• বুলবুলভাজা  ধারাবাহিক  বিবিধ  শনিবারবেলা

  • ইহুদি রসিকতা ৩ : ঘটক ও যৌতুক

    হীরেন সিংহরায়
    ধারাবাহিক | বিবিধ | ০৭ মে ২০২১ | ১৫৬৮ বার পঠিত | রেটিং ৫ (৫ জন)
  • ঘটক এবং যৌতুক


    দুই পরিবারের মধ্যে পরিচয়, আলাপ আলোচনা হবে, লাখ কথা হবে তবেই না সেই পরিবারের কর্তা/কর্ত্রীরা মিলে বিয়েটা স্থির করবেন? এই রকমটা তো চলে এসেছে ইতিহাসে, তা সে হাওড়ায় হোক আর হাইফায় হোক! কর্তা ব্যক্তি ও গিন্নিদের মধ্যে যখন জোরদার কথা বার্তা চলছে তখন মঞ্চে প্রবেশ করবেন ইহুদি রাবি বা রেবে (আমি অ্যাংলো - আমেরিকান র‍্যাবাই শব্দটি ব্যবহারের বিপক্ষে) যেমন আমাদের এককালের কুলপুরোহিত বা পণ্ডিত। রাবির ভূমিকা বহুবিধ। তিনি সিনাগগে প্রার্থনা পরিচালনা করেন, সকলের সুখে দুঃখে পাশে থাকেন, ধর্ম বিষয়ে আলোচনা করেন, সুপরামর্শ দিয়ে মানুষকে সৎপথে চালিত করেন। বিয়ের ব্যাপারে দুই পরিবার তাঁর সঙ্গে বিচার বিবেচনা করবেন। রাবি সযত্নে দুই পরিবারের সামাজিক, আর্থিক অবস্থান নিরীক্ষণ করবেন। এর পরে দেখবেন বিয়ে যেন শাস্ত্র সম্মত হয়, বর কনে সঠিক ভাবে ইহুদি আইন মেনে চলে। তাদের ভাবী পুত্র কন্যা ইহুদি সমাজের যোগ্য সদস্য হতে পারে। এ বিষয়ে রাবি সকলকে সম্যক অবহিত করেন। সিনাই (সাইনিয়াই নয়) পাহাড়ের নিচে পাওয়া প্রস্তর লিপির দশ এবং তালমুদের বাড়তি আদেশগুলি সর্বদা যেন রক্ষিত হয়।

    তার অনেক আগেই কিন্তু ডান দিকের উইং দিয়ে মঞ্চে একজন প্রবেশ করেছেন। তিনি দুই পরিবার, পাত্র পাত্রী এবং রাবির আশে পাশে ঘুরছেন চর্কির মতো। তাঁকে বাদ দিয়ে এই বিবাহ বিচিত্রা একেবারে অর্থ ও বর্ণহীন। তাঁর নাম শদখেন। তাঁকে আমরা বাংলায় ঘটক বলে চিনি।

    হিব্রুতে শিদুখ অর্থে বিবাহ। তা থেকে ইদিশ ভাষায় এসেছে শদখেন শব্দটি।

    ইহুদি মতে ঈশ্বর আদি ঘটক। তিনি স্থির করেন কার সঙ্গে কার বিবাহ হবে (রব নে বানাই জোড়ি স্মরণ করুন)। কিন্তু তিনি তো আর এই দুনিয়ার সব জায়গায় হাজির থেকে এতো মানুষের মধ্যে যোগাযোগ করাতে পারেন না। তাঁর আরও হাজারটা কাজ আছে। অতএব মর্ত্যভূমিতে এই মহান ব্রতটি সম্পন্ন করার ভার নিয়ে যিনি অবতীর্ণ হয়েছেন তিনি হলেন শদখেন, ঘটক।

    হিব্রু বাইবেলের প্রথম পাঁচটি পর্বকে বলে তোরা। তার ব্যাখ্যা আছে তালমুদের তেষট্টিটি গ্রন্থে। ঘটকের দায়িত্ব, দক্ষিণা কত হওয়া উচিত সেটিও তালমুদে নির্দেশিত আছে।

    ঘটকের গতিবিধি সর্বত্র। সিনাগগ থেকে বিয়েবাড়ি, সেখান থেকে হাসপাতাল, উপনয়ন (বার/বাট মিতজভা), কবর ভূমি। যেখানেই ইহুদিরা কোন কারণে একত্র হন বা হতে পারেন সেখানেই শদখেন ঘোরাঘুরি করেন। শ্যেন দৃষ্টিতে লক্ষ করেন কার ছেলে কত বড়ো হয়েছে, কী কাজ করছে, কেমন মাইনে পায়, কোন মেয়ে গুণবতী হয়ে মায়ের সঙ্গে শনিবারে সিনাগগে আসে, রাস্তায় আজে বাজে ছেলেদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি করে না। তারপর বিবাহযোগ্যা কন্যা এবং উপযুক্ত পাত্রের বাড়িতে শদখেনের নিত্য আনাগোনা শুরু হবে। তাঁরা চান বা না চান, সেই শদখেন দুই পরিবারের মধ্যে সেতু বন্ধনের বাসনায় বদ্ধপরিকর। পাত্রের এলেম ও পাত্রীর গুণ ও ধনের ব্যাখ্যান করেন। ঘটকের আরেক এলেম যৌতুক নির্ধারণ। পাত্রী তার সঙ্গে কী পরিমাণ অর্থ বা সম্পদ আনবে তার প্রস্তাবনা। এই ভাবেই আলোচনা এগোবে, পদে পদে।

    সেই পয়লা দিনের সাক্ষাৎকার থেকে বিয়ের ভুরি ভোজ অবদি ঘটক সর্ব ঘটে কদলী রূপে উপস্থিত। যদিও তালমুদে তাঁর দক্ষিণার বিষয়টি নির্ধারিত হয়েছে বহু বছর আগে, কিন্তু মুদ্রাস্ফীতি, ব্যাংকের সুদের হার, আন্তর্জাতিক মুদ্রা বিনিময়ের দর, বাড়ি ঘরের দাম, যৌতুকের পরিমাণ আর বাজারের হাল হকিকত তো সেই ধর্মগ্রন্থের প্রণেতাদের জানা ছিল না। তাঁরা একটা চাদর গায়ে দিয়ে তাঁবুতে থেকেছেন, ছাগলের দুধ খেয়ে জীবনধারণ করেছেন মরুভূমিতে। অতএব ঘটক বিদায়ের সময়ে নিতান্ত জাগতিক বস্তুগুলি নিয়ে আরেক প্রস্থ বিশদ বোঝাপড়া অবধারিত!

    গত একশ বছরে ঘটকের ভূমিকা প্রায় বিলুপ্ত। এখন অফিসে, কফিখানায়, ফেসবুকে, ইন্টারনেটের ডেটিং সাইটে পাত্র পাত্রী নিজেরাই দেখেশুনে ইহুদি জীবনসাথী নির্বাচন করেন। ঘটকের দিন গিয়াছে। যৌতুক এখন ইতিহাস মাত্র।

    ঘটকের ইতিবৃত্ত থেকে গেছে লোক মুখে! ইহুদি ঘটক হাজির জবাব, রসিক। অসাধারণ তার চাতুর্য!

    তাঁদের কিছু কথা

    হবু শ্বশুর অসম্ভব ধর্মনিষ্ঠ। ইহুদি ধর্মের সব প্রথা নিখুঁত ভাবে মেনে চলেন। ছয় দিনে পৃথিবী সৃষ্টি করার পরে শুক্রবার সন্ধ্যায় ঈশ্বর বিশ্রাম নিয়েছিলেন। তাই শুক্রবার সূর্যাস্ত থেকে শনিবারের সূর্যাস্ত অবদি সাবাথ, বিশ্রামের সময়। ইহুদি ধর্মে সেদিন কোন কাজ করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। গাড়ি চালানো, বিজলি বাতির সুইচ অন করা, চিঠি খোলা এমনকি ঘাসের ওপরে হাঁটাও! লিস্টি অনেক লম্বা।

    হবু শ্বশুর ছেলের ব্যাপারে যা বললেন শুনে তো আমার ভালোই মনে হয়। কিন্তু আমার একটি বিশেষ প্রশ্ন আছে।
    ঘটক ছেলের গুণের কোন শেষ নেই। তবু যদি আপনার মনে যদি কোন সংশয় থাকে, বলুন?
    হবু শ্বশুর দেখুন আমাদের পরিবারে ইহুদি প্রথা খুব নিষ্ঠার সঙ্গে মেনে চলি। আমি চাই বিয়ের পরে আমার মেয়ে যেন তার ব্যত্যয় না করে।
    তাই জানতে চাইছি ছেলেটি সাবাথ মেনে চলে? শনিবারে কোন কাজ করে না তো?
    ঘটক এই কথা? আপনি নিশ্চিন্ত থাকুন। সপ্তাহের অন্য ছ দিনেও ছেলেটি কোন কাজ করে না।

    **********
    ভাবী বর অসম্ভব খাপ্পা হয়ে ঘটককে ধরেছে।

    ভাবী বর আপনি মিথ্যে কথা বলেছেন! বাজে কথা বলে প্রতারণা করেছেন আমাদের।
    ঘটক কোন কথাটা মিথ্যে বলেছি? মেয়ে দেখতে সুন্দর নয়? প্রচুর সম্পত্তির অধিকারী নয়? বুদ্ধিমতী নয়?
    বরসে সব ঠিক। কিন্তু আপনি বলেছিলেন মেয়েটি সম্পন্ন পরিবারের মেয়ে, কিন্তু তার বাবা নেই। এখুনি জানলাম চুরির দায়ে তার বাবা ছ
    বছর জেলে আছে!!
    ঘটক আঃ, সেটাকে কি আপনি বেঁচে থাকা বলেন?

    **********
    ঘটক অনেক খুঁজে এক ধনী ব্যবসায়ীর একমাত্র মেয়ের জন্য সুযোগ্য পাত্র খুঁজে পেয়েছে। মেয়ের মায়ের সঙ্গে বাক্যালাপ-

    ঘটক মিসেস গোল্ডস্টাইন, যা ছেলে ধরেছি, বুঝলেন, বাপের অনেক টাকা, কাকার কোন ছেলে মেয়ে নেই। সে সম্পত্তিও এ ছেলের কপালে নাচছে। তার দাদু আবার স্থানীয় রাবি। কাজেই ধর্ম কর্মের শিক্ষা তার বাল্যকাল থেকেই।

    মিসেস গোল্ডস্টাইন আহা কী ভাগ্য আমার মেয়ের!

    ঘটক তবে কী, আমার সব কথা খুলে বলা উচিত। ছেলে একটু তোতলায়।

    মিসেস গোল্ডস্টাইন সব সময়?

    ঘটক না, না। সব সময় তোতলাবে কেন? যখন কথা বলে, তখন।

    **********

    ঘটক ছেলেকে হবু বউয়ের বাড়িতে নিয়ে গেছে পরিবারের সঙ্গে আলাপ করাতে।

    ঘটক (কানে কানে) দেখেছেন এদের বাড়িতে কত রুপোর সম্ভার আছে? থালা, বাসন প্লেট, সব রুপোর!
    ছেলে (সন্দিগ্ধ) আমাদের দেখানোর জন্যে কোথাও থেকে ধার করে আনেনি তো?
    ঘটক ধার? এদের মত হাঘরে লোককে আবার রুপোর জিনিস কে ধার দেবে? হাতানো মাল। সে ব্যাপারে এরা খুব দড়।

    **********

    অনেক খুঁজে ঘটক এক ছবির মত সুন্দরী মেয়ের সন্ধান দিয়েছে। হবু বর সে মেয়ের সঙ্গে দেখা করার পর ক্ষিপ্ত।

    হবু বর মেয়ের চোখ ট্যারা, নাক বাঁকা। আপনি বললেন ছবির মত সুন্দরী?

    ঘটক আপনি চিত্র রসিক শুনেছি। কী করে জানব আপনি পিকাসোর আঁকা ছবি পছন্দ করেন না?

    **********
    ঘটক একটি অতীব ধনশালী পাত্রীর সন্ধান পেয়েছে। এই বার্তা জানায় সে হবু পাত্রকে

    ঘটক এ মেয়ের ব্যাঙ্কে এক লক্ষ রুবেল আছে নিজের নামে।

    পাত্র একটা ছবি দেখান।

    ঘটক ছবি? কেন? রুবেলের নোট দেখেন নি জীবনে? এখন আপনি এক লাখ রুবেলের ছবি দেখতে চান ?

    **********

    ফ্রাঙ্কফুর্টে বারন রোটশিল্ডের বাড়িতে ঘটক হাজির

    ঘটক হের রোটশিল্ড, আমি আপনার পাঁচ লক্ষ মার্ক বাঁচিয়ে দিতে পারি।

    রোটশিল্ড (অবাক হয়ে ) কী করে ?

    ঘটক আপনি বলেছেন আপনার হবু জামাইকে দশ লক্ষ মার্ক যৌতুক দেবেন। ঠিক তো?

    রোটশিল্ড হ্যাঁ, মনের মতন জামাই পেলে নিশ্চয় দেব।

    ঘটক আমি একটি ভালো ছেলের সম্বন্ধ এনেছি। সে পাঁচ লক্ষ মার্ক যৌতুক পেলে আপনার মেয়েকে বিয়ে করতে রাজি।

    **********

    ঘটক পাত্রীর সন্ধান এনেছে। তার ছবি দেখে যুবক বেঁকে বসেছে। তার মতে মেয়েটি সুন্দরী নয়। যুবকের প্রতি ঘটকের উপদেশ-

    ঘটক বাবা, অতি সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে করো না। সে তোমাকে ছেড়ে চলে যেতে পারে। তোমার মনে খুব দুঃখ হবে। কুৎসিত মেয়েও তোমাকে ছেড়ে চলে যেতে পারে। তাতে তোমার মনে কি বেশি দুঃখ হবে ?

    **********


  • মাঝে সাঝে ঘটক আবার একা আসেন না। সঙ্গে আনেন এক দোসর। তখন চলে দ্বৈত সঙ্গীত। ঘটক যা বলে দোসর তাকে বাড়িয়ে বলেন।

    ঘটক খুবই খ্যাতনামা পরিবারের মেয়ে।
    দোসর একেবারে ক্রেম দে লা ক্রেম !
    ঘটক তার পিতা অসম্ভব ধনী।
    দোসর রোটশিল্ড তাঁর তুলনায় ভিখিরি।
    ঘটক অপরূপ সুন্দরী।
    দোসর রানি শিবাকে হার মানানো
    ঘটক এই একটু সোজা হয়ে হাঁটতে যা অসুবিধে আছে।
    দোসর এক্কেবারে কুঁজো। সেই নোতরদামের ঘণ্টি বাজিয়ের মতন।
    ----------------

    ঘটক মেয়ের গুণ ব্যাখ্যা করার পরে যৌতুকের প্রসঙ্গ তুলেছে

    ঘটক এই মেয়েকে বিয়ে করলে আপনার হবু শ্বশুর ব্যাঙ্কে ষাট হাজার মার্ক জমা করে দেবেন।

    পাত্র মেয়ের ছবি দেখেছি। তার বাবাকে বলুন আমাকে ষাট হাজার মার্ক দিয়ে মেয়েকে ব্যাঙ্কে জমা রাখতে।

    **********

    গোল্ডফেলড তাঁর মেয়েকে নিতান্ত নির্বোধ মনে করেন। ঘটক এসেছে সম্বন্ধ নিয়ে।

    ঘটক আপনার মেয়ের জন্যে একটা দারুণ সম্বন্ধ এনেছি। ছেলেটি ভালো। তার বাবার প্রচুর পয়সা। আপনার মেয়েকে তার পছন্দ।

    গোল্ডফেলড এ বিয়েতে আমার সম্মতি নেই। ছেলেটির বুদ্ধি শুদ্ধি নেই। একটি গাধা।

    ঘটক কী করে বলেন সে কথা? আপনি তার সম্বন্ধে কতটুকু জানেন?

    গোল্ডফেলড বেশি জানার দরকার কী? আমার মেয়েকে আমি ভালো চিনি। তাকে যে পছন্দ করতে পারে তার মাথায় বুদ্ধি বলে কোন পদার্থ নেই।

    **********
    ঘটক এবং পাত্রের প্রশ্নোত্তর

    পাত্র মেয়েটি সুন্দরী?
    ঘটক শুধু সুন্দরী নয়, ধনী!
    পাত্র তা কত যৌতুক দেবে তার বাবা?
    ঘটক মেয়ের যত বয়েস তার প্রত্যেক বছরের জন্যে বাবা একশ রুবেল দেবে।
    পাত্র মেয়ের বয়েস কত?
    ঘটক কুড়ি।
    পাত্র হের কুন, মেয়েটির বয়েস যে বড়ো কম হয়ে গেল।

    -----------------------
    ঘটক ভালো ছেলের সন্ধান নিয়ে গেছে ধনী ব্যবসায়ী হের গ্রুনের কাছে।

    গ্রুন ছেলেটি ভালো বুঝলাম। কিন্তু তাদের অবস্থা তো মোটেই সুবিধের মনে হচ্ছে না। আমার মেয়েকে আমি এমন ছেলের হাতে তুলে দিতে চাই না যার আর্থিক ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত।

    ঘটক আপনার একমাত্র মেয়েকে বিয়ে করলে ছেলেটির ভবিষ্যৎ যে একেবারে নিশ্চিত হয়ে যাবে, হের গ্রুন ! সেটা ভেবে দেখেছেন?

    **********
    ইনটারনেট বা গুগল নেই সে আমলে। কিন্তু অর্থের বিনিময়ে ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের সংস্থা ছিল যেমন ডান অ্যান্ড ব্র্যাডস্ট্রিট ছিল তিরিশ বছর আগে।
    ঘটকের কাছে হবু শ্বশুর কাপলান্সকির বিশাল সম্পত্তি ও প্রতিপত্তির অনেক গপ্প শুনেছে আমশেল।

    আমশেল আপনি মিস্টার কাপলান্সকির ধন সম্পত্তির ব্যাপারে তো এত কথা বললেন। আমি একটি এজেন্সিকে দিয়ে
    খোঁজ খবর করিয়ে জানলাম তিনি এমন কিছু ধনবান নন। তার জন্যে এজেন্সিকে ৩০ রুবেল দিতে হয়েছে।

    ঘটক কী বললেন? তিরিশ রুবেল? অত অল্প পয়সা খরচ করলে তেমনি সস্তার রিপোর্ট পাবেন।

    **********

    ঘটকের কাজ শেষ। ম্যারাপ বাঁধা হচ্ছে (ইহুদি বিয়ের বেশ কিছু অনুষ্ঠান আমাদের বাঙ্গালী বিয়ের সঙ্গে মেলে)। বিয়ের আয়োজন তুঙ্গে। মরিস, হবু বর, নির্দিষ্ট কোন কাজ ছাড়াই ব্যস্ত ভাবে ঘোরাঘুরি করছে। এমন সময় ঘটকের সঙ্গে দেখা।

    ঘটক মরিস, তোমাকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। ভবিষ্যতে তুমি আজকের দিনটা মনে রাখবে আর
    ভাববে এটাই ছিল তোমার জীবনের সবচেয়ে স্মরণীয় দিন।

    মরিসআমার বিয়ে তো আগামিকাল!

    ঘটক সেই জন্যেই।

    **********

    ঘটক গেছে ছেলের বাবার কাছে

    ঘটক ছেলের বিয়ের কথা ভেবেছেন?

    বাবা আমি আমার ছেলের ব্যক্তিগত ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করি না। সে নিজে যা হোক ঠিক করবে।

    ঘটক মেয়ের বাবা কে জানেন? লর্ড রোটশিল্ড!

    বাবা আচ্ছা, তাহলে…

    ঘটক গেলো লর্ড রোটশিল্ডের কাছে

    ঘটক আপনার মেয়ের জন্যে একটা দারুণ সম্বন্ধ এনেছি

    লর্ড রোটশিল্ড মেয়ের বিয়ের ব্যাপারে এখনো কিছুই ভাবিনি।

    ঘটক লর্ড রোটশিল্ড! সে ছেলেটি বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট!

    লর্ড রোটশিল্ড আচ্ছা, তাহলে…

    ঘটক গেছে বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্টের কাছে

    ঘটক আমি একটি ভালো ছেলেকে চিনি যাকে আপনি ভাইস প্রেসিডেন্ট পদ দিতে পারেন।

    প্রেসিডেন্ট অনেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমার অধীনে কাজ করে। আর নিয়ে কী করবো?

    ঘটক সার, এ ছেলেটি যে লর্ড রোটশিল্ডের জামাই!

    প্রেসিডেন্ট আচ্ছা তাহলে…


  • বিভাগ : ধারাবাহিক | ০৭ মে ২০২১ | ১৫৬৮ বার পঠিত | রেটিং ৫ (৫ জন)
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Abhyu | 47.39.151.164 | ০৮ মে ২০২১ ১৯:২০105714
  • কী করে জানব আপনি পিকাসোর আঁকা ছবি পছন্দ করেন না? :)))))

  • :|: | 174.255.132.81 | ০৯ মে ২০২১ ১১:২০105747
  • এই সিরিজটা পড়ছি। আপনার সঙ্গে ইমেলে যোগাযোগ করতে চাই। যদি ঠিকানাটা জানান এখানে, ভালো হয়। 

  • :|: | 174.255.132.81 | ১০ মে ২০২১ ০৪:১২105796
  • ধন্যবাদ, হীরেনবাবু।

  • kk | 97.91.195.43 | ১০ মে ২০২১ ০৬:২২105799
  • এই সিরিজটা আমার খুব ভালো লাগছে। আজকের রসিকতাগুলো উপভোগ করলাম।

  • হীরেন সিংহরায় | ১০ মে ২০২১ ১০:২৯105809
  • Kk অনেক ধন্যবাদ। আডডা সবে শুরু হল সঠিক! 

  • শঙ্খ | 2402:3a80:a48:37dc:88bb:3c82:8e3c:c503 | ১০ মে ২০২১ ১৮:১৭105830
  • জমেছে

  • হীরেন সিংহরায় | ১৩ আগস্ট ২০২১ ০০:১৬496706
  • অশেষ ধন্যবাদ । আশাকরি অন্য পর্ব ভাল লাগবে। 

  • Kausik Ghosh | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:২৩498436
  • শালাবাবু নতুন বাড়ি করেছেন। আজ গৃহপ্রবেশ।
    গতকাল রাতে এখানে পৌঁছে ইলিশান্ন এবং পরমান্ন দুই-ই সাঁটিয়ে চিৎ হবার পরে হীরেনবাবুর এই ত্রয়োদশ পর্ব আবিষ্কার করলাম। সকালে উঠতে একটু দেরি হলো, শাশুড়ি তাড়া দিচ্ছেন, ওদিকে লুচি আলুর দম ঠান্ডা হচ্ছে। কিন্তু আমি ১ম, ২য় এবং ৩য় পর্ব শেষ করে ৪র্থ পর্বের দিকে হাত বাড়াতে যাচ্ছি।
    আমাদের ছোটবেলায় লেখালিখির মূল‍্যায়নে প্রসাদগুণ ছিলো মাপকাঠি। বড়োবেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘোরাঘুরি করেছি খাঁটি ভাষাতত্ত্বের ছাত্র হিসেবে। 
    হীরেনবাবু ভ্রমণকাহিনীর গ্লাসে সমাজভাষাতত্ত্বের জলে ইতিহাসের লেবু আর প্রসাদগুণের চিনি মিশিয়ে যে শরবত পরিবেশন করেছেন, তার বাকি পর্বগুলো গলাধঃকরণ করার জন‍্য লুুুচি স‍্যাক্রিফাইস করতে রাজি আছি।
  • হীরেন সিংহরায় | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৫:০৮498444
  • অসংখ্য ধন্যবাদ । এমন চিঠি পেলে মন ভাল হয়ে যায়!উতসাহ পাই! 
  • Anuradha Kunda | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৪:১১498491
  • মজা পেলাম।
  • হীরেন সিংহরায় | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৪:৩১498492
  • অনেক ধন্যবাদ ! সময় পেলে অন্য পর্ব গুলো পড়ুন ! 
  • Marylina Sarker | ০৩ অক্টোবর ২০২১ ১৪:২৯499009
  • ইহু‌দি‌দের সম্প‌র্কে অ‌নেক জানার ই‌চ্ছে‌ ছিল। মাত্র তিন পর্ব পর্যন্ত পড়লাম।  খুব ভাল লি‌খে‌ছেন। পু‌রোটা প‌ড়ে নিশ্চয়  অ‌নেক কিছু জান‌তে পারব।
  • হীরেন সিংহরায় | ০৩ অক্টোবর ২০২১ ১৫:১৬499010
  • প্রথমটা প্রস্তুতি মাত্র। পরের গুলো পড়ুন । আশাকরি আপনার কৌতুহল ধরে রাখতে পারব
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভালবেসে মতামত দিন