• বুলবুলভাজা  পড়াবই  হরেকরকমবই

  • হরেকরকমবই—৪

    নবকুমার ও রন্তিদেব রায়
    পড়াবই | হরেকরকমবই | ১১ অক্টোবর ২০২০ | ২৪০ বার পঠিত
  • জমিয়ে রাখুন পুনঃসম্প্রচার
  • চোখ টানে লেখনীর মুন্সিয়ানা আর প্লটের বাঁক


    ২০২০ সালের কলকাতা বইমেলায় প্রকাশিত রাণা রায়চৌধুরীর এই বইটি একডজন গল্পের। রাণাবাবু অনেকদিন ধরে লিখছেন। অনেক পাঠকের মধ্যে তাঁর লেখালিখির বেশ গ্রহণযোগ্যতাও রয়েছে। উল্লিখিত বইয়ের প্রায় সব গল্পই ২০১৯ সালে প্রকাশিত। দীর্ঘদিন ধরে লেখালিখি করার ফলেই তাঁর লেখনীর আয়ত্তে এখন এক নজর-কাড়া মুন্সিয়ানা। তাঁর লেখা গল্পগুলির প্লটের বিভিন্ন বাঁকও বিশেষ আকর্ষণীয়। তবে বিভিন্ন গল্পে ফিরে ফিরে আসা যৌনতার উপস্থাপনের ক্ষেত্রে হয়তো লেখকের মননে এ বিষয়ে নানারকম পূর্ব-সংস্কারাবদ্ধতা কাজ করেছে, যা তাঁর লিখন-অভিজ্ঞতায় চাপা পড়েনি। যেমন একটি গল্পে, একই বাক্যে এক মহিলার বর্ণনায় প্রথমে ‘অন্তর্বাস ছাড়া’ ও তার পর ‘ব্রা ছাড়া’ লেখা; আর-একটি গল্পে দেখতে পাই ‘তবু পিরিয়ড হলেও সে তো আমার মা!’ এ ধরনের বাক্যবন্ধ আধুনিকমনস্কের পাঠ-অভিজ্ঞতায় আঘাত করবে। ছাপার বেশ কিছু ভুল রয়েছে। এ বিষয়ে বিশেষত প্রকাশকের আরও সতর্ক হওয়া জরুরি ছিল।


    দ্রাবিড়ের ভাঙা উইকেট
    রাণা রায়চৌধুরী
    আজকাল
    মুদ্রিত মূল্য : ১৬০ টাকা





    প্রতিশ্রুতিবান লেখকের নানা স্বাদের চার গল্প


    চারটি গল্পের বই ‘চৌরাস্তা’। তিস্তা চক্রবর্তীর প্রথম গল্পের বই। অণু ও অতি ছোটোগল্পের ফেসবুক সময়ে দাঁড়িয়ে এবইয়ের চারটি গল্প তাদের আকারের জন্য চোখ টেনে নেয়। আকার আরও নজরে পড়ে ছোটো হরফের মুদ্রণের জন্য, তবে তা অনেক পাঠকের পক্ষে কিঞ্চিৎ অসুবিধাজনকও হতে পারে। ভাষার নিরিখে, প্রথম গল্প ‘মেহেরবান’—হিন্দি-উর্দুবচন-বাচন-শের-শায়েরি এগল্পের মাস-মজ্জা। বেশ চটকদার বটে, কিন্তু পড়তে পড়তে এর ভাষার ব্যবহারে যেন ‘কেমন দিলাম’ গোছের একটা আস্ফালন অনুভূত হয়। দ্বিতীয় গল্প ‘মাটির রঙ লাল’-এর শেষ অনুচ্ছেদ অনেক পাঠককেই নস্টালজিক করবে। মনে পড়বে হয়তো একসময়ের একধরনের বাংলা সাহিত্যের কথা যার শেষে থাকত লাল সূর্যের আশ্বাস, সকলের সুখে শান্তিতে বসবাস করার কথা। বইয়ের তৃতীয় গল্প ‘সেকেন্ড ইনিংস’ বৃদ্ধবিবাহের চমৎকার রসাত্মক কাহিনি। অন্য আর-একটি গল্পে দুই সমকামী নারীর সম্পর্ক, টানাপোড়েন, ও অন্যান্য নানা ব্যক্তি ও সমুদয়ের রিরংসা, শঙ্কা প্রভৃতির। তিস্তা গল্প বলতে পারঙ্গম, তাঁর লিখনে সে সম্ভাবনা ছত্রে ছত্রে ফুটে ওঠে৷ সুসম্পাদিত হলে তাঁর লেখা জনপ্রিয়তাই শুধু নয়, অন্য নানা আবডালও ছুঁয়ে ফেলতে সক্ষম হবে।

    চৌরাস্তা
    তিস্তা চক্রবর্তী
    অপদার্থের আদ্যক্ষর
    মুদ্রিত মূল্য : ১৮০ টাকা

    উপরের সংক্ষিপ্ত আলোচনাগুলি লিখেছেন নবকুমার।





    কৃষকদরদি দ্বিজেন্দ্রলাল


    বাংলা সাহিত্যে দ্বিজেন্দ্রলাল রায় মূলত ঐতিহাসিক ও দেশপ্রেমমূলক নাট্যকার রূপে খ্যাত। এ ছাড়াও তিনি বাংলা কাব্যসংগীতের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিত্ব। কিন্তু এসবের বাইরেও একজন সরকারি কর্মচারী ও আমলা হিসেবে দ্বিজেন্দ্রলালের ভূমিকার কথা সেভাবে আলোচিত হয় না। ‘দ্বিজেন্দ্রলাল রায় ও বাংলার কৃষক’ বইটির লেখক শতঞ্জীব রাহার এই কাজ সেদিক দিয়ে গুরত্বপূর্ণ।

    শিক্ষা, রুচি, সামন্ততন্ত্র লালিত কৃষ্ণনগরে একটি চাকুরিজীবী মধ্যবিত্ত পারিবারিক আবহে বেড়ে ওঠা, ইংরেজি সাহিত্য পাঠ ও বিলেত গমন, বিলেত থেকে ফিরে বাধ্যতামূলক ভাবে ইংরেজদের চাকুরি গ্রহণ, সর্বোপরি নিজের স্বাধীনচিত্ত স্বভাব—সব মিলিয়ে এক বিপরীতমুখী সামাজিক বাস্তবতার মধ্যে দিয়ে দ্বিজেন্দ্রলালের জীবন অতিবাহিত হয়। কৃষিপ্রধান বাংলার মূল চালিকাশক্তি কৃষকদের জীবন-জীবিকার সমস্যার কেন্দ্রটিকে চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে উদ্যোগী হয়েছিলেন তিনি। এর জন্য তৎকালীন ইংরেজ প্রশাসনের কাছে প্রভূত হেনস্থা ও অপমানও সহ্য করতে হয়েছিল তাঁকে। চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত উত্তর বাংলায় কৃষকদের ক্রমবর্দ্ধমান দুর্দশা চাক্ষুষ করার পর বঙ্গীয় প্রজাস্বত্ব আইনের সঠিক ব্যাখ্যার মাধ্যমে কৃষকের অধিকারকে হাতেকলমে সুরক্ষিত করেন। দ্বিজেন্দ্রলালের লেখা বিভিন্ন কবিতা ও নাটকের উদ্ধৃতাংশ তুলে লেখক দেখিয়েছেন যে বাংলার কৃষক সম্প্রদায়কে নিয়ে তাঁর উদ্‌বেগ নিছক কাজে-কর্মেই সীমাবদ্ধ ছিল না। সাহিত্যেও তার প্রতিফলন ঘটেছিল।


    দ্বিজেন্দ্রলাল রায় ও বাংলার কৃষক
    শতঞ্জীব রাহা
    সুপ্রকাশ
    মুদ্রিত মূল্য : ২৫০ টাকা

    উপরের সংক্ষিপ্ত আলোচনাটি লিখেছেন রন্তিদেব রায়।


    বাড়িতে বসে বইগুলি পেতে হোয়াটসঅ্যাপে বা ফোনে অর্ডার করুন +919330308043 নম্বরে।


    গ্রাফিক্স: স্মিতা দাশগুপ্ত
  • বিভাগ : পড়াবই | ১১ অক্টোবর ২০২০ | ২৪০ বার পঠিত
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। চটপট মতামত দিন