• হরিদাস পাল
  • খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে... (হরিদাস পাল কী?)
  • প্যানডেমিক ও সৃজনে সন্নিধি

    Sharmistha Das
    বিভাগ : আলোচনা | ২৪ জুন ২০২০ | ১৮৮ বার পঠিত
  • প্যানডেমিক ও সৃজনে সন্নিধি
    ডাঃ শর্মিষ্ঠা দাস

    অদৃশ্য ভাইরাস ঘাড় মুচড়ে বদলে দিতে চাইছে সবকিছু , বুকের উপর চেপে বসে দমবন্ধ করে মেরে ফেলতে চাইছে পৃথিবীকে, কোভিড চিলে ছোঁ মেরে নিয়ে গেছে চেনা ছকের নিশ্চিন্ত জীবন --তবুও গান তবুও কাব্য তবুও ছবি, তবুও সৃজন ।
    হয়তো আরো দুটো বেশী ঢেউ । হয়তো আরো কিছু নতুন রঙ ।
    কিছুদিন আগে "মহামারী ও সৃজনশীলতা " ভাবতে গিয়ে শেষ কথা মনে ঘাই মেরেছিল --হয়তো কোনো নতুন ধারার আঁতুড়ঘর করোনা কর্কটকাল । আরো কিছু আহ্নিক গতি পেরিয়ে এসে সৃজনের পল্লবগ্রাহীতার কথা লিখছে ক্যালেন্ডারের পাতা । হয়তো পুরোনো সুরা নতুন পাত্রে । ভাইরাস- মৃত্যু-অনেক অনেক দুঃখফোঁটা মিশে , সুরার ঝাঁঝ বেড়েছে ।
    এক সন্নিধি আবেশ প্রত্যক্ষ করছি সৃজনে।
    JUXTAPOSITION !
    বহুকাল থেকেই তীক্ষ্ম ব্যঙ্গ, তীব্র ব্যবধান, ভয়ানক বৈপরীত্য--এসব চোখে আঙুল দিয়ে বোঝাতে, হৃদয়ে মরুঝড় তুলতে এই সন্নিধির সাহায্য নিয়েছেন লেখক , চিত্রকর । পাশাপাশি দু'টি চিত্র দু'টি চরিত্র দু'টি ঘটনা দু'রকম পরিস্থিতি । হতে পারে তা চরম বিপরীত --যেমন স্কাই স্ক্রাপারের পাশে বস্তি, বুলডোজারের পাশে ঘাসফুল, ছুরির পাশে হৃদপিন্ড । অথবা সমভাবের দুজনের কথকতা --শ্যাওলা সবুজ শান্ত পুকুর জলে ঝুঁকে পড়া সোঁদাল ডাল । মিল বা অমিল --সবখানে এই "দুই" এর পাশাপাশি অবস্থান একে অপরকে ম্যাগনিফাই করেছে , বিশেষ ভাবে চিহ্নিত করেছে । মিল অমিল কিছুই নেই এমন এক বিখ্যাত সন্নিধির ছবি --Meret Oppenheim এর পশমে ঢাকা চায়ের কাপ ! যা দেখে পিকাসো বলেছিলেন--"Anything could be covered in fur " .
    সাহিত্যে-- কখনো তা মিলটনের ' দ্য প্যারাডাইস লস্ট' এ --ঈশ্বর ও শয়তান । কখনো ডিকেন্স এর 'আ টেল অফ টু সিটিজ' এ খারাপ সময় আর ভালো সময়ের পাশাপাশি বর্ণনা । মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের 'কুষ্ঠ রোগীর বউ' বাইরের কুষ্ঠ রোগীদের সেবা করে আর ঘরের রোগীর দিকে ফিরে চায় না --মনের এক ঘৃণা ও সংশয়ে দীর্ণ হওয়া বুঝিয়ে দিল--বউয়ের ব্যবহারের এই পাশাপাশি চরম দু'মেরু ।
    উপায়ান্তর নেই । সমকালীন প্রায় সমস্ত সৃজন ডিজিটাল হতে বাধ্য হয়েছে । আড়ি পেতে , উঁকিঝুঁকি মেরে দেখলাম--গত তিন মাস ভাবনা প্রকাশের মাধ্যমে 'জাক্সটাপজিশন' ভীষণভাবে ঘুরেফিরে এসেছে ।
    ফটোশপে --পাশাপাশি পূর্ণিমার চাঁদ আর রেললাইনে ছড়িয়ে থাকা গোল রুটি !! এছাড়া, কিভাবেই বা সেই ভয়ানক বুক ফাটা কষ্ট বোঝানো যেত ? দু'হাজার কুড়ির দুঃসময় ধরা থাকছে--ইতিহাসের সম ঘটনার সঙ্গে তুলনায় । দেশভাগ,দাঙ্গা, মন্বন্তরের সেই অমানুষিক কষ্টের ছবি পাশাপাশি মিলে দেখিয়ে দিচ্ছে--এতগুলো বছরে এত যুদ্ধাস্ত্র বানিয়ে এক পা-ও এগোনো যায় নি । 2020 সালের পরিযায়ী কেজো মানুষদের হাজার মাইল হেঁটে, ভ্যানে বাদুড় ঝোলা হয়ে ঘরে ফেরার ছবি আর 1947 সালের বর্ডার পেরোনো--উভয়ের মাথায় পুঁটলি, গৃহহীন অভুক্ত মুখের যন্ত্রণার সাযুজ্য --শতগুণ বাড়িয়ে তুলল আমাদের অনুভব । বিদেশ থেকে ফিরবে বলে ধনী মানুষের জন্য বিশেষ বিমান আর পথ জুড়ে ভিন প্রদেশের হাঘরেদের পায়ের রক্ত--এর চেয়ে চরম ব্যঙ্গাত্মক সন্নিধি চিত্র পৃথিবী আগে দেখেছে নাকি ? দেড়শো বছর আগের মন্বন্তরের 'ফ্যান দাও মা' আর কাজ হারানো মানুষদের হাহাকারের ছবি---ডিজিটাল ভারত হতে চাওয়া ভারতবাসীকে ডিজিট্যালি চাক্ষুষ করতে হল ।
    সমকালীন কবি লেখকদের কথা বলি । তাঁদের সৃষ্টিতে সচেতন অথবা অবচেতনে আনছেন সন্নিধি বা জাক্সটাপজিশন । হোক তা ফেসবুক । ফেসবুককে যদি একালের চন্ডীমন্ডপ বা টাউন হল ধরি --ক্ষতি কি । চৈতালী চট্টোপাধ্যায় "তিমির" কবিতাটির পাশে ছবি রাখলেন-- আলো আঁধারিতে মুখোমুখি দুটি শূন্য চেয়ার । কবিতার প্রতিটি শব্দ যেন আরো আরো বাঙ্ময় হয়ে উঠল । তাঁর "বাঁকিপুট" কবিতার হাত ধরল নির্জন সমুদ্রতট চিত্র--দুয়ে মিলে চলল একরাশ লোনা হাওয়ার কানাকানি । সুপর্ণা দেব মিনে করা আরবী পানপাত্র,সবুজ হীরামন পাখির পাশে রাখলেন তাঁর অন্য ঘরানার দাস্তানগুলি । আহা মরি মরি-- দোঁহে মিলে বাদশাহী খানা খাজানা অথবা রিজিয়ার রূপ পরতে পরতে খুলতে লাগল --যা হয়তো হার্ড কপির চাইতে বেশি বৈ কম নয় । দেয়ালে চে গুয়েভারার ছবির সামনে পাপড়ি গঙ্গোপাধ্যায় একা ঘরে ফেসবুক লাইভে গাইলেন 'উতলধারা বাদল ঝরে '। অনুরাধা কুন্ডা আবছা মোম  আলোতে বলছেন নিঝুম রাতেে পাহাাড়ি পথে কটেজ খোঁজার গল্প--- গল্প,গান,ছবি, অভিনয় সব মিলে গায়ে কাঁটা দেওয়া এক সন্নিধি যোগের বিপ্লব ঘটে গেল ।
    ক্রাইসিসে জন্ম নেয় নতুন সৃজন ধারা । ইতিহাস লিখবে ভবিষ্যত । দু'হাজার কুড়ির প্যানডেমিক কালের এই ডিজিটাল সৃজনকে হয়তো তারা নতুন কোনো নামে ডাকবে ।
  • বিভাগ : আলোচনা | ২৪ জুন ২০২০ | ১৮৮ বার পঠিত
আরও পড়ুন
চম - dd
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • করোনা ভাইরাস

  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত