• হরিদাস পাল  ব্লগ

  • এগারোই সেপ্টেম্বরের কুড়ি বছর -- ব্যক্তিগত অনুভূতির কথা

    Partha Banerjee লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৫০ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • এগারোই সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসী আক্রমণ নিয়ে অনেক লিখেছি। আবার সন্ত্রাসী আক্রমণের পরেই সারা পৃথিবীর আবেদন ও প্রতিরোধকে অগ্রাহ্য করে আফগানিস্তান ও সেদেশের সাধারণ মানুষের ওপর নির্বিচার, বর্বর বোমাবর্ষণ নিয়েও লিখেছি। ইরাকের ওপর মিথ্যা সংবাদের ওপর ভিত্তি করে সাজানো যুদ্ধ নিয়ে লিখেছি। আর সন্ত্রাসী আক্রমণের পরে গরিব ইমিগ্রেন্টদের ওপর নেমে আসা রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস নিয়েও অনেক লিখেছি। ভবিষ্যতেও লিখতেই হবে আরো অনেক।

    কারণ, এই একটা ঘটনা আমাদের জীবনে দেখে সারা পৃথিবীকে এবং আমাদের দেশকে চিরকালের মতো বদলে দিয়েছে। শান্তির কোনোরকম সম্ভাবনা সন্ত্রাসীরা এবং আমেরিকা-ব্রিটেন চিরকালের মতো বদলে দিয়েছে।

    আমেরিকাকে গত ছত্রিশ বছর ধরে দেখলাম খুব কাছ থেকে। রাস্তায় নেমে রাজনীতি করলাম। হাজার মানুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে আলাপ পরিচয় হলো। বন্ধুত্ব হলো। সে গল্পও লিখতেই হবে। এতগুলো বছর ধরে নিজের ফেলে আসা দেশটাকে যেমন চিনেছি এক হাতের তালুর মত, তেমনি এই মার্কিন মুলুকটাকেও চিনেছি অন্য হাতটার মত। সুতরাং, আমেরিকা সম্পর্কে যদি কেউ ভুলভাল বকে, বিরক্ত না হয়ে পারি না। আজকাল একটা ফ্যাশন হয়েছে, দুদিন এদেশে থেকেই বিরাট বিশেষজ্ঞের মত আমেরিকার ওপর জ্ঞানগর্ভ প্রবন্ধ ফেঁদে বসার।

    আমি আমেরিকাকে খুব কাছ থেকে দেখেছি। এদেশের সাধারণ মানুষের সঙ্গে রাস্তায় নেমে মিশেছি। এদেশের জাতিবৈষম্য, বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছি আমরা নিজেরাই মাঝে মাঝে। এগারোই সেপ্টেম্বর যখন টুইন টাওয়ার ধ্বংস হয়ে গেল, তার বিষাক্ত আগুন আর ধোঁয়ার মধ্যে আমাদের হাইস্কুলে পড়া মেয়েকে হারিয়ে ফেলেছি। আবার খুঁজে বের করেছি। তারপর যখন শুরু হলো গরিব ইমিগ্র্যান্ট মুসলমান আর শিখদের ওপর নির্যাতন, তখন তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়াবার চেষ্টা করেছি। যুদ্ধবিরোধী আমেরিকান বন্ধু ও বান্ধবীদের সঙ্গে ফেব্রুয়ারী মাসের ভয়ংকর শীতে আর বরফে নিউ ইয়র্ক শহরে মিছিলে সামিল হয়েছি। কৃষ্ণবর্ণের মানুষদের ওপর পুলিশী বর্বরতার বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ হয়ে লড়াই করেছি। সে সব খবর পৌছে দিয়েছি বিভিন্ন লেখালেখি, বক্তৃতার মাধ্যমে আমাদের দেশের মানুষদের কাছে।



    গত চোদ্দটি শিক্ষাবর্ষ ধরে আমি আমেরিকায় একটি বৃহত্তম শ্রমিক ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত তাদের শিক্ষক হিসেবে। আমি পড়াই রাজনীতি। আমি পড়াই অর্থনীতি। আমি পড়াই সংবাদমাধ্যম। আমি তাদের শেখাই কী করে ক্রিটিকাল থিংকিং বা বিশ্লেষণমূলক চিন্তাভাবনা করতে হয়।

    রাস্তায় নেমে আন্দোলন করা থেকে শুরু করে ক্লাসরুমের মধ্যে তাত্ত্বিক আলোচনা -- সব কিছুই এই তিন দশকের আমেরিকা প্রবাসে আমার অভিজ্ঞতার ঝুলিকে সমৃদ্ধ করেছে।

    আমেরিকা সম্পর্কে আমাদের দেশের অনেকের ধারণা খুব অদ্ভুত। একদল মনে করেন, এদেশটা শয়তানের দেশ। তাঁদের চোখে আমেরিকার সবকিছুই "ইভিল"। তাঁদের ধারণা, এদেশে না আছে কোনো নৈতিক শাসন, না আছে সন্তানদের প্রতি বাবা মায়ের স্নেহ মমতা, আর তার ফলে এদেশটা হাজার পঙ্কিলতায় আকন্ঠ মজ্জিত। এঁদের কাছে আমেরিকা মানেই বিলাস ব্যসন, মদ্যপান ও ড্রাগ আসক্তি, মাত্রাছাড়া সেক্স, আর ঘরে ঘরে "ঈশ্বরবিরোধী" কাজকর্ম। বামপন্থী আর দক্ষিণপন্থীদের মধ্যেই এই সব ধ্যানধারণা খুব বেশি। আমার আরএসএস-বিজেপি পিতৃদেব, আর কমিউনিস্ট শ্বশুরমহাশয় -- এঁদের মধ্যেও এক সময়ে আমি এই সব কথাবার্তা শুনেছি। আজকের দিনেও বহু বাম ও দক্ষিণমুখী মানুষের কাছে এসব ধারণা প্রায় একই রকম থেকে গেছে।

    আর একদিকে রয়েছেন তাঁরা, যাঁদের কাছে আমেরিকা এক স্বর্গরাজ্য। এখানে নাকি দারিদ্র্য নেই, অভাব নেই, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা সংকট নেই। এখানে নাকি, বুদ্ধদেব বসুর ভাষায়, "আকাশটা কী ব্লু, আর বাতাসটা কী সুইট"। এখানে নাকি লোকেদের আট ঘন্টার মধ্যে শুধু তিন কি চার ঘন্টা কাজ করলেই চলে। এখানে নাকি প্রত্যেকের বাড়ির পিছন দিকে একটা করে ডলারের গাছ বসানো আছে, নাড়া দিলেই আম জাম পেয়ারা লিচুর মত ডলার ঝরে ঝরে পড়ে।

    এঁদের বোধ হয় বাম বা দক্ষিণ কিছুই বলা যায়না। এঁরা বোধহয় মধ্যপন্থী, এবং রাজনীতিবিমুখ। এঁরা যখন যে দল ক্ষমতায় বসে, তাদেরই ছাপ দিয়ে আসেন। বা, ভোট জিনিসটাকেই সম্পূর্ণ বর্জন করেন। এঁরা বোধহয় ওসব গণতান্ত্রিক ব্যাপারস্যাপারকে "বিলো ডিগনিটি" মনে করেন।
  • বিভাগ : ব্লগ | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৫০ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • অনিন্দিতা | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২১:২৭498172
  • অর্থনীতি রাজনীতি এবং মিডিয়া সবকিছু পড়ান! কত্তো কত্তো কর্ম করেছেন ! 
    ৯/১১ সম্পর্কে ব্যক্তিগত অনুভূতিটা তো বোঝা গেলো না। 
    আমেরিকা প্রেমী আর বিদ্বেষী সম্পর্কে , ডান  বাম  পন্থা সম্পর্কে কয়েকটি অতি পুরাতন বাক্য অবশ্য পাওয়া গেলো। 
  • Partha Banerjee | 38.108.247.6 | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০০:৩৫498175
  • অনিন্দিতা আপনাকে বোঝাতে না পারার জন্যে আন্তরিক দুঃখিত। ভালো থাকুন। 
     
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খেলতে খেলতে প্রতিক্রিয়া দিন