• হরিদাস পাল  কাব্য

  • বিভাব (দ্বিতীয় ভাগ)  

    Avi Samaddar লেখকের গ্রাহক হোন
    কাব্য | ২২ অক্টোবর ২০২০ | ১৮৮ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • ৮.


    আমি তো আছিই। শুধু সময়ের  ছোবলমৃন্ময়ে মুহূর্ত সঞ্চয়  হয়ে আছি। কিম্বা এ জীবনে যেসব সখ্য ভাঙলো গড়লো, যে অনুবোধ পথের নুড়ির মতো পড়ে রইলো মুথা ঘাসে তাদের বিভেদ প্রলেপে  বস্তুত বিভোর হয়ে আছি। এ এক মাল্যবান সুচারু সময় প্রেক্ষা, যার পটে আমি নিদারুণ নিরাগ্রহের কুসুম ! !  ফুটে উঠি । ঝরে যাই। কখোনো বা জলের কাছে বসে থাকি সান্ধ্য গড়ানে, আর ভাবি, এই যে চাঁদের নকুল টুপ করে ঝরে পড়লো জলে,  এও কি অশ্রু  মাত্র নয় ! মাথার ওপরে ওই যে  অযাচিত আকাশ সেও কি নয় আমারই বিষাদ বর্ণের  নিকশিত নীল মাত্র!


    ৯.


    মনের এই মর্ষকাম ঢিবি। শব্দের এই শবাধার পেরিয়ে আমি তোমার কাছেই পৌঁছতে চাইছি, অয়ি অক্ষ নির্জনপথ  তুমি কি নেবে এই অস্তিজলঢেউ ! অথবা যে মেরুকাঙ্খা আমাদের বিচ্ছেদমোক্ষ মনের মৌরসী, দেখো তার  স্তিমিত তিমির খন্ডে,  ওই যে ফুল ও তার আত্মরতি আলো, ওই কি গন্তব্য শেষ  নয় ?  ওই কি নয় আমাদের মোক্ষমর্ষকাম সমাপ্তিবলয়? তবে কেন এই পুনরাবৃত্তি,  কেন দ্বন্দ্ব ও বীজে ফুটে উঠি রোজ  কেন স্বকৃত দোয়াত ভ'রে ওঠে শব্দের বিফলবিলাসে ! আহ্  নিষিক্তপ্রণয় ! এ মর্মরে এ মীমাংসা আজো কেন  সহজ হলো না। 


    ১০.


    চল ধ্বনির কিছু বিফলতা। মনোধ্বনির এই বিন্দু কুটির। এই নিয়েই একটি জলভাগের নাবিক আমি। 


    ভেসে থাকি একহারা রাত্রিমোক্ষণে,আসলে অক্ষরের আলো জ্বলে অলক্ষ্য লতার নীলে  নাহলে কি চারণ আর কি চাঁদের  গাঢ়তা কোনোকিছু রজন ঢালে না। শুধু শান্ত কুটিরে ফিরে এলে একটি ভুবন ডাকে বিগলিত তরলে ডাকে গহনবধূটি, যেন জ্যোৎস্নাপথ-


    আর স্খলিত ইশারায়৷! তুমি তার মোহন ভ্রুকুটির শিখা তুলে নিতে গিয়ে দেখো,তোমারই বেদনদুহিতা 


    পড়ে আছে অর্ধ দগ্ধ, অক্ষরের আলে ! 


    ১১.


    চমৎকার এ রজনী মাংস। চমৎকার এ অনিকেত সুরা। কেননা অঝোর  নির্জন পথে এ আয়োজন ছিল টুপার্ত এক খনন আশ্রম!  এ ভ্রমণ, এ জন্ম শ্রেয় ও সহনশীল করে তোলা সে যে কি টলনস্থিতি, সে যে কি অক্রুরসমতা !  তুমি তার কতোটুকু তুলে আনবে শব্দ যোজনায়! তবুও সুদূরের তর্জনীশাসন থেকে ফিরে আসে মন !  গলিত এক অবয়ব। চলিত এক নিঝুম সঞ্চয়ে, 'আমি'টির ভেতরিক দাদন খাটতে খাটতে এই, একজীবন  ও তার স্খলন প্রশ্রয়ে ছোপ সীবনের সুস্বাদ  তুলে নিচ্ছে ক্ষরিত রাত্রি, প্রবাহিতা..

  • বিভাগ : কাব্য | ২২ অক্টোবর ২০২০ | ১৮৮ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
আরও পড়ুন
বিভাব - Avi Samaddar
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আলোচনা করতে মতামত দিন