• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
    বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে।
  • কী করিতে হইবে

    সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়
    কূটকচালি | ৩১ জুলাই ২০১৩ | ৬৫ বার পঠিত

  • সভ্য পোশাক পরুন
    বঙ্গে এখন চলছে মোল্লা নাসিরুদ্দিন যুগ। কামদুনি এপিসোডের পর এখন স্রেফ জামা-কাপড় হাব-ভাব দেখেই বুঝে যাওয়া যাচ্ছে কোন ব্যাটা মাওবাদী, আর কার চিত্তটি শুদ্ধ। কে বস্তিবাসী আর কে অনুপ্রবেশকারী। কে ভব্য বুদ্ধিজীবি আর কে গেঁয়ো ভূত। কে নোংরা জামা পরে সভা ভন্ডুল করতে এসেছে, আর কে শুদ্ধচিত্তে "জল উঁচু, জল নিচু" আওড়াচ্ছে। এই দুনিয়ায় সন্দেহের ঊর্ধ্বে থাকলে হলে সতত সভ্যভদ্র পোশাক পরবেন। আর চিত্তটি শুদ্ধ রাখবেন। মুখটি "ভাজা মাছটি উল্টে খেতে পারিনা" করে রাখলাম, আর অন্তরে বিষ, ওসব দুনম্বরী করে কোনো লাভ নেই। যুগ বদলে গেছে। এখন পোশাকই চরিত্রের আয়না। আপনার দোপাট্টাই আপনার পরিচয়। আপনার সেলফোনই আপনার আইডেন্টিটি, অভিজ্ঞান শকুন্তলম। মাওবাদী বলে চিহ্নিত না হতে চাইলে এসব সম্ভাবনা মাথায় রেখে ওয়ার্ডরোব থেকে সাবধানে জামা বাছুন। শ্রাদ্ধবাসরে পরুন সাদা শাড়ি, রক-মোচ্ছবে ট্যাঙ্কটপ, বসন্তোৎসবে খোঁপায় গুঁজুন একটি পলাশ ফুল। মতামত জানাতে হলে শুধু একদিকেই মাথা নাড়ুন। সভা-সমিতি করতে হলে লাল রঙ বর্জন করুন। মুখে স্বেচ্ছায় এঁটে দিন বিরাট লিউকোপ্লাস্ট। যেন দূর থেকেই দেখতে পাওয়া যায়, আর টুঁ শব্দটিও ফাঁকতালে বেরিয়ে না আসতে পারে। নিজেকে সন্দেহের ঊর্ধ্বে রাখুন।

    শান্ত আচরণ  করুন
    জনসমক্ষে শান্ত গোরুর মতো চুপচাপ থাকুন। যাই ঘটুক প্রতিবাদের রাস্তায় যাবেন না। বরং পাবলিক প্লেসে আত্মনিয়ন্ত্রণ অভ্যাস করুন। রাগ হলে কাপ-ডিশ ভাঙুন, বালিশে ঘুষি মারুন, বাথরুমে গিয়ে বসে থাকুন, কেউ কিচ্ছু বলবেনা। জাস্ট অকারণে মিটিং মিছিল আর প্রতিবাদের নামে রাস্তাঘাট আটকে হুজ্জুতি করবেন না। নোনাডাঙাই হোক আর পায়রাডাঙা, বারাসাতই হোক আর বেলগাছিয়া, বস্তি উচ্ছেদই হোক আর ধর্ষণ, প্রতিবাদের নামে ওসব বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবেনা। এ ব্যাপারে সরকারের একেবারে সর্বজনে সমদৃষ্টি। সে আপনার পেডিগ্রি যাই হোক। উত্তরবঙ্গে যে হাতিরা মুখ্যমন্ত্রীর রাস্তা আটকেছিল, তারা মাওবাদী কিনা এখনও সে খবর না পাওয়া গেলেও, নোনাডাঙা কান্ডে মাওবাদী আখ্যা পেয়ে একঘাটে লপসি খেয়েছেন প্রলেতারিয়েত বস্তিবাসী থেকে শুরু করে অ্যাকটিভিস্ট বিজ্ঞানী অবধি এক গাদা লোক। কারো সঙ্গে বিশেষ কোনো খাতির করা হয়নি। মুখ্যমন্ত্রীকে গান্ধিগিরির নাম করে রসগোল্লা খাওয়াতে গিয়ে হাজত ঘুরে এসেছে বেলঘরিয়ার যুবকবৃন্দ।
    বিশৃঙ্খলা বাধালে এরকমই হবে। ইটের বদলে পাটকেল, টিটের বদলে ট্যাট আর রসগোল্লার বদলে জুটবে জেলের ভাত। একেই গীতায় কর্মফল বলেছে।

    মানুষকে সম্মান দিন
    গুরুজনদের সম্মান দিন। বড়োরা ডাহা ভুল বললেও অকারণে কূট যুক্তি দেবেন না। মুখে মুখে তর্ক করবেন না। টুম্পা আর মৌসুমীদের কথা মনে রাখবেন। মাথায় রাখবেন, যে, শিবঠাকুরের আপন দেশে কু-তার্কিকদের মাওবাদী বলে। মাওবাদী চক্রান্তে জড়াবেন না। ভারতীয় সংস্কৃতি মেনে বড়োদের সব কথায় হ্যাঁ হ্যাঁ বলবেন। খুন-ধর্ষণ সর্বত্রই হয়, পুলিশ কখনও ব্যবস্থা নেয়, কখনও নেয় না। মাতব্বররা চাইলে ওসবের সুরাহা হয়, নইলে ধামাচাপা। যা হবার তা হবে, যা না-হবার তা হবেনা, সবই নিয়তি। সে নিয়ে অকারণে তর্ক করে লাভ কী? এ কথা তো ঠিক, যে, অন্য জায়গার তুলনায় আমরা অনেক ভালো আছি। এই তো কদিন আগে দুবাইতে নরওয়ের একটি মেয়েকে ধর্ষণ করা হল, পুলিশে অভিযোগ জানানোর পর মেয়েটিকেই জেলে ভরে দিল। নরওয়ে সরকার কিছুই করতে পারলনা। এই তো শাইনিং দুনিয়ার হাল। তৃতীয় বিশ্ব হলে কি হবে, আমাদের রাজ্যে ওরকম হয়না। ধর্ষণ, নারীনির্যাতন, এসব বাড়ুক বা কমুক, অপরাধীরা ধরা পড়ুক বা না পড়ুক, ধর্ষিতাকে কক্ষনো এখানে হাজতে পোরা হয়না। খুব খারাপ হলে খুনী বা ধর্ষণকারীর শাস্তি হয়না। যে জন্য এই রাজ্যকে অপরাধের মরুদ্যান বলা হয়।

    আড্ডা দিয়ে সময় নষ্ট করবেন না
    যুবকরা যত্রতত্র বাজে আড্ডা দিয়ে সময় নষ্ট করবেন না। যুবক বয়স হল খাটনির সময়। হাতের মুঠোয় ধরা জলের মতো যৌবনকে গলে যেতে দেবেন না। রাজ্য প্রগতির পথে গড়গড়িয়ে এগোচ্ছে, রথের রশিতে হাত লাগান। ঘাম ঝরান। যুবকরা স্বামী বিবেকানন্দের পথ অবলম্বন করে ফুটবল খেলুন, যুবনেতাদের অনুসরণ করে প্রোমোটারি করুন, মেয়ে দেখলে সিটি দিন, পাড়ার ক্লাবে তাস পেটান, চোর পেলে পিটিয়ে মারুন, যা খুশি করুন। কেবল আলস্য অভ্যাস করবেন না। গপ্পো থেকেই আসে গুজব। গুজবের সঙ্গে অপপ্রচার, আর অপপ্রচার মানেই চক্রান্ত। অলস মস্তিষ্ক হল মাওবাদীদের কারখানা। হীরকরাজ্যে আলস্য ও চক্রান্ত দুইই নিষিদ্ধ। যুবকরা নিজেরা নিজের মূল্য না বুঝে অকারণ রাজনীতি ও চক্রান্তে জড়িয়ে পড়লে তাদের চোখে আঙুল্ দিয়ে বোঝানো হবে। অলস যুবক দেখলেই নাগরিক কমিটি গড়া হবে। শোধরানোর চেষ্টা করা হবে। তাতেও কাজ না হলে থানায় গিয়ে কড়কে দেওয়া হবে। এর নাম বেলঘরিয়া পদ্ধতি। এর হাত থেকে বাঁচতে হলে পাড়ার ক্লাবে নাম লেখান, নাগরিক কমিটির হয়ে মাতব্বরি করুন, বাড়িতে বসে গীতা পাঠ করুন। মোট কথা গঠনমূলক কাজে ঘাম ঝরান, কারণ কঠোর পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই।

    পাপ চাপা দেবেন না
    এসব অসভ্যতা একটু আধটু করে ফেললে সেটা তবু লঘু অপরাধ। কিন্তু সেসব অপকম্মো করে লুকিয়ে পড়ার চেষ্টা করবেন না। তার জন্য গুরুদন্ড। পাপ চাপা থাকেনা। বেলপাহাড়ির শিলাদিত্য চৌধুরীর কথা মনে রাখবেন। একে তো আবোল-তাবোল প্রশ্ন, তারপর ক্যামুফ্ল্যাজ করার চেষ্টা। এসব হুজ্জুতি করে গা ঢাকা দেবার চেষ্টা করলে কিন্তু হিতে বিপরীত হতে পারে। এ একেবারে আন্তর্জাতিক নিয়ম। ধীরেসুস্থে হাঁটবেন না, সেটা সন্দেহজনক। আমেরিকায় সন্দেহভাজন ট্রেভর মার্টিনকে ট্যাঁফোঁ করার সুযোগ না দিয়ে গুলি করে মেরে ফেলা হল, কারণ, সে নাকি খুবই আস্তে হাঁটছিল। জোরেও দোড়বেন না। সেটাও সন্দেহজনক। লন্ডনে ক বছর আগেই আরেক সন্দেহভাজনকে পুলিশ এনকাউন্টার করে দিল, কারণ সে ব্যাটা দৌড়ে পালাচ্ছিল। মনে রাখবেন, এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের বিচারই চূড়ান্ত।  সেজন্য সন্দেহজনক কাজকর্ম করবেন না। গলিঘুঁজিতে গুজগুজ ফুসফুস করবেন না। জোরে দৌড়বেন না। আস্তে হাঁটবেন না। নেহাৎই ভুল করে প্রশ্ন করে ফেললে বেশি নড়াচড়া না করে মাথার উপর দুহাত তুলে আত্মসমর্পণের ভঙ্গীতে স্ট্যাচু হয়ে দাঁড়িয়ে থাকবেন, নইলে ভুল বোঝাবুঝির অবকাশ থেকেই যাবে। আমাদের এখানে পুলিশ অবশ্য এনকাউন্টার করেনা, সন্দেহজনক হলে শুধুই কিঞ্চিৎ বাটাম প্রদান করে। পালাচ্ছিলেন বলে তারা শিলাদিত্যকে স্রেফ ক’দিন ঘোল খাইয়েই ছেড়ে দিয়েছে। কিন্তু সেই ঝুঁকি নিয়েই বা লাভ কি?

    প্রশ্ন করবেন না
    প্রিভেনশন ইজ বেটার দ্যান কিওর। প্রশ্ন করে দু-হাত তুলে দাঁড়িয়ে থাকা ভালো, কিন্তু সবচেয়ে ভালো হয় যদি আদৌ প্রশ্নই না করেন।  করলেও প্রকাশ্যে নয়। টিভি চ্যানেলে তো একেবারেই না। খুব জোরে ছোটো কিংবা বড়ো বাইরে পেলে যেমন আপনি যত্রতত্র জল কিংবা মলবিয়োগ করেননা, প্রশ্ন পেলেও নদীর কাছে কিংবা উড়ালপুলের কাছে একান্তে যান। হাওয়ার-কাছে, জলের কাছে ফিসফিসিয়ে ভাসিয়ে দিন, দেখবেন, কেউ যেন শুনতে না পায়। নচেৎ সর্বনাশ, জনতা ধাতানি দেবে, পাবলিক নুইসেন্স বলে পুলিশে ধরবে। আর বাইচান্স মুখ্যমন্ত্রীর সামনে একান্তই খুব জোরে প্রশ্ন পেয়ে গেলে হাসি-হাসি মুখে বলুন, নমস্কার, আমি এখন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রশ্ন কবিতাটি আবৃত্তি করব। উনি খুশি হবেন। একেই বলে সংস্কৃতি। কে না জানে মুখ্যমন্ত্রী সংস্কৃতিবান। কালচারাল। তিনি ফিল্ম স্টারকে দিয়ে ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল উদ্বোধন করান, ট্রাফিক লাইটে রবীন্দ্রসঙ্গীত বাজান, মুখে মুখে ছড়া কাটেন, প্রেস কাউন্সিলের সভাপতির মন্তব্যকে "কুত্তা ফোঁকে হাজার" বলে সশ্রদ্ধচিত্তে রেফার করেন, আর কী আশ্চর্য, এসবের মধ্যে পাঁচবছরের কাজ কখন চুপি চুপি ছয়-মাসে সেরে ফেলেন। অকারণে প্রশ্ন করে কাজ পিছিয়ে দেবেন না। উন্নয়নে বাগড়া দেবেন না। মনে রাখবেন, প্রশ্ন করে তানিয়া ভরদ্বাজ ছাড়া পেয়ে গেলেও, আপনি কিন্তু নাও পেতে পারেন।
     

  • বিভাগ : কূটকচালি | ৩১ জুলাই ২০১৩ | ৬৫ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা

  • পাতা : 1
  • শঙ্খ | 118.35.9.186 (*) | ৩১ জুলাই ২০১৩ ১১:৪৬77501
  • ওরে না!! কি জিনিস নামিয়েছ গুরু!!
  • sosen | 218.107.178.181 (*) | ৩১ জুলাই ২০১৩ ১১:৪৮77502
  • ভালো হইসে, কুত্তা ফোঁকেটাকে ভৌকে/ভুকে দে' রিপ্লেস কত্তে হবে কি?
  • s | 182.0.249.87 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০১:০১77503
  • লেখার স্টাইল যথারীতি ব্যপক। লেকিন কন্টেন্ট কুছ ভি নেহি। স্যাটায়ার বোলে তো, এর থেকে প্রকল্পের প্যারোডিগুলো মাচ বেটার।
  • keuna | 126.193.128.210 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০২:৪১77504
  • এসব আগে বোঝেন নি দাদা, এ তো হবার ই ছিল :)
  • Born Free | 168.144.176.250 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৪:৪৫77505
  • ইস সৈকত-দার আর ইহজনমে বন্গভূষণ পাওয়া হলো না। হীরকের রানীর নাম ইয়ার্কি, আস্পর্ধা দ্যাখো।
  • siki | 132.177.27.229 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৪:৫৬77506
  • দিব্য হয়েছে। কেবল ওটা হবে "কুত্তা ভোঁকে হাজার"। অবশ্য হীরকরানী "ফোঁকে" বলেছিলেন কিনা আমার জানা নেই।
  • ক্কঃ | 132.164.148.106 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৫:১৩77507
  • এইত্তো আমার মনের মতো কতা! আরেকটা পয়েন বাদ গেছে, ঐ কিসব ল্যন্ডইউজম্যাপ না কি ম্যাপ, ওটার জন্য এট্টু ধোঅইয্যো ধরে দিদির কতা শুনুন। গুরুজনরা দিদির কতাবাত্তা কোট কত্তে লেগেচে, ঠিক ঐভাবে সব পেপারে দিদির কতা কোট করুন। মনে রাকবেন, অরণ্যদেব আর দিদি - যা বলে তাই করে। জ্জয়দ্দিদি!
  • ranjan roy | 24.99.66.235 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৬:৪৫77510
  • যদ্দূর মনে পড়ছে দিদি কুত্তা 'ভোঁকে'ই বলেছেলিন।ছড়িয়েছিলেন "রাজা" চলে বাজার, বলে। মুহাবরাটা হল হাতি চলে বাজার মেঁ,
    কুত্তা ভোঁকে হাজার মেঁ।
    কিন্তু এহ বাহ্য! হেব্বি এবং সময়োপযোগী হয়েছে।
  • Bee | 173.231.6.70 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৮:২৬77508
  • জয় গুরু!
  • de | 190.149.51.66 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৩ ০৯:১৩77509
  • ভালো হইচে!
  • কান্তি | 113.24.190.167 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০১:২৮77511
  • একেবারে সইকচিত বিচুটি এবং আলকুসি। আমরাও তার জ্বলুনীর হাত থেকে ছাড় পাচ্ছিনা।
  • বিপ্লব রহমান | 212.164.212.20 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০২:৩৮77512
  • ঠিক। এইভাবেই তো বেঁচে-বর্তে থাকা যায়।...

    লেখাটি তাঁরাইলাম!
  • Bishnu Dev | 127.201.102.203 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০৪:১১77513
  • aha !! Soikat da ki diyecho mairi !! jak ami bodh hoy kichu pelum. ki bole j tmk don-no-baad debo bhasa khuNje pacchina. tobe fuchka khawabo kwtha dicchi.
  • Bishnu Dev | 127.201.102.203 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০৪:১১77514
  • aha !! Soikat da ki diyecho mairi !! jak ami bodh hoy kichu pelum. ki bole j tmk don-no-baad debo bhasa khuNje pacchina. tobe fuchka khawabo kwtha dicchi.
  • রূপঙ্কর সরকার | 126.203.201.148 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০৪:১৩77515
  • লেখা ব্যাপক। শেষ পরিচ্ছেদ আরও ব্যাপক। ফোঁকে/ভোঁখে নিয়ে কনফুসিয়াসে একমত। প্রকল্প-প্যারডির সঙ্গে তুলনায় দ্বিমত। কিন্‌তু ঈষেন একটা ফুলটস পেয়েও বাই দিল কেন বুঝলুমনা - ঐযে, আইদার ফাঁসি অর মিত্যুদন্ড - এটা তো এবিপ্যানন্দে কোট আনকোট ছিল।

    তবে একখানি পিতিবাদ রইল - পলাশ হয় লাল, নয় গেরুয়া। ওটা মাথায় পরা কি উচিত হবে?
  • b | 135.20.82.166 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০৫:০৭77516
  • সৈকত কি চন্দ্রিলের ছদমোনাম? নাকি উল্টোটা?
  • siki | 132.177.172.2 (*) | ০৪ আগস্ট ২০১৩ ০৬:২৪77517
  • ছব্বোনাছ কয়েচে।
  • Nripen Pandey | 127.218.6.61 (*) | ১৬ আগস্ট ২০১৩ ০৯:৩৩77518
  • Kutta Vooke Hajre, a bishoye aro jante hole APAR er sampadak Srijukto Babu Somnath er 4th page column (kon din mone nei) DIN PARIBARTAN(uthe gyachhe)KAGOJ khuje niye porun.
  • SIDDHARTHA'DA | 69.180.159.166 (*) | ২১ আগস্ট ২০১৩ ১২:০৯77519
  • না রে, খুব ভলো লগ্লো না। এতা তোর লেখা বুঝ্তে পার্ছি, কিন্তু তোর লেখা নয়।
    সিদ্ধার্থ'দা
  • পল্লব | 168.144.177.11 (*) | ২৪ আগস্ট ২০১৩ ১০:০৮77520
  • ভালো লেখা ।
  • souvik | 132.169.214.161 (*) | ২৪ আগস্ট ২০১৩ ১০:৩৫77521
  • সেই একই 'গোরু রচনা' র style চলছে।
    ফর্ম আর ফর্ম ,আপনার কন্টেন্ট নাই লেখক?
  • করোনা

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত