• খেরোর খাতা

  • হারিয়ে যাওয়া সেই গ্রাম

    Sudeep Chatterjee লেখকের গ্রাহক হোন
    ১০ জুন ২০২১ | ১৯১ বার পঠিত | ১ জন
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • গ্রামের নাম পুলনা। চিরতরে হারিয়ে গেছে এই গ্রাম। না, নামটা আছে, গ্রামটাও আছে। কিন্তু বদলে গেছে আমার স্মৃতিতে ধরে রাখা এক চিলতে গ্রামের সেই পরিচিত দৃশ্য, যেখানে সূর্যের আলো মাথায় হাত দিয়ে ঘুম ভাঙাত। চা-ওয়ালা রমনকিশোর ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স-এর ট্রেকারদের চা দিতে ভুলে গিয়ে মোহিত হয়ে তাকিয়ে থাকত আচমকা জেগে ওঠা রামধনুর দিকে। হেমকুণ্ড সাহিবগামী তীর্থযাত্রীরা চলে যেত এই গ্রামের পাশ দিয়েই কিন্তু ফিরেও চাইত না গ্রামের মোড়ল রামধনীর দিকে। গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান যদি নিয়ম করে নদীর ধারে গিয়ে রঙিন পাথর কুড়োয় তাহলে কে আর পাত্তা দেয়? 


    গোবিন্দঘাটের হইচই থেকে দূরে পাহাড়ের কোলে নিরবিচ্ছিন্ন শান্তিতে ঘুমিয়ে থাকত পুলনা। নাম না জানা পাখিরা নিয়ম করে তাদের নিজস্ব 'সারেগামাপা' প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করত সাতসকালে, সাক্ষী থাকত আকাশ, সাক্ষী থাকত বনের গাছপালা। প্রতিদিন পাতার বস্তা নিয়ে গ্রাম থেকে ঘাঙরিয়া যেত আমার বন্ধু শীতল, সেখানে তাঁবুওয়ালা আর ফরেস্ট ডিপার্টমেন্টের লোকজন সেই পাতা কিনে আগুন জ্বালত। পুলনা গ্রামের মুখে সহিসরা ঘোড়া বেঁধে রাখত, তারা অলস ভঙ্গিতে ঘাস চিবিয়ে যেত সর্বক্ষণ। এই ঘোড়া করেও অনেকে হেমকুণ্ড সাহিবে যাবে, তখনও সেখানকার রাস্তায় ব্ল্যাক আইস আর কুচো বরফের বিপদ ওঁত পেতে আছে। 


    মাত্র তো তিন চার মাস, তারপর তো বরফের আচ্ছাদনের নীচে ঢেকে যাবে সমস্ত ভুন্ডার ভ্যালি, শান্ত হয়ে ঝুপড়িতে সেঁধিয়ে যাবে লোকজন। শুধু লক্ষণগঙ্গা আর অলকনন্দার সঙ্গম থেকে জলের উচ্ছ্বাসের শব্দ ভেসে আসবে। কিন্তু বর্ষার এই সময়টা এখানে বসন্তের সামিল। ট্রেকাররা আসে, কিছু আয়ও হয়। পাখিদের গলার স্বরে চাশনি, আকাশের গায়ে সিঁদুর মাখা রোদ, জলের শব্দে মিশে যাওয়া সেতারের সুর-- সেই অপেক্ষায় সারা বছর বসে থাকে রমনকিশোর বা রামধনীরা। 


    আঁকাবাঁকা পথ, সোনারঙা আকাশ আর কচিকলাপাতা রঙের সবুজ বন নিয়ে বেঁচেছিল পুলনা।  


    এলোমেলো, অলস জীবন। 


    সেই পুলনা আর নেই। ২০১৩ সালে উত্তরাখন্ডে 'ক্লাউড বার্স্ট' -এর সময় পুরো গাঁ ভেসে গিয়েছিল, অনেক চেষ্টা করেও কারো সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি। যে ক'জন থাকত, অনেকে প্রাণ হারিয়েছে, বাকিরা শরণার্থী শিবিরে মাথা গুঁজেছিল। আবহবিদরা বার বার করে সাবধান করেছিলেন আসন্ন বিপদের কথা ভেবে পরিবেশ সচেতনটার দিকে মনযোগী হতে, এখনও করছে, ও সব কে শোনে? বছর দুয়েক পর পুলনা পঞ্চায়েত গড়ে আবার ঘরবাড়ি দাঁড় করানো হল; সরকারের পক্ষ থেকে কিছু লোকজনকে বসিয়ে দেওয়া হল টুরিস্ট ইনফরমেশন সেন্টারে। পাকা বাড়ি, টুরিস্ট সেন্টার, বিদ্যুৎ --- খালি সেই মানুষজনগুলো ফিরল না। তারা যে আদৌ এখানে থাকত, সেটা প্রমাণ করার জন্যে অনেকেই কাগজপত্র দেখাতে পারেনি সরকারের কাছে। পরবর্তী কয়েক বছরে একের পর এক হাইড্রো-ইলেকট্রিক প্রোজেক্ট বসেছে এই অঞ্চলে, জঙ্গল কাটা পড়ছে দ্রুত। ফুলো কী ঘাটি যাওয়ার পথে যে গ্লেশিয়ার পড়ে সেটা প্রায় ভ্যানিস হওয়ার মুখে। পাখিদের গান কমে গেছে, আকাশের রঙ ঝাপসা, মেঘেরা এক্কাদোক্কা খেলতে আসে না। পুলনা গ্রামের মতো হারিয়ে যাচ্ছে সব কিছু...  


    আজ প্রায় দশ বছর আমার এক বন্ধুর মারফত ফেসবুকে জানলাম রমনকিশোর আজকাল উত্তরকাশির কাছে জোশিয়ারা ব্যারেজ হাইড্রো প্রজেক্টে দিনমজুর হিসেবে কাজ করে। এ কয়েক বছরে একদম বুড়িয়ে গেছে, চোখের কোণে কালি পড়েছে, দৃষ্টি শূন্য। পুলনার কথা শুনলে উত্তর দেয় না, বিড়ি টেনে ধোঁয়া ছাড়তে থাকে নির্বিকারে। এরকম শত শত রমনকিশোর সারা ভারতে ছড়িয়ে আছে হয়তো...


    পুলনার কোনো ছবি নেই আমার কাছে। সে যাত্রায় পকেটে ১৯৭৭ টাকা ছিল, স্মার্টফোনের যুগ তখনও আসেনি। ঘাঙরিয়ার একটা ছবি দিলাম।


  • ১০ জুন ২০২১ | ১৯১ বার পঠিত | ১ জন
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • π | ১০ জুন ২০২১ ১৭:২১494808
  • এ জায়গা তো মারাত্মক!! 

  • | ১০ জুন ২০২১ ১৮:২৮494815
  • এটা পড়ে আসলে কিছু বলার থাকে না।   এই যে ভীষণ মন খারাপ লাগছে এইটাও তো কাল অফিস খুলে বসলেই আস্তে আস্তে মিলিয়ে যাবে। গ্রামটা যেমন মিলিয়ে গেছে। 

  • | ১০ জুন ২০২১ ১৮:২৮494814
  • এটা পড়ে আসলে কিছু বলার থাকে না।   এই যে ভীষণ মন খারাপ লাগছে এইটাও তো কাল অফিস খুলে বসলেই আস্তে আস্তে মিলিয়ে যাবে। গ্রামটা যেমন মিলিয়ে গেছে। 

  • Sudeep Chatterjee | ১০ জুন ২০২১ ১৯:৪০494818
  • পরিবেশ বদল নিয়ে আমরা সকলেই উদাসীন। এই নিয়ে সাহিত্য রচনাও খুব কম। আমাজন ফায়ার আর গ্লোবাল ওয়াইল্ড ফায়ার ক্রাইসিস নিয়ে একটা বই লিখেছি। থ্রিলারের মোড়কে পুরো ব্যাপারটা তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। বিশেষ রেস্পন্স দেখিনি। অথচ আমাজন বা পুরুলিয়ার ঘটনায় ফেসবুকে পোস্টের বন্যা বয়ে যায়। হুজুগ ছাড়া সত্যিকারের দায়িত্ব নিতে এগিয়ে না এলে এইরকমই চলবে।

  • kk | 97.91.195.43 | ১০ জুন ২০২১ ২০:৪৫494821
  • সুদীপ, আপনার লেখা আমার খুব ভালো লাগছে। আপনার বইটার নাম কী? ঘাঙরিয়ার ছবি খুব সুন্দর লাগলো।

  • Sudeep Chatterjee | ১০ জুন ২০২১ ২২:০৪494822
  • কেকে বাবু, আপনার আসল নাম দেখতে পাচ্ছি না। আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আমাজনের বইটার নাম অনলগর্ভা। একপর্ণিকা প্রকাশনী। আরো কয়েকটা বই আছে। একটা ছবি দিলাম।


  • kk | 97.91.195.43 | ১০ জুন ২০২১ ২৩:৪৪494825
  • বাঃ, থ্যাংকিউ, থ্যাংকিউ!!

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। চটপট মতামত দিন