• হরিদাস পাল  ব্লগ

    Share
  • তোষণ

    Zarifah Zahan লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ০২ এপ্রিল ২০১৯ | ১৪৫ বার পঠিত | জমিয়ে রাখুন পুনঃসম্প্রচার
  • 'মুসলিম তোষণ' তেমন কিছু জটিল ব্যাপার নয়। সারাবছর 'এ তারে ত্যালাইছে আর ও তার ভাগের মাখন ঝেঁপেছে' বলে ফুটেজ খাওয়ার আগে বেমক্কা কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি হলে 'ওজু ও হাতে'র আঙুল থেকে যে ক'ফোঁটা পানি ভোটের গামলায় পড়ে, তাহারে সজোরে লাথানোর ধক রাখে একমাত্র ভক্তদল। এনারা যতই হুপহাপ শব্দে হাততালি থুড়ি বগল বাজান না কেন, দেশে থেকেই দেশের লোককে চাবকে-ভয় দেখিয়ে-মুখে ঠুঁসো গুঁজিয়ে মাতারানীর শিং নাচিয়ে উদুম মারার পর দেশভক্তি শেখাতে আসতে খুলির ভেতর কিলোখানেক গোবরের সাথে কয়েক ছটাক গোমূত্রের সাথে মাস্তানির জম্পেশ কম্বি লাগে, তা সে এই প্রজাতিরই পা চাটা নেতাগণ যতই পয়সা ওয়ালা 'ইয়া হাবিবিদের' সাথে বুকে বুক-হাতে হাত ঠেকিয়ে বিকাশের দন্তনিকাশ করে মওকা পার চৌকার নামে ধোঁকা দিয়ে দিকনা কেন!

    কাঁহাতক বলুন তো, একই থিমে বছরের পর বছর পুজোর প্যান্ডেল হলে কীকরে ভাল লাগানো যায়! পাড়ার প্যান্ডেল যদিও বা হল সাদামাটা, বড় শহরের তো মান-ইজ্জত বলে কিছু থাকে নাকি! রোজ রোজ, কথা নেই বার্তা নেই, ইমাম আর মৌলভীদের 'মুসলমানের' প্রতিনিধি সাজিয়ে 'জনগনের দরবারে' মাথায় ওড়না-ফেজ জড়ানোও কম হ্যাপার নয়, তাপ্পর বছর পাঁচেক বাদে বাদে ভোটের জিগির উঠলে হয় আরেক জ্বালা; ভক্তদলের না'হয় স্রেফ ধানকাটায় গ্ল্যামার ঢালার এজেন্ডাতেই মিটে যায় কারবার কিন্তু স্রেফ মুখে 'আমরা তোমাদের সাথে আছি, তোমাদেরই লোক' ব্যাপারটা রমজানমার্কেটে খাবি খেলেও খেতে পারে অগত্যা হাল আমলে ইফতারের সাথে উপবাসের নাটক এসেন্সও ঢালতে হয় কয়েক পরত।
    সোজা হিসেব : কাছের মানুষজনকে কথা বলার আগে কী ভাববে, কথা বলার পর কী বলবের ক্যালকুলেশনে জেরবার হতে না হলেও মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক-জয়েন্টের বাজারে কিলবিলিয়ে ফোনের ওপারে পাত পেতে বসা প্রত্যেকে 'নিকট' বা 'পরম' কোন আত্মীয়ই নয়, অতএব ডুমুরের ফুলের সমাচার করতে গিয়ে ছড়াবে সেটাই কহতব্য। এখন আশু খেলার ফোকাস বড়মাঠে হওয়ার চাপে যদি প্র্যাকটিস সেশনকালে রোজ কোন না কোন দর্শক জুটেই যায় তবে খ্যাদানোর চেয়ে ('লোকদেখানো') আতিথেয়তাই শ্রেয়, আর সে সংখ্যা পিলপিল না করুক দেহে-কলেবরে যদি কতক বাড়ে, তাকে খানিক খাতিরযত্ন করতেই হয়, হাজার হোক 'মাঠ ভরানো ইজ এইম' অ্যান্ড দিনের শেষে 'নম্বর ম্যাটার্স'। হতেই পারে, এসবের চক্করে বছরের পর বছর সেসব আগত লোকদের ঠিকানা-কুষ্ঠি ছাড়ান দিন নামও জানা হয়নি তাই এটাও হতেই পারে কোন 'আরবি নামধারী' মাস্তানের পা বেমক্কা বেচালে পড়েছে শুনলে আপনি, কোথাকার কোন পাতি আমজনতা স্রেফ গালাগালি খেয়ে গেলেন 'সারা বছর 'আপনাদের' প্রোটেকশন দেবার পর এই তার প্রতিদান' বাণীতে...আহা রে মোল্লার দৌড় মসজিদ ছেড়ে খানাকুল অব্দি তো গেছে! কাটার বাচ্চাদের পাঁচটা বিয়ে-বিশটা ছেলেপুলে, ওরা আবার মানুষ কবে হল যে এত আদিখ্যেতা! সত্যিই তো, পিছিয়ে পড়া একটা শ্রেণী, আঁচড়ে কামড়ে পাহাড়ে ওঠার শখ হয়েছে বললেই শুনতে হবে এ কেমন মাথার দিব্যি! হাত বাড়ানোর চেয়ে এই বরং সহজ-পাহাড়ের ওপর থেকে চেঁচান- আপনি আছেন, এক্কেরে টঙে বসে কুলকুচি করছেন, মাঝেমধ্যে উঁকি-ঝুঁকি মেরে পরখ করে নিলেন নিচের লোক আছে না গেছে। আর জানেনই তো, মিনিমাম প্রেস্টিজ রক্ষা না করতে পারবে যে তাকে কি আর সব মোচ্ছব-পার্টিতে ডাকা যায় তাহলে বাকিদের সামনে নিজের ইজ্জতেরও ফালুদা হয় বৈকি অতএব একটাই মোক্ষ: 'লাই দেওয়া যাবে না', ওই ইউজ এন্ড থ্রো পলিসি আর পালের গোদা টু পালের পোকা বেশিরভাগই যখন ক্যালানে তাইলে তো এসপার-ওসপার এখানেই থোবড়া কেটে থ, একখান খুড়োর কলের মতন হুজ্জুৎ ঝুলিয়ে রাখ, ইহাদের জিভ বার হবেই। এরপরও যদি 'তোষণ' এর আগাপাঁশতলা চক্কর না গিলতে পারো তবে বানোরসেনাদলের দ্বিতীয় প্রহরীকে তলব করা যাক। তিনি বিশুদ্ধ 'রাষ্ট্রীয়' ভাষায় বুঝিয়ে দেবেন কীভাবে 'উর্দু আগ্রাসনে' লোকালয় বিপন্ন। এরপর রে রে করে বড় মাঠ থেকে ভাড়া করা লোক সিট ছেড়ে ক্যালাক্যালি নিবেদিত প্রাণ লাফ দিলে তখন আর পাহাড়ের নিচে না ওপরে যাবে 'মাথায় চড়া পাব্লিক'রা তাতে কার কী! ওদের থোড়াই পুঁজি সরঞ্জামের...তার চেয়ে বরং চলুন আমরা খেলা দেখি, ফুট কাটি, মাঝেমধ্যে নিজের ফ্রাস্ট্রেশন-গতজন্মের বিদ্বেষ-পরজন্মের হিংসা খানিক উগড়াই কিংবা পছন্দ হলে হাততালিও দিতে পারি..শুধু এসব চর্বিতেচর্বণে মগজে হাওয়া খেলবার রাস্তা আটকাবেন না, আমে দুধে থুড়ি বড় মাঠ ছোট মাঠে মিশে আঁটি গড়াগড়ি খেলে খামোখা ফাঁকা মাঠে প্রশ্ন বড্ড একা ঘোরাঘুরি করে : তোষণ তোষণ তোমার মন নাই, কোন মান?
  • বিভাগ : ব্লগ | ০২ এপ্রিল ২০১৯ | ১৪৫ বার পঠিত | | জমিয়ে রাখুন পুনঃসম্প্রচার
    Share
আরও পড়ুন
ফড়িং - Zarifah Zahan
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • b | 4512.139.6790012.6 (*) | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ ০১:৩৫47962
  • একটু সিম্পল সেন্টেন্সে লিখলে ভালো হত।
  • | 453412.159.896712.72 (*) | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৪৮47960
  • কি আর বলি রে বোন! :-(
  • S | 458912.167.34.76 (*) | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ ১০:০৫47961
  • জনগণও তো তেমন। সেদিন দেখি একজন লিখেছে সে নাকি সেকুলার শব্দটিকেই ঘৃণা করে। কোত্থেকে কুশিক্ষে পাছে কেজানে।
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত