• খেরোর খাতা

  • পুজো_না'পুজো

    Jaydip Jana লেখকের গ্রাহক হোন
    ২৪ অক্টোবর ২০২০ | ৭৭ বার পঠিত | ৪/৫ (২ জন)
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • কয়েকবছর  আগেও আমি পুরো ভেতো বাঙালি  ছিলাম। আজকাল তো আদিখ্যেতা করে ভাত না খেলেও কিছু মনে হয় না।


     দুর্গাপুজোর অষ্টমীর দিন আমাদের  বাড়িতে ভাত খাওয়ার রেওয়াজ ছিল না। আজও নেই। লুচি আমার পছন্দের  তালিকায় কোনও কালেই নেই।  আমাদের স্কুলে যেহেতু পুজো হয়, তাই অষ্টমীর দুপুরে ভোগ খেতে যেতাম।  বড় হয়ে স্কুল পেরোলে আর যেতে ইচ্ছে করত না।  তাই দুপুরে মাছ ভাত খাওয়ার জন্য মেজমা মানে মেজোপিসিমনির বাড়িতে চলে যেতাম। তারপর স্কুল কলেজ পেরিয়ে আবারও যখন নতুন সম্পর্কে  জড়ালাম তখন ওদের বাড়ি। ও বাড়িতেও অষ্টমীতে লুচির রেওয়াজ ছিল না। 


    ২০০৬ এ আমার এইচ আইভি  ধরা পড়ল দুর্গাপুজোর আগে আগেই। স্বাভাবিক ভাবেই (?) ভালবাসার মানুষটা নিজের নেগেটিভ  রিপোর্ট পেয়ে একসাথে আর থাকতে চায়নি।  মনে আছে সেবছরও ওর মা দুপুরে খেতে যেতে বলেছিলেন। আমাদের সম্পর্কের ভাঙনটা আমার সাথে সাথে ওদেরও সামলাতে সময় লেগেছিল।  ৩৭৭ বহাল অবস্থায়ও আসলে  সম্পর্কটা শুধুমাত্র  আমাদের দুজনের ছিল না। কাকু কাকিমা ততদিনে আমার তথাকথিত শ্বশুর শাশুড়ী। কাকিমা যখন  পুজোর কেনাকাটায় আমার জন্য প্যান্ট শার্ট কিনতো তখন দাদাভাই মানে ওর দাদা আওয়াজ দিতো, "বউমার জন্য শাড়ি কোথায়! "আর কাকিমার  সপ্রতিভ উত্তর, "ওদের কে বর কে বউ আমি জানিনা, আমার চোখে ওটা আমার আর একটা ছেলেই। তাই চাকুরি করা আমার মডার্ণ বৌমা জিনস আর শার্টই পড়বে।"  


    সে বছরে সারা দুপুর ও বাড়িতে কাটিয়ে অষ্টমীর সন্ধ্যেতে  পুজোর উপহার হিসাবে সদ্যপ্রাক্তন হয়ে যাওয়া মানুষটা, বাড়ীর কাছে পুজোমন্ডপের অনুষ্ঠানে এইচ আইভি  সচেতনতার স্বার্থে  আমার গোপন কথা  গোপন রাখেনি।  এইচ আইভি ধরা পড়া আর সম্পর্কের ভাঙনের সাথে সাথে হাটের মাঝে নিজের  গোপনীয়তার সবটুকু হাট হয়ে গেছিল মানুষটার বদান্যতায়। সন্ধিপুজোর সন্ধিক্ষণে কঠোর বাস্তবের রূঢ়তায় হারিয়ে ফেলেছিলাম নিজেকে সেদিন। 


    ২০০৬ থেকে আজ ২০২০,  সেদিনের ঘটনা সামলে ওঠার পরথেকে  হয়তো অন্য অনেকের ভালো থাকার জন্য নিজের কথা নিজেই বলে বেড়াই। কারণ আমি জানি এইচ আইভি নিয়েও সুস্থ থাকা যায়। আমি আজও বিশ্বাস করি আমি কোনও অন্যায় করিনি। পুরুষে পুরুষে যৌনতায় কন্ডোমের ব্যবহার নিয়ে আজ ৩৭৭ পরবর্তী সময়েও আলোচনা হয় কতটা!  কন্ডোম আর এইচআইভি যৌনস্বাস্থ্য প্রচার সেটা তো স্বাস্থ্যদপ্তরের ঘাড়ে দিয়ে নিজেদের দায় এড়ানোতেই  অভ্যস্ত আমরা। আজও আসলে  অন্দরমহলের মধ্যে  এসব নিয়ে আলোচনায় ছুঁতমার্গ কমেনি।  টিভির পর্দায় কন্ডোম বা স্যনিটারি ন্যাপকিনের বিজ্ঞাপন এড়িয়ে চ্যানেল পাল্টেদিতেই অভ্যস্ত সমাজ আসলে  বিজ্ঞানের মুখোমুখি হতে ভয় পায় আর সত্যটাকে এড়িয়ে চলে নিজের অসচেতনতার দায় এড়াতেই  ভালবাসে!   


    পুজো আসে পুজো যায়, ঢাকের আওয়াজ, ছাতিমের গন্ধে, অঞ্জলির মন্ত্রে, আজও হারিয়ে যাই চোদ্দ পনেরো বছর আগের সন্ধেবেলাটায়। দুর্গাপুজোর অষ্টমী তাই লুচি আর ভাতের মতই আমার কাছে  আজ আর কখনও  আলাদা করে দাগ কাটেনা।

  • ২৪ অক্টোবর ২০২০ | ৭৭ বার পঠিত | ৪/৫ (২ জন)
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
আরও পড়ুন
আঁধি - Jahar Kanungo
আরও পড়ুন
আলু - Samik Sanyal
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আদরবাসামূলক মতামত দিন