ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • সিপিআই এম পার্টি দপ্তরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন প্রসঙ্গে : বামপন্থীদের দেশপ্রেমের পরীক্ষা নেওয়ার যোগ্যতা অনেকেরই নেই

    bodhisattvagc dasgupta লেখকের গ্রাহক হোন
    ০৯ আগস্ট ২০২১ | ৪৫০ বার পঠিত
  • #rebuildbengalleft

    যাঁরা সংবিধান পূজা করার পরে কৃষকের স্বাধীনতা বড় বিপণনকারী সংস্থার পায়ে লুটিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে, কৃষি আইন আনতে, অর্জিত অধিকার হরণের উদ্দেশ্যে, শ্রম আইনের পরিবর্তন আনতে, দীর্ঘদিন ধরে গড়ে ওঠা জাতীয় সম্পদ বিকিয়ে দিতে পিছপা হন‌ না, হতদরিদ্র মানুষের নাগরিকত্ব হরণের জন্য ডিটেনশন সেন্টার তৈরি করেন, দুই রাজ্যের মধ্যে কার্যত জাতিগোষ্ঠীর যুদ্ধ ঘোষণা করেন, যাঁদের রামরাজ্যে মানুষ বাচ্চাকাচ্চা সহ হেঁটে পাড়ি দেয় হাজার কিলোমিটার, মৃত প্রিয়জনকে ‌নদীতে ভাসিয়ে দিতে বাধ্য হয়, ভ্যাকসিন নেবার জন্য মারামারি করতে বাধ্য হয়, খাদ্য, বস্ত্রে স্বনির্বাচনের অধিকার হারায়, অভিযুক্ত বিচার হবার আগে এনকাউন্টারের সম্মুখীন হয়, ডাক্তার বা দেশের শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় ও তার পরিবার আক্রান্ত হন শুধু তাঁদের নিম্নবর্গীয় বা সংখ্যালঘু পরিচয়ের কারণে, যারা সারের দামের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা কৃষিজীবিকে, বিচার চাওয়া মহিলাদের মাওবাদী বলতে পারেন, কর্মচারীদের ধর্মঘটের অধিকার কেড়ে নিতে পিছপা হন না, বিধানসভায় ভাঙচুর করতে পারেন,  উগ্র দক্ষিণপন্থী দলের সঙ্গে সরকারে থাকতে পারেন, যাঁদের সংখ্যালঘু সংক্রান্ত দুশ্চিন্তা তাদের জনসংখ্যার অনুপাতের সঙ্গে যুক্ত,  নিম্নবর্গ ঘরহারানো মানুষকে একবার সিপিএম এর সমর্থক অনুপ্রবেশকারী বলতে পারেন আর ওয়ান‌ নেশন রেশন কার্ড যে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবহার হবে জেনেও সেই কেন্দ্রীয় ব্যবস্থায় সায় দিতে পারেন, সমর্থনের বিনিময়ে একই দলের বিভিন্ন গোষ্ঠীকে যাঁরা ওঠাতে নামাতে পারেন, ব্যর্থ ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার সুযোগ নেওয়া চিটফান্ডের কোম্পানির পয়সায় রাজনৈতিক দল চালাতে পারেন, যাঁরা রেল এর সাবোটাজের ঘটনাকে বামেদের দায়িত্ব বলে পৌরসভা নির্বাচন জেতেন সংবাদ মাধ্যমের সাহায্যে, যাঁদের দাপটে নির্বাচিত সংখ্যালঘু জনপ্রতিনিধি ও তাঁর সমর্থকরা সামাজিক বয়কটের শিকার হন, পঞ্চায়েত নির্বাচনে অন্য কোন দল প্রার্থী দিতে পারে না,  তাঁদের কারো কাছেই বামপন্থীদের বিশেষতঃ দেশপ্রেম প্রসঙ্গে শেখার কিছু নেই। 

    বামপন্থীরা ১৯৪২ এর আগে ও পরে, ১৯৪৮ এর আগে ও‌ পরে, ১৯৬২ র আগে ও পরে, ১৯৭১ এর আগে পরে, আশির দশকে কাশ্মীরে, পাঞ্জাবে, আসামে দার্জিলিং ও‌ ত্রিপুরায় একাধারে তথাকথিত দেশপ্রমী এবং বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তির হাতে প্রাণ দিয়েছেন, জেল খেটেছেন, নিরপরাধে বন্দী থেকেছেন। 

    ৯ এর দশকে সংখ্যালঘুদের উপরে আক্রমণকে বামপন্থীরাই প্রশাসনিক ভাবে আটকেছেন, জাতিদাঙ্গায় পুড়তে পুড়তেও সংহতির ক্ষতি হতে দেন‌ নি। একবিংশ শতকে ত্রিপুরা ও বাংলায় নতুন করে আক্রমণ নামিয়ে এনেছেন যাঁরা শুধুমাত্র বামপন্থীদের নিশ্চিহ্ন করার উদ্দেশ্যে, ও তাঁদের অন্ধ সমর্থক সংবাদ মাধ্যম কারো কাছেই বামপন্থীদের দেশপ্রেমের পরীক্ষার প্রয়োজন নেই।

    সর্বত্র শ্রমিক সংগঠন তৈরি, ভূমি সংস্কার, প্রগতিশীল অন্তর্ভুক্তি, জাতীয় প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা, দেশজুড়ে আপোষহীন ধর্মনিরপেক্ষতা, বিজ্ঞাণ ও সমাজবিজ্ঞান চর্চায় সম গুরুত্ব,  সংবিধানের মূল ধারণার প্রতি আনুগত্য, স্বাধীন বিদেশনীতির সমর্থনই ক্ষমতার অন্দরমহলের দৃষ্টিতে যাঁদের এযাবৎ মূল রাজনৈতিক অপরাধ, দেশাত্মবোধের প্রশ্নে তাঁদের সত্যিই রক্ষণাত্মক হবার কিছু নেই।

    মহামারীতে যাঁরা অভাবী, অসুস্থ, জরাগ্রস্ত, কর্মহীন মানুষের পাশে থেকেছেন তাঁদের দেশপ্রেম আনুষ্ঠানিকতার ঊর্ধে।  সংবিধানের বৈজ্ঞানিক ভাবধারাকে, ইতিহাস চর্চায় মানুষের ভূমিকাকে তাঁরাই তুলে ধরবেন। অতীতের খাতায় কলমে কল্যাণমূলক রাষ্ট্র তাঁদের আন্দোলনেই জনমুখী হয়েছিল, ভবিষ্যতেও হবে।

    বোধিসত্ত্ব দাশগুপ্ত, ৮ অগাস্ট, ২০২১
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • ইয়েস কমরেড | 23.106.249.35 | ০৯ আগস্ট ২০২১ ১৯:০২496607
  • #rebuildbengalleft লিখে বামেদের কন্টি ডিফেন্ড করে গেলে হবা? আইএসএফ জোট নিয়েও ত একটি গোরুর রচনা লিখেছিলেন। বামেরা জদি সঠিক পথেই থাকে, তাইলে আর rebuild কেন?


    বিপ্লবের ত খোঁজ নাই, সত্যিকারের analysis কবে আসবে কমরেড?

  • অপু | 2409:4060:95:e2b5::184e:a1 | ০৯ আগস্ট ২০২১ ১৯:৫১496608
  • এখানে কবি থুড়ি প্রাবন্ধিক "ঠিক কী"  বলতে চাইলেন? কেন ই বা চাইলেন? জাতি জানতে চায়.....

  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভ্যাবাচ্যাকা না খেয়ে মতামত দিন