ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • যুদ্ধ যখন নির্দিষ্ট কোন গোষ্ঠীর জন্য লাভজনক.. 

    AR Barki লেখকের গ্রাহক হোন
    ৩০ অক্টোবর ২০২১ | ১৫৮ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • আফগানিস্থানে আমেরিকার মোট ব্যয় হয়েছে দুই ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি। এর মধ্যে 800 বিলিয়ন ডলার সরাসরি যুদ্ধে ব্যয় হয়েছে। আর 85 বিলিয়ন ডলার ব্যয় হয়েছে আফগান বাহিনীর প্রশিক্ষণের পেছনে। এই আফগান বাহিনীর বেতন বাবদ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি বছর ব্যয় হতে প্রায় 750 মিলিয়ন ডলার।
    .
    তবে যুদ্ধ শেষ হয়ে গেলেও ব্যয় কিন্তু থেমে থাকবে না। আফগান যুদ্ধে আহত 20 হাজার মার্কিন সেনা ও নাগরিকদের চিকিৎসা বাবদ ইতিমধ্যে 300 বিলিয়ন ডলার ব্যয় হয়েছে ধারণা করা হচ্ছে আগামীতে এই খাতে যুক্তরাষ্ট্রের আরো 500 বিলিয়ন ডলার ব্যয় হবে।
    .
    এই যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র সরকার যে অর্থ ব্যয় করেছে তার সিংহভাগই কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ঋণ হিসেবে নেওয়া। সুদ বাবদ ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় ব্যাংকে 500 বিলিয়ন ডলার পরিশোধ করা হয়েছে। 2050 সাল নাগাদ সুদসহ আফগান যুদ্ধের ব্যয় দাঁড়াতে পারে সাড়ে ছয় ট্রিলিয়ন ডলার, ইরাক যুদ্ধের হিসাব বাদেই।
    .
    এই যুদ্ধের খরচ যুক্তরাষ্ট্র সরকার উঠাবে সাধারণ জনগণ ও কর্পোরেট ট্যাক্স বাড়িয়ে। কর্পোরেট ট্যাক্স বাড়ালে তারা সেবা খাতের ব্যয় বাড়িয়ে সেটা সাধারণ জনগণের পকেট থেকে উঠাবে। অর্থাৎ যুদ্ধের খরচাটা মূলত যাবে সাধারণ জনগণের পকেট থেকে। যুদ্ধক্ষেত্রে প্রাণটা মূলত দিতে হয়েছে তাদেরই।
    .
    যুদ্ধক্ষেত্রে অর্থ ও প্রাণ দুটোই সাধারণ জনগণকে দিতে হলেও বিনিময়ে তাদের তেমন কোন অর্জন নেই অর্জনটা হয়েছে মূলত ডিফেন্স কনট্রাক্টরদের। জনগণের ট্যাক্সের অর্থ যুদ্ধের অস্ত্রপাতি ও লজিস্টিক কেনার নামে ডিফেন্স কনট্রাক্টরদের পকেটে গিয়ে ঢুকেছে।
    .
    জর্জ বুশ যখন নাইন-ইলেভেনের প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য আফগানিস্থানে হামলার সিদ্ধান্ত নেন তখন ডিফেস কন্ট্রাক্টর কোম্পানির 10 হাজার ডলারের শেয়ারের মূল্য পরবর্তীতে দাঁড়িয়ে ছিল 1 লাখ ডলার। আমেরিকার শীর্ষ পাঁচ ডিফেন্স কন্ট্রাক্টর হচ্ছে বোয়িং, রেথিয়ন , লকহিড মার্টিন, নর্থ্রূপ গ্রুম্যান ও জেনারেল ডাইনামিকস।
    .
    সাবেক সিআইএ কন্ট্রাক্টর ও একাডেমিক ক্যালমার্স জনসন বলেছিলেন, "আমি আপনাকে গ্যারান্টি দিচ্ছি, যুদ্ধ যখন লাভজনক হবে তখন আপনি ঘন ঘন যুদ্ধ হতে দেখবেন।"
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে প্রতিক্রিয়া দিন