• বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়।
    বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে।
  • গীতায় পা রাখা নিয়ে হিন্দুত্ববাদী অপপ্রচার ইত্যাদি

    জয়র্ষি ভট্টাচার্য
    খবর : টাটকা খবর | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৬১৪ বার পঠিত

  • “Repeat a lie often enough and it becomes the truth” - নাৎসি জার্মানির যোসেফ গোয়েবেলস এর এই নীতিকে ভিত্তি করেই আজকের ভারতে যে ছায়াচ্ছন্ন সত্যের ব্যাবসা চলছে, তা আরেকবার বোঝা গেলো গত ৮ই ফেব্রুয়ারি কোলকাতা বইমেলার ঘটনায়। ধর্মকে কেন্দ্র করে রাজনীতির যে পরিবেশ তাকে বারংবার উত্তপ্ত করতে এই মিথ্যেগুলোকে বারে বারে প্রচার করা হয়। ধীরে ধীরে এরই কিছু ঘটনা সত্যি বলে মেনে নেয় কিছু মানুষ।

    কয়েক মাস আগে এরকমই এক ঘটনা ঘটেছিল মুর্শিদাবাদের একটি পরিবারের নৃশংস খুনের ঘটনা কেন্দ্র করে। দাঙ্গা পরিস্থিতি তৈরি করার সবরকম প্রচেষ্টা করা হয়েছিল সোশাল মিডিয়ায়। যথারীতি ধর্মীয় মেরুকরণ সৃষ্টির মাধ্যমে যে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়েছিল তার শিকার হয়েছিলেন অধ্যাপিকা রোহিনী ধর্মপাল। তাঁর করা একটি কমেন্টকে কেন্দ্র করে দু তরফের ধর্মীয় পক্ষে উত্তেজনা ছড়াতে থাকে এবং এই তথাকথিত দেশপ্রেমিকরা দাঙ্গা লাগানোর সুযোগ ছাড়তে না পেরে শকুনের মতো সেই থ্রেডে এসে জোটে। রোহিনী ধর্মপাল নিজের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়ে নিলেও এরা নিজেদের প্রোপাগাণ্ডা ছড়াতে সেই ভুল কমেন্টটিকেই ঠিক বলে প্রচার করতে থাকে।

    ভাগ্যের এমনই পরিহাস, এবার সেই দাঙ্গাবাজদের ভুয়ো খবরের শিকার তাঁরই সন্তান, আমার সুহৃদ ঋক্ ধর্মপাল বন্দ্যোপাধ্যায়। পদার্থবিদ্যা বিভাগে তৃতীয় বর্ষে পাঠরত ঋকের গত ০৯.০২.২০২০ তারিখে Joint Admission Test for MSc. (JAM) থাকায় এবছরের বইমেলায় গিয়েছে অন্যান্যবারের তুলনায় অনেক কম। ফলে স্বাভাবিক কারণেই ঘটনার দিন, অর্থাৎ ৮ তারিখ (পরীক্ষার ঠিক আগেরদিন) বইমেলায় তার থাকার কথা না এবং ছিলও না। সেদিনের বইমেলায় ঘটা নক্কারজনক ঘটনার পর বইমেলার ভেতর নেট কানেকশন না পাওয়ায় আমি (জয়র্ষি ভট্টাচার্য) ওকে ফোন করে বলেছিলাম এই কুৎসিত বিষয় নিয়ে পোস্ট করতে। নেট কানেকশন না পাওয়ায় ছবিও পাঠাই MMS রূপে। ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খ বর্ণনা দিয়েছিলাম ফোনে। ফলে এই ঘটনা সম্বন্ধে প্রথম পোস্ট সম্ভবত ওই করে, আমাকে ট্যাগ করে। ওর পোস্টের পর শুরু হয় আসল নাটক। রাতের বেলা সমস্ত ঝামেলা কোনোমতে মিটিয়ে যখন ঘরে ফিরলাম, ওর whatsapp স্ট্যাটাসে দেখলাম ওকে নিয়ে কুৎসিত অপপ্রচার চলছে সোশাল মিডিয়ায়। অপপ্রচার চালালো তারা, যারা ঘটনার সময় স্থলেই উপস্থিত ছিল না, অপপ্রচারে অংশগ্রহণ করল তারা, যারা বুভুক্ষু শকুনের মতো ওর প্রোফাইলে ওঁৎ পেতে থাকে আর ও তাদের উদ্দেশ্যে বলে, "আমার নীতিই হলো শত্রুর সাথে হাসিমুখে কথা বলা।" ওর নীতির ফায়দা তুলে 'বঙ্গ রাজনীতি', 'সাম্যদর্শী', 'কেচ্ছা' প্রভৃতি পরিচিত বিজেপি পেজ ছাড়াও বিভিন্ন গ্রুপে বহু মানুষ পোস্ট করতে থাকে, নকশাল ঋক নাকি গীতায় পা রেখে NRC বিরোধী শ্লোগান দিয়েছে এবং একজন মহিলা পুলিশকে নিগ্রহ করেছে। বইমেলা থেকে প্রায় ২০ কি.মি. দূরে নিজের বাড়িতে বসে কীভাবে বইমেলাতে এত কাণ্ড ঋক ঘটাতে পারল, তা আমরা কেউই বুঝতে পারিনি। সম্ভবতঃ শেখ মুজিবুর রহমানের বলা "If you are playing against a gentleman, play like a gentleman. But if you play against a bastard, play like a bigger bastard. Otherwise you'll lose" কথাটা মেনে চলা উচিৎ ছিল।

    দুঃখের বিষয় হল, বইমেলায় না থাকা সত্ত্বেও গীতা পোড়ানোর এই মিথ্যে অপপ্রচার যে কোনোভাবেই সাধারণ বোধসম্পন্ন মানুষের কাছে সত্য বলে প্রতিভাত হবে না, সেটা জানা সত্ত্বেও সজ্ঞানে দীপ্তাস্য যশ, শেখর ভারতীয়, দীপ্তরূপ সাম্যদর্শী প্রমুখেরা নিজেদের ওয়ালে ও অনেকের কমেন্ট সেকশনে জেনেশুনে জোর গলায় এই মিথ্যে কথা বলা চালিয়ে যায়। বহু মানুষ (!!) উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ধর্মীয় অসন্তোষ সৃষ্টির তৈরির চেষ্টায় এই মিথ্যে খবর পোস্ট করে চলেন ফেসবুকে। দুর্ভাগ্যের বিষয়, এই ঘটনা আংশিকভাবে সফল এবং বহু উগ্র হিন্দুত্ববাদী দ্বেষপ্রেমীরা ঋকের বাড়ির খোঁজ করে চলেছে, তার পরিচিত লোকজনকে ঠিকানা জানতে চেয়ে হুমকি দিচ্ছে, মেসেজেও থ্রেট করে চলেছে। সবাই যে মিথ্যে ছড়াতে চাইছেন এমন নিশ্চয়ই না, কিন্তু ঐ যে গোয়েবলসের নীতি! এত দ্রুতগতিতে দাবানলের মতো এরা মিথ্যে ছড়িয়ে দেয় যে বেশ কিছু মানুষ, যারা এসব ব্যাপারে সম্যক ধারণা রাখে না, তারা বিশ্বাস করে নেয়। আর এখানেই সফল এদের এই স্ট্র্যাটেজি। এরা জানে গীতার ব্যাপারে এরকম একটি খবর ছড়াতে পারলে ধর্মানুভূতি জাগ্রত করা সহজ হবে। ফলে লোকে খতিয়ে দেখবে না এর সত্যতা, ঝাঁপিয়ে পড়বে এই আন্দোলনের বিরোধিতা করতে। জনবিচ্ছিন্নতা তৈরির এক আদর্শ পদ্ধতির পাশাপাশি ধর্ম নিয়ে টানাপোড়েনের মধ্য দিয়ে দাঙ্গা পরিস্থিতি তৈরি করারও এক অসামান্য প্রয়াস। অথচ মজার ব্যাপার হলো, ঋক্ বা আমি বা আমরা অনেকেই গীতা নিয়ে যারা সুড়সুড়ি দিচ্ছে তাদের চেয়ে অনেক বেশী আগ্রহ নিয়েই বইটা পড়েছি ও অনুধাবন করেছি।

    এই ন্যাক্কারজনক প্রয়াস অবশ্য পরিপূর্ণরূপে সফল হয়নি। যতটা দ্রুত পারি, সত্যি ঘটনা সোশাল মিডিয়ায় লিখে সকলকে জানিয়ে দিই। প্রচুর মানুষ সত্যিটা বুঝতে পেরে ছড়িয়ে দিতে থাকে। ডিলিট হয়, বেশ কিছু পেজ। যদিও বইমেলা শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও এই মিথ্যাচার চলতে থাকে। শেষ অবধি গড়িয়াহাট ও লালবাজার থানায় মিথ্যে খবর ছড়ানো নিয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আশা করব, এই মিথ্যে খবর ছড়ানোর ব্যাপারে কলকাতা পুলিশ উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। যদিও পুলিশের আচরণ নিরপেক্ষভাবে জনগণকে সতর্ক হতে হবে এই মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে। মানুষের মনের ঘৃণাকে ব্যবহার করে যে মিথ্যে দিয়ে বানানো সত্যির জগৎ তৈরি হচ্ছে চারপাশে, তার মোকাবিলা করার দায়িত্ব কিন্তু সাধারণ মানুষেরই।
  • বিভাগ : খবর | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৬১৪ বার পঠিত
আরও পড়ুন
ক্ষমা - Rumela Saha
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা

  • পাতা : 1
  • জয়ন্ত ভট্টাচার্য | 172.68.146.187 | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:৩৪90948
  • ন্যক্কারজনক, নক্কারজনক নয় - হে ভোলানাথ!
  • tester | 172.69.34.103 | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:৪২90949
  • ঠিক করে দেওয়া হয়েছে । ধন্যবাদ।
  • সৈকত মিস্ত্রী | 162.158.159.89 | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৫:৫২90953
  • যথাযথ বলা হয়েছে।বিজেপি ও মিথ্যা সমর্থক।তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। আবারও প্রামণিত হল।
  • সে | 162.158.150.99 | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:২৯90955
  • loose?
  • tester | 172.68.141.81 | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৭:৫৫90956
  • ঠিক হয়েছে । ধন্যবাদ।
  • সে | 162.158.150.31 | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:৪১90959
  • ঃ-)
  • ঋদ্ধিমান বসু | 162.158.159.77 | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:৫৬90963
  • একটা ভিডিও বের করেছিল নাকি প্রতক্ষদর্শীর। পরে জানলাম সেটা এক বিজেপি কর্মীর বক্তব্য। কাজেই বানানো গল্প বোঝাই যাচ্ছে।
  • একলহমা | 162.158.187.176 | ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৫:২৩90974
  • ফেবু-হো্য়ট্স‍্যাপ কি ভয়ংকর অস্ত্র সেটা ভুক্তভোগী জানে।
  • করোনা

  • পাতা : 1
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত