• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • বুকালোচনাঃ খেরোবাসনা সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়

    santanu chakraborty
    বিভাগ : বই | ২১ এপ্রিল ২০১৮ | ৮৮ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • santanu chakraborty | 52.110.143.44 | ২১ এপ্রিল ২০১৮ ২০:৫২374123
  • খেরোবাসনা
    সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়

    রিভিউ লিখব না পাঠ প্রতিক্রিয়া এটা ভাবার জন্য আমাকে বনলতা সেনের নাম্বার ডায়াল করতে হল। কারণ সে দুদণ্ড শান্তি দেয়, জীবনান্দকেও দিয়েছেন। নমস্কার আমার নাম শান্তনু চক্রবর্তী, আমি একটি রিভিউ থুড়ি পাঠ প্রতিক্রিয়া বলব। বন্ধুগন এই ইনভোকেশনের সাথেই শুরু করা যাক তবে।

    আমার ভাল লেগেছে। আমার খারাপ লেগেছে। আমার হেব্বি লেগেছে। আমার হেব্বি লাগেনি। আমি এভাবেই পড়ছি 'খেরোবাসনা'। মেক না রিমেক? রিয়্যালিটি না স্যুরিয়্যালিটি কোনটা? তাল না আম? থিওরি না উপদেশ? জীবিত না মৃত? এই যা কেস হয়ে গেল, গুরুদেব চলে এলেন। কি আর করব বলুন, আমার রাজ্যে একবার দুবার নয় সাত সাতটি বার এসেছেন তাই একটু পোভাব টোভাব এখনো আমাদের মধ্যে রয়ে গেছে আরকি। যাহা বলিব সত্য বলিব সত্য বই মিথ্যা বলিব না। না প্রলম্বিত করব না বাংলা সিরিয়ালের ন্যায়। আপনাদের সিট বেল্ট বাঁধুন নয়তো পড়ে যাবেন এই ন্যারেটিভ অধ্যয়ন করতে করতে।

    তা আপনি কি বিশুদ্ধ এরিস্টটলিয়ান ন্যারেটিভ টেকনিকে বিশ্বাস করেন? আপনি কি মনে করেন প্রতিটি লেখার একটি উদ্দেশ্য এবং লেজ হিসেবে বিধেয় থাকা প্রয়োজন? আপনার কি বাজারে সব্জি কিনতে গেলে দুটো লঙ্কা আর একটা আলু বেশি ওঠানোর অভ্যেস? তবে এই গল্প আপনার জন্য নয়। কবি বলেছেন, কম্ম ঠুসে যাও ফলের কিংবা ফুলের আশা বা লতাও করতে নেই। একটা নিরাট শূন্যতা চাই। একটা বিশাল ব্ল্যাক হোল যদি ধারণ করতে পারেন তবে এই খেরোবাসনা আপনার। ট্রাজেডি আর কমেডি'র শ্রেণীবিভাজন থেকে বেরিয়ে এসে যদি একটা টেক্সট পড়তে পারেন তবে এই খেরোবাসনা আপনার।

    যেখানে দেখিবে ছাই উড়াইয়া দেখিও তাই পাইলেও পাইতে পারো খেরোবাসনা। একটু বাজার বাজার ফ্লেভার রেখে শেষে বলব, আমি পড়েছি আপনারাও পড়ুন কিংবা আহা কি পড়িলাম জন্ম জন্মান্তরেও ভুলিব না। এখান থেকে পঞ্চাশ কিলোমিটার দূরে যখন আমাকে কেও জিজ্ঞেস করে কি পড়ব বুঝতে পারছি না, আমি বলি সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়ের 'খেরোবাসনা' পড়।
  • santanu chakraborty | 52.110.164.192 | ২২ এপ্রিল ২০১৮ ১৪:২৬374124
  • বুকালোচনা
    দিনগুলি রাতগুলি - সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়

    আমার চোখগুলিতেও কি অলফ্যাক্টরি নার্ভ আছে নাকি?মনে হয় আছে, যদি লেখকের নাম সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায় হয় তবেই। সামার অন ৬৯ আমার দেখা হয়নি, ১৯৯৫ এ আমি দুধভাত কিন্তু 'দিনগুলি রাতগুলি' যখন এল তখন আমার কোয়াটার সেঞ্চুরি বয়েস। এর মাঝেই পরিচিত অপরিচিত বেশ কিছু মৃত্যু আমিও দেখেছি। এখন আর ওদের নাম ছাড়া আর কিছুই তেমন মনে আসেনা। নিজের চেহারাইতো ঠিকঠাক মনে করে উঠতে পারিনি কোনোদিন। অথচ নিয়ম করে আয়না দেখা হয়। বইটা পড়ছি আর এসব ভাবছি।

    জানিনা কি করে সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায় মূর্তকে বিমূর্ত আর বিমূর্তকে মূর্ত করে তোলেন। আর সেজন্যই বোধহয় তার লেখা আমাদের টানে বারবার। রোশফুকোর ম্যক্সিমের মত উঠে আসে তার লাইনগুলো,'পুড়িয়ে না দিলে সব লাশই কঙ্কাল হবে'। অথবা হাসির আড়ালে লুকিয়ে থাকা বাস্তব,'মৌসুমী বা নুরজাহান, অন্ধকারে সব সমান।'

    একটা মৃত্যু, কিছু ছেলেমেয়ে, হোস্টেল লাইফ, গাঁজা, প্রেম-বিরহ, সস্তা নেশা, এক মায়াবন বিহারীনির খোঁজ আখ্যানটা এভাবেই এগোয়। আইডিন্টি নিয়ে কথা আসে। কথা সে এলোক সেলোক নিয়েও। নৈরাজ্যের মাঝেও এক চরম আশবাদ। ইউটোপিয়া ইন ডিস্টোপিয়া। সব মিলেমিশে যা একটা তৈরী হবে সেটা প্রচন্ড ব্যক্তিগত। আমার আপনার সবার। তাই সেই ব্যক্তি ও স্বত্বার খোঁজে আসুন নেমে পড়ি 'দিনগুলি রাতগুলিতে'।
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত