• টইপত্তর  অন্যান্য

  • জুজুবাদ : অলস অস্তিত্বের সংকট

    dd
    অন্যান্য | ২১ জুলাই ২০০৯ | ৩৫১০ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • pi | 24.139.209.3 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১০:০০415803
  • এই লেখাটা তো ম্যান মেড গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর পক্ষেই বলছে ! ঃ)
    .., it does add to the ever growing body of evidence that the global warming we are experiencing cannot solely be attributed to natural fluctuations in temperatures.

    তবে তোর দাবি তো ছিল, মানুষের কাজকর্মকেও ন্যাচারাল বলে ধরতে হবে, সেটা এখানেও বলেনি, কোন লিটারেচরেই বলেনা। মানুষের ইন্টারভেনশন আর প্রাকৃতিক ভেরিয়েশন , এদুটোকে কোনোভাবে আলাদা তো করতে হবেই। সেটা যে টার্ম দিয়েই করা হোক না কেন।
  • pi | 24.139.209.3 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১১:৩৮415804
  • এটা কল্লোলদা অন্য একটা টইয়ে দিয়েছিল। এখানে থাক।

    কালকের আবাপ থেকে।

    বিশ্ব উষ্ণায়ন রুখতে বিকল্প শক্তির ব্যবহার করা ছাড়া অন্য উপায় নেই বলেই জানিয়ে দিল রাষ্ট্রপুঞ্জ। রবিবার বার্লিনে প্রকাশিত রাষ্ট্রপুঞ্জের একটি রিপোর্টে গবেষক-বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সারা পৃথিবীতে বর্তমানে যে রকম হারে গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গত হচ্ছে, তার জেরে ২১০০ সালের মধ্যে পৃথিবীর গড় উষ্ণতা প্রায় চার থেকে পাঁচ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেড়ে যাবে। আরও বেশি করে বদলে যাবে আবহাওয়ার গতিবিধি। আর তা আটকানোর জন্য বাড়াতে হবে বিকল্প শক্তির ব্যবহার।
    বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য কার্বন দূষণ যত বাড়বে, ততই বাড়বে সমুদ্রপৃষ্ঠের গড় তাপমাত্রা। বিশ্ব উষ্ণায়ন প্রতিরোধের বিভিন্ন পদ্ধতি ততই জটিল ও ব্যয়বহুল হয়ে দাঁড়াবে। ৩৩ পাতার রিপোর্টটিতে রাষ্ট্রপুঞ্জ জানিয়েছে, গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গত হওয়ার পরিমাণ ২০৫০ সালের মধ্যে ৪০ থেকে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত কম করা গেলে পৃথিবীর গড় উষ্ণতা দু’ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমতে পারে। এই দু’ডিগ্রি সেলসিয়াস কমানোটাকেই লক্ষ্যমাত্রা হিসেবে বেঁধেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ।
    রিপোর্ট প্রকাশের সময় রাষ্ট্রপুঞ্জের বিশেষজ্ঞ দলের সহ-চেয়ারম্যান ওটমার এডেনহফার বলেছেন, “বিজ্ঞান একটা পরিষ্কার বার্তা দিয়েছে। যে ভাবে দ্রুত হারে আবহাওয়ার পরিবর্তন হচ্ছে, তা থেকে বাঁচতে আমাদের কিছু পদ্ধতি বদলাতেই হবে। দু’ডিগ্রি সেলসিয়াস উষ্ণতা কমানোর যে লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে, তার জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপ করা প্রয়োজন খুব তাড়াতাড়ি।” রিপোর্ট প্রকাশের পর ইন্টারগভর্নমেন্টাল প্যানেল অন ক্লাইমেট চেঞ্জ (আইপিসিসি)-এর প্রধান রাজেন্দ্র পচৌরি জানান, কার্বন দূষণ রুখতে যা করার খুব তাড়াতাড়ি করতে হবে। তাঁর কথায়, “দূষণ রোখার ট্রেনটাকে এ বার তাড়াতাড়ি যাত্রা শুরু করতে হবে। আর সারা পৃথিবীকেই সেই ট্রেনে সওয়ার হতে হবে।”
    তথ্য বলছে, কয়লা, খনিজ তেল ইত্যাদি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য ১৭৫০ সাল থেকে মোট যত পরিমাণ কার্বন দূষণ হয়েছে, তার ৫০ শতাংশই হয়েছে শেষ ৪০ বছরে। আর তার হার উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে ২০০০ সাল থেকে। তার জেরেই পৃথিবী জুড়ে বদলে গিয়েছে আবহাওয়ার ধারা। পরিবেশবিদ মহলের মাথাব্যথার কারণ হয়েছে খামখেয়ালি ঋতু পরিবর্তন। সমাধান হিসেবে বারবারই উঠে এসেছে সৌরশক্তি, বায়ুশক্তির মতো অফুরান প্রাকৃতিক শক্তির ব্যবহার, শক্তির পুনর্নবীকরণের মতো বিষয়গুলি। আজকের রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্ট সেই বিষয়গুলিকেই একমাত্র উপায় বলে ব্যাখ্যা করল।
  • Ekak | 24.96.67.61 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১৩:৪৪415805
  • ওই পেপার টা দিলুম মডেলিং এপ্রচে একটা চ্যালেঞ্জ আসছে সেটা বলার জন্যে । যদিও পার্থক্য টা কতখানি তা বোঝার ক্ষমতা আমার নেই ।
    আর ম্যান কে পার্ট অফ দ্য নেচার ধরে হিসেব করা আমার রাইট এপ্রোচ বলেই মনে হয় । এমনিতে একটা মৌমাছিও নেচারে নিজের রোল দিতার্মাইন করতে গেলে নিজেকে বাইরে রেখে একটা সিস্টেম ড্র করবে । মানুষ ও তাই করেছে । কিন্তু যদি আইদিয়ালি গোটা সিস্টেমটা কিভাবেচলছে তার সিমুলেশন মডেল বানাতে হয় তাহলে সেকলুশন লজিকের কোনো প্রয়োজন খুঁজে পাইনা ।
  • Ekak | 24.96.67.61 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১৩:৫১415806
  • এই "ম্যান " কে বাইরে রাখা টা কত বিপজ্জনক এপ্রোচ তখনি বোঝা যাবে যখন মানুষের মধ্যেও দেশে দেশে ভাগ হয়ে গিয়ে বলবে তুমি উন্নত হয়েছ এবং ইন দ্য প্রসেস গোটা পৃথিবীর উষ্ণায়নে এক্স পার্সেন্ট তোমার অবদান । এবার উন্নতির পয়সা দিয়ে ময়লা সাফ কর । কিন্তু আমি উন্নতিশীল । আমার অবদান ওয়াই যেখানে ওয়াই মাচ মাচ লেস দ্যান এক্স । আমি কেন আমার উন্নয়ন থামাব তোমার উন্নতির পাপ ধুতে গিয়ে ? আমিও ঘর নোংরা করি । দুচারটে প্ল্যান্ট হোক । সমুদ্রে কেমিকাল মিশুক । মুনাফা আসুক ।তারপর দেখছি ।

    উত্তর কী ? উত্তর নেই । কারণ সেকলুশন লজিকে গেলে ম্যান কেও ভাঙ্গা যায় । এনি ড্যাম কান্ট্রি ক্যান সেক্লুদ দেমসেলভস থ্রু দিস ক্রুকেদ লজিক :)
  • pi | 24.139.209.3 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১৪:৩৯415807
  • এই পেপারটা মডেলিং এর বাইরে গিয়ে স্ট্যাটিস্টিকাল অ্যাপ্রোচ দিয়ে দেখিয়েছে যে, মানুষের কাজকর্মের জন্য গ্লোবাল ওয়ার্মিং হচ্ছে। এতদিন ঐ গেনেরাল সার্কুলেশন মডেল দিয়ে যে রেজাল্ট আসছিল, সেই একই রেজাল্ট অন্য পদ্ধতিতেও দেখিয়েছে। রিপোর্টের মূল বক্তব্য সেটাই।

    আর মানুষের কাজকে ন্যাচারাল বলতে হবে, নইলে উন্নয়নশীল দেশ পরিবেশবিধি মানবে না, এই লজিকটা বুঝলাম না।
  • pi | 24.139.209.3 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ১৫:৫১415808
  • ভাল কথা, সৌরশক্তি নিয়ে বেশ অনেককিছু কাজকর্ম হচ্ছে দেখছি।

    একটু আগে এদের কথা জানতে পারলাম। এরা কেমন কাজ করছেন, কারো জানা আছে ?

    https://docs.google.com/file/d/0Byf11hP7JIh6NjZOVlowTHRtWGc/edit
  • দ্রি | 116.79.132.240 | ১৬ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:০৩415809
  • এককের দেওয়া স্ট্যাটিস্টিকাল স্টাডিটা ইন্টারেস্টিং। ১৫০০ সাল থেকে স্টাডিটা শুরু হয়েছে। একই স্টাডি ৫০০ সাল থেকে শুরু করলে কেমন রেজাল্ট আসবে জানতে চাইব। ১০০০ এডি নাগাদ একটা মিডিয়াভেল ওয়ার্ম পিরিয়েড ছিল, যখন টেম্পারেচার প্রায় এখনকার মতই ছিল, কোন ফসিল ফুয়েল ছাড়াই।
  • pi | 116.218.189.79 | ০৮ নভেম্বর ২০১৪ ১০:৩৬415810
  • ইউ এন এর সাম্প্রতিক রিপোর্ট বা নয়া 'জুজু' ঃ)

    Emissions, mainly from the burning of fossil fuels, may need to drop to zero by the end of this century for the world to have a decent chance of keeping the temperature rise below a level that many consider dangerous. Failure to do so, which could require deployment of technologies that suck greenhouse gases out of the atmosphere, could lock the world on a trajectory with “irreversible” impacts on people and the environment, the report said. Some impacts are already being observed, including rising sea levels, a warmer and more acidic ocean, melting glaciers and Arctic sea ice and more frequent and intense heat waves.

    এবং

    “The bottom line is that our planet is warming due to human actions, the damage is already visible, and the challenge requires ambitious, decisive and immediate action,” Mr. Kerry said in a statement. “Those who choose to ignore or dispute the science so clearly laid out in this report do so at great risk for all of us and for our kids and grandkids.”

    এখনো কোন ঠিকঠাক সায়েন্টিফিক চ্যালেঞ্জ তো দেখা গেল না !
  • pi | 24.139.221.129 | ১৪ জুলাই ২০১৫ ০২:২৯415812
  • আইস এজ শীঘ্রই আসছে, এই নিয়ে ভাটে আজ এই সময়ের একটা রিপোর্ট দেওয়া হয়েছিল। খবরটা নিয়ে একটু নাড়াচাড়া করতে গিয়ে এটা পেলাম।
    'U.K. tabloids, conservative media, and others are (mis)reporting that the Earth will enter a “mini ice age” in the 2030s. In fact, not only is the story wrong, the reverse is actually true.
    The Earth is headed toward an imminent speed-up in global warming, as many recent studies have made clear, like this June study by NOAA. Indeed, a March study, entitled “Near-term acceleration in the rate of temperature change,” makes clear that a stunning acceleration in the rate of global warming is around the corner — with Arctic warming rising 1°F per decade by the 2020s!'

    সত্যই মিডিয়া মায়া।
  • - | 75.49.14.168 | ১৪ জুলাই ২০১৫ ১৬:০৫415813
  • গ্লোবল ওয়ার্মিং আর মিনি আইস এজ কাটাকুটি হয়ে গিয়ে সবাই গাইবে বসন্ত এসে গেছে।
  • সুশ্রুত সরখেল | 212.54.102.201 | ১৪ জুলাই ২০১৫ ১৬:২১415814
  • ইস কত আশায় ছিলাম, বুড়ো বয়সটা আর সুইজারল্যান্ডে কাটানো হলনা!
  • pi | 24.139.221.129 | ১৪ জুলাই ২০১৫ ২৩:২৪415815
  • হ্যাঁ, অনেকেই বলছেন, কাটাকুটি হয়ে প্রি গ্লোবাল ওয়ার্মিং দুনিয়া এসে যাবে।
  • i | 128.211.201.232 | ০৪ মার্চ ২০১৮ ১৩:৫৮415817
  • টি খুঁজছিলেন..
  • T | 129.74.180.59 | ০৪ মার্চ ২০১৮ ১৪:০৪415818
  • বিজেপি আসছে। সব খেয়ে নেবে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। পড়তে পড়তে প্রতিক্রিয়া দিন