ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  ব্লগ

  • বার্সিলোনা - পর্ব ২

    Binary লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ২০ আগস্ট ২০১৯ | ৯৬০ বার পঠিত
  • বার্সিলোনা আসলে স্পেনের শহর হয়েও স্পেনের না। উত্তর পুর্ব স্পেনের যেখানে বার্সিলোনা, সেই অঞ্চল কে বলা হয় ক্যাটালোনিয়া। স্বাধীনদেশ না হয়েও স্বশাসিত প্রদেশ। যেমন কানাডায় কিউবেক। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই মনে হয় এরকম একটা জায়গা থাকে, দেশি হয়েও দেশি না। ইতিহাসের পাতার ক্ষোভের দলিল। গোষ্ঠী সংঘাতের ইতিহাস। কেবল আমাদের দক্ষিন পশ্চিম এশিয়ায় এনিয়ে এখনো রক্ত ঝরে কোথাও কোথাও, স্পেন বা কানাডা রক্ত ঝরে না , চলে সাংবিধানিক বিতর্ক দশকের পর দশক ধরে। সে যাই হোক। বার্সিলোনা আসলে ক্যাটালোনিয়ার রাজধানী। বার্সিলোনাতে স্প্যানিশ-এর সাথেও যে ভাষা তাল মিলিয়ে চলে সেটা ক্যাটালান। ক্যাটালান-এর মিল স্প্যানিশ-এর থেকেও বেশি ফ্রেঞ্চ আর ইতালিয়ান-এর সাথে। বার্সিলোনায় দেখলাম সমস্ত প্রধান বিল্ডিঙের মাথায় পতাকা। এটা অবশ্য প্রায় সমস্ত পশ্চিমি দেশেই দেখেছি। ইউরোপেতো বটেই , কানাডা-আমেরিকাতেও। আমাদের ভারতের আঁতেলরাই খালি জাতীয় পতাকা নিয়ে ঝগড়া করে। কিন্তু বার্সিলোনায় দেখলাম স্প্যানিশ আর ক্যাটালোনিয়ান পতাকা একসাথে উড়ছে।

    আমরা টোরোন্টোয় ৫ ঘন্টা লে-ওভার নিয়ে ১৭ ঘন্টা উড়োজাহাজ ভ্রমণ করে বার্সিলোনা পৌঁছাই সকাল ১১টায়। তাও আবার এরপোর্ট-এর ট্যাক্সি ড্রাইভার নামিয়ে দিলো একটা ভুল হোটেলের সামনে। ভুলটা আমার বলার-ও হতে পারে আবার ট্যাক্সি ড্রাইভার মহাশয়ের বোঝারও হতে পারে। ভুল হোটেলের রিসেপসনিস্ট মহিলা আমাদের মালপত্র নিয়ে বেঘোরে অসুবিধায় পড়া নিয়ে চিন্তিত হয়ে রিসেপশন থেকে বেরিয়ে ঠিক হোটেলের পথ বাতলে দিলেন। খুব বেশি দূর না, রাস্তা পেরিয়ে ডানদিকে গিয়ে বামদিকে। আর আমরা তিনজনে তিনটে (আমার ভাগ্যে আরো একটা অতিরিক্ত) ভারী সুটকেস হেঁইও বলে টানতে টানতে চড়াই উৎরাই পথে ঘামতে ঘামতে নির্দিষ্ট হোটেলে পৌঁছে শুনি , সবই ঠিক আছে বাছাধনরা , কিন্তু বিকেল তিনটের আগে চেকইন করা যাবে না , লবিতে অপেক্ষাকরুন। তবে রিসেপশনের লবিতে বসে আমার মেয়ে ঘুমিয়ে পড়ল , তাই না দেখে রিসেপনিস্ট ছোকরা দয়াপরবসত হয়ে দুটোর মধ্যে চেকিং করে দিল। আমরা ঘরে গিয়ে চানটান করে ঘুম লাগলাম। প্রসঙ্গত বলে রাখি , সারা বার্সিলোনা শহরের রাস্তা চড়াইউৎরাই বেশি , সমতল কম।

    ক্যাসমিলা বা যাকে চলতি ভাষায় বলে লা-পেদেরা , একশো বছর আগের তৈরী একটি বসত বাটি। গত শতকের প্রথমার্ধে নামকরা স্প্যানীয় আর্কিটেক্ট এন্টনি গাউদি-র ডিসাইন করা। একটু অপ্রচলিত নিয়মানুযায়ী নকশা। এই বাড়ির মাথায় যত চিমনি, ভেন্টিলেশন টাওয়ার আছে সব গুলো ঘিরে বিমূর্ত গঠন। কোনটা স্ফীঙসের মত, কোনটা ড্রাগন আকারের। সেখানে রাতের বেলা লাইট আর সাউন্ড শো হয়। আমরা সেদিন সন্ধ্যেবেলা ঘুম থেকে উঠে সেই লাইট-সাউন্ডের রাত ১০টার শো দেখতে গেলাম। তার আগে প্যাসিং-দে-গ্রাসিয়া , মানে যে রাস্তায় ক্যাসমিলা, সেই রাস্তার ওপরে একটা মোটামুটি ছিমছাম রেস্তোরায় ক্যাটালিনিয়ান খাবার খেলাম। মেনুতে দেখি প্রায় ৫০ রকমের পদ , কিন্তু সব গুলোই স্ন্যাক সাইজ। চিকেন টোম্যাটো আর পাউরুটি ছোট ছোট স্কিউয়ার করা, ছোট্ট বাটিতে ডালের পেস্ট আর চিংড়িমাছ তাতে কিসমিস আর পাইন বাদাম, পাউরুটির ওপরে হরেক রকম গ্রিল্ড সবজি (যার নাম এস্কেলিভাদা), সেদ্ধ করা ঝিনুক, টোম্যাটো আর পেঁয়াজ দেওয়া কড মাছের স্যালাড ইত্যাদি। আমি বিয়ার অর্ডার করতে জিজ্ঞেস করলো একলিটার না দুলিটার ? আঁতকে উঠে বললাম 'না না হাফ লিটার বা তার কম নেই ?' তো, মিচকে হেসে করুনা করে হাফ লিটারের জাগ্ দিয়ে গেল। পরে দেখেছি ওখানে দোকানে লোকজন এক লিটারের কম মদ খায় না , সে বিয়ার-ই হোক বা সাংগ্রিয়া।

    রেস্তোরায় রাতের খাওয়া সেরেছি ৯টার সময়। স্ন্যাক সাইজের প্রায় ১৫ রকম ভ্যারাইটি খাবার আর হাফ লিটার বিয়ার খেয়ে শরীর চাঙ্গা। তখনও এক ঘন্টা বাকি ক্যাসমিলার ছাদের লাইট-সাউন্ড শো শুরু হতে। আমি প্যাসিং-দে-গ্রাসিয়া ধরে গদাইলস্কর চালে হেঁটে বেড়াচ্ছি। রাস্তায় প্রচুর লোকজন , আলোর মেলা , বড় বড় দোকানের কাঁচের শোরুমে আলোর রোশনাই , খাবারের দোকান গুলোর সাইডওয়াকের প্যাটিওতে খানাপিনার হল্লা আর গুলতানি, মিউসিক বক্সের গানের সাথে জোড়ায় জোড়ায় নাচছে মেয়ে পুরুষ। আমার বৌ আর মেয়ে একটা বেঞ্চিতে বসে সান্ধ্য ফটোসেশনে ব্যস্ত। এমন সময় দেখি একজন মাঝ বয়সী লোক, দোহারা চেহারা, মাঝারি উচ্চতার আকাশি বুশার্ট আর বাদামি ট্রাউসার পরা, চেহারায় আমাদের মতো সাউথ এশিয়ান, হাতে প্রায় ৫০টা গোলাপ ফুলের একটা গোছা নিয়ে হাসি হাসি মুখে আমাদের দিকে আসছে। লোকটা আমাদের কাছে এসে সরাসরি হিন্দি (অথবা ঊর্দু) জিজ্ঞেস করলো
    -- আপলোগ কিধারসে ?
    -- ইন্ডিয়া (কানাডা চেপে গেলুম) , আপ ?
    -- পাকিস্তান, আপ ঘুমনে আয়ে হো ?
    -- হাঁ
    -- ইন্ডিয়া কিধার ?
    -- কলকাতা
    -- আচ্ছা , দাদাকা সিটি
    -- ...
    -- আপকা বেটি ? বহত সুইট , উমর ?
    -- (মেয়ে ভেবলে আছে, হিন্দি জানে না তাই)
    -- (আমি বললুম) নাইনটিন
    -- মেরে ভি ঠিক আইসা বেটি

    বলে একটা সাদা গোলাপ মেয়েকে আর একটা মেয়ের মা কে অফার করলো ? শুধু শুধু দুটো গোলাপফুল কেনার ইচ্ছে একেবারেই ছিল না , তাই আমরা ক্রমাগত নানানানা করতে লাগলাম। লোকটা বলে 'রাখ লিজিয়ে, খরিদকে লিয়ে নেহি'। বলে জোর করে হাতে গুঁজে দিয়ে চলে গেল। আমরা খানিক্ষন হাতে নিয়ে নাড়াচাড়া করে কি করব ভাবছি, একদম ওয়েস্টবিনে ফেলে দিতে মন চায়না, শেষে রাস্তার ধারের একটা ফুলের টবে বসিয়ে দিলাম।

    বাড়ি এসে নেট খুলে দেখতে দেখতে বৌ বলল , 'ওই দ্যাখো, ভুলে গেছিলাম এখন তো রমাদান, লোকটা বোধয় খুশির ফুল বিলি করছে'।

    ঘুমোনোর আগে ভাবলাম , লোকটার নাম জিজ্ঞেস করতে ভুলে গেছি।

    (চলবে)
  • | বিভাগ : ব্লগ | ২০ আগস্ট ২০১৯ | ৯৬০ বার পঠিত
  • আরও পড়ুন
    ছায়া - Rifon Sircar
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Binary | 237812.69.451223.45 (*) | ২০ আগস্ট ২০১৯ ১০:৪০49323
  • Binary | 237812.69.451223.45 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৪:০৪49326
  • হ্যাঁ টাপাস, আমি প্রথমে তাপস পড়ছিলাম যদিও :)
  • | 236712.158.676712.84 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৪:২২49327
  • বা বা বা
  • ন্যাড়া | 236712.158.90056.237 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৪:২৬49324
  • আমার বেড়াতে যাবার প্রধান উদ্দেশ্য থাকে খাওয়া। কাছাকাছি স্প্যানিশ খাবারের দোকান হয়ে যাওয়ায় আমার আর স্পেন যাওয়া হবেনা। ওই ছোট স্ন্যাক সাইজের ছোট প্লেটকেই টাপাস বলে না?

    বাইনারিদার বেড়ানর আর সেখানে মানুষ দেখার লেখাগুলো বড়ই ভাল হয়।
  • lcm | 237812.68.234512.178 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৪:৫৬49328
  • যথারীতি, হেব্বি হচ্ছে।

    বাইনারি,
    ক্যাগানের (Caganer) খেলনা দেখলে, ফুটপাথে এবং রাস্তার ধারের দোকানে ভর্তি, বিখ্যাত লোকেদের ছোট ছোট মূর্তি সেখানে তারা পেন্টুল খুলে হাগু করতে বসেছেন, এটা অবশ্য ক্রিসমাসের সময়ই বেশি দেখা যায়, মূলত ক্যাটালান অঞ্চলে।
  • Binary | 237812.69.451223.9 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৫:১৭49329
  • হ্যাঁ হ্যাঁ দেখিছি । প্রথমে বুঝিনি পরে উইকি দেখলাম । সেটাও লেখার কথা। তবে সব গুলো বিখ্যাত মানুষের মূর্তি কিনা জানি না । আমার মনে হল নেটিভ ক্যাটালান লোকজন
  • . | 124512.101.780112.221 (*) | ২২ আগস্ট ২০১৯ ০৯:০২49325
  • পর্ব ১টা কোথায় গেল?
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে প্রতিক্রিয়া দিন