• হরিদাস পাল
  • খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে... (হরিদাস পাল কী?)
  • মহামহিম মোদী

    Saikat Bandyopadhyay
    বিভাগ : আলোচনা | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৪৭ বার পঠিত
  • মহামহিম মোদী নিঃসন্দেহে ইতিহাসে নাম তুলে ফেলেছেন। আজ থেকে পাঁচশো বছর পরে, ইশকুল-বইয়ে নিশ্চয়ই লেখা হবে, ভারতবর্ষে এমন একজন মহাসম্রাট এসেছিলেন, যিনি কাশ্মীরে টিভি সম্প্রচার বন্ধ করে কাশ্মীরিদের উদ্দেশে টিভিতে ভাষণ দিতেন। যিনি উত্তর-পূর্ব ভারতে ইন্টারনেট বন্ধ করে দিয়ে উত্তর-পূর্ব ভারতবাসীকে টুইট করতেন। যিনি বাংলায় দশ কোটি লোককে রাষ্ট্রহীন করার কল বানিয়ে, তারপর তাদেরই রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি নষ্ট না করার উপদেশ দিতেন।

    তিনিই ভারতবর্ষের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যিনি পাকিস্তানকে মেরে ফেলব বলে হুঙ্কার দিয়ে নিজের দেশেই সৈন্য নামিয়েছিলেন। যুদ্ধ করছি, বলে পাকিস্তানে একটি কাক এবং অনেক পাইনগাছ মেরেছিলেন। তিনিই ভারতের একমাত্র দেশনেতা, যিনি পাকিস্তান এবং বাংলাদেশ দুইয়ের কাছ থেকেই জুতোর বাড়ি খেয়ে তারপরেও নতুন সুট পরে জগৎ-সভায়-শ্রেষ্ঠ-আসন-লভেছি ধরণের হাসি হাসি পোজে ছবি দিতেন। এবং তিনিই একবিংশ শতকে পৃথিবীর একমাত্র সম্রাট যিনি, স্রেফ খেয়াল হয়েছিল বলে, এক রাতে নিজেরই সমস্ত নোট বাতিল করে দিয়ে আপামর দেশবাসীকে পাক্কা বছর খানেক ধরে দৌড় করিয়ে প্রচুর ফুর্তি পেয়েছিলেন।

    তিনি দেশবাসীকে মিত্রো বলতেন, আম্বানিকে স্যার। তিনি ব্যাঙ্কের টাকা দিতেন চোরদের, আর আমানতকারীরা যাতে নিজের টাকা সহজে না তুলতে পারে, তার সুবন্দোবস্তো করতেন। ইতিহাস বলতে তিনি রমায়ণ বুঝতেন। বিজ্ঞান বলতে রামদেব। আর অর্থনীতি জিনিসটাকে স্রেফ তুলে দিয়েছিলেন। গরীবি হটানোর জন্য তাঁর অব্যর্থ দাওয়াই ছিল দুই খানা। ১। গরীবির সংখ্যা চেপে দাও। খবর না থাকলে আর কীসের গরীবি। চোখ বুজে থাকলেই প্রলয় বন্ধ থাকবে। এইভাবে তিনি বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনকে ভুল প্রমাণ করেন ( যিনি বলেছিলেন, গণতন্ত্রে খবর্সহজে চেপে দেওয়া যায়না)। ২। লোককে অ-নাগরিক বানিয়ে দাও। যারা নাগরিকই নয়, তাদের আবার কীসের সমস্যা। মাথাই না থাকলে কীসের মাথাব্যথা। লোকগুলো তখন ল্যাল্যা করে ঘুরবে, নাগরিকত্ব পেলেই মোক্ষলাভ করবে, তাদের অন্য কিছুর দাবীদাওয়া থাকবেনা। এই অনুপম পদ্ধতি তিনি প্রয়োগ করেন প্রথমে আসামে, তারপর বাংলায়। সেখানে একদল বলতে থাকে অহা মোল্লাদের নাগরিকত্ব থাকবেনা, কী আনন্দ। আরেকদল বলতে থাকে বাঙালিদের নাগরিকত্ব দেওয়া চলবেনা। এই নিয়ে প্রচুর কাটাকাটি চলতে থাকে, এবং ফাঁকতালে তিনি সবকটাকেই লাথিয়ে তাড়িয়ে দেন। দেশে ভোটারই না থাকায় তাঁর পুনর্নিবাচিত হতে কোনো অসুবিধেই হয়নি। এই ফাঁকে আস্ত পূর্ব ভারতকেই বানিয়ে ফেলেন ডিটেনশন ক্যাম্প । গুজরাতি বানিয়ারা সেখানে চিরস্থায়ী রাজত্ব করতে থাকে। আর হিন্দু এবং মুসলমান বাঙালি প্রজারা সেখানে নিজের-নিজের হাত কামড়াতে কামড়াতে জীবন কাটাতে থাকে।

    তবে এখানেই শেষ নয়। পাঁচশো বছর পরে, নিঃসন্দেহে বাংলা ভাষায় একটা নতুন শব্দ যোগ হবে। মদীয়। যা 'তুঘলকী'র প্রতিশব্দ হিসেবে ব্যবহার করা হবে। লোকে পড়ে হ্যাহ্যা করে হাসবে। এবং ইশকুলের পাঠ্য বইয়ের শেষ লাইনে, মোক্ষম ভাবেই লেখা থাকবেঃ তারপর একদিন প্রজারা তাঁর হাত থেকে এবং তিনি প্রজাদের হাত থেকে বাঁচলেন।

    এই অবধি পড়ে, কোনো কচি খোকা বা খুকি অবশ্য প্রশ্ন করতে পারে, উনি পাগল ছিলেন বোঝা যায়, কিন্তু আস্ত ১৩০ কোটিই কি পাগল ছিল? জবাবে মাস্টারনি উত্তরহীন থাকবেন কিনা সেটা এখনও বলা যাচ্ছেনা।
  • বিভাগ : আলোচনা | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৪৭ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • | 237812.69.563412.99 (*) | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:০০50958
  • তিরিশের দশকের জার্মানিকে নাজি জার্মানি বলা হয়। সেখানেও হয়ত কিছু জার্মান প্রতিরোধের চেষ্টা করেছিল। কিবতু তবু সেই পিরিয়ডকে আমরা নাজি জার্মানিই বলি। তেমনি এই সময়ের ভারতকে সঙ্ঘী ভারতই বলা হবে।
  • aranya | 890112.162.9001223.97 (*) | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৭:০০50959
  • ভাল লেখা। দুটো ছোট পয়েন্ট -

    ১। 'যিনি বাংলায় দশ কোটি লোককে রাষ্ট্রহীন করার কল বানিয়ে' - ১০ কোটি তো বোধহয় বাংলার সামগ্রিক জনসংখ্যা - হিন্দু, মুসলিম, অন্যান্য ধর্ম সব মিলিয়ে। তো সারে বাঙালী-কে রাষ্ট্রহীন করার চেষ্টা হচ্ছে, এটা একটু কষ্টকল্পনা হয়ে যাচ্ছে না?

    ২। 'তাদেরই রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি নষ্ট না করার উপদেশ দিতেন' - এই পয়েন্ট-টা এমনিতে ঠিক আছে। এ উপদেশ হাস্যকর, যদি তা মোদীর মুখনিঃসৃত হয়। তবে অমনিতে রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি ধ্বংস কোন কাজের কথা নয়। এবং আমাদের সাধের বাংলায়, বর্তমান সরকারের আমলে, এই সব ঘট্না ঠেকানোর কোন চেষ্টা হয় না, পুলিশের হাত বাঁধা থাকে
  • r2h | 236712.158.676712.160 (*) | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৭:০৮50960
  • অরণ্যদা, শান্তির ললিত বানী চূড়ান্ত লেভেলের ব্যর্থ পরিহাস হয়ে গেছে।
    এই যে নাগরিকত্বের ভর্তি পরীক্ষা - এ তো সব বাঙালীকেই দিতে হবে যা হিসেব দাঁড়াচ্ছে; আর বাঙালী ছাড়া আর বিশেষ কাউকে দিতে হবে না। এবং তারপর ছাঁকনী দিয়ে বাঙালী মুসলমানদের তুলে ফেলে দেওয়া হবে।
    সে পরীক্ষায় হয়তো আমি তুমি পাশ করে যাবো, কিন্তু একটা নির্দিষ্ট ভাষাভাষী হওয়ার কারনে, যে ভাষা নিয়ে আমাদের অসীম গর্ব - এই নাগরিকত্বের পরীক্ষা দিতে হবে সেটা গ্লানি রাষ্ট্রহীন হওয়ার থেকে খুব কম কিছু না।

    প্রসঙ্গত, এইরকমই গ্লানির মধ্যে দিয়ে প্রতিনিয়ত ধর্মীয় সংখ্যালঘুদেরও যেতে হচ্ছে।

    এই পরিস্থিতিতে, উচিত অনুচিতের বোধগুলিও পাল্টে যাচ্ছে। আমার তো যাচ্ছে অন্তত।
  • aranya | 236712.158.3467.251 (*) | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৭:১৯50961
  • সার তো বলেছেন - এনারসি সারা ভারতে হবে
  • aranya | 236712.158.3467.251 (*) | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৭:২৫50962
  • বাংলায় নরম সাম্প্রদায়িকতা আর কেন্দ্রে কঠিন সাম্প্রদায়িকতা - এই তো চলছে।
    মন্দের ভাল হিসাবে সেশে যদি দিদি-কে বেছে নিতে হয়, তাইলে তো মুস্কিল
  • Amit | 236712.158.23.209 (*) | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১০:৩২50963
  • মমতা যে খেলাটা এতদিন পাড়ার লেভেল এ খেলছিল, সফট কমুননালিজম কে ভোটের জন্যে তোল্লা দেওয়া, আর ভাবছিলো এসব নেহাত ছোট্ট খাটো জিনিস, কেও টের পাবে না। সেই একই খেলা বিজেপি উল্টোদিকে অনেক বড়ো লেভেল এ দেশ জুড়ে খেলতে নেমেছে। এরা ভালো করেই জানে পব তে নিজের মুরোদে জিতে আসার ক্ষমতা নেই। সুতরাং জল যত ঘোলা হয় , ততই ভালো।

    যেসব বুজিরা সিঙ্গুর, নন্দীগ্রামে পুরো ফাটিয়ে দিতেন, এখন কেমন এক্কেরে ভেজা মুড়ির মতো মিইয়ে গেছেন, সে রকম গলার জোর নেই আর, মাঝে মাঝে একটু মিন মিন করে আওয়াজ দেওয়া যে "ঠিক হচ্ছে না কিন্তু।" ব্যাস।

    এখন তো মমতার শাঁখের করাত, আগুন নিয়ে খেলছে পুরো। এক দিকে আন্দোলন কে ওসকাচ্ছে, আবার গন্ডগোল হাতের বাইরে চলে গেলে ৩৫৬-ও হয়ে যেতে পারে। রাজ্যপাল তো ছুতো খোঁজার জন্যে রেডি হয়েই আছে । একবার রাজ্যে সরকার উল্টে গেলে কিসে কি হতে পারে, সবার হিসেবের বাইরে। আর একটা গুজরাট না হয়ে যায়।
  • S | 236712.158.786712.53 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:১৫50965
  • "কিন্তু আস্ত ১৩০ কোটিই কি পাগল ছিল?"

    তাহলে পাগল বললে দোষ নেই, ছাগল বললেই দোষ?
  • | 237812.69.563412.93 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:৫১50966
  • সবার এত বুদ্ধি জীবিদের উপরে রাগ কেন বুঝিনা। দুদিন হল ঢিল ছোঁড়া ছুঽড়ি হচ্ছে, আসামে যেমন সরাসরি বাঙালি দের বিরুদ্ধে ঘৃণা উগরানৈর জন্য গমোসা আইডেন্টিটি র আসারশন চলছে, সেটাও অন্যত্র হচ্ছে না। কেন্দ্রীয় সরকার নামক মহামহিম ছাগল দেয় বিরুদ্ধে কি করবে বুঝতে না পেরে চারটি ঢিল ছুড়ে ছে, দিল্লি তে শুধু শ্লোগান দিলেই খুন হন ওয়া যাচ্ছে ঢিল ও ছুড়তে হচ্ছে না, কাশ্মিরী ছেলে মেয়ে যা মিছিল করলে দেশের বাড়ি সাদা পোষাক পৌঁছে যাচ্ছে। নখোদা মসজিদ , আসালসোলের সেই সন্তান হারা আমায় শান্তি পূর্ণ প্রোটেস্ট করার আহ্বান জানিয়েছেন, মালদায় অফ অল প্লেসেস আট কিলোমিটার হেঽটেছে সর্বধর্ম মিছিল। কায়দুনির মত ই প্রথম এ গ্রামীন বা স্মল টাউন এর সিভিল সোসাইটি প্রোটেস্ট করছেন তারপর বড় করে শহরে লোকজন নামছে, এটাতো ভালো কথা, আপনারা খবর পড়তেও জানেন না, সরকারের উপর রাগ না করে প্রোটেস
    কার নিয়ে টেনশন করছে না। যান নিজের পাড়া য় পছন্দ মতো বিজেপি বিরোধী ফোরামে অ্যাকটিভ হোন। এখনো
  • | 236712.158.566712.237 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:০২50967
  • সরকারের উপরে রাগ না করে কে প্রোটেস্ট করতে দেরী করছে কে যথেষ্ট ঠিক ভাবে করছে কিনা তাই নিয়ে বাজে কুচুটেপনা করে লাভ আছে? যে বিজেপি বিরোধী ফোরাম পছন্দ তাতেই যান না, যত ভুলভাল। দেশ টাকে সরকারি ভাবে ফ্যাসিস্ট করে দিল দায়িত্ব নিয় বিজেপি, এখন বাড়িতে বসে শালগ্রাম শিলা পূর্ব মুখী কিনা ভেবে লাভ আছে। বুদ্ধিজীবী দের উপরে লোকের এত রাগ, এখনো অব্দি তো একটা ও ফাইনান্সিয়াল আনালিস্ট বা ইঞ্জিনিয়ার স এগেন্সট ফ্যাসিজম নামের কোন ফোরাম তো দেখলাম না, সাইন্টিস্ট যা অবশ্য বুজরুকি র বিরুদ্ধে ১০০০ জন স ই করে দেন। গুরু চন্ডালি কে প্রাইমারি নিউজ রিসোর্স হিসেবেই বা দেখা র কি আছে বুঝি না।
  • | 236712.158.566712.237 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:০৬50968
  • পাটনা তেও প্রোটেস্ট হচ্ছে। গুড।
  • | 237812.68.674512.145 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:০৯50969
  • হ্যা হ্যা হ্যা হ্যা কি যে কও মনা! একটা আনমডারেটেড ফোরাম থাইকবো আর তাতে নিজের অপছন্দের লোকজনকে দুটো গালি দেবে না! আবার নিজেদেরও কিছু করতে হবে!?
  • | 237812.68.674512.145 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:১৩50970
  • যাউকগা সৈকতকে বলার ছিল আগেরদিন লিখতে ভুলে গেছি -- 'মদীয়' শব্দটা বাংলায় আছে। মানে হল আমার আমাদের। নেমন্তন্ন চিঠিতে লেখা থাকে না 'মদীয় বাসভবনে রীতিভোজের আয়োজন করা হয়েছে' ইত্যাদি। তুমি বোধহয় মোদীয় লিখতে চেয়েছিলে। ও-কার বাদ গেছে।
  • | 237812.69.563412.171 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:১৭50971
  • মানকুন্ডু তে এন আরসি বিরোধী জনসভা সিপিএম এর। যে যেরকম করে পারে বিজেপির বিরুদ্ধে কথা বলছে , দ্যাট ইজ ওকে, কিন্ত বলে যেতে হবে। আসামে অবশ্য ডিসক্রেডিটেড, কিছু ছাত্র আর ইন্টেলেকচুয়াল যা ছাড়খ আসাম গন বঙ্কার্স। ডিব্রুগড়ে এস এফ আই এর নেতা আরেস্টেড শুনলাম অবশ্য।
  • মানিক | 236712.158.780112.18 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:২২50972
  • আমাদের সমাজে বুদ্ধিজীবীদের সিরিয়াসলি নেবার একটা প্রথা আছে, তাই ওনারা যখন গুটিয়ে থাকেন তখন লোকে রাগ করে।

    বুদ্ধিজীবীদের কাছে আশা না থাকলেই রাগও থাকে না। তবে ভেবে দেখবেন তার ফলে ফ্যাসিস্টদের (রাজ্যে, কেন্দ্রে ও পৃথিবীতে) অ্যান্টি ইন্টেলেকচুয়াল এজেন্ডায় সাহায্য করা হবে কিনা। পাবলিক ইন্টেলেকচুয়ালরা না থাকলে ওনারা সকলেই খুব খুশী হবেন
  • | 237812.68.674512.211 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:৪২50973
  • আগ্রহী দের জন্য বলে যাই , ভূপেন শর্মা র আসাম সম্পর্কে লেখা পড়তে পারেন।
  • | 237812.69.453412.236 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:০৫50974
  • দেখুন আসাম টা যথেষ্ট ঘাঁট কেস, আপার আসামে র যে ও উইং আর বিইং সোয়াম্পড, গোছের ব্রেকসিট গোছের রেটোরিক , সেটা বোডোল্যান্ড আন্দোলন এর সময়ে লোয়ার আসামে লেজিটিমেসি পেয়েছে। এবার আরেকটা কেস হয়, ১৯৬০ বা ১৯৭০ এর দশকের ইপিডাব্লিউ যদি দেখা যায় , তার সঙ্গে ৮০জ এর আসু আলফা আন্দোলন ও যদি দেখা যা। এমনকি বাঙালি ইন্টেলেকচুয়াল রাও এটাকে একটা ওয়েলফেয়ার স্টেটের নেসেসারি কালেকশন হিসেবে দেখছেন, এবং আরমির একসেস টাকেই মূলতঃ ক্রিটিসাইজ করছেন। এটা বদলাচ্ছে সম্ভবত খানিকটা আন্দাজে বলছি বোডোল্যানড ইত্যাদির সময় থেকে। ২০০০ থেকে বোধহয় অনুপ্রবেশকারী ইত্যাদি রেটোরিক বাড়ছে, ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন কার্ড ইত্যাদি কথা উঠছে। তারপর অগপ বিজেপি আলায়েন্স ইত্যাদি হচ্ছে। অত এব একটু লম্বা করে দেখলে কিছু টা বেটার বোঝা সম্ভব।
  • | 237812.69.453412.236 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:০৬50975
  • আরেকটু দেখে কনফার্ম করছি।
  • | 237812.69.453412.236 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:০৬50976
  • আরেকটু দেখে কনফার্ম করছি।
  • Ishan | 236712.158.4578.144 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:৩৫50977
  • আরে আমি 'মদীয় শব্দটির অর্থ বদলে গেছে' লিখেছি ভেবেছিলাম। এরকম ধর-তক্ত-মার-পেরেক করলে এইই হয়।
  • aranya | 890112.162.9001223.45 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:১৮50978
  • ১০০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে কাগজে দেখলাম, বাংলায় জ্বালাও-পোড়াও ইত্যাকার প্রতিবাদের জন্য।
    ক্ষতির পরিমাণ যদি ১০ কোটি-ও হয়, আর দু-চারটি ঢিল ছোঁড়াছুঁড়ির জন্য হয়ে থাকে, তবে খুবই পোটেন্ট ঢিল বলতে হবে
  • | 236712.158.676712.252 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:২১50979
  • ফোং এ ল্যাখা খুবী কডীন, বিসেসত বাঙ লাউ
  • aranya | 890112.162.9001223.45 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:২৪50980
  • সাধের লাউ-য়ের সাথী 'বাঙ লাউ' :-)
  • | 237812.69.563412.99 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:৪৯50981
  • দেখুন আসাম টা যথেষ্ট ঘাঁটা কেস, আপার আসামের যে ও উই আর বিইং সোয়াম্পড, গোছের ব্রেকসিট গোছের রেটোরিক , সেটা বোডোল্যান্ড আন্দোলন এর সময়ে লোয়ার আসামে লেজিটিমেসি পেয়েছে। এবার আরেকটা কেস আছে, ১৯৬০ বা ১৯৭০ এর দশকের ইপিডাব্লিউ যদি দেখা যায় , তার সঙ্গে এমনকি ৮০জ এর আসু আলফা আন্দোলন ও যদি দেখা যা। এমনকি আসামের বাঙালি বা লেপ্ট উইং অহমিয়া ইন্টেলেকচুয়াল রাও এটাকে একটা ওয়েলফেয়ার স্টেটের নেসেসারি কারেকশন হিসেবে দেখছেন, এবং আরমির একসেস টাকেই মূলতঃ ক্রিটিসাইজ করছেন। এটা বদলাচ্ছে গ্লোবালাইজেশনের পরে, স্টেট এবং ক্যাপিটাল নতুন গ্রহণযোগ্যতা পাবার পরে। বা বড় আর্বান সেন্টার গুলোর সঙ্গে ছোটো সেন্টার গুলো র পার্থক্য চোখ ধাঁধানো হবার পরে। সম্ভবত। খানিকটা আন্দাজে বলছি বোডোল্যানড ইত্যাদির সময় থেকে। ২০০০ এর অল্প আগে থেকে বোধহয় অনুপ্রবেশকারী ইত্যাদি রেটোরিক বাড়ছে, ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন কার্ড ইত্যাদি কথা উঠছে। তারপর অগপ বিজেপি আলায়েন্স ইত্যাদি হচ্ছে। অত এব একটু লম্বা করে দেখলে কিছু টা বেটার বোঝা সম্ভব, যে কোনো বাঙালি ই বাংলাদেশ থেকে আগত অনুন্নত অনুপ্রবেশ্কারী এই রেটোরিক টা সামাজিক শক্তি হিসেবে বিজেপি অগপ অ্যালায়েন্সের ফল না কারণ সেটা চুলচেরা করে বলা কঠিন, তবে নৈকট্যের সঙ্গে জড়িত অবশ্যই বলা যায়। এবং এই সময় তেই কৃষিজীবি অহমিয়া ভাষী মুসলমান রা কংগ্রেসের বেলিকোজ ইনক্লুশন রেটোরিকে যায়্গা পাছে। বাকি থাকছেন বাংলাভাষী রা, হিন্দু ও মুসল্মান। এটা মোটামুটি গোদা ন্যারেটিভ, হাইপোঠেটিকালি। এবার এই হাইপোথিসিস টেঁকে কিনা , টাইম লাইন করতে গেলে বোঝা যাবে। দেখি পারি কিনা।

  • | 237812.69.563412.99 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৫:৫০50982
  • Comment from খ on 16 December 2019 08:35:57 IST 237812.69.453412.236 (*) #

    এই পোস্ট টা একটু কারেক্ট করে দিলাম।

  • S | 237812.69.453412.38 (*) | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ১২:৫৫50964
  • বাংলা, পান্জাব, কাশ্মীর - এই রাজ্যগুলোতে বিজেপি এখনও ক্ষমতায় নেই। তাই এগুলই টার্গেট। এখানে যতখুশি গন্ডগোল বাঁধাও। তামিল নাডুতে হবেনা জাত্যাভিমানের চোটে। তবে কেরালাতে চেস্টা করবে। সমস্যা হলো ওখানে লোকগুলো অলরেডি বড্ড পড়াশুনা করে ফেলেছে।

    রাণীমা বিজেপিকে এক-আধটা ভোট হয়তো আটকে দিলেও দিতে পারেন। কিন্তু যে বিষ ইতিমধ্যে ছড়িয়েছে, তাতে পবের সর্বনাশ হয়ে গেছে।
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত