বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  সমোস্কিতি

  • আমরা গোদার হতে পেরেছি, ইয়া ইয়া ও

    সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায় লেখকের গ্রাহক হোন
    সমোস্কিতি | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৩২ বার পঠিত | রেটিং ৪.৭ (৩ জন)
  • জনপ্রিয়তায় হাঁদা ভোঁদার
    পরেই আছেন জাঁ-লুক গোদার
                
    গোদার নিয়ে বঙ্গীয় সিনেফিলদের আকুল হবার কোনো কারণ নেই, কারণ গোদার আমাদের রক্তে, একদম হিমোগ্লোবিনে ঢুকে ছানা কেটে দিয়েছেন। মারাদোনার বাঁ পা যেমন আমাদেরই বাঁ পা, চিনের চাউমিন যেমন আমাদেরই চাউমিন, বিলেতের কোহিনুর যেমন আমাদেরই কোহিনুর, গোদার তেমনই আমাদেরই ফরাসি আতর। প্যারিসে নাকি প্রবাদ আছে, "জনপ্রিয়তায় হাঁদাভোদার, পরেই আছেন জাঁ লুক গোদার"। গোদার আমাদের যৌবনের উপবন, বার্ধক্যের বৃদ্ধাবাস, গোদার আমাদের আরামের পান্তাভাত, গোদার আমাদের বাড়ি ফেরা। গোদারের বাড়িই আমাদের বাড়ি, গোদার বাড়ি।  

    এসব একেবারেই ইয়ার্কি নয়, কারণ, বঙ্গীয় ডিজিটাল মিডিয়া দেখলেই এটা টের পাওয়া যায়। আজ নয় অনেক দিন ধরে। কীভাবে দেখছেন, তার উপর ব্যাপারটা নির্ভর করছে। ধরুন, ফেসবুকে ওঠানামা করতে-করতে আপনি যদি দেখেন (যদির ব্যাপার নয়, সত্যিই দেখেন), "নায়িকা গীতশ্রী বললেন, 'ছোটো জিনিসই আজকাল আমাকে আনন্দ দেয়'", কিংবা, "রূপচর্চায় রুপো কীভাবে ব্যবহার করবেন, দেখে নিন দশটি উপায়", অথবা, "বিদীপা ও চিত্রলেখার চুলোচুলি, ঝড় উঠল নেটবাগানে", এই জাতীয় নানা উদ্ভট ও আজগুবি শিরোনাম, তো আপনি কী ভাববেন? ভাববেন এ হল নেটের বঁড়শি, ক্লিক-বেট। তারপর অবশ্য কিন্তু-কিন্তু করে ক্লিক করে ফেলবেন, যদি কিছু অজানা কেচ্ছা মিস হয়ে যায়, কিন্তু সে অন্য কথা। কিন্তু আসল ব্যাপার হল, আপনি যা দেখবেননা, তা হল, গোদার। ক্যামেরা-পেন (ফরাসিতে কী একটা কঠিন নাম আছে), জিনিসটাই গোদার-প্রসূত। সেটা কী? না, ক্যামেরা থাকলেই শুট করে ফেলা যায়, কলম থাকলেই লিখে ফেলা যায়, কি-বোর্ড আর নেট-সংযোগ থাকলেই, ঝপাঝপ যা খুশি টাইপ করে বাজারে ছেড়ে দেওয়া যায়। আর এ শিক্ষা আমাদের কে দিয়েছেন? গোদার ছাড়া আবার কে? গোদার আমাদের মুক্তির আকাশ, গোদার আমাদের মূর্খের স্বাধীনতা। 


    এবার ধরুন, আপনি এর যেকোনো একটা লেখায় ক্লিক করলেন। ধরার কিছু নেই, করবেনই, কৌতুহলের তো একটা নিবৃত্তির ব্যাপার আছে। তা সে করবেন, বেশ করবেন, ওইজন্যই তো ওর নাম বঁড়শি। খুলে দেখবেন, লেখার কোনো মাথামুন্ডু নেই। প্রথম লাইনে আছে " নায়িকা গীতশ্রীর জন্ম কৈখালিতে"। পরের লাইনেই "তিনি বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে পরশু গেছেন প্যারিসে"। আপনি পড়ে-টড়ে বিরক্ত যদি হয়ে ভাবেন, যে, আসল জিনিসটা আসবে কখন? ব্যস, ওখানেই আসল জিনিসটা মিস করে গেলেন। কী সেটা? না জাম্পকাট। ইয়ার্কি নয়, পরপর দুটো বাক্যেই একেবারে তেইশ বা তেতাল্লিশ বছরের লাফ (নায়িকার বয়সের উপর নির্ভর করে) । গোদারের দ্বারাও যে জিনিস কখনও হয়নি। একেই বলে ন্যারেটিভের গুষ্টির তুষ্টি, সরলরেখার বিরুদ্ধে যুদ্ধ। গোদার শুধু এসবের খুচখাচ প্রয়োগ করেছেন, বাস্তব জীবনে বিপুল এবং প্রকৃত প্রয়োগের জন্য দেখুন, বঙ্গীয় ডিজিটাল মিডিয়া। 

    বলা বাহুল্য, শিরোনামে যা বলা হয়েছে, ডিজিটাল মিডিয়ার লেখাতে তা নাও পেতে পারেন। হয়তো কোথাও এক লাইনে আছে, পারম্পর্যহীন, তারপরে আবার অন্য আরেক লাইন। গীতশ্রীর হয়তো ছোটো চাঁদ দেখেই আনন্দ হয়েছে। স্পষ্ট করে বলা থাকলে বুঝতেও পারেন, আর একেবারে বলা না থাকলেই বা কী। গোদার দেখেননি? "কিং লিয়ার"এ যত্রতত্র "ফিন", অর্থাৎ কিনা "দা এন্ড" হয়ে যাচ্ছে। দর্শকরা বোকার মতো উঠে দাঁড়িয়ে মুর্গি হচ্ছে, কারণ, এই যাঃ সিনেমা আবার শুরু হয়ে গেল। বার-দুয়েক এরকম হবার পর, তৃতীয় বারে "সমাপ্ত" দেখে, চোয়াল শক্ত করে "আর মুর্গি হবনা" বলে যাঁরা বসে ছিলেন, তাঁরাও মুর্গি। কারণ, এবার সিনেমাটা সত্যিই শেষ। পুরোটাই আসলে চুক্কি দেবার কল। তা, কথা হল, গোদার চুক্কি দিলেই বাহবা, আর ডিজিটাল মিডিয়া চুক্কি দিলেই গাল, এ আর চলবেনা। দুনিয়া বদলে গেছে। বিশ্বের বাজার এখন সমতল। গোদার ইজ ডেড, লং লিভ গোদার। গোদারের পতাকা বহন করার শক্তি ভগবান বঙ্গডিজিটাল দুনিয়াকে ইতিমধ্যেই দিয়ে দিয়েছেন। ডিজিটাল মিডিয়া দিচ্ছে ডাক, গোদারবাবু জিন্দাবাদ, সরলরেখা নিপাত যাক।

    এরকম এক-আধটা কেস নয়,ডিজিটাল মিডিয়া আস্তটাই প্রত্যক্ষভাবে গোদারানুসারি, সে আপনি পাপারাৎজি, ট্যাবলয়েড, দফা-চারশোবিশ যে নামেই ডাকুননা কেন। অবশ্য "আস্ত" কথাটা বলাই এখানে ঠিক নয়। সমগ্র বলে কিছু নেই আর। গোদারের আমল থেকেই নেই। যে কারণে উনি গোটা ন্যারেটিভ ভেঙে টুকরো-টাকরা দেখিয়েছেন। আস্ত নুড শরীর না দেখিয়ে প্রত্যঙ্গ দেখিয়েছেন। ডিজিটাল মিডিয়াতেও দেখবেন, অবিকল একই জিনিস চলছে। নুড ছবি দেখালে, সরকার ব্যান করে দিতে পারে, নগ্নতার গপ্পো লিখলে পানু বলে বদনাম হতে পারে, তাই ওঁরা খন্ডচিত্রে মনোযোগ দিয়েছেন। "অনুশ্রীর বুকের ভাঁজ দেখে উত্তাল দুনিয়া"। "তনুশ্রীর খোলা পা উত্তাপ ছড়াল পৃথিবীতে"। "মনুশ্রীর খোলা পিঠ ঝড় তুলল ইন্টারনেটে"। ইত্যাদি-প্রভৃতি। সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়ও এরকম লিখেছিলেন। "কারো ঠোঁট, কারো গ্রীবাভঙ্গী, কারো দৃষ্টি ভালো লাগে, কোনো নারীকে চোখে পড়েনা" (উদ্ধৃতি থাকলেও এটা হুবহু সন্দীপনের ভাষা নয়)। কুচ্ছো-পোর্টালের কথা ভেবে লিখেছিলেন কিনা কে জানে, কিন্তু ব্যাপারটা ওইরকমই। তার উপর আছে দরদী দৃষ্টিভঙ্গী। "বিকিনি পরে ট্রোলড দেবশ্রী, উচিত জবাব দিলেই ট্রোলকে"। এখানে খবরের বিষয়টা কী, বিকিনি, না উচিত জবাব, ভেবে আপনি ভেবলে যাবেন। কিন্তু বাস্তব দুনিয়া ওরকমই গোলমেলে। নেই আর কোনো বিশুদ্ধ দাস ক্যাপিটাল। একটু মুখশুদ্ধি, একটু সঠিকত্ব, একটু শরীরের টুকরো দিয়ে মেখে দিন মশলামুড়ি, ব্যস, পাবলিক গপাগপ খাবে। এক অর্থে এটা গোদারের চেয়ে সফলও বটে। এত খাটাখাটনির পরেও, ভদ্রলোকের সিনেমা পাবলিক খায়নি, আর ডিজিটাল মিডিয়ার বঁড়শি? আপনিই বলুন কবার ক্লিক করেছেন?

    ফলে, শুরুতে যা বলা হচ্ছিল। বঙ্গীয় সিনেফিলদের আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। গোদার আমাদের রক্তে আছেন, জিনে মিউটেশন করে দিয়েছেন। একদম হিমোগ্লোবিনে ঢুকে ছানা কেটে দিয়েছেন। উনি ঝালে-ঝোলে-অম্বলে, ফেসবুক রিলে, সর্বত্র। চন্দ্রিল ভট্টাচার্যের ওয়াই-টু-কের গানটা এবার বদলে লেখা যেতেই পারে, "(আমরা) গোদার হতে পেরেছি, ইয়া ইয়া ও"। 
     
    ** সঙ্গের ছবিটি গোদারিয়ানার একটি স্যাম্পল। এইমাত্র যা হাতের কাছে পেলাম। লক্ষ্য করে দেখুন, গোটা ছবিতে, সুটকেস, বাচ্চা, দাড়িওয়ালা ব্যাটাছেল, ট্রেন, ইত্যাদি নানা জিনিস আছে। কিন্তু ফোকাস কোথায়? না, সরু এক জোড়া ঠ্যাঙে। 
  • সমোস্কিতি | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৩২ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • উড়নচন্দী | 45.64.227.109 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৪৮511909
  • সেকি! এখনো এ লেখায় কোনো তাপবিগলিত ক্ষোভলগ্ন ইন্টালেকচুয়াল কমেন্ট নেইকো!
    লেখাটা বেশ।
    গোদারের ফরাসিতে - c'est tres bien vraiment. 
  • S | 185.220.101.174 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৫০511910
  • শুভস্সী রোগা হয়েছে দেখছি।
  • কালনিমে | 103.244.242.176 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:০০511913
  • "গোদার হতে পারিনা/ নেই যে আনা কারিনা" - বং আঁতলেমোর - এই চাইলেই আমরা শিল্প করতে পারি - এই বিশ্ববীক্ষার এক তুমুল উদাহরণ
  • হজবরল | 37.120.190.134 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:১১511914
  • গোদার দেখতে হয় , নইলে পিছিয়ে পড়তে হয় 
     
    গোদার - জাম্পকাট ছাড়া আর কাউকে ভয় পায় না
  • santosh banerjee | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:২০511915
  • বলছি, যদি এটা রাজ ‌‌‌‌‌‌‌‌‌ চক্রবর্তী হন, আর ঐ অর্ধ উলঙগ মহিলা তাঁর বৌ হন, তাহলে ওদের বলবো "" জারজ বাঞ্চোত"!! ওরা declared বেশ্যা !! আরো গাল দেয়া রায় , কিন্তু সময় নষ্ট করে লাভ নেই। এই ঘাস ফুল পার্থ কেষ্ট শোভন বৈশাখী যুগে ওরা গদার কে ফলো করতে পারবে অন্য ভাবে। ওদের মস্তিস্ক নেই, শরীর আছে। আর কিই বা করার আছে ওদের?? একটা shameless womanizer  !!!
  • Amit | 120.16.197.219 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:৪৫511916
  • এই আর এক শান্তিগোপাল এসেছে মরালিটি মারাতে। হাফ প্যান্ট পড়লেই মেয়েদের অর্ধ উলঙ্গ ছাড়া কিছু দেখতে পায়না। যে নিজের মতো করে যা ইচ্ছে পরে ঘুরলে এদের এতো ফাটে কেন ? ছবি ভালো লাগলে দ্যাখ, নাহলে পাতা ওলটাও। মরাল মেসোমশাই গিরি না দেখালেও চলবে। 
  • Tamoghno chaudhuri | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:০৩511918
  • গুরু এডমিন কে বিনীত  অনুরোধ ১২।২০ র  কুরুচিপূর্ণ পোস্টটি সরানো হোক। 
  • হে হে | 2405:8100:8000:5ca1::28f:a019 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:৩৭511927
  • অসনওষ বাঁড়ুজ্জেরও ওই  সরু একজোড়া ঠ্যাঙ দেখেই হয়ে গেছে। কেন দাদু ঠ্যাঙ দেখেই... যাচ্ছে?
  • :-) | 2405:8100:8000:5ca1::72:7c5d | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:০৫511929
  • আরে ভাই উস্কানি দিয়েই গুরুরা ইয়াত্ত খিস্তি খায়। দ উস্কানি দিল  খিস্তিদিপতাসলিমাকে সৈকত বাঁড়ুজ্জে উস্কানি দিল অসন্তোষ বাঁড়ুজ্জেকে তাই না এরা বাপমা তুলে  চকার বকার কচ্চে। উস্কানি দেবেন না চুক্করে বসুন দিকি।
  • r2h | 192.139.20.199 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:০৮511930
  • সন্তোষবাবুর পোস্টটি সত্যিই অতি কুরুচিকর, ডিলিটযোগ্যই।

    গালাগালির কারনটাও বুঝলাম না।
  • শ্রমণ দত্তরায় | 45.64.227.109 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:৫৩511933
  • সন্তোষ ব্যানার্জীর কমেন্ট নিয়ে একটু নজর দিলে ভালো হয়। রাগের সঙ্গত কারণ থাকলেও সঙ্গত বহিঃপ্রকাশ দরকার। 
  • | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:১৩511934
  • সন্তোষ ব্যানার্জীর মন্তব্য অতি ইতর। এই ইউজার এর আগে শেখ হাসিনার সম্বন্ধেও এইরকম অতি কুৎসিৎ অতি ইতর। 
    এদের যে মেয়েদের ইচ্ছা স্বাধীন চিন্তা ভাবনা নিয়ে কি গভীর সমিস্যে! 
  • | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:১৪511935
  • *এই ইউজার এর আগে শেখ হাসিনার সম্বন্ধেও এইরকম অতি কুৎসিৎ অতি ইতর মন্তব্য করেছিল। 
  • Subhadeep Ghosh | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:৫২511936
  • সৈকতবাবুর এই লেখাটি একটি অসামান্য স্যাটায়ার।
  • Sandipan Majumder | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২৩:১৯511939
  • ভালো  লেগেছে। গোদারিয়ান হয়েও বলছি উপভোগ্য। 
  • বং আন্তেল | 117.205.188.173 | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০০:৩৫511940
  • গোদার তো নয়,যেন ছিল সে পালের গোদা,
    ফিলম্ গুলো আস্ত গদা, শুয়ে পড়, যা ওরে ভোদা
  • যোষিতা | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০১:৪১511941
  • ফোটোটা প্যারিসের নয়। জুরিখ মেইন স্টেশনের।
  • যোষিতা | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০১:৪৪511942
  • কনকনে ঠান্ডার টাইমের ফোটোও নয়। বাচ্চার গায়ে গরম জানা নেই, ফুল প্যান্ট নেই, টুপি নেই। এটা হয় গরমকাল নয় শরতের সময়ের ফোটো। শুভশ্রীর মত পোশাক প্রায় সব মেয়েরাই পরে ঐ সময়ে।
  • S | 2a0b:f4c2:1::1 | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০২:৪৮511948
  • বরন্চ সানগ্লাসটা বিদ্ঘুটে পড়েছে। ব্যাগটা ভালো।
  • যোষিতা | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৩:১০511950
  • শপিং করতে বানহফষ্ট্রাস্সে তে এসেছিল। স্টেশনের কাছেই। সব ফিলিমস্টার আসে। জুলিয়া রবার্টস থেকে শুরু করে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। অপ্রা উইনফ্রিও আসে। তবে মিলানে শপিং করলে একটু সস্তায় হয়। বলিউডের মেয়েরাও খুব আসে। প্রাদার ব্যাগ মনে হচ্ছে। সবকটা ব্র্যান্ডের নিশ প্রোডাক্টের শোরুম ওখানে। পুরুষ স্টারেরা আসে ঘড়ি কিনতে। রোলেক্স, আইডব্লিউবি, ওমেগা, প্রভৃতি কিনতে।
  • যোষিতা | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৩:১২511951
  • সরি আইডব্লিউসি হবে
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খারাপ-ভাল প্রতিক্রিয়া দিন