এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • avi | 113.24.86.211 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৫:২৫52609
  • মিস্টার ডস আবার কি কথা! বলুন "হের ডস"।
  • b | 135.20.82.164 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৫:৩৯52610
  • আরশোলা। হুঁ হুঁ। ডাইনোসরদের যুগ থেকে টিকে আছে। মারতে পারলেন?
  • lcm | 83.162.22.190 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৬:০১52611
  • এই যে বিভিন্ন প্রজাতির পাখি বা ফড়িং বা সবজে-ব্যাং বা বাঘ, সিংহ - এদের সংখ্যা কমে গেলে - বা এরা হাওয়া হয়ে গেলে ঠিক কী হবে। মানে বিপদটা ঠিক কী?

    একদল মানুষের বক্তব্য - - এমন বহু প্রাণী তো লুপ্ত হয়েছে হাজার হাজার, লক্ষ লক্ষ বছর ধরে - ডাইনোসর, ডোডো পাখি থেকে সেবার-টুথ ক্যাট...আরো কত শত প্রাণী। কনজার্ভেশন অফ স্পেসিস - এ নিয়ে এত হৈ চৈ কেন, বিভিন্ন স্পেসিসের এক্সটিংক্শন তো বহুদিন ধরে হয়ে আসছে।

    বিপদ বলতে প্রধানত যে পয়েন্টগুলোর উল্লেখ করা হয় তার হয় তার মধ্যে অন্যতম হল - ইকোসিস্টেমে ডিসব্যালান্স বা বায়োডাইভার্সিটি ডিসব্যালান্স। কিন্তু সেটা ঠিক কী?

    ধরা যাক ইকোসিস্টেমের ফুড চেইনের মাথায় যে সব প্রাণী আছে - কার্নিভোরাস প্রাণীরা - বাঘ/সিংহ(ক্যাট ফ্যামিলি), মাংসাশী ঈগল - - ইত্যাদি প্রাণীরা যদি একে একে পৃথিবী থেকে হাওয়া হয়ে যায়, তাহলে পিরামিডের পরের লেয়ারে যারা, অর্থাৎ, হার্বিভোরাস (তৃণভোজী) -- হরিণ, গরু, ছাগল, বাইসন --- এদের সংখ্যা হু হু করে বেড়ে যাবে --- এবং তাদের খাদ্যসংকট হবে, অর্থাৎ, তাদের খাওয়ার চোটে গাছপালা সব শেষ হয়ে যাবে - হাগুতে তো বায়োস্ফিয়ার পুরো মিথেন চেন্বারে পরিণত হবে, পৃথিবী ধ্বংস হবে। আর, তাছাড়া হরিণের আর গরুর গা থেকে এমন সব সাংঘাতিক অসুখ ছাড়াবে যে আপনা আপনিই গাছপালা, পশু, পাখি সব শেষ হয়ে যাবে।

    মানুষও শেষ হয়ে যাবে। তাই এত ভয়। ভাববেন অন্য প্রাণীদের কথা ভেবে এত আকুলতা। নিজেদের স্বার্থেই...

    কিন্তু এত টেনশনের কিস্যু নাই। তদ্দিনে পৃথিবীতে দশ বিলিয়নের বেশি মানুষ হয়ে যাবে, তারা সব হরিণ/ভেড়া/গরু মেরে খেয়ে নেবে। তাইলের আবার ব্যালান্স উইল বি ব্যাক - সুন্দর ভুবন।

    সুতরাং, সবাই মাংস খাওয়া প্র্যাকটিস করুন। তবেই পৃথিবী টিঁকে থাকবে।
    হয়ে গেল, প্রবলেম সলভ্‌ড্‌।
  • কল্লোল | 111.63.89.1 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৬:০২52612
  • এটাই তো। লোকে এখনো হ্যা হ্যা করে হেসে যাচ্ছে। এটাই বলার ছিলো।

    অথচ দূষণ বাড়ছে ও ব্যাপারটা আর ধ্যুস-এর পর্যায়ে নেই, সেটাও সকলেই জানে।
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৬:১৪52613
  • লেটেস্ট সংখ্যা হলো আম্রিগায় "বছরে" ৯০০০ পাখি।

    আম্রিগায় "দিনে" প্রায় ৯০০০০ ফাইট চলে।

    আর রোড অ্যাকসিডেন্টে মানুষ মারা যায় বছরে প্রায় ৩৫০০০।
  • dc | 132.164.236.159 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৬:১৯52614
  • lcm দা আমাদের সাস্টেইনেবল আর এফিসিয়েন্ট পদ্ধতিতে গ্রো করার উপায় তো খুঁজে বের করতেই হবে। তবে সেটা সভ্যতার চাকা উল্টোদিকে না, সামনের দিকে ঘুরিয়েই হবে। ডেভেলপমেন্টের জয় যেসব প্রব্লেম তৈরি হয়েছে সেসবের টেকনোলজিকাল সলিউশান আমরাই বের করবো। গ্রিন কেমিস্ট্রি, ক্লোজড ইকনমি, এই মডেলগুলো যতো ডেভেলপ হবে ততো আস্তে আস্তে আমরা ব্যালন্সড গ্রোথ এর দিকে এগোব। কাজেই খুব একটা উদ্বেগের কারন দেখিনা। আর উড়ান বন্ধ করে দিতে হবে, এই জাতীয় কমেন্টে খিল্লি ছাড়া আর কোন রেসপন্স নেই। তবে আসল সমাধানের পথ একক দেখিয়ে দিয়েছেন - ইনফিনিট মহাবিশ্ব আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে। জানিনা আজ থেকে দুতিনশো বছর পরে এলন মাস্ক, জেফ বেজোসদের নাম কলম্বাসের সাথেয় উচ্চারিত হবে কিনা।
  • dc | 132.164.236.159 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৬:২৭52615
  • *ডেভেলপমেন্টের জন্য
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৭:৫৪52616
  • " ডেভেলপমেন্টের জয় যেসব প্রব্লেম তৈরি হয়েছে সেসবের টেকনোলজিকাল সলিউশান আমরাই বের করবো। " গত চারশো বছর ধরে এই গপ্প শুনে আসছি । বাতাসে কার্বন নাকি ৪১০- ছাড়িয়েছে । যদি আজকে রাত্তির থেকে সমস্ত গ্রিন হাউস গ্যাসনির্গমন বন্ধও হয়ে যায় তবুও আমাদের বায়ুমণ্ডলে গ্রিনহাউস গ্যাসের যা ঘনত্ব ইতিমধ্যে বর্তমান তাতেও পৃথিবীর গড় উত্তাপ 0.5ডিগ্রী থেকে ১ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড বেড়ে যেতে পারে । মাত্র ১ডিগ্রি উত্তাপ বৃদ্ধি শুনে যারা ভাবছেন এ এমন কি তারা নিশ্চয়ই জানেন যে আমরা পৃথিবীর গড় উত্তাপ বৃদ্ধির কথা বলছি আর সারা পৃথিবীর সারফেস জুড়ে ১ ডিগ্রী উত্তাপ বৃদ্ধি মানে পরিবেশের ক্ষেত্রে বিপুল পরিবর্তন ।
    ৬০০০ বছর পূর্বে, পৃথিবীর গড় উত্তাপ যখন আজকের থেকে ১ডিগ্রী বেশী ছিল ,তখন আমেরিকার বর্তমান শস্য ভাণ্ডারের হৃদয় নেব্রাস্কা’র আসপাশ মরুভূমি ছিল ১৯৩০ এর দশকে অল্প সময়ের জন্য সেই মরুভূমির স্মৃতি কিছুদিনের জন্য ফিরে এসেছিল- ধুলো ঝড় উড়িয়ে নিয়ে গিয়েছিল টন কে টন ফার্টাইল টপ সয়েল । সাথে হাজারো রিফিউজি পশ্চিম মুখী । সুতরাং মাত্র এক ডিগ্রী উত্তাপ বৃদ্ধিতে কি হতে পারে এর জন্য খুব বেশী কল্পনা প্রবণ না হলেও চলে ।

    Chance of avoiding one degree of global warming: zero.

    টেকনোলজির সলিউসনের গল্প সেই ছুট্টু বেলা থেকে মেলা শুনেছি - মঙ্গলে পারি দেবে , কল্প কাহিনী ফেল । খিল্লির এক লেভেল আছে !
  • T | 165.69.198.115 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:২০52617
  • বেশ, এটি ২০০৯ এর পরিসংখ্যান। আসলে এটি ২০০৯ এ দাঁড়িয়ে বিগত ১৮ বছরের হিসেব। ১৫০০ (১৯৯০ সালে) থেকে বাড়তে শুরু করে প্রায় ৭৪৩৯ (২০০৭ এ)।

    এইবার এই বার্ড স্ট্রাইক দূর্ঘটনা সংক্রান্ত পরিসংখ্যান থেকে দেখা যাচ্ছে যে ১৯৯০ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত এই মোট সময়ের মধ্যে যে সমস্ত পাখিদের সাথে এয়ারক্রাফটের ধাক্কা লেগেছে তার মধ্যে রয়েছে চড়ুই (২০২৭), ব্ল্যাকবার্ড (১০২২), ইউরোপিয়ান স্টার্লিং (১৮৬৮), পায়রা(১৪৫৯), ঘুঘু (২৪৮৩), সিগ্যাল (৫১৮২), কিল্ডিয়ার(১১০৭), আমেরিকান কিস্ট্রেল (১৫৩৩), ক্যানাডা গুজ (১১০৯)। আমি শুধু সেই সমস্ত পাখিদের উল্লেখই করলাম যেগুলোর ক্ষেত্রে স্ট্রাইক ইনসিডেন্ট এক হাজার ছাড়িয়েছে, নয়তো মশাই বেড়াল ফেড়াল ও তালিকায় আছে। তো, সিগ্যালের সাথে ধাক্কার সংখ্যা বেশী, কারণ এদের পপুলেশন বেড়েছে হু হু করে। যেমন, ক্যানাডা গুজের পপুলেশন (ঐ টাইম পিরিয়ডে) বেড়েছে ৭.৩ পার্সেন্ট, যেখানে এয়ারক্রাফট মুভমেন্ট বেড়েছে ১.৩ পার্সেন্ট। ফলে এই রামখচ্চর মানুষ প্রাণীটি গাবদা গাবদা এয়ারক্রাফট নামিয়েও যে পাখিদের বংশবৃদ্ধি আটকাতে পারেনি সে তো দেখাই যাচ্ছে। অ্যাকচুয়ালি দেহের ওজন চারকেজি মতন অ্যামন ১৪ টি পাখি প্রজাতির মধ্যে ১৩ টিরই পপুলেশন বেড়েছে বেশী হারে। আপনার হাতে পড়ে আছে স্রেফ চড়ুই। তা, চড়ুইয়ের বিলুপ্তির জন্য অন্য কারণ থাকতে পারে, এটলিস্ট এয়ারক্রাফটের ধাক্কায় এরা শেষ হয়ে যাচ্ছে অ্যামন কিছুতেই নয়।

    ফলে উড়োহাজাজের কারণে পাখিরা অবলুপ্ত হচ্ছে এটা খুবই কষ্টকল্পিত। সমস্ত ইন্সিডেন্টের মধ্যে প্রায় সত্তর শতাংশ ক্ষেত্রে ঘটনাটা ঘটে মাটি থেকে পাঁচশ ফুটের মধ্যে যখন এয়ারক্রাফট ট্যাক্সিইইং করছে, টেকঅফ করছে, বা ল্যান্ডীং করছে। প্রত্যেক বিমানবন্দরের ক্ষেত্রে যেহেতু এয়ারক্রাফটের অ্যাপ্রোচ এরিয়া নির্দিষ্ট সেজন্য একটি নির্দিষ্ট করিডরে যাতে কোনো পাখি থাকতে না পারে সেজন্য বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়। শট গান ফায়ার করে আওয়াজ সৃষ্টি করা, ডিস্ট্রেস সাউন্ড ইত্যাদি, যাতে এয়ারক্রাফটের কোনো ক্ষতি না হয় এবং পাখিদের প্রাণও বাঁচে। তো এদেরকে বিদ্রুপ করে কি ঘোড়াড্ডীম প্রমাণ হ'ল বুঝলাম না।

    তো, এয়ারপোর্টের কয়েক কিলোমিটার পরিধির অংশটি পাখিদের মুক্ত আকাশের তুলনায় ততটাই ইনসিগনিফিকেন্ট যতটা আপনার 'দেখেচ পাখিদের মেরে ফেলল' বক্তব্যটি। তবে চিকেন নিয়ে এই খচরামো বরদাস্ত করা যায় না :)

    সূত্রগুলির কোনো রেফারেন্স দিলাম না, কারণ আপনি উইকি খুঁজে সবই পেয়ে যান ;)

    এ বাদে কল্লোলদা দের ঐ দাও ফিরে সে অরণ্য নিয়ে কোনো বক্তব্য নেই।
  • T | 165.69.198.115 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:২২52618
  • ধুত, ওটা তথ্যগুলির হবে।
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:২৮52619
  • প্রতি বছর আমেরিকায় উইন্ড টারবাইনের ধাক্কায় 573,000 পাখি and 888,000 বাদুড় মারা যায়( কম এস্টিমেট ) তা এই বাদুড় বেঁচে থাকলে লাভ কি হত ? “ The value of the pest-control services to agriculture provided by bats in the U.S. alone range from a low of $3.7 billion to a high of $53 billion a year, estimated the study’s authors, scientists from the University of Pretoria (South Africa), USGS, University of Tennessee and Boston University. “

    3.7 বিলিয়ন থেকে ৫৩ বিলিয়ন ডলারের পেস্টিসাইডের বিষ মাটিতে কম মিশত এইটুকু আর কি - হ্যা কেমিক্যাল লবির আয় একটু কমে যেত ঠিকই এমনকি ক্যানসার বিশেষজ্ঞদের । এই আর কি ! 

  • dc | 132.164.236.159 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৩০52620
  • মঙ্গল তো স্রেফ নেক্সট স্টপ ঃ-)

    টেকনোলজির সলিউশানের গপ্পো মোটে চারশো বছর ধরে শুনছেন? আমি তো অন্তত তিন লক্ষ বছর ধরে এই গপ্পো শুনে আসছি। মানব সভ্যতার গপ্পোতে একটাই মোটে কন্স্ট্যান্ট ফ্যাক্তর দেখলাম - দ্য ইউজ অফ টুলস। চাকা আবিষ্কার, চাষবাষের টেকনোলজি আবিষ্কার, আগুনের ব্যবহার করা, ফ্লিন্ট স্টোন, ধারালো পাথর, ধাতুর টুকরো - টেকনোলজির ব্যাবহার ছাড়া মানব সভ্যতার আর কোন গপ্পো তো শুনিনি! সেই প্রস্তর যুগে টেকনোলজিকাল সলিউশান শুরু হয়েছিল, আর আজ আমরা ন্যানোটেকনোলজি, কোয়ান্টাম টানেলিং, পার্সোনালাইজড মেডিসিন ব্যাবহার করতে শুরু করেছি। তিন লক্ষ বছরের টেকনোলজি প্রোগ্রেসের গপ্পো অস্বীকার করে ফেললেন?
  • amit | 212.125.29.166 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৩২52621
  • দেবব্রত, আপনার এত দামী গবেষণা আমেরিকা তে পাবলিশ করছেন না কেন ? ওখানে কি কোনো মেধা পাটেকার এর খোজ পান নি ? নাকি কোনো দিদি ওখানে রাস্তা জুড়ে এক মাস ধরে চকলেট খেয়ে অনশন এ রাজি হন নি ?
  • T | 165.69.198.115 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৩৮52622
  • হ্যাঁ, উইন্ড টারবাইন অ্যামনভাবেই ডিজাইন করা হয় যাতে বেশীরভাগ সময় বাদুড়ই মারা পড়ে। বহু রিসার্চ হয়েছে এ নিয়ে। যেখানে দিয়ে বাদুড় ওড়ে সেইখানে উইন্ড টারবাইন বসিয়ে দাও। মূলতঃ কেমিক্যাল লবিই ফান্ড করেছিল এই রিসার্চ। এখানেই না থেমে পাশ্চাত্য সাহিত্যে বাদুড়কে নিকৃষ্ট প্রাণী হিসেবে দেখানো শুরু হয় ভ্যাম্পায়ার এর সাথে তুলনা করে যাতে বাদুড়রা কোনো মানবিক সহানুভূতি না পায়। কিন্তু কিছু পড়ে আমেরিকান মেইন্সট্রীমে চলে আসে ব্যাটম্যান, ডিসি কমিকস। লোকেরা বলে অল্টারনেট এনার্জির বিরোধীরা ফান্ড করেছিল ব্যাটম্যানের জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য। পালটা হিসেবে কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রী তৈরী করে মার্ভেল কমিকস। তবে স্পাইডারম্যান কার দিকে সেই নিয়ে প্রভূত কন্সপিরেসি হয়।
  • Robu | 11.39.39.218 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৩৯52623
  • অমিত এর ট্রোলটা কুরুচিকর।
  • dc | 132.164.236.159 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৪০52624
  • amit, মেধা পাটেকারও কিন্তু এই লেভেলের টেকনোফোব না। তবে দিদির কথা আলাদা, দিদির ওপর মা সারদার প্রত্য়্ক্ষ আশীর্বাদ আছে কিনা।
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৪১52625
  • চিকেন গানে তো এখন আর মরা চিকেন ইউজ করা হয়না।
  • amit | 212.125.29.166 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৪৭52626
  • হা, এটা স্বীকার করছি আমার পোস্ট কুরুচিকর , কিন্তু টেকনোফবিয়া- এর একটা লিমিট থাকা দরকার। সব কিছু তেও বিপদ দেখে জঙ্গল এ ফিরে যাওয়া কি একটা সমাধান? কোনো দেশ কি সেই পথে গেছে ? উন্নত দেশের কথা হচ্ছে, সিরিয়া বা আফগানিস্তান এর না।
  • Robu | 11.39.39.218 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৫০52627
  • তর্ক করুন।
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৮:৫৪52628
  • আমার লেখাটির হেডিং পাখি ঃ- সভ্যতার অন্যতম শত্রু এবং শেষের লাইনগুলি এইরকম " বিগত বছরে কেবল মাত্র উইন্ড টারবাইনে ছিন্ন বিচ্ছিন্ন হয়েছে ২১৪,০০০ থেকে ৩৮৬,০০০ পাখি এবং কমপক্ষে ৬৮ লাখের অধিক পাখি মারা গেছে , আমাদের মোবাইল ফোনের টাওয়ার আর রেডিও টাওয়ারের কল্যাণে - ধন্য সভ্যতা ! "

    কয়টি প্লেন হাডসন নদীতে নেমে পরেছে , কয়টি প্লেন অ্যাকসিডেন্ট হয়েছে , কত বিলিয়ন ডলার ক্ষতি হচ্ছে কত পাখি প্লেনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মারা যাচ্ছে এইরকম কোন তথ্য তো নেই - নিবন্ধ টি আলিপুরদুয়ার /শিলিগুড়ি রেললাইনে হাতি কাটা পড়া অথবা দলমা পাহাড় থেকে হাতির পালের বাঁকুড়ায় ঢুকে পড়া ইত্যাদি নিয়েও লেখা যায় -বক্তব্য প্রায় একই থাকে যে পৃথিবীর সমস্ত জল জঙ্গল এবং জমিনের একমাত্র হকদার মানব প্রজাতি এবং ডেভেলপমেন্ট এর নামে টেকনলজিকাল সভ্যতার নামে বাকি প্রজাতির গন হত্যা যা আদতে আত্মহত্যার সমতুল্য ।
  • T | 165.69.198.115 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:০০52629
  • ও আচ্ছা, এই ব্যাপার। বিজ্ঞানের অভিশাপ। আগে বলবেন তো।
  • dc | 132.164.236.159 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:০৪52630
  • ও হ্যাঁ টেকনোলজির উদাহরনে লিখতে শেখা বাদ পড়েছে। প্যাপিরাস আবিষ্কার হয়েছিল অন্তত চার হাজার বছর আগে। ছাপা খানার আবিষ্কারও ছশো বছর আগে। টেকনোলজির সলিউশানের গপ্পো মোটে চারশো বছরের মধ্যে কেন সীমাবদ্ধ করে ফেললেন বুঝলাম না।
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:০৮52631
  • কুরুচিকর কেন হবে - বেশ স্বাস্থ্যকর বরং এইটাই ৭০ পর্যন্ত ট্রেন্ড ছিল কিনা - টেকনোলজি = উন্নতি , তার পর যখন চেরনোবিল হোল , বাতাসে কার্বন বাড়তে শুরু করল , গ্লোবাল ওয়ার্মিং বাস্তবে পরিনত হতে শুরু করল তখনও তেলের লবির পয়সায় গ্লোবাল ওয়ার্মিং যে হাওয়া বাজি এই দাবীর সমর্থনে খুব একটা কম লোক ছিলোনা তা আমাদের দেশে গণ্ডা গণ্ডা থাকবে এতে আশ্চর্যের কি আছে ?

    " কিন্তু টেকনোফবিয়া- এর একটা লিমিট থাকা দরকার। সব কিছু তেও বিপদ দেখে জঙ্গল এ ফিরে যাওয়া কি একটা সমাধান? কোনো দেশ কি সেই পথে গেছে ? উন্নত দেশের কথা হচ্ছে" তা কিভাবে গ্রিন হাউস গ্যাস এমিসন কমে যাবে ? অথবা বাতাসে কার্বনের মাত্রা অথবা জঙ্গল ধ্বংস অথবা সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধি অথবা খরা , অসময়ে বন্যা ঠিক কি রাস্তায় কোন টেকনোলোজি তে প্রজাতি ধ্বংস নিরাময় হবে ?
  • amit | 213.0.3.2 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৩৭52646
  • নাসা বিজ্ঞানী হোন বা আমেরিকার এক্ষ ভাইস প্রেসিডেন্ট হোন, সবাই একটা স্পেকুলেসন থেকেই তাদের তর্ক সাজান। এখনো অবধি কোনো মডেল পুরোপুরি এক্ষ্প্লৈন কর্তা পারে না কি ভাবে কার্বন দি অক্সাইড আর দূষণ সরাসরি রিলেটেড। তেলের লবি কে গালি দেওয়া সোজা, কারণ তাদের পয়সা দেখে অনেকেরই ঈর্ষার উদ্রেক হয়। কিন্তু তেলের দাম পরে গেলে গ্লোবাল অর্থনীতি কিভাবে থেমে যায় , ২০০৮ এ দেখা গেছে, আবার এই বছর দেখা যাচ্ছে। ধানের ফলনে যে পরিমান জল লাগে , সেই জল পাম্প করতে যত তেল পোড়াতে হয় অথবা জলের স্তর নেমে যায়, তাহলে ধানের চাষ ও বন্ধ করা হোক ? দেখা যাক মানুষের পেতে ভাত না জুটলে আগে সেটার ব্যবস্থা করবে নাকি পরিবেশ নিয়ে চিন্তা করবে ?

    কিন্তু ভেবে মজা লাগে যে যারা পরিবেশ এর জন্য ঘুমোতে পারছেন না, তাদের বিষম চিন্তা যে কম্পিউটার আর কীবোর্ড এ টাইপ করেন , সেই কীবোর্ড কিন্তু প্লাস্টিক থেকে আসে , যেটা তেল ছাড়া বানানো যায়না। সুতরাং আপনি আচরি ধর্ম আর কি। কম্পিউটার বন্ধ করে চোঙ্গা নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় হাঁক পাড়তে সুরু করুন, ও আবার কাগজের চোঙ্গা বানাতে গেলেও তো কাগজ কল চালাতে হবে, আবার দূষণ, পেতল এর চোঙ্গা বানাতে গেলেও আগুনে পেতল গলাতে হবে , আবার দূষণ, কি করা যায় বলুন তো। সব ছেড়ে গাছে ফেরত যাওয়া ছাড়া কোনো রাস্তা দেখছি না তো । তাই জানতে চাইছিলাম কোনো দেশ করেছে কি না (সভ্য দেশ) , তাহলে তাদের দেশে সাতার কেটে গিয়ে শিখে আসা যেত ।
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৪১52632
  • এনার্জি এফিশিয়েন্ট টেকানলজি দিয়ে?
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৪৮52633
  • এ বাবা সেই চাকা তিন লক্ষ বছর আর ৪০০ বছর এক করে দিলেন এক কলমের খোঁচায় ? এত কাণ্ড অবশেষে ১৬০০ সালে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড ছিল 280ppm আর আজকের হিসেব ৪০৪ -৪০৫ , ( The current concentration may be the highest in the last 20 million years) । এতো টেকনোলজি নয় ট্যাকনোলজি ।

    এতো পুঁজিবাদী গ্রোথের চক্কর - ড্যাম ,পাওয়ার প্ল্যান্ট, পেস্টিসাইড ,মাইনিং ,উচ্ছেদ ,উদ্বাস্তু ,অসাম্যের গল্প টেকনোলজি তো সাহায্যকারী মাত্র । ইদিকে টেকনোলোজির উন্নতির ঠ্যালায় লিমিটলেস গ্রোথের ঠেলায় আমাদের একমাত্র বাসস্থান তো খাদের কিনারায় !

    লোকের ঘুম উড়ে যাচ্ছে এদিকে টেকনোফোবিয়া গাল পেড়ে কি শান্তি । মুক দর্শক হয়ে থাকা কি সুবিধা !
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৪৯52634
  • ৭০ পর্য্যন্ত? তারপরে যে ঘরে ঘরে কম্পিউটার গেলো, হাতে হাতে মোবাইল ফোন এলো - সেগুলো?

    গ্লোবাল ওয়ার্মিঙ্গের বিরুদ্ধে এখানো অনেক লোক আছে - নিজের সামনেই দেখি। তেলের লবির পয়সা যায় এতে। কিন্তু তাতে কিস্যু থামবে না। টেসলা অলরেডি ৪০০০০এ গাড়ি দেবে বলেছে। স্কেল বাড়াতে পারলেই আর টেকনলজি আরেকটু ইম্প্রুভ করে ওটা যদি ৩০০০০ এর নীচে একবার নিয়ে আসে তাহলেই মার্কেট ঘুড়ে যাবে। অতেব ক্লিন টেকই আমাদের ভারসা। আপনি যে সলিউশন দিচ্ছেন সেটাতে স্বয়ং মেধাদেবীও মানবেন না (আমি নিজে উনাকে পেলেনে চাপতে দেখেছি ঃ))।
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৫১52636
  • আর ১৬০০ সালে পপুলেশনঃ ৫৮০ মিলিয়ন, এখন ৭ বিলিয়ন।
  • Debabrata Chakrabarty | 212.142.116.198 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৫১52635
  • " এনার্জি এফিশিয়েন্ট টেকানলজি দিয়ে " হতে পারে কিন্তু সম্ভাবনা কম , সময় তার থেকেও কম ।
  • S | 108.127.180.11 (*) | ২১ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৫৩52637
  • "হতে পারে কিন্তু সম্ভাবনা কম , সময় তার থেকেও কম।"

    তাহলে কি দিয়ে হবে। পেলেন টেরেন বাস গাড়ি ট্রাকটর এসি টারবাইন সমস্ত ইন্জিন বন্ধ করে? সেইটা সম্ভব বলে মনে হচ্ছে আপনার?
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যা খুশি মতামত দিন