এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  কাব্য

  • আত্মপোনিষদ্ (৯) - প্রশ্ন

    Chitralekha Chakraborty লেখকের গ্রাহক হোন
    কাব্য | ২১ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৯৪ বার পঠিত
  • প্রশ্ন উপনিষদ্ (অথর্ববেদ)
     
    (১)
    ভরদ্বাজের ছেলে সুকেশা, শিবির বাছা শৈব সত্যকাম, 
    সূর্যের নাতি গর্গগোত্রীয় সৌর্যায়নি নাম, 
    অশ্বলপুত্র কৌসল্য, ভৃগু বংশীয় বৈদর্ভি ভার্গব  
    ও কত্যের ব্যাটা কবন্ধী কাত্যায়ন গণিতবিদ অসম্ভব 
    দধীচি পুত্র পিপ্পলাদ আশ্রমে একসাথে পৌঁছান   
    জিজ্ঞাসিলেন পরব্রহ্ম কিংস্বরূপ, কি বা তাঁর প্রত্যক্ষ প্রমাণ? 
    হাত তুলিয়া বলিলেন পিপ্পলাদ: রোসো, রোসো, শিষ্যগণ 
    আগে এক বৎসর করো এখানে অধ্যয়ন। 
    বিপরীত ক্রমে, যাকে বলে হিস্টেরন-প্রটেরন  
    বৎসরান্তে ছ'জনে ছ'ছ'টি প্রশ্ন করিল প্রস্তাবন।

    জগতে এ সকল প্রাণী উৎপন্ন হবার কি-ই বা কারণ 
    কতজন দেবতা করিয়াছেন মানব শরীর বরণ 
    কোথা হইতে এলো এ প্রাণ, তার বসৎ বাটী শরীর হলো কেমোনে
    এ দেহে কে হইলো লীন ঘুমের ফাঁকে, স্বপ্নে, জাগরণে 
    কোন-লোকে যায় যে-মানুষ তপস্যারত যাবজ্জীবন  
    জানেন কি সেই ষোলোকলা পুরুষ কেমনতরো অবয়ব আরোহণ?

    (২)
    পিপ্পলাদ বলে: যখন তোমার খিদেয় পায়, তখন তিনি বস্তু 
    যখন তোমায় মানুষ পায়, তখন তিনি বিষয়-বস্তু 
    তার বিষয়েই জানতে চাইছো ছ'জনায়। 

    পরোব্রহ্ম প্রয়োজন অনুযায়ী আবির্ভূতায় 
    নিজো-সময়, জগতো-সময়, জাগ্রতো-সময় 
    আর, আরো আছে যা যা কিছু অপচয় 
    স্থূলো হইতে সূক্ষতরো, মূর্ত অমূর্ত ধানের নাড়া 
    খাদ্য কিম্বা খাদক, উর্দ্ধে অথবা নিম্নে বাড়ন্ত চাড়া। 
    চাকার নাভিতে গোলোকে আঁটা কাঠির মতো ঘুরন্ত স্থির  
    ষোড়শ-কলা পুরুষ আপাত অধীর 
    সতোতো নিথর বুড়ো পীর 
    বলিও সুকেশা যখন জিজ্ঞাসিবে হিরণ্যগর্ভ 
    কোসোল দেশীয় রাজপুত্তুর সন্দর্ভ  
    নাভিতে তার কলা-যাদু পদোপাৎ পরিবর্তনীয় হৃদয় স্তম্ভ ।

    (৩)
    উপাসনা-হীন মানুষ কোন দিকে যায়?
    জানিবে নির্দ্বিধায় 
    সে লক্ষ্যহীন দৌড়ায়।  
    পর 
    অপর 
    ওমকার … 
    ত্রিমাত্রা-বিহীন শ্রেষ্ঠ প্রতীক । 
    অ-উ-ম 
    সাপের খোসা 
    ফেলে আসা …
    পাপমুক্ত সঠিক । 
    জাগরিত বিশ্ব, ঘুমন্ত তৈজস, ধী সুষুপ্তি, তুরীয় লোকে 
    যেতে পারে সে, 
    যেতে পারে না, 
    তুরীয় পেরিয়ে তৃতীয়-নেত্র ত্রয়োম্বকে।  
    জেনো সত্যকাম 
    তপস্যা যাতায়াত নিষ্কাম 
    ধেয়ান মধু-আহরণ মধু-কোষ মৌচাকে।

    (৪)
    যখন মানুষ না শোনে, না দেখে, না ছোঁয়, না বলে কথা
    না চলে, না গ্রহণ করে, আনন্দ ও ত্যাগ না করে অযথা 
    লোকে বলে 'তিনি ঘুমাইতাছেন, জাগরিত না, শয়ন করে'
    জেগে থাকে প্রাণোবৃত্তি প্রাণোবায়ু দেশান্তরে মনের দ্বারে  
    যাহা কিছু সত্য ও যাহা কিছু ভ্রম, অর্থাৎ 
    যাহা কিছু বলা হইল, বা হইল না বরবাদ 
    মনে মনে করে ঠাহর 
    ধাতু দর্পণ পড়শি-কুটুম অস্থাবর 
    স্বপ্ন নয়, আত্ম স্বরূপ সুখ, অক্ষর-পুরুষ, প্রাণাধিক 
    পাখির নীড়ে ফেরার মতই ঘটছে প্রাত্যহিক  
    সূর্যপৌত্র সৌর্যায়নি জেনো —
    তিনি তুরীয় হতে তুরীয় জোনাক আলো 
    তমোহীন মানস-চক্ষু, জগৎ-বস্তু, সর্প-মণি জন্মালো  
    এ জমিনে উপাধি রহিৎ ক্ষেতের পর ক্ষেত ফুরালো।  

    (৫)
    হে অশ্বল তনয় কৌসল্য, ব্রহ্ম বিদ্ 
    প্রশ্ন তোমার বুনিয়াদি, বাড়ির দেয়াল সিঁধ …
    পরমেশ্বর হইতে প্রাণ জন্মায় যেমন মানুষ থেকে ছায়া 
    পরমেশ্বর ও প্রাণ — নিকটবর্তী আলোর মায়া   
    অতঃপর, 'এখানে যাও' 'ওখানে যাও' উপযুক্ত  
    অপর প্রাণগুলি আলাদা আলাদা পুঁতির ন্যায় নিযুক্ত 
    বড়ো দীর্ঘতম বৃক্ষ পিতা, ফুল-পাতা-ফল-শাখায় দীর্ঘকায় 
    শরীরে জলের মতো আগমন করেন — প্রতিফলন প্রার্থনায়।

    (৬)
    হে ভৃগু বংশীয় বৈদর্ভি ভার্গব
    প্রথমে ধুলো পরিবার, ঠান্ডা জরোদ্গব …
    একে একে, বায়ু, অগ্নি, পৃথিবী, জল 
    আকাশ মেঘলা জ্যোৎস্না টলোমল …
    বাক্, মন, কর্ণ, চক্ষু, স্পর্শ স্পর্ধাকার 
    ইন্দ্রিয় শ্রেষ্ঠ্যতা দৈহিক ভোমোরা সহকার। 
    বললে সবায় 'মোহপ্রাপ্ত হইয়ো না যেনো' 
    শরীর বেশি মনমাতানো  
    দেহের অধিক উঠিলেন তিনি 
    বাকিরাও ছুঁহিতে চায় অমৃত সম্মোহিনী
    কোটরে সুস্থির ফিরিলেন যখন তিনি 
    মক্ষিরাণী পিছু বাকিরাও আলাপীনি।   
    এমন দেহ-ধারক প্রজা 
    সহজ নয় খোঁজা 
    দাঁড়িয়ে আছে রথ, দাঁড়িয়ে রথের চাকা
    চলছে, ঘুরছে, নানান গড়ন, ছায়া মরীচিকা।

    (৭)
    হে কবন্ধী কাত্যায়ন প্রসিদ্ধ গণিত শাস্ত্র বিৎ 
    প্রশ্ন করিয়াছ তুমি অতি আচম্বিৎ।   
    প্রজাপতি হইতে প্রজা, তদা হইতে শ্রুতি 
    তপস্যা, ব্রহ্মচর্য, স্থূলো বা সূক্ষ্ণ বিচ্যুতি 
    দুই, জুড়ি, দম্পতি, যুগ্ম, সহজাত, জুড়ুয়া, যমজ নিখুঁত
    চন্দ্র/সূর্য্য, উত্তর/দক্ষিণ যুগল-মিথুন অংশ-ভূত। 
    সংবৎসর ষড়-ঋতু মাসিক অহোরাত্র দিবাভাগ কলরব 
    অন্ন, শুক্র, রতিক্রিয়া, রস ও তেজস, অবারিত-প্রাণ মহোৎসব। 
    যারা সন্তান কামনা করেন 
    তারা সূর্যের দক্ষিণ পথ ধরেন   
    প্রাণী সৃষ্টির এই তো সাধারণ কারণ নিয়ম 
    আর উত্তর পথে যান যারা 
    আত্মা অন্বেষণ করেন 
    ইহা হইতে অসম্ভব পুনরাবর্তন ক্রম। 

    আসি-যাই-আসি         জন্মাই আমি-ই আবার 
    আমি-ই আমার পুনরাবর্তন — পুনঃ অবতার ॥
    ~~~

    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • কাব্য | ২১ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৯৪ বার পঠিত
  • আরও পড়ুন
    ইঁদুর  - Anirban M
    আরও পড়ুন
    ** - sumana sengupta
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • আকাঙ্খা  | 165.225.8.111 | ২২ জানুয়ারি ২০২৪ ১৮:৫৬527915
  • এই লেখাগুলো সিরিজ করে রাখা হলে বেশ হত 
  • Chitralekha Chakraborty | ২৩ জানুয়ারি ২০২৪ ১২:২২527921
  • প্রত্যেকটি লেখার ওপরে ও নিচে অন্য উপনিষদ গুলোর নাম এবং লিংক দেওয়া আছে (নীল রঙে) --- চাইলে পড়তে পারেন। smiley
  • আকাঙ্খা | 165.225.8.111 | ২৩ জানুয়ারি ২০২৪ ১৮:৫০527923
  • ও হ্যাঁ, কি করে মিস করে গেলাম? ১ ২ ৩ ৪ খুঁজছিলাম অজান্তেই! 
    এ তো আরো ভাল হয়েছে।  
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে মতামত দিন