ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • বুলবুলভাজা  আলোচনা  রাজনীতি

  • বিজেপির সাময়িক পশ্চাদপসরণ, সংখ্যালঘু-নিপীড়ন চলবে

    সোমনাথ গুহ
    আলোচনা | রাজনীতি | ১০ জুন ২০২২ | ৩১৪৮ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)

  • মহানবী সম্পর্কে অবমাননামূলক মন্তব্যর জন্য বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে দল থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। একই বক্তব্য টুইট করার জন্য দলের দিল্লি শাখার নবীন জিন্দালকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বোঝাই যায় দলে নূপুর যথেষ্ট ওজনদার নেত্রী যে কারণে মূল বক্তব্যটি তাঁর হওয়া সত্ত্বেও তাঁকে শুধুমাত্র সাসপেন্ড করা হয়েছে। অনেকের প্রশ্ন কে এই নূপুর শর্মা? আশি নব্বইয়ের দশকে বিজেপির অতি পরিচিত মুখ ছিলেন বিজয়রাজে সিন্ধিয়া, গোয়ালিয়রের রাজমাতা। ১৯৮৭ সালে রাজস্থানে রূপ কানোয়ার যখন তাঁর স্বামীর চিতায় আত্মাহুতি দিয়েছিলেন তখন তিনি তাঁকে সমর্থন করেছিলেন। সতীদাহ ফিরিয়ে আনার তাঁর এই প্রচেষ্টাকে সারা দেশ ধিক্কার জানিয়েছিল। তাঁর যোগ্য দুই উত্তরসূরি ছিলেন উমা ভারতী ও সাধ্বি রিতাম্ভারা। এঁরা ধর্মীয় বাতাবরণে, ধর্মীয় শিক্ষায় ও ধর্মগুরুদের আশ্রয়ে লালিত পালিত হয়েছেন। এঁদের বেশভূষা ছিল সাবেকি সাধ্বীদের মত, আদবকায়দা আটপৌরে, ভাষা কর্কশ, বিষময়, বেলাগাম ঘৃণা বিদ্বেষ ছড়ানোয় এঁদের জুড়ি মেলা ছিল ভার।

    একবিংশ শতাব্দীর বিজেপিতে উপরোক্ত ধরণের নেত্রীরা পিছনে চলে গেছে। এখন তাঁদের পোস্টার গার্ল নূপুর শর্মা, মনিকা অরোরা, সোনালি চিতলকার, প্রেরণা মালহোত্রা। এঁরা উচ্চ শিক্ষিতা। মনিকা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী, সোনালি ও প্রেরণা দিল্লির মিরান্ডা হাউস এবং রামলাল আনন্দ কলেজের অধ্যাপিকা। বিশ বছর আগেও বিজেপিকে মনে করা হতো একটা বানিয়াদের দল, দূরবীন দিয়ে খুঁজেও তাঁরা তাঁদের হয়ে বলার মত কোন বুদ্ধিজীবী পেতেন না। যুগ আমূল পাল্টে গেছে। ২০২০র দিল্লি ‘দাঙ্গা’র একটি তাৎপর্যপূর্ণ দিক হল এই প্রথম শাসক তাঁর পেটোয়া লোকজনদের দিয়ে একটি তথ্যানুসন্ধান রিপোর্ট তৈরি করে ফেলে। মনিকা, সোনালি ও প্রেরণা ছিল সেই রিপোর্টের কারিগর যাতে তাঁরা সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে, শাহীনবাগ, জামিয়া-জেএনইউতে প্রতিবাদ এবং অবশেষে ‘দাঙ্গা’, পুরোটাকেই একটা আর্বান নকশাল-জিহাদি চক্রান্ত হিসাবে সাব্যস্ত করে। ব্লুমসবেরি থেকে তাঁরা এই রিপোর্টটিকে বই হিসাবে প্রকাশিত করারও চেষ্টা করে। বইটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অন্যতম গেস্ট অফ অনার ছিলেন এই নূপুর শর্মা।

    তিনি নিজে বই লিখেছেন ‘দিল্লি এন্টি-হিন্দু রায়টস, ২০২০, দ্য ম্যাকাবার ড্যান্স’ যেখানে তিনি একই নকশাল-জিহাদি তত্ত্ব আউরেছেন। তিনি নতুন শতাব্দীর এই নতুন নেতা নেত্রীদের মধ্যে অন্যতম উজ্জ্বল তারকা। নূপুর শর্মা উচ্চ শিক্ষিতা তো বটেই, বিদেশী ডিগ্রির তকমাও তাঁর আছে। আগেকার নেত্রীদের মত ইংরাজি বলতে গিয়ে তাঁকে বারবার ঢোক গিলতে হয় না। হিন্দি ইংরাজি দুটোতেই তিনি তুখোড়। তাঁর বেশভূষা ঝকঝকে, স্মার্ট; ঠাটবাট, আদবকায়দা রীতিমতো চমকপ্রদ। রোজ সন্ধ্যায় তিনি টিভি চ্যানেল আলোকিত করেন। গোদি মিডিয়ার সঞ্চালক/সঞ্চালিকাদের সাহায্যে যে কোন বিতর্কে তিনি বিরোধীদের নাস্তানাবুদ করে দেন, অনায়াসে গালি দিয়ে তাঁদের চুপ করিয়ে দিতে পারেন। ভক্তরা তাঁর ক্ষমতায় অভিভূত, তাঁকে সিংহী, বাঘিনী নামে ভূষিত করেন। দলের সর্বোচ্চ ব্যক্তি থেকে শুরু করে প্রত্যেকে তাঁর বাকপটুতা, বাকচাতুর্যে মন্ত্রমুগ্ধ। তাঁরা তাঁর টুইটার নিয়মিত অনুসরণ করেন। এহেন এক নেত্রী যিনি দলের মুখপাত্র বিজেপি তাঁকে নিছকই একজন ‘ফ্রিঞ্জ এলিমেন্ট’, নগণ্য ব্যক্তি, বলে ঝেড়ে ফেলতে চাইছে, বলছে তাঁর বক্তব্য সরকার বা দলের মতামত নয়।

    নূপুর ২৬শে মে একটি টিভি চ্যানেলে বিতর্কিত মন্তব্যটি করেছিলেন। তারপর এক সপ্তাহ কেটে গেছে কেন্দ্রীয় সরকার বা বিজেপির তরফ থেকে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। ইতিমধ্যে কানপুরে হিংসা ছড়িয়েছে তবুও নেতারা মৌনব্রত পালন করেছে। আরব ও ইসলামিক দেশ যখন প্রতিবাদে মুখর হয়েছে, ভারতীয় পণ্য বয়কট করা শুরু করেছে, ভারতের রাষ্ট্রদূতদের ডেকে কড়কানো শুরু করেছে, তখন বিজেপি নড়েচড়ে বসেছে। পত্রপাঠ দু’জনকে বিদায় করে ড্যামেজ কন্ট্রোল করার চেষ্টা করেছে।

    প্রশ্ন হল বিজেপি কি আদৌ অনুতপ্ত? অন্য ধর্মের সাথে আমার হাজার বিবাদ থাকলেও তাঁদের পয়গম্বরকে অপমান করা যে অপরাধ এই বোধ কি আদৌ বিজেপি নেতৃত্বের আছে? নাকি মুসলিম সমাজকে হেনস্থা ও কোণঠাসা করার যে সীমারেখা যা তাঁরা প্রতিনিয়ত প্রসারিত করছে, নূপুর শর্মার মন্তব্য সেরকমই একটি প্রয়াস? বিশেষ করে ২০১৯ এর পর থেকে তাঁরা একটা করে লক্ষণ-রেখা তৈরি করেছে এবং সেটাকে লঙ্ঘন করেছে, আবার নতুন লক্ষণ-রেখা সৃষ্টি করেছে। বারবার পরীক্ষা করেছে মুসলিম সমাজ কতটা কড়া দাওয়াই সহ্য করতে পারে। সিএএ-এনআরসির বিরুদ্ধে, হিজাব বিতর্কের সময়, মুসলিম সমাজ ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। কিন্তু প্রবল সরকারি দমন-পীড়ন, বিচিত্র নামধারী হিন্দু সেনাদের সন্ত্রাস এবং উগ্র ধর্মান্ধতায় বুঁদ হয়ে থাকা বিপুল হিন্দু জনতার নিস্তব্ধতা বা নীরব সমর্থন তাঁদের অবস্থা ক্রমশ আরও অসহায় করে তুলছিল। সুতরাং দাওয়াইটা আরও কড়া কর, খোদ পয়গম্বরকে আক্রমণ কর।

    এবারও কিছু বিক্ষোভের পর হয়তো মুসলিমরা ঘরে ফিরে যেতেন, নেহাত আরব দুনিয়া প্রতিবাদে সরব হল বলে বিজেপি দুঃখপ্রকাশ করতে বাধ্য হল। আরেসেস-বিজেপি নেতৃত্ব অনুতপ্ত নন, যদি হতেন তাহলে ঘটনার পরে এতদিন তাঁরা নীরব থাকতেন না। তাঁরা কেউ ঘটনার নিন্দা করেননি। নূপুর শর্মার দুঃখপ্রকাশও লোক-দেখান; তিনি জানিয়ে দিয়েছেন হিন্দু দেবতাকে ক্রমাগত অপদস্থ করার (জ্ঞানব্যাপী মসজিদে খুঁজে পাওয়া কাঠামোটিকে ফোয়ারা বলা তাঁর মতে শিবলিঙ্গকে হেয় করা) কারণেই তিনি পয়গম্বরকে আক্রমণ করতে বাধ্য হয়েছেন।

    প্রথমে কেন্দ্রীয় সরকার আরব দেশগুলির ক্ষোভ প্রশমিত করবে, সেটা খুব কঠিন হবে না কারণ নিজেদের অর্থনৈতিক স্বার্থের কারণে তারাও চাইবে না যে এই ঘটনা বেশিদূর গড়াক। সেটা হয়ে যাওয়ার পরেই তাঁরা এই ঘটনার ফয়দা তোলার চেষ্টা করবে। তাঁরা জানেন নূপুরের বহিষ্কার ভক্তদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে। তাঁরা বলবেন হিন্দু ধর্ম আক্রান্ত, আমাদের দেবতাকে কটু কথা বললে কোনও প্রতিবাদ হয় না অথচ মুসলিমদের ক্ষেত্রে নিন্দার ঝড় ওঠে! তাঁরা এটাও বলবেন আমরা নিজেদের লোককে কী ভাবে শাস্তি দিয়েছি সেটা তো বিশ্ব দেখেছে, এবার কোনও মসজিদের তলায় কী পাওয়া গেছে সেটা নিয়ে কোনও সন্দেহ প্রকাশ করলে, কোনও ‘কটূক্তি’ করলে কিন্তু কেউ পার পাবে না। সেটা পয়গম্বরকে অপমান করার সমতুল্য অপরাধ হিসাবে গণ্য হবে। অতএব মোহন ভাগবত মিষ্টি কথায় যেটা বলেছেন মসজিদের তলায় শিবলিঙ্গ না পাওয়া গেলেও কিছু যায় আসে না, আসলে সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের বিশ্বাসটাই সার কথা, সেটাই মসজিদ ভেঙে মন্দির করার রাস্তা সুগম করে দেবে। অত খোঁড়াখুঁড়ি, প্রমাণ ইত্যাদির বাপু আর কোনও দরকার নেই।

    অতএব মসজিদ ভেঙে মন্দির গড়ার কাজ ত্বরান্বিত হবে। ১৯৯১ সালে সংসদে আইন পাস হয়েছিল যে বাবরি মসজিদ ছাড়া দেশের আর কোনও ধর্মস্থানের স্টেটাস পরিবর্তন করা যাবে না। বিজেপি সেই আইনের তোয়াক্কা করে না। তাঁদের গেরুয়াবাহিনীর সামনে মুসলিমরা গুটিয়ে যাবে; দেশজুড়ে শত শত মসজিদ লাইন দিয়ে তাঁদের হাতে শহীদ হওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে। জ্ঞানব্যাপীর পর মথুরার শাহি ইদ্গাহ, তারপর কুতুব মিনার, তাজমহল... আরও কত; মধ্যপ্রদেশের কমল মৌলা মসজিদ, কর্ণাটকের বাবা বুদান দরগা, সীরঙ্গপাটনার মসজিদ-ই-আলা, খোদ টিপু সুলতানের প্রাসাদ, সেটাও নাকি হিন্দুদের জমির ওপর নির্মিত হয়েছে। এক কর্ণাটকেই নাকি ১০০০০ ধর্মস্থান আছে যা হিন্দু মন্দির ভেঙে তৈরি হয়েছে।

    এরপর তাঁরা বলবেন নূপুর শর্মাকে যখন শাস্তি দেওয়া হয়েছে তখন কানপুরে যাঁরা ঝামেলা করেছেন তাঁদেরও উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে। সেখানকার পুলিশ প্রশাসনের প্রতিক্রিয়া একদম প্রত্যাশিত। তাঁরা বলেছেন ‘দাঙ্গা’ পূর্ব পরিকল্পিত, পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার সাথে দাঙ্গাকারীদের যোগাযোগ আছে, বিদেশী পয়সা এসেছে, হোয়াটস অ্যাপে চক্রান্ত নিয়ে কথোপকথন হয়েছে, একেবারে ডিটো দিল্লি ‘দাঙ্গা’, ২০২০ নিয়ে সঙ্ঘীদের যা বয়ান ছিল তাই। যাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাঁরা প্রায় সবাই মুসলিম। ইসলামিক দুনিয়ায় হৈ চৈ হওয়ার পরে এক বিজেপি আধিকারিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এইসব হট্টগোলের মধ্যে টুক করে নূপুর শর্মার বরখাস্ত রদ করে দেওয়া হবে।

    একটা উল্টো সম্ভাবনাও আছে। এক জঙ্গি গোষ্ঠী ফ্রান্সের কার্টুন পত্রিকা চার্লি হেবদোর অফিসে আক্রমণ করে যে ভাবে বারো জনকে হত্যা করেছিল, ঠিক একই ভাবে এখানে যে কোনও উন্মাদ প্রত্যাঘাত করবে না তা কে বলতে পারে? সেটা হলে তা হবে ভয়ঙ্কর! এক মৌলবাদ আরেক মৌলবাদকে পুষ্ট করে। সেটা হলে হিন্দু মৌলবাদীদের দাপট যে কয়েক গুণ বৃদ্ধি পাবে তাতে কোনও সন্দেহ নেই। আরেসেস-বিজেপির ক্ষমতা এখন সর্বব্যাপী। প্রায় সব প্রতিষ্ঠান তাঁদের তাঁবেদারে পরিণত হয়েছে। বিরোধীরা মূক। এই ঘটনা নিয়ে তাঁদের কোনও জোরাল প্রতিবাদ নেই। তাই নূপুর শর্মার ঘটনা সাময়িক ভাবে গেরুয়াবাহিনীকে ব্যাকফুটে ঠেলে দিলেও, আদপে এই সংকট তাঁদের পক্ষে আরও অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করবে।

  • আলোচনা | ১০ জুন ২০২২ | ৩১৪৮ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • @দীপ | 193.218.118.158 | ১১ জুন ২০২২ ১৫:০৯508782
  • ভাজপাও তো তসলিমাকে নাগরিকত্ব দিচ্ছেনা | শুধু ছমাস ছমাস করে ভিসা বাড়াচ্ছে |  
  • দীপ | 2401:4900:3a09:ca82:6768:578e:3324:1898 | ১১ জুন ২০২২ ১৫:১৩508783
  • তখন কোনো মহাবিপ্লবীকে একটা কথাও বলতে শুনিনি! বুদ্ধদেব, প্রসূন, বিনীত গোয়েলের শাস্তি চেয়েছিলেন? 
    এখন ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে কথা বলতে এসেছেন। নির্লজ্জ ভণ্ড! 
     
    প্রসঙ্গত কোনো সভ্যদেশ হলে ঐ উদ্ধত মুখ্যমন্ত্রী ও যোগ্য পুলিশকর্মচারীদের ঘাড়ধাক্কা দিয়ে জেলে ঢোকানো হতো! 
    সাহস থাকলে তসলিমাকে নিয়ে একটা প্রতিবাদ পত্র লিখুন, ঐ‌ মুখ্যমন্ত্রী ও প্রসূন, বিনীতের শাস্তি চান! 
  • যে যেখানে দাঁড়িয়ে | 2405:8100:8000:5ca1::1d6:e9e7 | ১১ জুন ২০২২ ১৫:১৩508784
  • ভাজপা - কড়া হিন্দুত্ব
    কংগ্রেস - নরম হিন্দুত্ব, নরম মুসলমানত্ব
    বাম - কড়া মুসলমানত্ব
    তৃণমূল - নরম মুসলমানত্ব
  • দীপ | 2401:4900:3a09:ca82:6768:578e:3324:1898 | ১১ জুন ২০২২ ১৬:১৮508789
  • গতবছর‌ই অক্টোবর মাসে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর হামলা হয়েছে, তাদের পূজামণ্ডপ  ভেঙে দেওয়া হয়েছে। কোনো মহাবিপ্লবীকে এ নিয়ে একটা কথাও বলতে শুনিনি! বরং আমি প্রতিবাদ করলে আমার অভিসন্ধি নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, আমার বিরুদ্ধে অ্যাডমিনকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে! এখন তাঁরাই খবর ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে কেঁদে ভাসাচ্ছেন! নির্লজ্জ ভণ্ড!
  • হুলো | 2405:8100:8000:5ca1::ce:8f | ১১ জুন ২০২২ ১৬:৩৩508791
  • ওরে দীপচাড্ডি একটা বইয়ের আলোচনায় লেখকের মুসলিম  নাম দেখে ঝাপিয়ে পড়ে খিস্তিখাস্তা স্প্যামের গু ঢেলে এখন এখানে সহানুভুতি ভিক্কে চাইছিস? বাংলাদেশের সংখালঘু অত্যাচারের জন্য এদেশে মুসলিম নামের লোককে খিস্তি মেরে আবার নির্লজ্জ বলছিস? চাইছিস ত মুসলিমদের টাইট দিতে। তোর মত দুটাকার চাড্ডিরা তাই চায়। ত আবার বাতেলা কিসের রে?
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৬:৩৭508792
  • কারো কাছে সহানুভূতি চাইনি রে উল্লুক, সত্যটাকে সামনে এনেছি। 
    যা করতে পারিস করে নে!
  • Ranjan Roy | ১১ জুন ২০২২ ১৬:৫৮508796
  • দীপ
    দিস ইজ এনাফ!
     খোলাখুলি বলুন। এখানে একটি প্রবন্ধের সমালোচনা হচ্ছে। আপনি প্রায় প্রতি পোস্টে 'নির্লজ্জ ভণ্ড!' বলেই চলেছেন।
      কাকে বলছেন? আমাকে? ডিসিকে? এস কে? কেন? এই লাইসেন্স আপনাকে কে দিয়েছে? 
    এই পাতায় আলোচনায় আমরা তো আপনাকে বা অন্যমতের কাউকে গাল দিইনি? এমনকি লেখক বঙ্কিমকে গাল দেননি, যদিও আপনি এই অভিযোগ করেছেন। আপনি কতদিন গুরুতে আসছেন? কতটুকু জানেন যে তসলিমা প্রশ্নে পিটির বা অন্য সিপিএম সমর্থকদের সঙ্গে বিতর্কে জড়াইনি? এখানেও গোড়ার দিকে আপনাকে বা গুরুকে চাড্ডি বলার বিরুদ্ধে বলেছি।  সেদিনও মিশনকে গাল দেয়ার বিরুদ্ধে বলেছি।
     এটা আলোচনার জন্য। তাতে নানা মত থাকতে পারে। যে কেউ এখানে নিজের মত রাখতে পারেন--বিজেপি, সিপিএম, কং, তিনো , নাস্তিক, বৌদ্ধ, মুসলমান ক্রিশ্চান যে কেউ। এই পরিবেশ নষ্ট করবেন না।
    আপনি প্রথম থেকেই আলোচ্য প্রবন্ধের লেখককে মহাপন্ডিত অমুক বইটাও পড়েন নি? বলে ব্যক্তি আক্রমণ করছেন , কেন? উনি তো আপনাকে কিছু বলেন নি।
    আর আপনার বই পড়ার বড় অহংকার। কোন অহংকারই ভাল নয়। সেদিন আমাকে বললেন ইসলামিক সাম্রাজ্যবাদ বুঝতে নেহেরু আর রাহুল সাংকৃত্যায়ন পড়তে । আমি জানতে চাইলাম রাহুলের কোন বইটা? কোন অধ্যায়? আপনি নিরুত্তর।
    আবার বলছি--আলোচনা ঠান্ডা মাথায় করুন। গালাগালি দিয়ে নয়।
     অনুরোধ করছিঃ রাহুল নিয়ে আমাকে গাইড করুন।
    আমার কাছে রাহুলের এই বইগুলো আছে। সব হিন্দিতে।
     ভোলাগা সে গঙ্গা ( ২ ভাগ), মানব সমাজ ( ২ ভাগ); ভাগো নহী , দুনিয়া কো বদলো; বৌদ্ধ দর্শন; দর্শন দিগদর্শন (এই বিশ্বের দর্শনের কপেন্ডিয়ামে মুজতবা আলীর গবেষণার 'আল গজ্জালি' টাও আছে); ঘুমক্কড় শাস্ত্র, সিংহ সেনাপতি, বৈজ্ঞানিক বস্তুবাদ ইত্যাদি। এগুলোর কোনটায় ইসলামিক সাম্রাজ্যবাদ নিয়ে আলোচনা আছে যদি বলে দেন ভাল হয়, জেনে নেব।
     
  • হুলো | 2405:8100:8000:5ca1::90:8fd2 | ১১ জুন ২০২২ ১৭:০০508797
  • লোকের পড়াশোনা করে খেটেখুটে লেখার নীচে উঞ্ছবৃত্তি করে তুই সত্য সামনে আনছিস। হাহ হাহ হাহ হাহ হাহ হাহ হাহ। ওতে পোস্টপিছু ২ টাকা জোটে আর এদিক সেদিকে সহানুভুতি ভিক্কে করে বেড়াতে হয়। আজ পজ্জন্ত নিজের মুরোদে একটা শ পাঁচেক শব্দের লেখাও নামাতে পারিস নি।
    যা যা ইসবগুল খেগে যা।
  • @দীপ | 2405:8100:8000:5ca1::97:6595 | ১১ জুন ২০২২ ১৭:১৮508801
  • হিন্দুদের আবার মন্দির তার আবার ভাঙা। পারলে ঐশ্বানীকে জেল থেকে ছাড়িয়ে দেখাক।
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:০৫508804
  • মাননীয় রঞ্জন,  আমি কোনো অহংকার দেখাইনি। আমি জানি, আমি বিশেষ কিছুই জানিনা। মুজতবা আলী সাহেব বলতেন, তিনি কিছুই জানেন না। সেখানে আমরা কোথায়? 
    কিন্তু আমাকে দিনের পর দিন আক্রমণ করা হয়েছে, নানারকম নোংরা কথা বলা হয়েছে।
    আমাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করলে আমাকেও উপযুক্ত প্রত্যুত্তর দিতে হবে!
     
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:১৯508805
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:২৮508806
  • Ranjan Roy | ১১ জুন ২০২২ ১৮:৩১508807
  • আমি মাননীয় ওসব কিছুই না।  কিন্তু  এই  আলোচনায় এবং বঙ্কিম আলোচনায় গোড়ায় কে আপনাকে কিছু  বলেছে? আপনি প্রথম থেকেই লেখককে  পণ্ডিত,  আরেক জনকে অন্য কিছু বলে  শুরু  করেছেন। 
       আর নির্লজ্জ ভণ্ড liberals ও  বামপন্থী দের  বলেছেন।  ওরা এখানে কোথায় আপনাকে কিছু  বলেছেন? কতবার সেই  একই ভিক্টিম কার্ড খেলবেন?
    বিষয় নিয়ে আলোচনা করুন,  অনুরোধ। 
      আনন্দ মঠের পৃষ্ঠ ভূমি নিয়ে অন্য লেখায় ভালো মন্তব্য করেছিলেন।  
      আবার  সেই  mode এ  আসুন, প্লিজ। 
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:৩৪508808
  • মাননীয় রঞ্জন, এগুলো কিন্তু ভোলগা থেকে গঙ্গা তেই আছে। এখানে কিন্তু স্পষ্টভাবে লুণ্ঠন ও বলপূর্বক ধর্মান্তরের কথা আছে।
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:৪২508809
  • আর আমার কাছে কংগ্রেস, সিপিএম, বিজেপি, তৃণ - সবাই বজ্জাত। এদের একটার‌ও প্রতি আমার বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধা নেই! 
    কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মহাবিপ্লবীরা নিজেদের বিরাট আদর্শবাদী দেখাতে চান, কিন্তু করেন এক‌ইরকম ধান্দাবাজি! সেজন্য‌ই তাঁঁঁঁঁঁ
    তাঁদের বিদ্রুপ করেছি!
     
    খুব স্পষ্ট ভাষায় বিজেপি হিন্দু সাম্প্রদায়িকতাকে তোল্লাই দেয়, মাকুরা মুসলিম মৌলবাদকে তোল্লাই দেয়! আর মমতা দুজনের গালেই চুমু খায়!
  • অমলকান্তি | 80.67.167.81 | ১১ জুন ২০২২ ১৮:৫৪508812
  • দীপ রোদ্দূর হতে চেয়েছিল
  • হেহে | 2405:8100:8000:5ca1::eb:9900 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:০১508813
  • ওজন্যি সব লেকায় গিয়ে ছিরিক ছিরিক হাগে।
  • Ranjan Roy | ১১ জুন ২০২২ ১৯:০২508814
  • ভোলগা থেকে গঙ্গার আপনার দেওয়া কপি আর একবার দেখুন।  সেখানে মুসলমান শাসক সাম্রাজ্য বলতে গোটা ভারত সাম্রাজ্যের কথা বলছেন।  যেখানে হিন্দুরা বেশি।  এও  বলছেন হিন্দু  সমেত সমস্ত প্রজা খুশি হলে  (ভারত) সাম্রাজ্যের মঙ্গল। 
    উনি মোল্লার ইসলামের প্রতি  সম্রাটের কর্তব্য এবং  ধর্মীয় আদেশের অবমাননার প্রশ্ন উড়িয়ে দিয়ে আগে রাষ্ট্রের স্বার্থ দেখার কথা বলছেন। 
    আবার এই  বাবা নুরুদিন  অধ্যায়ের আগে পাতার ওপরের প্যারায় শক্তি দিয়ে হিন্দু রাজ্যের কথা রয়েছে। 
    কথা হচ্ছে প্যান ইসলামের স্বপ্ন কিছু  নতুন কথা  নয়।  
    কিন্তু,  আপনি যেমন  সঠিক ভাবে  বলেছেন-- মোগল শাসকদের মানসিকতা দুনিয়া জুড়ে খোদার সাম্রাজ্য গড়ার ব্রত ছিল  না।  তারা ভারতে অধিষ্ঠিত হয়েই খুশি  ছিল। 
    বঙ্কিম অবশ্যই কোম্পানির আমলে জমিদার দের  লুঠপাট নিয়ে তিক্ত ছিলেন। কিন্তু সাম্রাজ্য নিয়ে কিছু  বলেন নি। 
    बन्दे मातरम গান থেকে স্পষ্ট ওনার মানস প্রতিমা বঙ্গ জননী, ভারত মাতা নয়। 
     
    আর আপনার সঙ্গে মতে  না মিললেও আপনাকে chaadi ভাবি ना।  সিরিয়াস পাঠক হিসেবেই  দেখি। 
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:০৫508815
  • আর এবারের নির্বাচনের আগে জনৈক ধর্মোন্মাদকে নিয়ে নাচানাচি করা হয়েছিল। তাকে নিপীড়িত মানুষের প্রতিনিধি, সাবঅল্টার্ন রাজনীতির প্রতিনিধি হিসেবে দেখানো হয়েছে। এই ধর্মোন্মাদ প্যারিসে হামলার সমর্থন করে, জনৈক অভিনেত্রীকে (আমি তার সমর্থক ন‌ই) গাছে বেঁধে পেটাতে চায়! তখন কিন্তু কোনো প্রতিবাদ আমি দেখিনি!
  • হেহে র বাপ | 3.142.48.121 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:০৫508816
  • সে চিরিক হোক বা ক্যাচরকরেইহাগুক
    তোকে ওই গু আর চেটে খেতে হবেনি কো 
    বাড়ি আয় বাপধন 
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:২৪508817
  • https://fb.watch/dAlIspu9mA/
     
    বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর আক্রমণ নিয়ে ধর্মোন্মাদের বক্তব্য। যদিও এই ধরনের প্রকাশ্য হুমকি নিয়ে একটি কথাও শোনা যায় না!
    নুপূর শর্মার কথা আর‌ এর কথার মধ্যে কোনো পার্থক্য আছে বলে মনে হয়না!
  • Ranjan Roy | ১১ জুন ২০২২ ১৯:৩৭508818
  • Dip
    কে বলেছে  লুঠপাট মন্দির ভাঙা হয় নি?  এ  নিয়ে অনেক দলিল আছে।  একগাদা।  औरंगजेब  এর আদেশে benaras এর  মন্দির ভেঙ্গে  মসজিদ তৈরি হয়েছে। লাল কেল্লা ও  তিন চার বার ভাঙা হয়েছে।  একবার হিন্দু  আর বাকি মুসলমানদের হাতে।  আবার বৌদ্ধ स्तूप ভেঙ্গেছেन হিন্দুরাজা pushyamitra shunga। 
      প্রশ্ন হল কয়েকশ বছর  আগে  যা  ঘটেছে  তার  দায় কি  আজকের মুসলমানদের  বইতে হবে? নাকি  আজ কি  হচ্ছে  সেটা  দেখাতে হবে?
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:৪৫508819
  • কেউ বলছে না। বাবরি মসজিদ হোক আর বাংলাদেশের ‌হিন্দু মন্দির হোক, দুটো ভাঙাই সমান অপরাধ বর্বরতা।
    উত্তর ও মধ্য ভারতে দলিত ও মুসলিমদের উপর অত্যাচার চূড়ান্ত ঘৃণ্য। এক‌ইভাবে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন চূড়ান্ত অন্যায়!
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ১৯:৪৭508820
  • ফকির বলিল, বাবা! শুনিতে পাই, তুমি হিন্দুরাজ্য স্থাপন করিতে আসিয়াছ, কিন্তু অত দেশাচারের বশীভূত হ‌ইলে, তোমার হিন্দুরাজ্য সংস্থাপন করা হ‌ইবে না। তুমি যদি হিন্দু মুসলমানে সমান না দেখ, তবে এই হিন্দু মুসলমানের দেশে তুমি রাজ্যরক্ষা করিতে পারিবে না। তোমার রাজ্য‌ও ধর্মরাজ্য না হ‌ইয়া পাপের রাজ্য হ‌ইবে। সেই একজন‌ই হিন্দু মুসলমান সৃষ্টি করিয়াছেন। যাহাকে হিন্দু করিয়াছেন, তিনিই করিয়াছেন; যাহাকে মুসলমান করিয়াছেন, তিনিই করিয়াছেন। উভয়ে তাঁহার সন্তান, উভয়ে তোমার প্রজা হ‌ইবে। অত‌এব দেশাচারের বশীভূত হ‌ইয়া প্রভেদ করিও না। প্রজায় প্রজায় প্রভেদ পাপ। পাপের রাজ্য থাকে না।"
     
    এটাই রাজধর্ম। শাসকের কাছে এই সমদর্শন প্রত্যাশিত।
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ২০:৩৮508821
  • আর সেই যুক্তিতে আজ মনুসংহিতা নিয়ে নাচানাচি করার‌ও কোনো কারণ নেই।
    আমাদের সামনের দিকে তাকাতে হবে, পেছন দিকে নয়!
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ২০:৪০508822
  • আর ধর্মনিরপেক্ষ মতাদর্শকে আমি অবশ্য‌ই শ্রদ্ধা করি, কিন্তু ধর্মনিরপেক্ষতার নামে ভণ্ডামো আমার কাছে চূড়ান্ত ঘৃণ্য!
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ২০:৪৭508823
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ২০:৫০508824
  • আজ বানরসেনা যদি ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে এই উল্লুকটির বাড়িতে হামলা চালায়, তখন কি বলবেন? মৌলবাদী শক্তির বিরোধিতা করতে হবে, কাউকে প্রশ্রয় দিলে হবেনা!
  • দীপ | 42.110.138.226 | ১১ জুন ২০২২ ২২:০৯508827
  • এই ব্লগেই তো হুদুড়-বাদুড় মার্কা নানারকম গপ্প লেখা হয়েছে। আজ যদি গোসন্তানেরা এই অভিযোগে হামলা করে, তখন কি বলবেন? 
    একটি মৌলবাদী শক্তিকে প্রশ্রয় দিলে আরেকটি শক্তিও বেড়ে ওঠে!
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। না ঘাবড়ে মতামত দিন