এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  কাব্য

  • আত্মপোনিষদ্ (২) - কেনো

    Chitralekha Chakraborty লেখকের গ্রাহক হোন
    কাব্য | ১৬ জানুয়ারি ২০২৪ | ২১০ বার পঠিত
  • কেনো উপনিষদ্ (সামবেদ)

    (১)
    [ক] 
    হা ব্রহ্ম হা পূজনীয় হা অসীম সাধারণ্যে  
    আমোরা যুগল গুরু-শিষ্য নৈমিষ্যারণ্যে
    নিরাপদে ঠাঁই দাহো সদৃশো ধরনে ।    
    উভয় সমান বিদ্যা, ফসল, ধেয়ান 
    সমো-মান ভোগ করি অন্ন, ফুল, জলোযান ।    
    যেনো বিদ্যা তর্ক শ্রুতমান দুজনায়
    সমো সামর্থ্য লাভ করি একই নিমেষ সময় ।
    উভয় অধীতো জ্ঞান অবগতি 
    তাৎপর্য্য প্রকাশ হউক চর্চা গীতি  
    ভ্রান্তি বা প্রমাদ হেতু একে অপরে
    যেনো বিদ্বেষ-ভাব না আসে অভ্যন্তরে ।  

    শান্তি আর শান্তি আর শান্তি নামুক
    ত্রিলোক বিপদ ক্লেশ থামুক  ॥

    [খ]
    এই অঙ্গ, বাক্, ইন্দ্রিয়, প্রাণ,
    চক্ষু, কর্ণ, নাসিকা মহান
    লালিত করুক ব্রহ্ম জ্ঞান ব্যাপকতা
    ইচ্ছে আলো — জোনাক পোকা   
    যেন স্বীকার করি প্রত্যহ তা —
    হেতু বা অহেতু ...  
    তাহার সাথে হউক আত্মীয়তা
    সোহাগ কুটুম সেতু ।
    উপনিষদ্ চৈতন্য জ্ঞান
    বুড়ো যাযাবর মরীচিকা করে জড়ো —
    ব্রহ্ম আমায় ক'রো না প্রত্যাখ্যান 
    ক'রো না গৌণ এমনতরো।

    শান্তি আর শান্তি আর শান্তি নামুক
    ত্রিলোক বিপদ ক্লেশ থামুক  ॥

    (২)
    দেবতার দেবতা ব্রহ্ম-রুপী ব্রহ্মা-র সহায় 
    একদা অবিরত যুযুধান
    অসুরদের ক্ষান্ত করে দেবলোক বিজিত হয় ।
    তদীয় ক্ষুণ্ণমান  ...
    দেবতাদের অহং ভারী — তারা ব্যস্ত হল নিজ প্রশংসায় । 
    বিস্মিত জগৎ পিতা এদের অজ্ঞান মুখরতায়
    এক চরম ছুতা করিলেন উপায় ।

    ব্রহ্ম স্বয়ং স্বরূপ ধারণ করলেন সাংকেতিক   
    নিরাকার হইতে সাকার হইলেন সাম্প্রতিক
    এবং আবির্ভূত দেবতাকূল সম্মুখে তীক্ষ্ণধার । 
    দেবতারা অপারগ করিতে সে-ই দেহ-ছবি উদ্ধার ।
    ভাবিলো তারা — এ কেমন প্রবাসী কৌতুক প্রীতি ?
    কে এই রহস্যময় পুরুষ দিব্যজ্যোতি ?
    কি তার নাম-ই বা ?
    প্রেত পরীবৎ যক্ষ ——                                               
                                     — অদ্ভুত মরীচিকা?
    (৩)
    দেবতারা ডাকলোঃ 'অগ্নি! অগ্নি! প্ৰজ্জ্বলিতো হোক তবো তেজ আর-পার 
    তোমার আলোকে চিনতে চাই অদ্ভুত পুরুষোকার' ।
    অগ্নি প্রসারিত হলো সাধ্যমতো তার ।

    (অহ্)নির্বাণ জিজ্ঞাসিলেন: 'কে তুমি ভায়'? 
    — 'আমি আগুন; পঞ্চভূত সমুচ্চয় …
    আমি জাতোবেদা, ত্রিকালজ্ঞ প্রায় ...
    সর্বদর্শীতায়'  ...

    ফের জিজ্ঞাসিলেন রক্ষাকর্তা মহামতি     
    — 'তা ভায়া, তোমার খ্যাম্তা-টা কি?'
    — পারি, এই সৃষ্টির সবকিছু, রামধনু পাখি জোনাকি
    জ্ঞাতো অজ্ঞাতো পুকুর, পথের ছায়া, রাজহাঁস  
    হ্যাঁ, সব্বাইকে করতে পারি ছাই একরাশ ' ।
    ব্রহ্ম-স্বরূপ স্বল্প হাসিলেন অতি
    — 'আচ্ছা, জ্বালাও দেখি এই নিরীহ খড়ের মতো ঘাস '।
    সেমতি আগুন খড়ের মহা দস্যু  
    খড়ের হলো না তাতে কিস্যু
    নিজো তেজে মহাতেজ রিক্ত হ'লো নিজে-ই  
    জ্যোতি-ব্রহ্মণ অগোচরে আবছা আলোয় কি যে ! 

    আর অমোনি অতঃপর ...
    নিঃশব্দে বিদায় নিলো, ফিরে গেলো ঘর
    হায় অর্বাচীন ভগ্ন মনোরথ অগ্নি
    এক অউম্-কার তুমি কিনা চিনিতে পারোনি ?
     
    (৪)
    দেবতারা বললোঃ 'বায়ু ! বায়ু ! গতিশক্তি পরমায়ু যার 
    ত্বরণে তোমার বুঝায়ে দাও সে অদ্ভুত যক্ষ আকার' ।
    উড়িলো বাতাস সাধ্যমতো তার ।

    (সহ্)নির্গুন জিজ্ঞাসিলেন: 'কে তুমি ভায়'? 
    — 'আমি বাতাস, বায়ুরাজ, পঞ্চভূত সমুচ্চয় …
    আমি-ই মাতরিশ্য, ঝড় ও ঝড়হীন প্রাণো শ্বাস অতিকায় ...
    আশূন্য পরিব্যাপ্ততায়'  ...

    ফের জিজ্ঞাসিলেন অনন্ত মহামতি     
    — 'তা ভায়া, তোমার খ্যাম্তা-টা কি?'
    — পারি, এই সৃষ্টি নিয়ম, সংসার মমতা  
    আলুথালু চারদিক দীর্ঘ অবসাদ জড়তা
    এক ফুঁ-এ ওড়াতে পারি বিদেশ বিভুঁই ভিন গাঁ ।
    ব্রহ্ম-স্বরূপ স্মিত হইলেন অতি
    — 'আচ্ছা, ওড়াও দেখি এই কোমল পত্র অন্যথা '।
    তদ্যপি বাতাস বৃক্ষ-পত্র পরিযায়ী ধীর    
    ঝরে যায় আসে পুনরায়  শব্দ শিশির
    নিজো স্ফূর্তি তিরতি খেলায় অস্থির বায়ু যবে  
    বিচিত্র ব্রহ্মণ উধাও হলেন কবে  

    আর অমোনি অতঃপর ...
    নিঃশব্দে বিদায় নিলো, ফিরে গেলো ঘর
    হায় অর্বাচীন ভগ্ন মনোরথ বায়ুরাজ্  
    এক অউম্-কার তুমি কিনা চিনিতে পারোনি আজ ?
     
    (৫)
    দেবতারা ভাবলোঃ 'মঘোবন ! পরিব্যাপ্তি আবহাওয়া যার 
    হে অমরেশ ! যাহার ওপর উর্বরতা ভার
    বজ্রালোকে উদ্ভাসিত করো সেই অদ্ভুত রূপ তার' ।
    ইন্দ্র জাল বিস্তারিল সাধ্যমতো তার ।

    এক্ষণে ব্রহ্ম-স্বরূপ নিরাকার সর্বব্যাপী এক লহমায় 
    বিস্মিত মেঘরাজ কৌতূহলী আসমুদ্র সম প্রায় 
    সেরূপ ব্রহ্ম-মূর্তি অন্তরে আঁকিলেন ধেয়ান মগ্ন সময়।
    অকস্মাৎ সুবেশধারী গগনচারী উমা, হিমালয় দুহিতা
    বিদ্যুৎ প্রভার মতো হইলেন আবির্ভূতা
    পরম কর্তার প্রকৃতি রূপ, নারী, আদি শক্তি দৃঢ়তা  
    বিমূঢ় দেবেন্দ্র অন্তরে উচ্চারিলেন: " আ ... হ্ "।

    মহেন্দ্র স্তম্ভিত চলৎশক্তি হীন করজোড় সম্প্রতি 
    বলিলেন: হে ঐশ্বরিক উমা, ব্রহ্ম-বিদ্যা, শ্রুতি 
    আপনি বলিবেন যা-ই
    মহাসত্য তা-ই
    মানিব নির্দ্বিধায় ...
    — কে ঐ পুরুষোকার ?
    অদ্ভুত জ্যোতি যার ?

    — উনি-ই ব্রহ্ম, হিরন্ময় তাঁর স্বরূপ বরণ 
    সৃষ্টির বস্তুগত, গুণগত, প্রামাণ্য ও অন্তিম কারণ ...
    উনি-ই ঈশো, সময় স্থান উচিৎ অনুচিৎ 
    উনি-ই ঈশ্বর, সর্ববেত্তা, সৎ চিৎ ...
    ভূত ভবিষ্যৎ অধুনা আদি একহি অউম্-কার
    নিকটতম স্পর্শে তোমার চক্ষু জ্ঞাত সার ।
    এ উমা বাক্যে জানিলে তুমি ব্রহ্ম স্বরূপ জলো ক্রিয়ায়
    আজ হইতে দেবো-শ্রেষ্ঠ তোমার নাম-ই হয়
    দিগ্বিদিক খুঁজিছো যাকে —— তিনি চিন্তনে হৃদয়স্য মজবুত
    ব্রহ্ম নিয়তঃ জ্ঞাত তুমি-ই —— প্রধান পঞ্চভূত ॥ 
    ~~~
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • কাব্য | ১৬ জানুয়ারি ২০২৪ | ২১০ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • নন্দিতা বোস বারিক | 2401:4900:7086:98e6:b064:a7ff:fec7:c53f | ১৭ জানুয়ারি ২০২৪ ১৯:৩৬527704
  • ভালো লাগলো চিত্রলেখার আত্মপোনিষদ। 
  • Chitralekha Chakraborty | ১৭ জানুয়ারি ২০২৪ ২২:২১527709
  • শেষ হয়নি রে ...
    পরতে  (ড-এ শূণ্য র খুঁজে পাচ্ছি না) থাকিস ...
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভালবেসে মতামত দিন