• হরিদাস পাল
  • খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে... (হরিদাস পাল কী?)
  • বাবাকুকুর

    অভিষেক ভট্টাচার্য্য
    বিভাগ : আলোচনা | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ | ৪০৭ বার পঠিত
  • কৌশিক একদিন সন্ধ্যেবেলা অফিস থেকে ফিরে এসে দেখল যে তার বাবা কুকুর হয়ে গেছে।

    শুভ্রা খিলখিল করে হেসে বলল, "এসো, এসো! তোমার জন্যেই ওয়েট করছিলাম। দ্যাখো, কী সুন্দর! আমাদের কতদিন ধরে একটা কুকুরের শখ ছিল না? এতদিনে সেটা মিটল।"

    বাবা বারান্দায় গলায় চেন দিয়ে বাঁধা ছিলেন৷ কৌশিককে দেখে মৃদু গররর করলেন, আর কিছু বললেন না। এঁটুলি মারতে লাগলেন।

    কৌশিক বলল, "এ তো দারুণ! কখন হল এটা?"

    শুভ্রা খুশিতে ভাসতে ভাসতে বলল, "ঐ বিকেলের দিকে। বাবাকে চা দিলাম। খেলেন না। তারপর দেখলুম কুকুর হয়ে ঘুরছেন। তখন বেঁধে রাখলুম।"

    কৌশিক বলল, "কিন্তু কামড়াবে-টামড়াবে না তো? টুকাইটা আবার কুকুর দেখলেই গায়ে হাত বোলাতে যায়!"

    শুভ্রা আবার খিলখিল করে হেসে বলল, "তুমি না সত্যি! ভীতুর ডিম একটা! কামড়াবে কেন? আর ইঞ্জেকশন দিয়ে রাখলে কামড়ালেও কিছু হয় না।"

    তখন কৌশিক ধাতস্থ হয়ে মুখ-হাত ধুল। চা খেল। টিভিতে ঘন্টাখানেক সঙ্গে সুমন দেখল৷ তারপর বলল, "কিন্তু পুষতে গেলে অনেক খরচ যে গো!"

    শুভ্রা বলল, "কিপটেমি কোরো না তো! রোজগারটা করছ কী জন্যে, শুনি? আর সেদিন তোমার ব্যানার্জিসাহেবের বাড়িতে দেখলে না? তিন-তিনটে কুকুর! অ্যাটলিস্ট একটা তো তুমি অ্যাফোর্ড করতে শেখো!"

    তখন কৌশিক সব বুঝে ফেলল। ঘাড় নাড়ল।

    এই সময় টুকাই ঘরে এল। তার আজ স্কুলে মিসের দেওয়া হোমটাস্কের সবক'টা সাম করা শেষ। সে এসে কৌশিককে জিজ্ঞেস করল, "বাবা, ডগি-স্টাইল কী? আমি ডগি-স্টাইল করব।"

    কৌশিক তাকে ধমকে দিল।

    রাতে শুয়ে কৌশিক শুভ্রাকে বলল, "হ্যাঁগো, রোজ মাংস খাওয়াতে হবে না কি গো? কুকুরের তো আবার শুনেছি মাছ খেলে লোম ঝরে যায়।"

    শুভ্রা বলল, "আঃ, তুমিও যেমন! রোজ কেন খাওয়াবে? সপ্তাহে দু'দিন। বেশি খেলে ফ্যাট জমে যাবে।"

    এরপর কৌশিক শুভ্রার থেকে সেক্স করতে চাইল। আজ কুকুর আসায় শুভ্রার মন ভাল ছিল। তাই করতে দিল। প্রায় এক সপ্তাহ পরে এটা হল। এই সময়টা কুকুরবাবা বা বাবাকুকুর পাশের ঘরে চেয়ারে ঘুমোলেন।

    পরদিন কৌশিক অফিস ছুটি করে বইয়ের দোকানে 'বাবা কেন চাকর'-এর মত বাবা কেন কুকুর বলে কোনও বই আছে কি না খোঁজ করতে গেল। কিন্তু সেরকম কোনও বই ছিল না। তাই কৌশিক সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়ের 'কুকুর সম্পর্কে দু'টো-একটা কথা যা আমি জানি' বইটি কিনে নিয়ে চলে এল। এই বইটি থেকে তারা কুকুর সম্পর্কে নানারকমের প্রভূত জ্ঞান অর্জন করল। এতে করে তাদের খুব সুবিধে হল।

    এইভাবে তারা কুকুর পুষতে লাগল। পাড়াপ্রতিবেশী থেকে আত্মীয়স্বজন, যে-ই আসত সে-ই কুকুর দেখে খুশি হয়ে বলত, "বাঃ, দিব্যি কুকুর! খাসা কুকুর! হাজার টাকা দামের কুকুর!"

    এতে কৌশিকদের খুব ভাল লাগত।

    কৌশিক একটা বাটিতে করে সপ্তাহে দু'দিন বাবাকুকুরকে মাংস দিত। বাকি ক'দিন দিত ওটমিল, বার্লি, পাস্তা এসব। একদিন একটা আমেরিকান বইতে একটা আমেরিকান তার বাচ্চাকে "ইট ইয়োর ভেজ্জিস, কিড!" বলছে দেখে এরপর থেকে কৌশিক তার বাবাকুকুরকে মাঝে মাঝে গ্রিন ভেজিটেবলও দিত। ইতিমধ্যে তারা একটা ডায়েটিশিয়ানের কাছ থেকে বাবাকুকুরের জন্যে একটা ডায়েট-চার্ট করে এনেছিল। এতে করে তাদের খুব সুবিধে হয়েছিল।

    এরকম করে তাদের দিন কাটতে লাগল। টুকাই বড় হয়ে গেল। ডগি-স্টাইল কাকে বলে শিখে গেল। কলেজে ভর্তি হয়ে গেল। ততদিনে বাবাকুকুর তাদের বাড়িরই একজন হয়ে যাওয়ায় কৌশিকরা বাবাকুকুরকে আর চেন দিয়ে বেঁধে রাখত না। খোলাই রাখত। বাবাকুকুর কাউকে কামড়াত না৷ সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়ের 'কুকুর সম্পর্কে দু'টো-একটা কথা যা আমি জানি' বইটা কৌশিক যত্ন করে আলমারিতে তুলে রেখে দিয়েছিল। এটা একটা খুব ভাল বই।

    কুকুর এমনিতে দশ-বারো বছরের বেশি বাঁচে না, কিন্তু বাবাকুকুর যত্নে থাকত বলে সতের বছর বাঁচল। যেদিন মরে গেল সেদিন কৌশিকরা ডিভিডি প্লেয়ারে চার্লি চ্যাপলিনের 'এ ডগ'স লাইফ' সিনেমাটা দেখল। আর লুই বুনুয়েলের 'অ্যান আন্দালুসিয়ান ডগ' সিনেমাটা দেখল। এগুলো দেখে তাদের খুব কষ্ট হল।

    এরপর কৌশিক একদিন সন্ধ্যেবেলা অফিস থেকে ফিরে এসে দেখল যে পাড়ার সবক'টা কুকুর তার বাবা হয়ে গেছে।
  • বিভাগ : আলোচনা | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ | ৪০৭ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • | 230123.142.560112.254 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০২:১৩47943
  • অসম্ভব খারাপ।
  • Tukai | 7845.15.453423.232 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৩:৪৭47940
  • ভাট
  • dd | 90045.207.90045.221 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৩:৪৯47941
  • স্মাইলি দিলাম।
  • b | 562312.20.2389.164 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৪:৫৮47942
  • ডবোল হা।
  • syandi | 781223.82.347812.228 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৮:২৪47944
  • একেবারে ফালতু লেখা।
  • bah! bah! | 566712.225.4534.85 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ১০:৩৫47945
  • চেখ্ভ অ্যান্ড জুলু
  • i | 452312.169.5612.180 (*) | ০৬ এপ্রিল ২০১৯ ১০:৪৫47946
  • রমানাথ রায় মনে পড়ল। সেই ধরণ।
  • দ্যুতি | 172.69.135.147 | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৬:৪৮91085
  • এসব লেখা পড়ে বাবারা চাপে চলেগেলেন।
  • দোবরু পান্না | 162.158.227.25 | ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২০:৪৮91154
  • আমার অতটাও বাজে লাগল না। গ্রেগর কেন আরশোলা হয়েছিল, আজ অবধি কেউ জানে না - বাবা কেন কুক্লুর হল জানতেও কত বছর লেগে যাবে কে জানে। তবে টুকাই কেন ডগি স্টাইল শিখল সে প্রশ্নের জবাব দ্রুতই উদঘাটিত হতে চলেছে

  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত