করা কি খুব কঠিন কাজ? ভাইরাস এর যা গতি প্রকৃতি তাতে প্রথম ৭ দিন এর উপস্থিতি শরীরে পর্যবেক্ষিত হয় না । ৭ দিন পর থেকে আসল লড়াই শুরু হবে। অর্থাৎ লোকডাউন মাধ্যমে এই ৭ দিনে আক্রান্ত নিজের পরিবারের বাইরে কাউকে ভাইরাস সংক্রামিত করছে না । অবশ্যই যদি সকলে লোকডাউন এ থাকেন তবেই সেটা সম্ভব।
  • Raju | 141.101.105.175 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৫:১৮91760
  • কর্মসূত্রে জার্মানি র বার্লিন এ থাকি। লক ডাউন হয়েছে এখানে গত মঙ্গোল বার থেকে । কোনো প্যাকেজ ঘোষণা হয়েছে বলে শুনিনি এখনো। ফেইসবুক এর Freelancer দের গ্রুপ এ বাড়ি ভাড়া যাতে না দিতে হয় তার জন্য সরকার কিছু করছে কিনা সকলে জানতে চাইছে । এখনো মুকুব এর কোনো ঘোষণা নেই। না কেউ খাবার পৌঁছে দিচ্ছে না এখনো আমাদের বাড়িতে। বাকিদের কথা জানি না।
  • Raju | 172.69.55.15 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৫:২৭91761
  • চীনের দেয়া ডাটা কতটা বিশ্বাসযোগ্য ? শুরুতে যেটা বাদুড় না সাপ থেকে ছড়ালো, মানুষ থেকে মানুষে ছড়ানোর যেটা সম্ভব ছিল না সেটা আজ,,,,,,,
  • π | 162.158.22.33 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৮:৫৭91766
  • এটা এখানেও থাক।
    "Professor Cristani directs the Molecular Medicine Department in Padua. His team carried out 3300 coronavirus swabs on the entire population of one of the initial 11 lockdown towns in northern Italy, Vo Euganeo, the only one in the Veneto region.

    "No one else decided to test every single member of the lockdown community. The results immediately showed that 3 percent of all those tested were positive. “We did not realize at the time this was a huge number but we immediately were able to see that the majority of those who were positive did not have any symptoms”, said Cristani.

    "The population was tested again after the two-week lockdown and “the lesson we learned is that isolating all positive cases, whether they were sick or not, we were able to reduce transmission by 90 percent and we found that all those who were still positive were all without symptoms”.

    "Professor Cristani is adamant that widespread testing must take place in the geographical and social surroundings of where positive cases are detected."

    http://www.rfi.fr/en/europe/20200316-the-hard-lessons-of-italy-s-devastating-coronavirus-outbreak
  • π | 162.158.22.33 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৮:৫৭91767
  • এটা এখানেও থাক।
    "Professor Cristani directs the Molecular Medicine Department in Padua. His team carried out 3300 coronavirus swabs on the entire population of one of the initial 11 lockdown towns in northern Italy, Vo Euganeo, the only one in the Veneto region.

    "No one else decided to test every single member of the lockdown community. The results immediately showed that 3 percent of all those tested were positive. “We did not realize at the time this was a huge number but we immediately were able to see that the majority of those who were positive did not have any symptoms”, said Cristani.

    "The population was tested again after the two-week lockdown and “the lesson we learned is that isolating all positive cases, whether they were sick or not, we were able to reduce transmission by 90 percent and we found that all those who were still positive were all without symptoms”.

    "Professor Cristani is adamant that widespread testing must take place in the geographical and social surroundings of where positive cases are detected."

    http://www.rfi.fr/en/europe/20200316-the-hard-lessons-of-italy-s-devastating-coronavirus-outbreak
  • π | 162.158.22.249 | ২৬ মার্চ ২০২০ ০৯:৩৭91768
  • বিষাণদার লেখার লাইনেই। এই কথাগুলো খুব যথাযথ মনে হয়েছে। এই ভদ্রলোক সবসময়ই বেশ ঠিকঠাক বলেন। সেই মুজফফরনগরের লিচু মৃত্যু নিয়েও দেখেছিলাম।

    এটা বোঝার জন্যই আমরা app বানিয়েছিলাম, কিন্তু সে কি আর লঞ্চ করতে দেওয়া হবে!!
    Doesn’t the lockdown assume that the health system is geared up to do exactly this — pick up as many infected persons as possible from their homes and isolate them?

    John: Yes, I do hope so, but has the public been adequately informed? Do all people in every location know exactly what to do if they develop the tell-tale symptoms of cough, fever and difficulty in breathing? Do they know whom to call? It is not easy to reach the helpline number, which is constantly busy. Are all our district administrators and medical officers across the country ready and on the lookout for infections? Are labs ready to test collected samples?

    The success of the lockdown will depend on how effectively and quickly the health system detects and isolates in hospitals all infected people.

    https://m.telegraphindia.com/india/troubling-questions-about-coronavirus-lockdown/cid/1759250
  • সৈকত | 188.114.111.218 | ২৬ মার্চ ২০২০ ১১:১৫91771
  • লকডাউন চলছে।অথচ যেদেশে ৮০% মানুষ দরি, অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করে,তাদের খাদ্য,আর্থিক প্যাকেজ ও চিকিৎসার নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করে কিছুতেই সাফল্যআসবে না।রোগেরবিরুদ্ধে লড়তে দরকার প্রতিরোধ ক্ষমতা।লোক যদি নাখেতে পেয়ে অপুষ্টিতে ভোগে তবে কি তারা প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে পারবে? প্রশ্নটা জরুরি।এটা বার বার ওঠা দরকার।
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত