এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • ভূতো | 223.223.154.70 | ১৩ মে ২০২৪ ২৩:৫৮531690
  • ভোট বয়কট করে কী লাভ? বয়কটে তো শাসন বদলায় না।
  • Bhattacharjyo Debjit | ১৪ মে ২০২৪ ০০:৪৬531691
  • কী করে কী লাভ সে কথা পরের বিষয়। প্রাথমিক বিষয় হল, মানুষ অসন্তুষ্ট এবং বিকল্প খুঁজছে, তাই যে কোন রকমের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে যা সিস্টেমের বিরুদ্ধে। এবার আসি, ভোট বয়কট প্রশ্নে - লাভ কী; ভালো প্রশ্ন। এক্ষেত্রে লাভ তখনি যখন এটা সংগঠিতভাবে হয় এবং যে সংগঠন এই কল দেয়, তখন তাঁর কিংবা তাঁদের আঞ্চলিক ক্ষমতা থাকে বিকল্প রাজনৈতিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করবার। অথবা করে থাকে।
    মানুষ স্বতস্ফূর্তভাবে এই পন্থায় যায় কেবলই শাসকশ্রেণীকে ধাক্কা দিতে, নজরে আসতে। ভোটের প্রধান দিক যে রকম ভাবে শাসকশ্রেনী আমাদের বোঝাতে চায় যে, কে বদলাবে আর কে থাকবে কে যাবে, এমনটা কী আদেও? আমার তা রাজনৈতিকভাবে মনে হয় না। আমি বুঝেছি, ভোটের প্রধান দিক রাজনৈতিক প্রচার যা সামাজিক চেতনার বৃদ্ধি ঘটায় সাধারণের। অর্থাৎ এই বয়কট আজ না সেভাবে কোন কাজে লাগলেও বড় কাজ দিতে পারে ভবিষ্যতে এবং ওখানকার সমস্যাও এর থেকেই প্রচারে উঠে আসবে, অবশ্যই তা যদি রাজনৈতিক আন্দোলনের রূপ নেয় তাহলে আরো পরিপক্ব হ্য়েই উঠে আসবে।
  • Bhattacharjyo Debjit | ১৪ মে ২০২৪ ০০:৫০531692
  • আর হ্যাঁ, সমস্যা শাসন বদল কিংবা বদলাবার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সমস্যা শাসকশ্রেণীর রাজনৈতিক অর্থনীতির। যেটার বদল ঘটলে সমাধান আসবে যা এই ঘষামাজা এক-গোয়ালির "বদলে" চক্কর কাটাতে নেই। 
  • Ranjan Roy | ১৪ মে ২০২৪ ১০:২৭531717
  • "সমস্যা শাসকশ্রেণীর রাজনৈতিক অর্থনীতির। যেটার বদল ঘটলে সমাধান আসবে"।
     
    - তাই নাকি?
    তাহলে লাইনে আসুন। আপনার কাছে বিকল্প "রাজনৈতিক অর্থনীতি"র কী সর্বরোগহর বটিকা রয়েহে -- সেটা বাতলে দিন।
    কিছু মনে করবেন না। এই "শাসকশ্রেণীর রাজনৈতিক অর্থনীতির বিকল্প"  ডায়লগ সেই ষাট-সত্তরের দশক থেকে শুনে  শুনে ক্লান্ত হয়ে গেছি। এখন কোন ধর-তক্তা-মার-পেরেক গোছের চটজলদি লিনিয়ার সমাধান শুনলে সন্দেহের চোখে দেখি।
    সেটা উনিজীর হোক বা কিষেণজীর।
     
    হয়তো আপনার থেকে নতুন কোন বিকল্প পাব এই আশায় অনুরোধ করলাম।
  • Kishore Ghosal | ১৪ মে ২০২৪ ১৬:১৬531727
  • তার থেকেও বড়ো কথা, এসব আলোচনা করছি - আমরা -  উচ্চবিত্ত এলিট নাগরিক সমাজ - আমাদের ভোট দেওয়া - না দেওয়ায় আহা মরি তেমন ফারাক হয় না বারবার ক্ষমতায় আসতে চাওয়া শাসক গোষ্ঠীর।  তারা নির্ভর করে নিম্নবিত্ত, দরিদ্র, হতদরিদ্র মানুষদের ওপর - যাঁদের সংখ্যা আমাদের তুলনায় অনেক-অনেক বেশি। তাঁরাই শাসক গোষ্ঠীর ভোট ব্যাংক। তাঁদের জন্য ফ্রি রেশন থেকে শুরু করে (কন্যা, লক্ষ্মী, স্বাস্থ্য, সাইকেল, জুতো, মোবাইল ফোন, বিবাহ)শ্রী প্রকল্প সমূহের ব্যবস্থা আছে।  দেশের সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, এবং জাতির মেরুদণ্ড, ন্যায়-নীতি, দুর্নীতি নিয়ে তারা গভীর আলোচনা পড়বে কখন,  আর ভাববেই বা কেন?
    রইল বাকি  বড়ো ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিগণ -   যারা শাসককে স্পনসর করছে...তারা নিজের পায়ে কুড়ুল মারতে যাবে কেন?
     
    অতএব আলোচনা চলুক, বিতর্ক চলুক, ভালোই লাগে এসব পড়তে। 
      
  • Bhattacharjyo Debjit | ১৪ মে ২০২৪ ২৩:১৪531741
  • কিশোরবাবু বিভিন্ন "ফ্রি" দেওয়া পত্রিয়াটা তৈরি সাম্রাজ্যবাদীদের। এগুলি মূলত দেওয়া হয়, পশ্চাদপদ দেশগুলিতে। যার ডাল-পালা অনেক কিছু রয়েছে, তবে মূল কারণ সস্তার মজুর প্রস্তুত রাখাটাই। শাসকশ্রেণীর কাছে তাঁদের ভোট ফ্যাক্টর তাই তাঁরা ফ্রি দেয়, এটিও একটি শাসকশ্রেণীগুলির  তৈরি করা প্রপাগান্ডা। এই ব্যবস্থা কোন রকমভাবে ডুবিয়ে রাখবার জন্য। 
     
    এবার আসি রনজয়বাবুর কথাতে - বিকল্প রাজনৈতিক অর্থনীতি প্রসঙ্গে; এর প্রধান ও প্রাথমিক কাজ হবে সাম্রাজ্যবাদী গোষ্ঠীগুলির সাথে বিভিন্ন ধরনের লুঠেরা ছুক্তিগুলি ছিন্ন করা। যেগুলি এদেশের পুঁজি বিকাশ রোধ করে সাম্রাজ্যবাদী লগ্নি পুঁজির প্রসার ঘটিয়ে উন্নয়নের আমাদের দেশকে লুঠছে। এরই সাথে যেহেতু এটা কৃষি ভিত্তি দেশ সেহেতু শ্রম বাজার মূলত ওটার উপরে দাঁড়িয়ে। তাই ওতেই জোর দেওয়া। 
  • রঞ্জন | 171.79.4.101 | ১৫ মে ২০২৪ ২২:৩৬531769
  • একটু কংক্রিট উদাহরণ দিয়ে  বোঝান -- কোন কোন সাম্রাজ্যবাদী দেশ? তাদের সঙ্গে আমাদের কী লুঠেরা চুক্তি হয়েছে?
    অন্ততঃ একটা উদাহরণ দিন।
    যেমন, চীন আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যেসব চুক্তি করেছে, কারিগরি এবং পুঁজি নির্মাণের জন্য আর্থিক সাহায্য দিচ্ছে, সেগুলোকে কী বলবেন?
     
     
    2 ভারতের কৃষিতে প্রতি একর উৎপাদন কমছে, জলের স্তর দ্রুত নীচে নেমে যাচ্ছে। রাসায়নিক সারের ব্যাপক ব্যবহার জমির উর্বরতা কমিয়ে দিচ্ছে।
    তারপর আছে জমিতে অত্যধিক মানুষের চাপ। ফলে ছদ্ম বেকার বেশ বেড়েছে। শ্রমের প্রান্তিক উৎপাদকতা কমেছে।
     
    এসবের সমাধান কোন পথে?
     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। বুদ্ধি করে মতামত দিন