• টইপত্তর  আলোচনা  বই

  • মরণকূপ (একটি রোমাঞ্চকর বাংলা উপন্যাস ) লেখক শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী

    Nabakumar Das লেখকের গ্রাহক হোন
    আলোচনা | বই | ০৭ অক্টোবর ২০২১ | ৮২৮ বার পঠিত
  • পুস্তক সমালোচনা

    মরণকূপ (একটি রোমাঞ্চকর বাংলা উপন্যাস ) লেখক শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী, প্রকাশক - অভিযান পাবলিশার্স, মূল্য - ২২০ টাকা / ১০ ডলার

    নিজের পছন্দে বই কেনার পাশাপাশি এখনো অনেক বই উপহার হিসাবে পাই। সব বই যে পড়ি তা নয়। সময় ও ইচ্ছের অভাবে ব্যক্তিগত লাইব্রেরির অনেক বইয়ের পাতা এখনো ওল্টাতে পারিনি। উপরন্তু ইদানিং আগের মত লাইব্রেরীতে যাওয়া হয়ে ওঠে না তবুও বই পড়ি অন লাইন অফ লাইন দুই মোডেই। এছাড়া সম্প্রতি অডিও বুক (শ্রাব্য/শ্রুতি পুস্তক) শোনার চেষ্টা করছি। যাই হোক কিছুদিন আগে ব্যক্তিগত কাজে আমার অফিসে এসেছিলেন অবসরপ্রাপ্ত একজন ভদ্রলোক। কাজের কথা হওয়ার পরে তিনি সম্প্রতি তাঁর পড়া একটি বইয়ের কথা বললেন। উৎসাহিত হলাম। দারুন একটা ওয়ান লাইনারে বর্ণনা করে বলেছিলেন তিনি "তরুণ ডাক্তারবাবুর লেখা ভারতীয় নৃত্যকলা সম্পর্কিত অসাধারন থ্রিলার কাহিনী"।
  • আরও পড়ুন
    লাফ  - Saswati Basu

  • সপ্তাহ দুয়েক আগে বইটি দুয়ারে সরকার-এর মাঝে হাতে পেলাম। হ্যাঁ, উপহার হিসাবে আরো একটি বইয়ের সঙ্গে এটি। বইটির নাম 'মরণকূপ'। লেখক শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী, পেশায় চিকিৎসক। নেশা মনোরোগ গবেষণা, সংগীত, অঙ্কন ও ভ্রমণ। আমার মনে হয় লেখক নিজেও ভারতীয় নৃত্যশৈলী, বিশেষত ইতিহাস ও ভরতনাট্যম বিষয়ে রীতিমত গবেষণা করে এই লেখায় হাত দিয়েছেন এছাড়া জটিল মনোসমীক্ষণের ক্ষেত্রেও তাঁর মুন্সিয়ানা সহজ ভাষায় ফুটিয়ে তুলেছেন এই উপন্যাসে। না, রোমাঞ্চ উপন্যাসের স্পয়লার এলার্ট হিসাবে গল্পটি আমি বলব না তবে সংক্ষিপ্ত এই আলোচনায় ছুঁয়ে যাচ্ছি আঠাশটি পর্বে বিভক্ত প্রায় একশো চৌদ্দ পৃষ্ঠার এই কাহিনীর ক্যানভাস যার কিছুটা আভাস আছে বইটির প্রথম ব্লার্ব ও মলাটের পিছনের পাতায়।

    কলকাতার কাছাকাছি মফঃস্বল বাণীপুর-অশোকনগরের মেলায় বহুল প্রচলিত এক মরণকূপের ঘূর্ণাচক্র থেকে শুরু হল এক ভয়ংকর মৃত্যু মিছিলের। মারা গেলেন এক ক্ষয়িষ্ণু পরিবারের সদস্যা আবৃত্তিকার কবি ও শিল্পী সুচন্দ্রা ভৌমিক। সেই শুরু, খুব কম সময়ের মধ্যেই রহস্যজনকভাবে মৃত্যু ঘটছে একের পর এক উদীয়মান তরুণ প্রতিভার। চিত্রকর প্রিয়ম থেকে শুরু করে তথ্যচিত্র নির্মাতা শাশ্বতী নাথ, সাংবাদিক কবি যোগমায়া, সেতারবাদক আফজল প্রমুখের। এই মৃত্যুগুলি কি নেহাতই সমাপতন? নাকি এর পিছনে গুপ্ত আছে কোন গভীর চক্ৰান্ত? এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে আলাপদ্মম নামে সর্বদা মাত্র আঠাশজন সদস্য-সদস্যার একটি হোয়াটস্যাপ গ্ৰুপ। মিথ, রিয়ালিটি ও ভার্চুয়াল দুনিয়ার অপূর্ব বন্ধন ও দ্বন্দ্ব এই কাহিনীর পাতায় পাতায়।

    এই কাহিনীর মুলে ভারতনাট্যমের অন্যতম অসমযুক্ত মুদ্রা 'আলাপদ্মম'। আলাপদ্মমের সূত্র ধরেই আমরা পৌঁছে যাই ভারতবর্ষের নানান প্রান্তে। কলকাতা থেকে গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ, ওড়িশা। কাহিনীর জট খুলতে আসেন দুই চিকিৎসক। আশুদা ওরফে বিপন্ন পিতা আশুতোষ মুখোপাধ্যায় এবং এই সিরিজের কাহিনীকার তথা ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞ অনুজ অর্কপ্রভ সান্যাল । সিরিজের দ্বিতীয় কাহিনী হওয়ায় হয়ত খুব স্বাভাবিকভাবেই প্রথম কাহিনীর [নৈবর্ক্তিক] কিছু রেফারেন্স সূত্র আছে। তাই ফিরে ফিরে আসে অর্কর প্রেমিকা প্রমিতির কথা, প্রচ্ছন্নভাবে আসে নকশাল কিংবা মাওবাদী আন্দোলনের সূত্র এবং আশুদার ছেলে ভাবী চিকিৎসক ঋকের কলকাতার হাসপাতালে অন্যায়ভাবে মারধরের কথা। অনেক কথা না বলেও অনেক কিছু ইঙ্গিতে বলে দেন শুদ্ধেন্দুবাবু। মুন্সিয়ানা সেখানেই। তবে এখনো ধন্দে থাকি হিমাদিত্য বসু কিংবা মল্লার হোসেনের প্রকৃত পরিচয় নিয়ে। ধোঁয়াশায় আছে পুলিশ বিভাগে সর্বানন্দ ঝা-র প্রকৃত অবস্থান নিয়েও যিনি পশ্চিমবঙ্গে, গুজরাতে এমনকি লখনউতেও পুলিশি দায়িত্ব সামলান। তবে যথার্থ মনোবিশ্লেষন সম্পন্ন এপারের বাংলা থ্রিলার বোধ হয় নতুন লেখক পেয়ে যাচ্ছে। তবে বলার কথা এই লেখক শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী নিয়মিত কবিতা লেখেন, পত্রিকা সম্পাদনা করেন। ওনার যে লেখা প্রথম পড়ি সেটা কবিতার মনোবিশ্লেষন, 'কবিতা বাড়ির আত্মজন'। সে নিয়ে আরেকদিন লিখব না হয়। আচ্ছা একটা প্রশ্ন আসছে মনে, কিরীটি রায়ের রচয়িতা নীহাররঞ্জন গুপ্ত চিকিৎসক ছিলেন না?

    নবকুমার দাস
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • | ০৭ অক্টোবর ২০২১ ০৯:৫৪735023
  • ইন্টারেস্টিং বই মনে হচ্ছে। আপনার আলোচনার ধরণটা ভাল লাগল।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভেবেচিন্তে মতামত দিন