• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • ইলেকশন আড্ডা , আপনাদের চারপাশের লোকজন কী কয় ?

    Ekak
    বিভাগ : অন্যান্য | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ১৩৯ বার পঠিত
আরও পড়ুন
দে জা গু - Ekak
আরও পড়ুন
গল্প খেলা - Ekak
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1 | 2
  • Hmm | 561212.97.9002312.65 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১২:০৮382061
  • লিখে নিন:

    আলিপুরদুয়ার
    দার্জিলিং
    রায়গঞ্জ
    আসানসোল
    ঘাটাল
    পুরুলিয়া
    ব্যারাকপুর
    যাদবপুর
    মেদিনীপুর
    বারাসত

    আরো দু একটা যোগ হতে পারে
  • a | 562312.254.8912.166 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৩:২৩382062
  • ভারতী ঘোষ জিতবে বলছেন?

    বাকুড়াতে সিট পাবেনা বলছেন?
  • de | 4512.139.9001212.175 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৩:৫৯382063
  • যাদবপুরে মিমিকে হারানো যাবেনা -

    আমি যা আপডেট পাচ্ছি তাতে মনে হোলো -

    ভারতী ঘোষ জিতবেননা - এতো চুরি লোকে ভুলে যাবে?

    রায়গঞ্জে কংগ্রেস বা সেলিমের মধ্যে কেউ একজন - ওখানে বিজেপির পাওয়া মুশকিল -
  • T | 342323.191.78.51 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৪:০২382064
  • এ বাবা, তেইশটা নয়! ইশশ অমিত শাহ স্যার হতাশ হবেন।
  • নৈঋত | 342323.191.67.180 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৪:০৪382065
  • হুম ম ম বাবুর এই ক্যাল্কুলেশনের ভিত্তি কি? একটি গুরুগম্ভীর হুম? ওম মণিপদ্মে?
  • sm | 2345.110.344512.112 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৮:২০382066
  • এই হমম এর বিশ্লেষণ দেখে অবাক হয়ে যাচ্ছি।এই সিট গুলো কি খালি বিজেপি জিতবে বলছেন?না,পব থেকে বিরোধীরা কটা সিট পাবে তার হিসাব?
    এই লিস্টে যাদবপুর, ব্যারাকপুর,বারাসাত,রায়গঞ্জ,আসানসোল,পুরুলিয়া,ঘাটাল, মেদিনীপুর সবকটা তৃণমূল জিতবে।
    দার্জিলিং,আলিপুরদুয়ার টাফ ফাইট।দার্জিলিঙে জিএনেলেফ সাপোর্ট না দিলে ,নয় রকম রেজাল্ট হতো হয়তো।
    মুর্শিদাবাদ কেন্দ্র থেকে বামেরা হারবে মনে হয়।
    জঙ্গিপুর থেকে অভিজিৎ মুকুজ্য অধীরের প্রবল সাপোর্ট না পেলে,হারতে পারেন।
  • sm | 2345.110.344512.112 | ০১ এপ্রিল ২০১৯ ১৮:২১382067
  • #অন্য
  • Du | 237812.58.890112.163 | ০২ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৪৯382069
  • টিভিতে লোক বিজেপিতে না গিয়ে থাকলেও রোজ স্টোরি, টিভি মোটামুটি লোক ভোট না দিলেও বিজেপিকে জেতাবে।
    দশচক্রে ভগবান ভুত যাকে বলে।
    কনীনিকা তো বল্লেনই টিভিতে বামেরা নেই।
    এককালে সরকারি টিভিতে নিয়ম অনুযায়ী স্লট থাকতো।
    এখন তো টিভি ধমকে কম পছন্দের ক্যান্ডিডেটকে উইথড্র করিয়ে ছাড়বে।
  • S | 2390012.156.561223.1 | ০২ এপ্রিল ২০১৯ ০৫:০৩382071
  • কনীনিকা আবার কে?
  • pi | 785612.51.6734.161 | ০২ এপ্রিল ২০১৯ ০৭:৩৫382072
  • কাল বিজেপির সভা দেখে, বলা ভাল শুনে প্রভূত মজা পেলাম।কেজানে কখন লিখব।
  • Du | 7845.184.4556.246 | ০২ এপ্রিল ২০১৯ ০৮:৫০382073
  • কনীনিকা বসু ঘোষ উত্তর কলকাতার বাম প্রার্থী।
  • pi | 785612.51.0134.43 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ০৭:৫০382074
  • ত্রিপুরায় আশেপাশের লোকজনের সংগে কথা বললেও এই মুড কিন্তু! তবে ভোট সবাই নির্ভয়ে দিতে পারবেন কিনা চিন্তায়।

    মাত্র এক বছরে জনপ্রিয়তায় কীকরে ধস নামে, অন্তত পাব্লিক পারসেপশ্নে যা টের পাওয়া যায়, এই বিপ্লব দেব, বিজ্রপিকে না দেখলে বিশ্বাস হত না। চাকরির গাজর ঝুলিয়ে কিছু তো হয়ইনি, আগে অন্তত রেগা টেগার টাকা ঠিকঠাক পেতেন লোকে, এখন তা নিয়েও প্রচুর সমস্যা।

    https://www.sangbadpratidin.in/india/bharatiya-janata-party-lost-their-impression-in-tripura/
  • Du | 7845.184.4556.246 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ০৮:০৭382075
  • খুনও হয়েছে ত্রিপুরায়
  • সিকি | 562312.19.4534.88 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১২:৪২382076
  • এইমাত্র জেনারেল ভিকে সিংয়ের ফোন এসচিল। মানে রেকর্ডেড মেসেজ আর কি। কী কটিন হিন্দিতে কী সব বলল মাইরি, পুরোটা বুঝতেই পারলাম না। মোদীকে আবার ভোট দিতে বলছিল সেইটা বুঝলাম।

    মোবাইল নম্বর থেকে কল এসেছিল, মেসেজ করে লিখে দিলাম চৌকিদার চোর হ্যায়, তারপরে ব্লক করে দিলাম, কী আর করা।
  • সিকি | 562312.19.4534.88 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১২:৪৪382077
  • দু হাজার চারে এমনি করেই আমার ফোনে অটলবিহারী বাজপেয়ীর ফোং এসেছিল। তারপরে কী হয়েছিল সবাই জানে। গাঁতিয়ে লাথ খেয়েছিল। আহা, এবারেও তাই যেন হয়।
  • Amit | 9003412.218.0112.52 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১৩:৩৮382078
  • আহা। সিকির মুখে ফুল-চন্দন , না সিঙ্গেল মল্ট আর কাবাব পড়ুক ।
  • | 453412.159.896712.72 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১৪:৩৮382079
  • ট্যাংরায় ম্যান্ডারিনে দেওয়ল লিখেছে তৃণমুল। খুবই ভাল উদ্যোগ। দেখতেও ভাল লাগছে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ভিডিও শেয়ার করেছে। তার নীচে গোসন্তানদের কি লাফালাফি!
  • de | 4512.139.9001212.172 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:০৫382080
  • বাঃ - খুব ভালো তো! এইটা ভালো উদ্যোগ - ছবি দেবা হোক -
  • PM | 342312.108.674523.246 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৪১382082
  • এ একটা মিম এসেছে অমর কছে। কেপসন -- বাংলায় লিখ্লে বানান ভুল করবে বলে ওপোর্তলার নির্দেশে তিনো কর্মী রা চীনা ভাষায় লিকছে
  • sm | 2345.110.673412.181 | ০৪ এপ্রিল ২০১৯ ১৭:০১382083
  • এই পোস্ট টা যে লিখলো তাঁর বানান বিধি জ্ঞান,চীনে দের বাংলা লেখার থেকেও খারাপ।
  • Sulagna Pal | 671212.193.344512.33 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১০:০২382084
  • আচ্ছা আপনরা জানেন গোটা বাংলা জুড়ে একটা কর্মকান্ড ঘটে চলেছে সেই ৩০ শে মার্চ থেকে?জানেন না,না?আচ্ছা শুনুন তাহলে।গত বছর ১৫ই মে সকালে ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হয়েছিল মনে আছে?রেললাইনে এক যুবকের তিন টুকরো দেহাংশ?হ্যঁা আমি রাজকুমার রায়ের কথা বলছি।সৎভাবে নিজের ডিউটি পালন করার মাশুল দিতে হয়েছিল তাকে।সেই আগুন জ্বলার শুরু প্রতিটি ভোটকর্মী শিক্ষকের বুকের ভেতর।নাহ,ভুল বললাম প্রতিটি শিক্ষকের বুকের ভেতর নয়।কারণ অমেরুদন্ডী,স্বার্থপর এবং কাপুরুষ মানুষের খুব অভাবও নেই বাংলার শিক্ষকসমাজে।তাই এই আগুনটা অঙার হয়ে জ্বলছিল ৯০% এর বুকের ভেতর।আর তাই এবারে লোকসভা ভোটের ক্ষেত্রে ইলেকশান কমিশন যখন জানালো যে সব বুথে আধা সেনা নয়,অধিকাংশতেই রাজ্য পুলিশ তখন সেই অঙার চেহারা নিল দাবানলের।প্রথমে বালুরঘাট,তারপর রায়গঞ্জ,তারপর কোচবিহার,আলিপুরদুয়ার,উলুবেড়িয়া,বাঁকুড়া.......ছড়াচ্ছে সেই আগুন।নাহ ভোটের ডিউটি করতে কারুর সমস্যা নেই,সমস্যা হল কেউ আর রাজ্য পুলিশের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।রাজকুমারের তিন টুকরো লাশ যে এখনো জ্বলজ্বল করছে।তাই কেউ আর প্রাণের ঝুঁকি নিতে চাইছে না।আর কেনই বা নেবে বলুনতো?দায়িত্ত্বের অপরদিকে তো থাকে অধিকার,তাই না?সুতরাং রাষ্ট্রের হয়ে ভোট পরিচালনা করা যদি ভোটকর্মী(যাদের ৮০% শিক্ষক)দের দায়িত্ব হয় তাহলে রাষ্ট্রের দায়িত্ত্ব তাকে সুরক্ষা দেওয়ার,দেশের নাগরিক হিসেবে তার বেঁচে থাকার অধিকারকে মান্যতা দেওয়ার,তাই না?নাহ সামরিক বাহিনীর প্রতি কোনো প্রেম আমার নেই কারণ এই সামরিক বাহিনীই মাওবাদী আন্দোলন দমনের নামে নির্বিচারে খুন করে নিরীহ আদিবাসীদের-বস্তারে,উড়িশ্যায়,মহারাষ্ট্রে!হ্যঁা তবুও ভোটের ডিউটিতে চাই সামরিক বাহিনী,কারণ তার কোনো রাজনৈতিক বশ্যতা নেই রাজ্য সরকারের কাছে যা রাজ্য পুলিশের আছে(যদিও এই পুলিশই গুলি খায় চড় খায় শাসক দলের লুম্পেনদের হাতে।তবুও এই কাপুরুষ পুলিশ শাসক দলের বশ্যতা স্বীকার করে চলে সমস্ত ক্ষেত্রে)।আর ভারতের,বিশেষ করে এই বাংলার ভোট যে আদতে একটি প্রহসন মাত্র তা বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর গোটা পৃথিবী জেনে গেছে।তাই সেই প্রহসনে চাকরির শর্ত হিসেবে অংশ নিতে বাধ্য হওয়া শিক্ষকরা কেন প্রাণের ঝুঁকি নেবেন বলতে পারেন?তাই তারা লাজ স্লোগান তুলছে "কাকদ্বীপ থেকে কোচবিচার,আর হবে না রাজকুমার"....

    পুঃ চিন্তা করবেন না,আপডেট দিতে থাকবো।
  • Sulagna Pal | 671212.193.344512.33 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১০:০৩382085
  • আচ্ছা আপনরা জানেন গোটা বাংলা জুড়ে একটা কর্মকান্ড ঘটে চলেছে সেই ৩০ শে মার্চ থেকে?জানেন না,না?আচ্ছা শুনুন তাহলে।গত বছর ১৫ই মে সকালে ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হয়েছিল মনে আছে?রেললাইনে এক যুবকের তিন টুকরো দেহাংশ?হ্যঁা আমি রাজকুমার রায়ের কথা বলছি।সৎভাবে নিজের ডিউটি পালন করার মাশুল দিতে হয়েছিল তাকে।সেই আগুন জ্বলার শুরু প্রতিটি ভোটকর্মী শিক্ষকের বুকের ভেতর।নাহ,ভুল বললাম প্রতিটি শিক্ষকের বুকের ভেতর নয়।কারণ অমেরুদন্ডী,স্বার্থপর এবং কাপুরুষ মানুষের খুব অভাবও নেই বাংলার শিক্ষকসমাজে।তাই এই আগুনটা অঙার হয়ে জ্বলছিল ৯০% এর বুকের ভেতর।আর তাই এবারে লোকসভা ভোটের ক্ষেত্রে ইলেকশান কমিশন যখন জানালো যে সব বুথে আধা সেনা নয়,অধিকাংশতেই রাজ্য পুলিশ তখন সেই অঙার চেহারা নিল দাবানলের।প্রথমে বালুরঘাট,তারপর রায়গঞ্জ,তারপর কোচবিহার,আলিপুরদুয়ার,উলুবেড়িয়া,বাঁকুড়া.......ছড়াচ্ছে সেই আগুন।নাহ ভোটের ডিউটি করতে কারুর সমস্যা নেই,সমস্যা হল কেউ আর রাজ্য পুলিশের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।রাজকুমারের তিন টুকরো লাশ যে এখনো জ্বলজ্বল করছে।তাই কেউ আর প্রাণের ঝুঁকি নিতে চাইছে না।আর কেনই বা নেবে বলুনতো?দায়িত্ত্বের অপরদিকে তো থাকে অধিকার,তাই না?সুতরাং রাষ্ট্রের হয়ে ভোট পরিচালনা করা যদি ভোটকর্মী(যাদের ৮০% শিক্ষক)দের দায়িত্ব হয় তাহলে রাষ্ট্রের দায়িত্ত্ব তাকে সুরক্ষা দেওয়ার,দেশের নাগরিক হিসেবে তার বেঁচে থাকার অধিকারকে মান্যতা দেওয়ার,তাই না?নাহ সামরিক বাহিনীর প্রতি কোনো প্রেম আমার নেই কারণ এই সামরিক বাহিনীই মাওবাদী আন্দোলন দমনের নামে নির্বিচারে খুন করে নিরীহ আদিবাসীদের-বস্তারে,উড়িশ্যায়,মহারাষ্ট্রে!হ্যঁা তবুও ভোটের ডিউটিতে চাই সামরিক বাহিনী,কারণ তার কোনো রাজনৈতিক বশ্যতা নেই রাজ্য সরকারের কাছে যা রাজ্য পুলিশের আছে(যদিও এই পুলিশই গুলি খায় চড় খায় শাসক দলের লুম্পেনদের হাতে।তবুও এই কাপুরুষ পুলিশ শাসক দলের বশ্যতা স্বীকার করে চলে সমস্ত ক্ষেত্রে)।আর ভারতের,বিশেষ করে এই বাংলার ভোট যে আদতে একটি প্রহসন মাত্র তা বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর গোটা পৃথিবী জেনে গেছে।তাই সেই প্রহসনে চাকরির শর্ত হিসেবে অংশ নিতে বাধ্য হওয়া শিক্ষকরা কেন প্রাণের ঝুঁকি নেবেন বলতে পারেন?তাই তারা লাজ স্লোগান তুলছে "কাকদ্বীপ থেকে কোচবিচার,আর হবে না রাজকুমার"....

    পুঃ চিন্তা করবেন না,আপডেট দিতে থাকবো।
  • PT | 561212.187.4545.19 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১০:৫৯382086
  • রাজকুমারের মৃত্যু খুবই বেদনাদায়ক কিন্তু পব-র শিক্ষিত-স্বল্পশিক্ষিত বেশীর ভাগ ভোটারই তো আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বেজায় সন্তুষ্ট। সেই সন্তুষ্টির ওপরে ভিত্তি করেই তো বাঙালীর তথাকথিত রাজনৈতিক বোধের দাঁতে লাথি মেরে প্রার্থী নির্বাচন করা হচ্ছে। আর তাদের মধ্যে যারা অপদার্থতম তারাও জিতছে।
    তো লড়বেন কাদের সমর্থনে?
  • sm | 2345.110.783412.206 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১২:১৮382087
  • এই রে,পিটি ক্ষেপে গিয়েছেন।রাজনৈতিক বোধের দাঁতে লাথি মানে কি?দাঁত ই বা কেন? অন্য কিছু নয় কেন?
    যোগ্যতম প্রার্থী কারা?অতীতে অনেক দিকপাল ছিলেন যেমন অনিল বসু,আনিসুর বাবু,তড়িৎ বাবু-এই রকম?
  • | 670112.220.898912.123 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৩:৫৪382088
  • মায়ের আত্মার শান্তি কামনা করে ভোট চাইছে মুনমুন! যাত্তারা!
    মেয়ের ব্যর্থতায় মায়ের আত্মা অশান্ত হয়ে উঠেছে বোধহয়
  • সিকি | 670112.215.45900.92 | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৭:৪৩382089
  • সুলগ্না,

    প্রতিবাদরত শিক্ষকদের সাথে আছি। আপডেট দিতে থাকবেন।
  • pi | 785612.40.1234.61 | ১১ এপ্রিল ২০১৯ ১৫:০৯382090
  • ত্রিপুরার একজন পোস্ট করেছেন,

    আইজিএম হাসপাতাল থেকে টেনে নিয়ে এক ডাক্তারকে আধমড়া করা হল এই 'শিক্ষিত,সভ্য' শহরে! ডাক্তার এখন আইসিইউ-তে।
    যদি এই 'সভ্য সমাজ', যদি এই রাষ্ট্র তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারে, তবে তারা 'সেবা' দিতে পারবেন তো?

    সিটি সেন্টারের সামনে, হাসপাতালে রাতে আগে পুলিশ দেখতাম, এখন থাকেন না? হাসপাতাল থেকে মারতে মারতে সিটি সেন্টার পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হল ডাক্তারকে।পাশেই স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ একাধিক হাইপ্রোফাইল মানুষের বসবাস।সেরকম এলাকাতেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা এত ঢিলে? খুব দূরে নয় শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি মার্গে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি আবাস।

    নির্বাচনের দিন ভোররাতে এই ঘটনা প্রকাশ্যে, রাস্তায় ! নিরাপত্তা ব্যবস্থার এই কি অবস্থা?

    ডাক্তারদের থেকে চিকিৎসা পেতে হলে তাদের নিশ্চিন্তে চিকিৎসা দেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে আমাদের।

    দিন কয়েক আগে এক ডাক্তার জুতোপেটা হয়েছেন! কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে?

    ছিঃ ছিঃ! নিজেকেই একদলা থু থু!
  • সুব্রত দেববর্মা | 785612.51.78.173 | ১১ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৪৯382091
  • আঙুলের ভোট
    _____________

    নিজের আঙুলের প্রতি ঘৃণা জন্মাক...।

    'বিনাভোটেই বার করে দেওয়া' ? হলি ফাক।।

    গণতন্ত্রের শ্রাদ্ধের কান্ডারি দেখবি এবার মহাপ্রলয়।

    যে আঙুলে জিতে এলি, সেই আঙুলকেই আবার ভয়।।

    @সুব্রত দেববর্মা,আগরতলা, ত্রিপুরা
    (লোকসভা নির্বাচন ১১ এপ্রিল, ২০১৯)
  • Subrata Debbarma | 785612.51.45.143 | ১১ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৫৩382093
  • Vote for preseve humanity not for hinduism

    (for an uncultured and improper educated society...religion is only curse)

    SUBRATA DEBBARMA
    FROM TRIPURA
  • ঠিক ধরেছেন আমি সুব্রত। | 785612.51.0123.88 | ১১ এপ্রিল ২০১৯ ১৭:০৬382094
  • আচ্ছা..... লাখ কথার এক কথা।

    আমরা কি লিখেই যাবো এই ভন্ডামির বিরুদ্ধে? আর কোনো কাজ নেই ??????
    যেসব খবর আসছে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে..... আঙ্গুল কাঁপছে আমার।
  • Du | 237812.58.450112.255 | ১২ এপ্রিল ২০১৯ ০১:৫৮382095
  • ত্রিপুরায় কাল জঘন্য ভোট হয়েছে।
  • pp | 9004512.142.340112.12 | ১২ এপ্রিল ২০১৯ ০৫:৪৩382096
  • সেটার মানে কি? বিজেপি রিগিঙ্গ করেছে?
  • Du | 7845.184.4556.246 | ১২ এপ্রিল ২০১৯ ০৮:৫৯382097
  • গুন্ডাগিরি হয়েছে। পুলিশ নীরব দর্শক।
  • S | 458912.167.34.76 | ১২ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৩৩382098
  • মানুষ নিজে না জাগলে পুলিশ, কেন্দ্রিয় বাহিনী দিয়ে কিস্যু হবেনা।
  • aranya | 3478.160.342312.238 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ০৫:৩১382099
  • মার খাওয়ার বা খুন হয়ে যাওয়ার ভয় থাকলে সাধারণ মানুষ আর কি করবে - অত ঝুঁকি নিয়ে ভোট দেওয়ার চেষ্টা করবে, এটা প্রত্যাশিত নয়
  • Ekak | 12.39.343412.219 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ০৫:৪১382100
  • ভোটিঙ্গ বাই মোবাইল এপ্স খুব জরুরি ভারতে।

    কোন সরকার বেড়ালের গলায় ঘন্টি বান্ধে ,সেটা এখন দেখার।
  • sm | 2345.110.013412.163 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:১৮382101
  • যাতে আরো বেশি করে জালি করা যায়?
  • pi | 7845.29.670123.128 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:৪৪382102
  • ত্রিপুরা নিয়ে দুটো লেখা ভোটবাক্সে আছে, দেখুন
  • S | 458912.167.34.76 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ১৩:১৬382105
  • এইটা দারুন দিয়েছেন। মিমির ধমকি দিয়ে শুরু করেছিলাম। এইটা পুরো আইসিঙ্গ অন দ্য কেক।
  • pp | 3423.241.342312.17 | ১৩ এপ্রিল ২০১৯ ১৯:৪৬382106
  • তলার কমেন্ট গুলো আরো চিত্তাকর্ষক।
  • Pi | 2345.110.894512.152 | ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২০:১৯382107
  • দার্জিলিং এর চোপড়ার লাইভ দেখলেন কেউ?
  • sm | 2345.110.124512.20 | ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২০:৩৮382109
  • খালি কংগ্রেস প্রসঙ্গে মন্তব্যের প্রেক্ষিতে।
  • PT | 340123.110.234523.4 | ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২০:৫৮382110
  • "নব্য বাংলার পলিটিকাল ডিস্কোর্স।"
    নতুন কিছু নয় তো!! বিধানসভা লন্ডভন্ড করা দিয়েই তো এই রাজনীতির জন্ম। সেই "সদরে কামান দাগা" তাত্বিকেরা কোথায় লুকিয়েছে এখন?
  • pi | 7845.15.123423.190 | ১৮ এপ্রিল ২০১৯ ২২:০০382112
  • হ্যাঁ, এটাই দিলাম অন্য টইয়ে। বেশ অদ্ভুত! নাকি গদি উল্টোচ্ছে টের পেয়েছে!
  • দ্যুতি | 785612.42.2367.46 | ১৯ এপ্রিল ২০১৯ ১১:৪৯382113
  • চারদিকে ভোটের ছবি ভোটের গল্প। আইপিএল টাও প্যানপ্যানে লাগছে এক ঘন্টা সংগে সুমনের কাছে। আমি খুব কম বুঝি এসব। এবার আবার ভোটার লিস্টে নাম ও নেই মনে হয়। ভোট দিতে না পারলে বেশ আফসোস লাগে। এই গরমে একটু সেজেগুজে লাইন দিয়ে চারদিকের গুলতানি দেখার সুযোগ হাতছাড়া হবে আর কি। বেশ কটা দিন বেংগলে কাটিয়ে এলাম। তাতে আবার রাম নবমী এসব ছিল। আমাদের চেনা রাস্তাঘাটে রাম মন্দিরের ছড়াছড়ি, সাথে হনুমানের ও। আগে তেমন ছিল না। আমার বেশ মনে আছে ঠাকুমার তাকে আমিই একটা নীল রং এর ছোট সাইজ রামের ছবি কিনে এনেছিলাম। রাম কে সব ঠাকুরের সাথে পুজো করা হত। কিন্তু আমাদের মনে শিব, বিষ্ণু বা কালী, দুর্গা এঁদের নিয়ে কোনো দুই দুই নেই। এদের ভগবান বলে সবাই ধরে নিয়েছি, অনেক আগে থেকে। কিন্তু রাম কোথাও যেন আমাদের খুব চেনা বীর। গল্পের নায়ক। সীতার বর। হঠাৎ করে চারদিকে এই ভোট প্রচারে রামকে এভাবে তুলে আনাটায় আমার অন্তত চুলকানি হয় একটু। মানে পুজোপাট আর রাজনীতি, ধর্ম এসব মিলে গেলে কেমন যেন লাগে। সাথে কমলা রং। সেদিন 'ভিঞ্চি দা' দেখতে যেতে গিয়ে প্রচন্ড জ্যামে ফাঁসলাম। দেখি লরি ভরে রাম মূর্তি আর হনুমান মূর্তি। সাথে ওই কমলা রং পরা মানুষ। এ কোন দেশে এলাম? কেন নিতে পারছি না এ সংস্কৃতি? আমি ই তো ছোট থেকে রামরাজাতলার রাম ঠাকুর ভাসান দেখেছি। আমি তো কত পুজোপাঠ দেখলাম এ জীবনে। কিন্তু এভাবে রাম পুজো কেন সইতে পারছি না কে জানে। মনের এই সংকীর্ণতা কাটাতে চাইছিলাম। ওদিকে বাবা ছোটদের নিয়ে চড়কের মেলায় গেছে। এগুলো তো আমাদের সংস্কৃতি, কিন্তু এগুলো দিয়ে আজ এভাবে দেগে দেওয়া হচ্ছে কেন এটা বিজেপির প্রচার? এটা ভাবলেই ইক্যুয়েশন মিলছে না। এরপর ব্ল্যাক ডায়মন্ডে ফিরছি, এসি তে বসেছি। মাঝে কে একজন মোবাইলে জোরে গান চালিয়েছেন, বেশ সুরেলা, তাতে হিন্দীতে বলা হচ্ছে, ভারত মা কি দাস হুঁ, ছাপান্ন ইঞ্চি কে সেবক হুঁ এরকম কি কি যেন। আমি পার্টি পলিটিক্স বুঝি না, তাও ওই লোকটাকে কেন যে অসহ্য লাগে? নেতা রাজনীতি মানেই পালটি খাওয়া এটাই দেখি আজকাল। তোষামোদি করা আর যেন তেন প্রকারেণ পয়সা কামানো, গোঁজা তাপ্পি পারা। এসব সবাই বোঝে। কমলা রং এর টি শার্ট দেখলেই বিজেপির লোক মনে হচ্ছে আমার! এসব আমি কাটিয়ে উঠতে চাই কিন্তু পারি না। আমাদের দেশের বাড়ি থেকে এক কাকা কাকিমা এসেছিলেন মায়ের কাছে পুজোয়। গেল বছর ওনাদের মুখে বংলার নেত্রীর সুনাম শুনেছিলাম। কিন্তু এবার দেখি সব পালটে গেছে। সবাই বিজেপি চাইছে। ভালো ভালো। খুব ভালো। ধর্ম আমরা বুঝি না, সারা দেশ হিন্দুর থাকবে। তাহলে ধর্ম নিরপেক্ষ বলার কি আছে? বিজেপি নাকি দেশভক্তি বাড়িয়েছে একথাও একজন বললেন। আমার বাবা বলেন নিজের ধর্মকে জানা প্রয়োজন। চারদিকে দামড়া বিচারবুদ্ধিওলা মানুষগুলো ধর্মাচারণ করতে গিয়ে একদলকে প্রচন্ড ঘৃণা করছেন। এ কোন ধর্মের কথা জানা নেই। দেশ নাকি মুসলমান এ ভরে যাবে। এই হবে সেই হবে। সব বুঝি, গলতাগুলো তো অনেক গভীরে। সব সময় পাইয়ে দেবার রাজনীতি। ঠিক জায়গায় ঠিক মলমটা দেবার কেউ নেই। সবাই খালি উস্কানিতে খুশি। চারদিকে যা দেখে এলাম বাংলায় বিজেপি এলে অবাক হবার কিছু নেই। আরো বড় রাম মন্দির দেখবার অপেক্ষায় রইলাম।
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1 | 2
  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত