ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • ওগো ঝরা পাতা যদি আবার কখনো ডাক !

    Bhudeb Sengupta লেখকের গ্রাহক হোন
    ০৩ জুন ২০২২ | ৫৪৮ বার পঠিত
  • ওগো ঝরা পাতা যদি আবার কখনো ডাক !
    এই গানটির কথা মনে আছে তো সবার। সুগায়ক কেকে মাত্র ৫৩ বছর বয়সে আজ ঝরা পাতা হয়ে গেলেন। 
    শিল্পীর কেকে র এমন অকাল প্রয়াণে মন বড় ভারাক্রান্ত হয়ে আছে।  এ কেমন অবহেলার মৃত্যু ! এ কেমন অবেলায় চলে যাওয়া !    
     না কাউকে দোষারোপ করার জন‍্য কিছু লিখতে বসিনি। তবে নিজেকেই প্রশ্ন করি এমন  অবেলায় বেলাশেষ কি আমরা কিছুটা রোধ করতে পারিনা ? স্টেজের উপর ২/ ৩ ঘন্টা লাইভ পারফরম্যান্স কিন্তু বেশ একটা শ্রমসাধ্য ব‍্যাপার। যদি বদ্ধ জায়গায় অনুষ্ঠান হয়, যদি অতিরিক্ত দর্শক সমাগম হয়,হলের আর্দ্রতা, তাপমাত্রা ঠিক ঠাক না থাকে তাহলে শিল্পীদের উপর বাড়তি চাপ। যদি গানের সাথে শিল্পীকে শারীরিক ভাবে দর্শকদের সাথে কমিউনিকেট করতে হয়,কিছুটা গানের তালে নৃত্য করতে হয় তাহলে শারীরিক ভাবে বেশ ধকলের ব‍্যাপার হয়। এর সাথে থাকে শিল্পীর বয়স,নিজস্ব শারীরিক অবস্থা, নিয়মিত মেডিকেল চেকআপ ও রুটিন মেনে চলার অভ‍্যাস আছে কি নেই  ইত‍্যাদি।
        
          নির্দিষ্ট ধরনের শারীরিক ও পরিবেশজনিত প্রতিকূলতা থাকলে কিন্তু হঠাৎ করে হৃদরোগের সম্ভাবনা থাকেই।
         এখন থেকে আমরা সবাই দয়া করে মনে রাখব যে একটি সার্থক সঙ্গীত অনুষ্ঠান সফলভাবে পরিবেশন করতে হলে শিল্পীদের যেমন দায়বদ্ধতা থাকে তেমনি দর্শক, উদ‍্যোক্তা ,পুলিশ ,প্রশাসন, এমনকি যারা যন্ত্রী ও টেকনিসিয়ান সবারই ভুমিকা থাকে।
    শিল্পীদের দায়বদ্ধতা তো সবাই বোঝেন। সে আর বিস্তারিত লেখার  প্রয়োজন নেই। শিল্পী শারীরিক ভাবে সব ঠিক থাকলেই তবেই এইরকম লাইভ অনুষ্ঠানে পারফর্ম করবেন। সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি ও চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলবেন। যতটা শরীরে দেয় তার বেশী করতে যাবেন না। অবশ্যই তার কোন হেল্থ ইনসুওরেন্স নেওয়া থাকবে। যাতে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার সুযোগ ঠিকমতো পাওয়া যায়। তার সাথে নিজের পারফরম্যান্সের উৎকর্ষতা বজায় তো রাখতেই হবে।
                দর্শকদের দায়বদ্ধতাও সবাই বোঝেন। টিকিট কেটে এসেছি তাই শিল্পীদের অক্লান্ত ভাবে পারফর্ম করতে হবে এ ধারণা বর্জন করতে হবে। শিল্পীরাও তো মানুষ। তাদেরও ক্লান্তি আসতে পারে।শিল্পী যদি শারীরিক ভাবে অসুস্থ বা ক্লান্ত হয়ে যান, তাহলে তার অনুষ্ঠান ওখানেই শেষ করে দিতে কোন আপত্তি করা যাবেনা। আর দর্শকদের আচরণ সবসময়ই হবে শিল্পীদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ । কোনরকম বেয়ারা উৎশৃঙ্খল আচরণ একদমই কাম‍্য নয়।
    এই ধরনের বড় শোয়ের উদ‍্যোক্তারা দেখবেন অনুষ্ঠান স্থলে সব ঠিক আছে কিনা । আসন সংখ্যার থেকে বেশি টিকিট অথবা পাস ইস‍্যূ করা যাবেনা। নির্ধারিত সংখ্যার থেকে বেশি দর্শকদের জন্য কত অনুষ্ঠান যে মাঝপথে পন্ড হয়ে গেছে তা আর বলে শেষ করা যাবেনা। এছাড়াও অনুষ্ঠানস্থলে এমব‍্যুলেন্স ও স্ট্রেচারের ব‍্যবস্থা রাখতেই হবে। উপযুক্ত হাসপাতাল কতৃপক্ষের সাথে আগেই বন্দোবস্ত করা থাকবে যাতে জরুরি চিকিৎসা পরিসেবা পেতে কোন কার্পণ্য না হয়। 
    পুলিশ প্রশাসন কোন বড় শিল্পীর অনুষ্ঠান করার আগে অবশ্যই দেখবেন উদ‍্যোক্তারা এই সমস্ত আয়োজনের ব‍্যাবস্থা করেছে কিনা। নইলে কঠোর ভাবে এগুলো বলবৎ করতে হবে। তবেই প্রয়োজনীয় অনুমোদন দেওয়া যাবে।
    একটি বড় জলসা কোন অপ্রীতিকর অবস্থা ছাড়া সুন্দর ভাবে করতে পারলে কিন্তু আমাদের ও আমাদের প্রিয় শহরেরই সুনাম হয়। আজ শিল্পী কেকের এরকমভাবে অনুষ্ঠানের পর চিরতরে চলে যাওয়া পর এই শহরে বাইরের নামী শিল্পীরা অনুষ্ঠান করতে এলে এখন দুবার ভাববেন। তাতে এ শহরের মানুষের কোন দোষ থাকুক আর নাই থাকুক। অথচ কলকাতার মানুষদের বরাবরের সুনাম যে তারা কালচারের প্রকৃত সমজদার ।

    আমরা বাঙালিরা বড় আবেগ প্রবণ জাতি। আবেগ থাকা ভালো। তবে তা মাত্রা ছাড়িয়ে গেলেই তো মুশকিল। একজন নামী এবং আমার অত্যন্ত প্রিয় একজন শিল্পী আবার মুখবইয়ে মুখ দেখাতে বড়ই ভালবাসেন ! মাঝে মধ্যেই লাইভ অনুষ্ঠানে আসেন।মনের কথা ও বেদনা ব‍্যাক্ত করেন। তা করুন। কিন্তু অমুক শিল্পী কে ? আমরা তার চেয়ে অনেক ভালো গাই, বাঙালি ও বাংলা গানের  গায়কদের গান আপনারা শুনুন এধরনের কথা আবার কেন ? কে কোনটা শুনবেন,কোন ভাষার শিল্পীর গান ভালবাসবেন,কার অনুষ্ঠানে ভীড় করে আসবেন এগুলো তো আর ডিক্টেট করা যায়না !  সারা ভারত এর আগে হেমন্ত, মান্না দে,গীতা দত্তের  গান শুনেছে। এখনো রোজই শুনছে। তারা তো লিজেন্ড। এখন সর্বভারতীয় শ্রোতারা শ্রেয়া,শান ও কুমার শানুর গান শুনছে। কেউ তো বলেনি ওরা বাঙালি শিল্পী ! ওদের গান কেন শুনব ? মুখবই এ লাইভে এসে উল্টাপাল্টা কথা বলা এখন আস্তে আস্তে একটা মনরোগে পরিনত হচ্ছে। আর তার সাথে বাড়ছে সামাজিক মাধ্যমে মানুষের ট্রোল করার অভ‍্যাস। না,কেকের অকাল মৃত্যুতে আমাদের পরিচিত ঐ নামী শিল্পীর কোন ভুমিকাই নেই। তাকে এজন‍্য কোনভাবেই দায়ী করা যায়না। তার দোষ শুধুমাত্র অযৌক্তিক কথা বলা। আশাকরি উনি এর থেকে নিশ্চিতরূপে শিক্ষা নেবেন। বাকসংযম অভ‍্যেস করবেন।

    সবশেষে আবার মুল বিষয়ে ফিরে আসি। সঙ্গীত শিল্পী কেকের অকালমৃত্যু আমাদের অনেক প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিল। গান তো আমরা প্রায় সবাই ভালবাসি। ভালবাসি প্রিয় শিল্পী কে। আমাদের কত ভাললাগার মূহুর্ত উপহার দেবার জন‍্য। আর কোন প্রিয় শিল্পীর এরকম দুঃখজনক ভাবে অকালে  চলে যেতে না হয় তা আমরা ভাবব না ? আর অনুষ্ঠান চলার সময় বা তারপরেই শিল্পীদের মৃত্যুকে কোনভাবেই গ্লোরিফাই করা যায়না। এ যেন একধরনের সবার অবহেলার ফলে এক সামাজিক অপমৃত্যু। শিল্পী কে কে, আপনি আমাদের ক্ষমা করুন। আমরা এখনো সবাই দায়িত্বশীল নাগরিক হয়ে উঠতে পারিনি যে ! তাই প্রিয় শিল্পী মান্না দে কত দিন আগে গাওয়া সে আমার ছোটবোন গানটি আজো যেন চরম সত্যি।
     "তার গান থেমে গেছে
     নেই শ্রোতা আর ।
    আমি একা বসে আছি
     স্মৃতি নিয়ে তার।
    আনন্দ নিয়ে গেছে 
    ওরা সকলে
    দুঃখটা হোক আজ 
    শুধুই আমার
    অনুযোগ এতো নয় এই শিল্পীর 
    ভাইবোন সকলেরই ভাগ‍্যলিখন।" 
    আসুন না সবাই মিলে একটু চেষ্টা করি এই ভাগ‍্যলিখন একটু পাল্টানোর।যাতে আর কোন শিল্পীকে যেন অবহেলায় ঝরে যতে না হয়।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সিদ্ধার্থ মুখোপাধ্যায় | 2402:3a80:1cd2:38df:378:5634:1232:5476 | ০৩ জুন ২০২২ ১৩:৩০508428
  • একেবারে সময়ানুগ লেখা। 
    দারুণ  লেখা। 
  • Bhudeb Sengupta | ০৩ জুন ২০২২ ১৩:৪০508429
  • ধন্যবাদ বন্ধু। প্রার্থনা করি এমন ঘটনা যেন কম হয় আমাদের এই শহরে।
  • তাপস কুমার দাস | 2405:201:8004:c9eb:4c10:9758:b28e:4006 | ০৩ জুন ২০২২ ১৪:০১508430
  • এক্দম ঠিক।
  • শৌভিক সেনগুপ্ত | 2405:201:800b:c18b:f548:95f5:6aef:477e | ০৩ জুন ২০২২ ১৪:১৫508431
  • কে কে র মৃত্যুটা বড়ই বেদনাদায়ক। আমাদের প্রজন্মের সবাই ওনার গান শুনেই বড় হয়েছে। বারবার উনি আমাদের মনের কথা যেন তুলে ধরেছেন। ওনার চলে যাওয়া যেন কিছুতেই মেনে নিতে পারছিনা। ওনার আত্মার শান্তি কামনা করব, এটা লিখতে গিয়েও যেনো শিউরে উঠছি!
    সত্যিই অনেক স্তরে অবহেলার কারণেই এই অপমৃত্যুর সাক্ষী আজ আমাদের হতে হলো! 
    বিষয়টি তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি!
  • Bhudeb Sengupta | ০৩ জুন ২০২২ ১৪:১৮508432
  • ধন্যবাদ তোমাদের। আশাকরি এরকম ঘটনা থেকে সবাই কিছু শিক্ষা নেবে।
  • Altab Hossain | 2409:4060:407:1b08:9e03:be45:d2f6:c534 | ০৩ জুন ২০২২ ১৪:৫৭508434
  • দারুন উপলব্ধি,, মঞ্চে অনুষ্ঠানের আদর্শ পরিচালন ব্যবস্থা বা আচরণ বিধির কয়েকটি গুরুত্বপূর্ন তথ্য তুলে ধরলেন। আমাদের আরো দায়িত্তশীল হওয়ার যে আহ্বান উপসংহারে রাখলেন তা খুবই ছুঁয়ে গেল।
  • Bhudeb Sengupta | ০৩ জুন ২০২২ ১৫:০৬508435
  • ধন্যবাদ। এই ঘটনা থেকে অনেক  কিছু শেখার আছে। সবাই সচেতন হলেই মঙ্গল।
  • সমীরা সাহা মুস্তফী | 42.110.145.100 | ০৩ জুন ২০২২ ১৫:৫১508436
  • ঠিক সময়ে সঠিক লেখা
  • Bhudeb Sengupta | ০৩ জুন ২০২২ ১৫:৫৭508437
  • ধন্যবাদ বন্ধু। 
  • সৌমেন দাস | 2409:4061:711:2d8a::24b6:e8a1 | ০৩ জুন ২০২২ ১৯:৫২508441
  •  ওই নামী শিপ্লী  "ভালোই ছিল তাঁতি খাচ্ছিলো তাঁত বুনে,কাল হলো সালা এলে গরু কিনে" 
  • সৌমেন দাস | 2409:4061:711:2d8a::24b6:e8a1 | ০৩ জুন ২০২২ ১৯:৫৪508442
  • ইশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যেনো এই ঘটনা কোথাও পুনরাবৃত্তি হয়।
  • সৌমেন দাস | 2409:4061:711:2d8a::24b6:e8a1 | ০৩ জুন ২০২২ ১৯:৫৭508443
  • ইশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যেনো এই ঘটনা কোথাও পুনরাবৃত্তি না হয়।
  • Abira Dasgupta. | 2409:4042:4e9f:c383:c41c:1fb2:ed30:769d | ০৩ জুন ২০২২ ২২:৪৫508448
  • Satti mon chua galo...amra ektu shocheton  thakle hoe to beche jeto akta pran. 
  • Bhudeb Sengupta | ০৪ জুন ২০২২ ০৫:৫৭508472
  • একদম ঠিক কথা । 
  • Bhudeb Sengupta | ১৩ জুন ২০২২ ০৭:৩৯508952
  • এখন শুনেছি কলকাতার পুলিশ আবার নতূন করে এস ও পি বা স্টান্ডার্ড ওপারেটি্্ প্রসিডিয়োর প্রকাশ করবেন যাতে এই ধরনের অনুস্ঠান সুস্ঠু ভাবে করা যায়। খুব ভালো কথা।তবে সবচেয়ে বড় প্রয়োজন সাধারণ বা কমন সেন্স। যেখানে এত জনপ্রিয় শিল্পীকে নিয়ে বড় অনুস্ঠান হবে ,ভীড় হবে, অল্প বয়সী বাধ ভাঙা জনস্রোত আসবে সেখানে কলকাতার পুলিশ কিন্তু জানে তার কর্তব্য কি। আর যেন আমাদের এরকম দেখতে না হয়।কলকাতার জনগনের কাছে হাত জোড় করে বলছি এই শহরের কালচারের সুনাম আসুন সবাই মিলে অক্ষুন্ন রাখি।
  • Snehasish Gupta | 103.155.194.10 | ১৬ জুন ২০২২ ১১:২৬509058
  • শুধু গায়ক বা শিল্পী নয় ।যে কোন প্রোফেশন এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য .
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লড়াকু মতামত দিন