• মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Tim | 140.126.225.237 (*) | ১৯ অক্টোবর ২০১৫ ০২:৪৩70199
  • পুজোর কলকাতা আমি দেখিনি অনেকদিন, তবে এমনি সময়ই যা ভিড় আর শব্দ থাকে, যারা ওখানেই থাকে তাদের আলাদা করে কত অসুবিধে হয় কেজানে। তবে বাড়ির পাশেই পুজো বা লাউড স্পীকার হলে অন্য কথা।
    তবে আবারো, পুজোর কলকাতা কত হিংস্র বা বীভৎস হয়েছে আমি জানিনা। আমার শেষ পুজো দেখা ২০০৪ সালে। হয়ত আন্ডারএস্টিমেট করেছি।
  • Sumeru Mukhopadhyay | 55.123.15.25 (*) | ১৯ অক্টোবর ২০১৫ ০৪:৪৮70196
  • পালিয়ে যাবে কতদূর। তাই ভাবি আজকাল। আরেক পালানো পল্লীতে জমে উঠেছে, বাজি রোশনাই, মশগুল। ম্যারাপ, খিচুড়ি, পিএনপিসি। সবাই বৃদ্ধ হচ্ছে, সেসব প্রান্তেও মোহ ছড়াচ্ছে বলিরেখার আলপনা, পুড়ছে দীর্ঘশ্বাসের রংমশাল।
  • san | 113.245.15.156 (*) | ১৯ অক্টোবর ২০১৫ ০৯:৪৭70197
  • পুজোয় কোলকাতায় না থাকতে চাওয়া উন্নাসিকতা ক্যানো ? আদিখ্যেতাই বা ক্যানো ? ঐ হিংস্র ভীড় আর শব্দে মানুষের কষ্ট/অসুবিধে তো হতেই পারে।
  • san | 113.245.15.156 (*) | ১৯ অক্টোবর ২০১৫ ০৯:৫১70198
  • ভিড়ে , সরি
  • kk | 218.54.80.154 (*) | ২০ অক্টোবর ২০১৫ ০৩:৩৮70201
  • টীমের লেখার হাত বড় সুন্দর। কিন্তু পড়ে মনখারাপ বেড়ে গেলো।
  • pi | 192.66.122.150 (*) | ২০ অক্টোবর ২০১৫ ০৩:৪৯70200
  • 'সব দেশের মানুষই সম্ভবত নিজের সংস্কৃতির এক একটা টুকরো বহন করে আনেন। সেসব বনসাই করে প্রবাসে যথাসাধ্য রাখা যায়। কিন্তু তা কখনই মূলের কাছাকাছি তো যায়ই না, বরং বেঢপ কৃত্রিম এক আকার নিয়ে ভেংচি কাটতে থাকে। তাই অনেকদিন হলো, প্রবাসে পুজো এলে আমারও পালানোর দিন আসে।'

    ভীষণরকম ক।
    বিদেশে প্রথম পুজোটা কাটানোর পরেই ঠিক করেছিলাম এখান থেকে পালাতেই হবে ঃ)
  • Ekak | 83.225.150.191 (*) | ২০ অক্টোবর ২০১৫ ০৩:৫৩70202
  • হমম
  • Titir | 138.210.206.145 (*) | ২১ অক্টোবর ২০১৫ ০১:৩০70204
  • বড় ভালো লেখা, কিন্তু মন খারাপ করা।

    নিজের কথা বলি,
    কুড়ি বছর কেটে গেল প্রবাসে। দেশের সংস্কৃতির টুকরোটুকু মনের মধ্যে লালন পালন করতে করতে তৈরী করে নিলাম নিজের বাঁচার জগৎ। নিজের ভালোলাগার ঘেরাটোপ। সেই বনসাই বেঢপ হয়ে কখনো ভেংচি কাটেনি। অন্তত আমার কাছে। অন্যদের কাছেও যাতে বিভীষিকা বা আড়ম্বর মনে না হয় সেই চেষ্টাই করি। ছোট্ট প্রচেষ্টা। সাফল্য, অসাফল্য দুই আছে।
  • SS | 160.148.14.8 (*) | ২১ অক্টোবর ২০১৫ ০৪:০৪70205
  • ভাল লাগল লেখাটা। কিছু ব্যাপারে একমত, কিছু ব্যাপারে নয়। যেমন দেশের পুজো এখন আর মিস করি না। প্রথম বিদেশে আসার পর প্রবাসের পুজোতেও খুব এনজয় করেছি, এমনকি সক্রিয় অংশগ্রহণ পর্যন্ত করেছি। তবে এখন যেমন পরপর দু বছর পুজোতে যাওয়া হয়নি, দেশে পুজো কেমন হচ্ছে তার খবরও জানিনা। কিন্তু তাতে সেরমকম কিছু মিস করছি বলে মনে হচ্ছে না। ইন ফ্যক্ট, পরের জেনারেশনের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে এখানকার শিকড়টা আরো গভীর ভাবে চারিয়ে যাচ্ছে। দেশে গিয়ে এখন সময়বিশেষে নিজেকে ফিশ আউট অফ ওয়াটার মনে হয়। শুধু চেনা মুখের সংখ্যা আস্তে আস্তে কমে যাওয়াটা মেনে নিতে খারাপ লাগে, তবে শিকড় আরো একটু আলগা হয়।
    অক্টোবর মানে এখন ফার্মে গিয়ে পাম্পকিন তুলে আনা, জ্যাক-ও-ল্যান্টার্ণ বানানো। কদিন আগে বাচ্চাদের স্কুল বাস স্টপে দাঁড়িয়ে সবার ট্রিক অর ট্রিটের প্ল্যান শুনছিলাম। কোন বাড়িতে স্নিকারস ক্যান্ডি বার দেয় আর কোথায় জলি র‌্যাঞ্চার্স, কোথায় আগে যেতে হবে এইসব। শুনে আমাদের ছোটোবেলার বিজয়ার আলোচনা মনে পড়ে গেল, কোন বাড়িতে নাড়ুটা বড় হয় আর কোথায় কুচো নিমকি পাওয়া যাবে ইত্যাদি। তাই মনে হয়, সবই আছে, অন্যভাবে।
  • Bratin | 11.39.39.200 (*) | ২১ অক্টোবর ২০১৫ ০৪:৪৭70203
  • আমি এখানের মতের সাথে একটু আলাদা বক্তব্য পেশ করছি। আমি পুজোর কটা দিন খুব উপভোগ করি। পারতপক্ষে পুজোর সময় বেড়তে যাবার প্ল্যান করি না। ভিড়ের মধ্যে লাইন দিয়ে ঠাকুর দেখা, আলোক সজ্জা, হঠাৎ ভেসে আসা বহু পুরোনো কোন গান আমার মন ছুঁয়ে যায়। রাত দেড় টার সময় গরম চায়ে চুমুক বা ভোর চার টার ফুচকা তো বাড়তি আকর্ষন।
  • rabaahuta | 215.174.22.27 (*) | ২১ অক্টোবর ২০১৫ ০৬:২৮70206
  • কিছু তো বলার নেই, শেষ প্যারাগ্রাফটা বারবার পড়লাম।
  • ranjan roy | 132.180.38.215 (*) | ২১ অক্টোবর ২০১৫ ০৬:৩৪70207
  • আমার হাল রোবুর মত। খুব ভালো লেখা। তিমি এত কম লেখো কেন?
    তোমার লেখা পড়ছি আর কানে লাগিয়ে শুনছি বেগম আখতার-অ্যায় মুহব্বত! তেরে অঞ্জাম পে রোনা আয়া।
    কোথায় লেখা ও গান মিলে মিশে যাচ্ছে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। সুচিন্তিত মতামত দিন