• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
    বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে।
  • আরটিআই অ্যাক্টে তথ্য জানতে চাওয়ায় মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে হাজতবাস

    দময়ন্তী
    বিভাগ : টাটকা খবর | ০৮ নভেম্বর ২০০৯ | ২৮ বার পঠিত
  • বিহার নামক রাজ্যটির আইনশৃঙ্খলা মেনে চলার সুনাম তেমন কোনোকালেই নেই। আর সেখানকার "আইনরক্ষক'দের তো যতটা পারা যায় এড়িয়ে চলাই ভাল। কিন্তু রাজ্যবাসীর পক্ষে তো আর সবসময় আইনরক্ষকদের এড়িয়ে চলা সম্ভব হয় না, তাই বাধ্য হয়েই তাঁরা নিজেদের অধিকার রক্ষার্থে আইনের সাহায্য নেবার চেষ্টা করেন। "তথ্য জানার অধিকার' প্রয়োগ করে বিহারের বিভিন্ন সরকারী দপ্তর থেকে তথ্য জানতে চেয়ে বিভিন্নরকম হয়রানির মুখে পড়েছেন ৪২ জন মানুষ। তাঁদের অনেকেই এখনও ভুয়ো মামলায় ফেঁসে জেলে বন্দী।

    সেনাবাহিনী থেকে অবসরপ্রাপ্ত চরণদীপ সিং ২০০৭ সালের ১২ই ডিসেম্বর, আট বছর আগে খুন হওয়া তাঁর ছেলে ও মেয়ের হত্যা তদন্তের অগ্রগতি জানতে চেয়ে দানাপুরের অ্যাসিসট্যান্ট এস পি'র কাছে আরটিআই অ্যাক্টে আবেদন করেন। ২০০৮ এর ১৬ইমার্চ পুলিশ তাঁকে ধর্ষণের ভুয়ো মামলায় জড়িয়ে দেয়। ৯ই এপ্রিল থেকে ২রা মে পর্যন্ত তিনি হাজতবাস করতে বাধ্য হন। অবশেষে একটি এনজিও সংস্থার সাহায্যে জামিনে মুক্তি পান। তবে পুলিশ তাঁকে শাসিয়ে রেখেছে যে, ঐ খুনের তদন্তের বিষয়ে তথ্য জানার আবেদন নিয়ে আর বেশী এগোলে যে ফল খুব খারাপ হবে।

    ২০০৬ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবর নাগাদ শিবপ্রকাশ রাই নামে বক্সারের এক কৃষক, প্রধানমন্ত্রী রোজগার যোজনা'র অন্তর্গত ৬৯টি ব্যাঙ্কের দেওয়া ঋণ ও ভর্তুকীর পরিমাণ ও তৎসম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য জানতে চেয়ে আরটিআই অ্যাক্টে আবেদন করেন। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে তাঁকে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের অফিসে ডেকে পাঠিয়ে তাঁর আবেদনের উত্তর পেয়ে গেছেন, এই মর্মে কিছু কাগজে সই করে দিতে আদেশ করা হয়। তিনি অস্বীকার করেন। ফলস্বরূপ ১লা মার্চ সরকারী কর্মীকে তাঁর কর্তব্যপালনে বাধা দেওয়ার অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ২৯ দিন হাজতবাস করতে বাধ্য হন।

    গতকয়েক বছরে আরটিআই অ্যাক্টে আবেদন করা ৪২জন আবেদনকারীর হয়রানি ও ভোগান্তির মাত্র দুটো ছোট্ট ঘটনা এখানে উল্লেখ করা হল। ৪২ জনই তথ্য আধিকারিকদের বিরুদ্ধে অযথা হয়রানি করা ও মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ এনেছেন। বিহার মানবাধিকার কমিশন এই অফিসারদের সাসপেন্ড করার সুপারিশ করেছেন। BHRC র সদস্য বিচারপতি রাজেন্দ্রপ্রসাদ রাজ্যসরকারকে লেখা তাঁর ২৯শে অক্টোবরের চিঠিতে অত্যন্ত কড়া ভাষায় তথ্য আধিকারিকদের সমালোচনা করে বলেছেন এই ঘটনা বিহারের সাধারণ মানুষের মানবাধিকার লঙ্ঘনের এক চরম উদাহরণ। মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী অফিসারদের অবিলম্বে সাসপেন্ড করে বিভাগীয় তদন্তের আদেশ দেবার সুপারিশ করে, বিচারপতি প্রসাদ রাজ্যসরকারকে চিঠিপ্রাপ্তির ছয় সপ্তাহের মধ্যে BHRC র কাছে রিপোর্ট দিতে বলেছেন। মানবাধিকার কমিশানের অভিযুক্তের তালিকায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেট থেকে শুরু করে সাব-ডিভিশনাল পুলিশ অফিসার, সার্কল অফিসার, বিডিও, থানার অফিসার-ইন-চার্জ পর্যন্ত সর্বস্তরের অফিসাররাই আছেন। মিথ্যে মামলার অভিযোগ এসেছে রাজ্যের ১৪টি জেলা থেকে, যার মধ্যে সর্বোচ্চ আটটি অভিযোগ হল পাটনা থেকে।

    বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশকুমার সর্বপ্রথম আরটিআই কলসেন্টার তৈরী করে সারাদেশে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন। কিন্তু এই ৪২টি ঘটনা রাজ্যবাসীর মানবাধিকার রক্ষায় দগদগে ক্ষতের মত। অস্ত্রোপচারের কারণে মুখ্যমন্ত্রী ছুটিতে থাকায় তাঁর মন্তব্য পাওয়া যায় নি। বিহারের তথ্য ও জনসংযোগ মন্ত্রী রামনাথ ঠাকুর জানিয়েছেন তিনি BHRC র চিঠির বিষয়ে কিছু জানেন না, তাই মন্তব্য করতে অপারগ।

    বিস্তারিত:
    http://www.indianexpress.com/news/42-harassed-many-in-jail-for-seeking-information-under-rti-in-bihar/538009/0

    ৮ই নভেম্বর, ২০০৯
  • বিভাগ : টাটকা খবর | ০৮ নভেম্বর ২০০৯ | ২৮ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • করোনা ভাইরাস

  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত