• বুলবুলভাজা  কাব্য  ইদের কড়চা

  • অসুখের কবিতা

    শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়
    কাব্য | ২৮ মে ২০২১ | ২৭২ বার পঠিত | ২ জন
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার


  • রোদ ও মেঘের ছায়া দাগ টানে পাহাড়ের গায়
    এখন সরল পথ স্টিয়ারিংয়ে মাথা রেখে ঘুমিয়ে পড়েছে
    রোদ পড়ে ঘুমের ভিতর

    চলে গেছে, গাড়ির কাঁচের দাগে আলতো ছুঁয়েছে যদি
    কালো রাস্তা সাদা দাগ
    নিজের ঘরের থেকে কতদূর এখন কোথায়
    খানিক বর্ষা শেষে বুনো ঝোপে ফুটেছে মুকুল

    রোদ ও মেঘের ছায়া ছবি আঁকে পাহাড়ের গায়ে
    কিছুটা ভ্রমণ শেষে তাহার গাড়িটি আজ
    থেমে আছে পথের উপর
    ~~~~




    আমি এই একলা বৈশাখে ভেবেছি লেখার কথা
    কাগজে ছবির মুখে উড়ে এসে বসেছে শব্দের মুখ
    মধুখোর কিংবা মাছির নীল যেরকম যখন ভেবেছি
    আমি এই একলা বৈশাখে একা একা ঘরে বসে বসে

    ফুরিয়ে এসেছে দিন যেন এই ভোরবেলা জুড়ে
    দিনগুলি মুছে মুছে পুনর্বার লিখে রেখে গেছে
    প্রতিটি অক্ষর, ছাপার অযোগ্য কিছু উঁচু নিচু
    পথের উপর তারা থেকে গেছে পথ রোধ করে
    ~~~~




    যেভাবে জলের পাত্র থেকে ফোঁটা ফোঁটা জলকণা বাতাসে মেলায়
    ফলে পাত্রে কমে আসে
    ধীরে ধীরে, একদিন সকল জলাধার
    অর্থহীন ধরে থাকে আংশিক আকাশ

    নিচে মাটিতে ধুলায়
    ঝুঁকে থাকা মুখ গুলি
    হারানো খেলনা আর ভাঙা বাসনের কানা
    যেন প্রেম মাখামাখি পড়ে থাকে
    একত্রে ঘুমায়

    যেদিন কুড়াও তুমি, সারাদিন
    হাবিজাবি জড়ো করো মেঘ
    আকাশে হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে পাহাড়

    জল পান শেষে
    অংশত আকাশে তার
    দেখে পৃথিবীর তৃষ্ণা মিটেছে ধীরে
    মেঘের ভিতরে মুখ স্বপ্নে ভেঙে যায়
    ~~~~




    এবার অসুখ সেরে গেলে তোমাদের বাড়ি যাব
    সরু হচ্ছে রাস্তা, দুধারে বেড়েছে ঝোপ
    পথের উপর সাজিয়ে রেখেছে ফুল
    এই সরু পথ দিয়ে হেঁটে হেঁটে তোমাদের বাড়ি

    প্রতিদিন একটু একটু করে না কাটা দাড়ির মতো বয়েস বেড়েছে
    বরফের কুচি মাখা মুখে আয়নায় নিজেকে বলেছি
    ভালো হলে একদিন হেঁটে হেঁটে বাজারে বেরোব
    সবুজ ঝুড়ির থেকে একটি ডবকা লাউ
    মেছুনির সাথে দু'একটা আলগা তামাশা
    তার বঁটির আগায় লেগে রক্ত আর আঁশ

    একদিন মনে মনে ভেবেছি
    অসুখের রাতে, আলোয় আলোয় ভরে যাচ্ছে চারদিক
    তবু আমাদের অসুখ সারে না
    ~~~~




    যে যার মতন হেঁটে চলে যাচ্ছে গট গট করে
    এমনকি ঘুরে দেখছেনা

    দরজা টপকে রাস্তা, রাস্তায় রোদ্দুর, রোদ্দুর পেরিয়ে
    কী আছে আমরা জানিনা
    যে যার মতন রাস্তা পেরিয়ে পেরিয়ে হারিয়ে চলেছে

    যেসব মানুষ আমরা চিনিনা কিংবা অল্প চিনেছি
    বরফের মতন মৃত ঠোঁটে সাদা রোদ হালকা বাতাসে কাঁপে

    বছরের পর বছর আমরা অভ্যেসে তুলে রাখছি রাস্তা
    রাস্তা পেরিয়ে রোদ আমাদের চোখ অন্ধ করে দিচ্ছে

    আর আমরা কাঁদতে পারছি না


    ছবি: ঈপ্সিতা পাল ভৌমিক
  • বিভাগ : কাব্য | ২৮ মে ২০২১ | ২৭২ বার পঠিত | ২ জন
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • দেবাশিস মল্লিক | 2402:3a80:197e:1ad2:878:5634:1232:5476 | ৩০ মে ২০২১ ০১:১৪106608
  • আড্ডা মারার মতো নির্ভেজাল কথ্য ভাষায় এতো ঘন ঘন ম্যাজিকের চমক, ইমেজারির নতুনত্ব এ কবিতার পাঠককে একতিলও স্বস্তি দেয় না, কেবলই ভাবতে প্রাণিত করে!

  • বিপ্লব রহমান | ০৩ জুন ২০২১ ০৯:৫২494500
  • "কাগজে ছবির মুখে উড়ে এসে বসেছে শব্দের মুখ"...


    এভাবেই বুঝি কেবলই বিস্ময়ের জন্ম হয়। ব্রেভো কবি <3

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যা খুশি মতামত দিন