• টইপত্তর  অন্যান্য

  • নতুন লেখক

    রোবু
    অন্যান্য | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৩ | ২১৭৭ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • শঙ্খ | 151.0.8.156 | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০১:২৭618872
  • সদার জন্য এই লেখকের কোটি কোটি স্পার্ম ঃ
    -----------------------------------------------

    কোটি কোটি স্পার্ম দিয়ে তৈরি হলাম। ভাবলাম কোটি তে না হলে-ও অন্তত লাখ তে একজন হবো নাহলে হাজারে তে গিয়ে কিছু একটা দাঁড়াবে। বাট পড়ে গেলাম বিশাল বড়ো-সড়ো লাইন তে।
    স্টাডিঃ WBJEE তে ৬০০-৬৫০ এর মধ্যে র‌্যাংক না করলে JU তে কোর নিয়ে ভর্তি হতে পারবো না। সেখানেও লাইন।
    লাভঃ ইন্ডিয়া তে মেল অ্যান্ড ফিমেল রেশিও ১০০০ঃ৯৪০। মেয়ে দের কাছে অনেক অপশান আছে লাইক IAS, CA, ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকার, MNC জব, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, বিজনেসম্যান বাট ছেলে দের কাছে 'নো অপশান'। ভুতনি-পেচি-বেকি-কেলি,তেলি,তেলা-খাপা সবাই পরিনীতি চোপড়। সেখানেও লাইন!!!!
    জবঃ প্রাইমারি টীচার ভ্যাকেন্সি ৫০,০০০ বাট এগজাম দিলো ৬,০০০,০০০ তাহলে একটা সীট এর জন্য কতো জন লড়াই করছে!!!!! সেখানেও লাইন।
    রেল রিজার্ভেশান কাউন্টারঃ কাউন্টার ওপেন হয় তো 8 AM থেকে। বাট সকাল ৬ টায় মর্নিং ওয়াক করতে করতে গিয়ে লাইন তে নেম লেখাতে গিয়ে দেখলাম ২৭ নং তে নেম!!!!! বোঝো। যখন ৮ টায় কাউন্টার খুললো, পিছনে ফিরে দেখলাম রবি দাদু গিটার নিয়ে আবার গান গাইতে চলে এসেছে। যা-তা লাইন।
    কেরোসিন অয়েলঃ দাদা অয়েল নাই। সামনের ডেট তে আসুন, পেয়ে যাবেন। ডেট!!!! আরে, এটা তো কোচিং তে মেয়ে দের মুখে শুনতাম। এখানেও ডেট!!!
    গ্যাসঃ ওই গ্যাস টা বুকিং করে দিও তো। কল করে গ্যাস টা বুকিং করলাম। ১৭ দিন পর পাশের বাড়ি তে চন্দন দা গ্যাস দিয়ে যাবার পর বলে গেলো, এখনো ৩ দিন লাগবে। আরে গ্যাস তো, সেখানেও গ্যাস। ১৩ দিন পর গ্যাস নিয়ে এলো।
    আদার্সঃ আমেরিকা ওয়ার করে যদি একটু ভিড়-টিড় কমায়, সেখানেও আর একটা ভিড় এসে আমেরিকার এগেইনস্ট তে চলে যায়। চূড়ান্ত ভুল-ভাল।
    গভঃ যখন করাপশান করে ভিড় টা একটু কমায়, সেখানে তেও একটা বড়ো-সড়ো ভিড় অসে গভঃ তের এগেইনস্ট তে চলে আসে।
    এতই বেশি ভিড়, কে কাকে রেপ করছে, সে নিজেও জানে না। ভিড় তে কনফিউজ হয়ে গেছে।
    মেট্রো শহর,মেট্রো লাইন।
    লাইন তে পড়ে গেলাম। ভিড় বাস তে বৌদি গালা-গাল দেয়। দাদা খিস্তি মারে। অটো তে লাইন। ব্যাংক তে লাইন। পুলিশ ভুল করে তুলে নিয়ে চলে যায়। আবার ভুল বুঝতে পেরে ফেরত-ও দিয়ে যায়।
    ফেক এনকাউন্টার হলে জনগণ মারা যায়, টেররিস্ট্স রা ইনক্রীজ করে। আরে!!!! টেররিস্ট্স বলে কি ওরা মানুষ নয়। ওরা-ও তো লাইন তে আছে।
    দিনের সাস* তে অফিস থেকে বাড়ি ফিরে দেখি, বৌ নাই। বৌ-ও ভিড় তে আটকে গেছে। যখন বৌ বাড়ি ফেরে, তখন ঘুমিয়ে পড়েছি।
    সন্তান জন্ম নিলো। সেও ভিড় তে আটকে পড়েছে। নেম রাখ্লাম ভিরু।
    ভিড় আমাদের জন্মগত অধিকার।
    ভিড় বলে কি সে মানুষ নয়।

    ------------
    * কিছু কিছু অংশ, পপুলার ডিমান্ডে মূলানুগ রাখা হয়েছে।
  • Atoz | 161.141.84.239 | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০১:২৭618873
  • বোম্বাস্টিক গল্প! ঃ-)
    বাংলা হরফে পড়ে যেন জোশটা পুরো এলো। ঃ-)))))
  • Rit | 213.110.246.230 | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ২৩:৪৬618874
  • অমিট্রায়ে এই স্বপ্নই দেখেছিল। লেখা হবে গথিক গীর্জার ছাদের মত, ন্যুরালজিয়ার ব্যাথার মত। এ জিনিস আরো কাল্টিভেট হোক।
  • sosen | 111.63.152.109 | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ২৩:৫০618875
  • এটা তো বেশ ভালো।
  • siki | 212.62.70.6 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০১:৪০618876
  • এতেই কি আমার সেই উক্তি ছিলো, কোটি কোটি নয়, আপনি তৈরি হয়েছেন একটামাত্র স্পার্ম দিয়ে?
  • Double A | 11.23.82.122 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০২:২৪618877
  • রাহুল টা শেতান ভাগত ঝাড়া মনে হস্সে ?
  • Double A | 11.23.82.122 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০২:৩০618878
  • রাহুল এর সঙ্গে engaged এর কথা টা,বৈশাখী অঙ্কিত কে জানালো থ্রু Monosodium গ্লুটামেট !!!
  • Rit | 213.110.246.230 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০২:৪২618879
  • বৈশাখী কি কেমিস্ট্রি অনার্স ছিল?
  • শঙ্খ | 151.0.8.139 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০৬:৪০618880
  • এই রাইটারের 1st গল্পঃ (ফেসবুক তে লেখার ডেট ইনক্লুডেড)
    ----------------------------------------------------------------
    সেপ্টেম্বর ৬

    একটা ছেলে ৩৩ ইয়ার্স ওল্ড।
    সামান্য গ্র্যাজুয়েট। জেনেরাল কাস্ট। অনেক দিন গভঃ জব ট্রাই করছে বাট পাচ্ছে না। গার্ল ফ্রেন্ড নাই। কেউ ভালোবাসে না। লাইফ চরম প্যাথেটিক।
    ছেলে টা সুইসাইড করতে চায়। ট্রেন, মেট্রো, হাওড়া ব্রীজ, হ্যাং, পয়জন, স্লীপিং পিলস কোনো কিছু তেই কিছু হচ্ছে না। যাই করতে যাচ্ছে ছেলে টা ভয় তে পিছিয়ে আসছে।
    হঠাৎ।
    ভোট ইন ওয়েস্ট বেঙ্গল।
    অনেক CRPF এসেছে। ওদের খুবই স্ট্রিক্ট গার্ড।
    ছেলে টা একদিন ঠিক করলো। নিজের হাতে নিজে মরতে পারছে না, তাই, CRPF দের হাতে তেই সে মরবে।
    ভোট সাস*।
    ব্যালট বক্স গুলো স্ট্রং রুম তে রাখা। অনেক CRPF জওয়ান গার্ড তে আছে। ছেলে টা গেলো লুকিয়ে-লুকিয়ে অ্যান্ড কিছু ঢিল মারা-মারি করলো ভন্দেমাতরম* বললো। CRPF ছেলে টা কে সারেন্ডার করতে বললো। কিন্তু ছেলে টা করলো না। CRPF জওয়ান রা ছেলে টা কে গুলি করে মেরে ফেললো। দেন, ছেলে টার পেইন্ট* এর পকেট সার্চ করে বের হলো, একটা চিরকুট। সেখানে তে লেখা আছে " প্লীজ বেকার সমস্যা মেটান "।

    --------
    *মূলানুগ
  • শঙ্খ | 151.0.8.139 | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ০৬:৪৬618882
  • সিকির কমেন্টঃ

    কোটি কোটি স্পার্ম গল্পেঃ
    গোড়াতেই গলদ। কোটি কোটি নয়, আপনি তৈরি হয়েছেন একটা মাত্র স্পার্ম দিয়ে।

    আর সেপ্টেম্বর ৬ এর গল্পেঃ
    "paint er pocket"টা মারাত্মক হয়েছে। হ্যাহ্যা করে হেসে ফেললাম।

    আর রোবু বলেছেঃ

    চাষ করে না কেন? ঘ্যান ঘ্যান ঘ্যান ঘ্যান করে সুইসাইড করে ফেলল? গভঃ জব এর আশায়? কী আবোদা মাইরি!! এসব না করে বরং জনারণ্য সিনেমাটা দেখুক। আর ৮০-৯০ তে চাকরি বেশী ছিল? মা গো,এরা কারা!!
  • রোবু | 213.147.88.10 | ০২ অক্টোবর ২০১৩ ২১:২৩618883
  • পুজো স্পেশাল।
    https://www.facebook.com/groups/guruchandali/permalink/659334120751204/
    nihar babu'r mil ta bondho hye geche aj 1 year hote chollo.
    bari te chele r bou.class 11 obdhi pore chele tar school chaarte hyeche.chele ta akhn choto der ke tuition poray.nihar babu'r bou,loke'r bari ranna kore.
    paray sobai nihar babu ke khubi bhalobase.
    nihar babu ra je paray thake,se poray sobai khubi nimnobitto family er,para'r sokole jotota paare,nihar babu der ke help kore.
    roj sokal te nihar babu ke loke'r bari-bari perfume, powder bikri korte
    ber hote hoy.
    nihar babu'r kono bod obhaaas nai.sudhu onar ektu lottery'r nesa aache.
    raate bari fire,chandan'r dokan theke kagoj ta niye ase,maajhe maaajhe lottery'r number gulo miliye dekhe.
    kokhono kokhono 100,200 taka pay kintu jaa lottery kene,sobi oi dike tei chole jay.
    samne durga pujo ase geche.kintu chele r bou ke kichu je ekta kine debe,seta r hoini.
    sedin mohaloya chilo,tai nihar babu'r bou onake sokale te bari theke ber hote baron korechilo.
    tai uni,saat sokale chandan'r dokan te giye kagoj ta ulote palte dekhte suru korlo,5 core er lottery,50 taka.kinte onar mon chay na.je kopal take path te bosiyeche,sei kopal ki kore 5 core lottery debe. aneek dona-mona kore,sas te bari'r kauke na janiyei, kinei fello 50 taka er 5 core lottery ta.
    bijaya'r din ke khela aache.
    pujo te bou ke,chele ke kichu deyoaa hoini.nijeo pujo te kichu kene ni.kintu para'r loke ra r club theke nihar babu,tar chele,bou ke jama-kapor diyeche.
    para'r pujo'r din gulo te sudhu lottery'r katha bhabte bhabte din chole geche.karon nihar babu'r jibon te ai 1st ato taka'r lottery kinlen.
    bijaya'r din, raat tokhon 11 ta beje geche,nihar babu tokhono bari fereni.bari'r baire nihar babu'r bou r onar chele dariye aache.
    hothat ekjon'r gari te chepe nihar babu alen,uni anonde lafa-lafi suru korechen,nihar babu tokhon sob kichu bollo onar bari te,uni 5 core er lottery jitechen.raat birete para'r sokol ke deke-deke niye anonode lafa-lafai suru korechen.nihar babu'r anonode te bijoya'r dine teo,para te anondo upche porlo.
    pujo tujo sob mite geche.
    nihar babu thick korlen,ai para theke uthe giye sahar te chole jaben,r sekhanei kono valo,rich,educated para te thakben.chele ke dami school te vorti koraben r ekta valo gari kinben.jibon'r baki samay gulo enjoy kore kataben.bari te nihar babu tar idea ta janalen.bou sune besh khusi,chele-o darun khusi.
    nihar babu'r besi maal-potro chilo na,tai ekta chotto gari tei sob hye geche.nihar babu jedin para theke chole jabe,sei din para'r sokole khub kadde suru koreche,sobai na-na bhabe nihar babu der ke bujhiye para tei thakte bollo.kintu nihar babu ra oder sobai ke fele rekhe sahar te chole alo.
    sahar te ase dekhte pelo akash choya sob flat,bari.sei rokomi ekta flat te nihar babu ra thakte suru korlo.
    nihar babu flat te celebration korlo,sei party te flat'r sobai ke invite kora hyechilo.
    raat 12 ta obdhi khana-pina chollo.
    natun sokal.
    chele ke natun dami school te class 12 te vorti koreche.valo ekta gari kineche,nihar babu'r bank balance bereche.
    aj nihar babu khub khusi.
    roj sokal te chele ke gari kore school te niye jaan, school'r chuti'r por gari kore niye aasen.
    maajhe maajhe nihar babu and tar wife mile long drive te jay.nihar babu'r chele'r aneek dami dami bandhu hyeche, chuti'r din gulo te chele ta tar bandhu der sange multiplex te movie dekhe,enjoy kore.
    professor, senior advocate, bank manger, CA, govt. er boro-boro officer rank'r manush jone ra nihar babu'r bandhu hoyechen.
    flat te mojlish bose.sei mojlish te nihar babu holen eye candy.tar struggle'r golpo sobai ke bolen,and sobai dami dami wine khete khete seta darun enjoy kore.
    ai rokom bhabe cholche.
    sedin chuti er dupur.
    hothat nihar babu'r buke te khub pain utheche,and matha ghure pore gechen. bou,chele ase chella milli suru koreche,kintu flat'r keu agiye aseni,sobai eke eke darja khule ek baar dekhlo tarpor darja ta bondho kore dilo.
    tokhon flat'r je guard se nihar babu ke gari chaliye hospital te niye gelo.
    nihar babu'r chele tader sei purono para te fire aseche,and para'r sobai ke baba'r bapar ta janiyeche.
    tokhon para and club'r sobai kaaj-kommo fele rekhe diye,nihar babu ke dekhte chute aseche.
    din raat hospital te sei purono para'r chele rai chilo. doctor theke suru kore medicine sob kichu orai koreche.nihar babu der paase thekeche sei purno para'r loke rai.natun flat'r keu ekti baar-o nihar babu der khoj koreni.
    nihar babu sustho hoye flat te fire asechen.besh kichu din thaka'r por.nihar babu tader flat ta,sei flat'r guard and tar family ke diye gelo.
    and sei rich, educated para,akash choya flat culture'er para te nihar babu ekta chotto faka place te HANUMAN JI er mandir kore diye, abar tini sei purno para tei fire alen.
    purno para te fire ase dekhlen,tader para te durga pujo'r pandel suru hyeche.para'r sokole mile hoi-choi kore,pujo'r janny wait kore aache.
  • শঙ্খ | 118.35.9.186 | ০৪ অক্টোবর ২০১৩ ০৫:১৭618884
  • নীহার বাবুর মিল টা বন্ধ হয়ে গেছে আজ 1 ইয়ার হতে চললো।
    বাড়ি তে ছেলে আর বৌ। ক্লাস ১১ অবধি পড়ে ছেলে টার স্কুল ছাড়তে হয়েছে। ছেলে টা এখন ছোটো দের কে টিউশন পড়ায়। নীহার বাবুর বৌ, লোকের বাড়ি রান্না করে।
    পাড়ায় সবাই নীহার বাবু কে খুবই ভালোবাসে।
    নীহার বাবু রা যে পাড়ায় থাকে, সে পাড়ায় সবাই খুবই নিম্নবিত্ত ফ্যামিলি এর, পাড়ার সকলে যতটা পারে, নীহার বাবু দের কে হেল্প করে।
    রোজ সকাল তে নীহার বাবু কে লোকের বাড়ি-বাড়ি পারফিউম, পাউডার বিক্রি করতে
    বের হতে হয়।
    নীহার বাবুর কোনো বদ অভ্যেস নাই। শুধু ওনার একটু লটারির নেশা আছে।
    রাতে বাড়ি ফিরে, চন্দনের দোকান থেকে কাগজ টা নিয়ে এসে, মাঝে মাঝে লটারির নাম্বার গুলো মিলিয়ে দেখে।
    কখনো কখনো ১০০, ২০০ টাকা পায় কিন্তু যা লটারি কেনে, সবই ঐ দিকে তেই চলে যায়।
    সামনে দুর্গা পুজো এসে গেছে। কিন্তু ছেলে আর বৌ কে কিছু যে একটা কিনে দেবে, সেটা আর হয়নি।
    সেদিন মহালয়া ছিলো, তাই নীহার বাবুর বৌ ওনাকে সকালে তে বাড়ি থেকে বের হতে বারণ করেছিলো।
    তাই উনি, সাত সকালে চন্দনের দোকান তে গিয়ে কাগজ টা উল্টে পাল্টে দেখতে শুরু করলো, ৫ কোর* এর লটারি, ৫০ টাকা। কিনতে ওনার মন চায় না। যে কপাল তাকে পথ তে বসিয়েছে, সেই কপাল কি করে ৫ কোর* লটারি দেবে। অনীক* দোনা-মোনা করে, সাস* তে বাড়ির কাউকে না জানিয়েই, কিনেই ফেললো ৫০ টাকা এর ৫ কোর* লটারি টা।
    বিজয়ার দিন কে খেলা আছে।
    পুজো তে বৌ কে, ছেলে কে কিছু দেওয়া হয়নি। নিজেও পুজো তে কিছু কেনে নি। কিন্তু পাড়ার লোকে রা আর ক্লাব থেকে নীহার বাবু, তার ছেলে, বৌ কে জামা-কাপড় দিয়েছে।
    পাড়ার পুজোর দিন গুলো তে শুধু লটারির কথা ভাবতে ভাবতে দিন চলে গেছে। কারণ নীহার বাবুর জীবন তে এই 1st এতো টাকার লটারি কিনলেন।
    বিজয়ার দিন, রাত তখন ১১ টা বেজে গেছে, নীহার বাবু তখনো বাড়ি ফেরেনি। বাড়ির বাইরে নীহার বাবুর বৌ আর ওনার ছেলে দাঁড়িয়ে আছে।
    হঠাৎ একজনের গাড়ি তে চেপে নীহার বাবু এলেন, উনি আনন্দে লাফা-লাফি শুরু করেছেন, নীহার বাবু তখন সব কিছু বললো ওনার বাড়ি তে, উনি ৫ কোর* এর লটারি জিতেছেন। রাত বিরেতে পাড়ার সকল কে ডেকে-ডেকে নিয়ে আনন্দে লাফা-লাফি শুরু করেছেন। নীহার বাবুর আনন্দে তে বিজয়ার দিনে তেও, পাড়া তে আনন্দ উপচে পড়লো।
    পুজো টুজো সব মিটে গেছে।
    নীহার বাবু ঠিক করলেন, এই পাড়া থেকে উঠে গিয়ে শহর তে চলে যাবেন, আর সেখানেই কোনো ভালো, রিচ, এডুকেটেড পাড়া তে থাকবেন। ছেলে কে দামী স্কুল তে ভর্তি করাবেন আর একটা ভালো গাড়ি কিনবেন। জীবনের বাকি সময় গুলো এনজয় করে কাটাবেন। বাড়ি তে নীহার বাবু তার আইডিয়া টা জানালেন। বৌ শুনে বেশ খুশি, ছেলে-ও দারুণ খুশি।
    নীহার বাবুর বেশি মাল-পত্র ছিলো না, তাই একটা ছোট্টো গাড়ি তেই সব হয়ে গেছে। নীহার বাবু যেদিন পাড়া থেকে চলে যাবে, সেই দিন পাড়ার সকলে খুব কাদ্দে* শুরু করছে, সবাই না-না ভাবে নীহার বাবু দের কে বুঝিয়ে পাড়া তেই থাকতে বললো। কিন্তু নীহার বাবু রা ওদের সবাই কে ফেলে রেখে শহর তে চলে এলো।
    শহর তে এসে দেখতে পেলো আকাশ ছোঁয়া সব ফ্ল্যাট, বাড়ি। সেই রকমই একটা ফ্ল্যাট তে নীহার বাবু রা থাকতে শুরু করলো।
    নীহার বাবু ফ্ল্যাট তে সেলিব্রেশন করলো, সেই পার্টি তে ফ্ল্যাটের সবাই কে ইনভাইট করা হয়েছিলো।
    রাত ১২ টা অবধি খানা-পিনা চললো।
    নতুন সকাল।
    ছেলে কে নতুন দামী স্কুল তে ক্লাস ১২ তে ভর্তি করছে। ভালো একটা গাড়ি কিনেছে, নীহার বাবুর ব্যাংক ব্যালেন্স বেড়েছে।
    আজ নীহার বাবু খুব খুশি।
    রোজ সকাল তে ছেলে কে গাড়ি করে স্কুল তে নিয়ে যান, স্কুলের ছুটির পর গাড়ি করে নিয়ে আসেন।
    মাঝে মাঝে নীহার বাবু অ্যান্ড তার ওয়াইফ মিলে লং ড্রাইভ তে যায়। নীহার বাবুর ছেলের অনীক* দামী দামী বন্ধু হয়েছে, ছুটির দিন গুলো তে ছেলে টা তার বন্ধু দের সঙ্গে মাল্টিপ্লেক্স তে মুভি দেখে, এনজয় করে।
    প্রফেসর, সিনিয়র অ্যাডভোকেট, ব্যাংক ম্যানেজার, সিএ, গভঃ এর বড়-বড় অফিসার র‌্যাংকের মানুষ জনে রা নীহার বাবুর বন্ধু হয়েছেন।
    ফ্ল্যাট তে মজলিশ বসে। সেই মজলিশ তে নীহার বাবু হলেন আই ক্যান্ডি। তার স্ট্রাগলের গল্প সবাই কে বলেন, অ্যান্ড সবাই দামী দামী ওয়াইন খেতে খেতে সেটা দারুণ এনজয় করে।
    এই রকম ভাবে চলছে।
    সেদিন ছুটি এর দুপুর।
    হঠাৎ নীহার বাবুর বুকে তে খুব পেইন উঠেছে, অ্যান্ড মাথা ঘুরে পড়ে গেছেন। বৌ, ছেলে এসে চেল্লা মিল্লি শুরু করছে, কিন্তু ফ্ল্যাটের কেউ এগিয়ে আসেনি, সবাই একে একে দরজা খুলে এক বার দেখলো তারপর দরজা টা বন্ধ করে দিলো।
    তখন ফ্ল্যাটের যে গার্ড সে নীহার বাবু কে গাড়ি চালিয়ে হসপিটাল তে নিয়ে গেলো।
    নীহার বাবুর ছেলে তাদের সেই পুরোনো পাড়া তে ফিরে এসেছে, অ্যান্ড পাড়ার সবাই কে বাবার ব্যাপার টা জানিয়েছে।
    তখন পাড়া অ্যান্ড ক্লাবের সবাই কাজ-কম্মো ফেলে রেখে দিয়ে, নীহার বাবু কে দেখতে ছুটে এসেছে।
    দিন রাত হসপিটাল তে সেই পুরোনো পাড়ার ছেলে রাই ছিলো। ডক্টর থেকে শুরু করে মেডিসিন সব কিছু ওরাই করছে। নীহার বাবু দের পাশে থেকেছে সেই পুরোনো পাড়ার লোকে রাই। নতুন ফ্ল্যাটের কেউ একটি বার-ও নীহার বাবু দের খোঁজ করেনি।
    নীহার বাবু সুস্থ হয়ে ফ্ল্যাট তে ফিরে এসেছেন। বেশ কিছু দিন থাকার পর। নীহার বাবু তাদের ফ্ল্যাট টা, সেই ফ্ল্যাটের গার্ড অ্যান্ড তার ফ্যামিলি কে দিয়ে গেলো।
    অ্যান্ড সেই রিচ, এডুকেটেড পাড়া, আকাশ ছোঁয়া ফ্ল্যাট কালচারের পাড়া তে নীহার বাবু একটা ছোট্টো ফাঁকা প্লেস তে HANUMAN JI এর মন্দির করে দিয়ে, আবার তিনি সেই পুরোনো পাড়া তেই ফিরে এলেন।
    পুরোনো পাড়া তে ফিরে এসে দেখলেন, তাদের পাড়া তে দুর্গা পুজোর প্যান্ডেল শুরু হয়েছে। পাড়ার সকলে মিলে হৈ-চৈ করে, পুজোর জন্য ওয়েট করে আছে।
  • শঙ্খ | ০৮ অক্টোবর ২০১৩ ০৫:৩০618885
  • https://www.facebook.com/groups/guruchandali/permalink/647765221908094/

    সেপ্টেম্বর ৯

    একই পাড়া এর ছেলে অ্যান্ড মেয়ে টা। নেম তাদের রিতম অ্যান্ড অমৃতা।
    অমৃতা অ্যান্ড রিতম এর 1st পরিচয় ক্লাস ১১ তে টিউশন ব্যাচ তে।
    রিতম এর খুব ভালো লাগে অমৃতা কে। একদিন সাহস নিয়ে অমৃতা কে প্রোপোজ করে দিলো রিতম। অ্যান্ড ওটাই 1st, কেউ অমৃতা কে প্রোপোজ করেছে। তাই অমৃতা এর YES এর অ্যানস পেতে গড়িয়ে গেছিলো সেই ক্লাস ১২।
    দেন, কিছু দিন একে-অপর কে জানতে না জানতেই, ক্লাস ১২ এর ফাইনাল এগজাম এসে গেলো।
    তাই আস্তে আস্তে টিউশন যাওয়া কমে গেলো। দেখাও খুব কম হতে লাগলো।
    কল, sms যে খুবই হতো তাও নয়। রোজ সকালে তে রিতম গুড মরনিং অ্যান্ড নাইট তে গুড নাইট SMS সেন্ট করতো বাট খুবই কম রিপ্লাই আসতো অমৃতা এর থেকে।
    HS পাস করে রিতম অ্যান্ড অমৃতা যে যার কলেজ তে অ্যাডমিশন নিলো। অমৃতা স্টাডি শুরু করলো যাদবপুর ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পারেটিভ লিটারেচার নিয়ে অ্যান্ড রিতম বাড়ি এর পাশের কলেজ তে ভর্তি হলো।
    সেই জন্য অমৃতা এর ফ্যামিলি তাদের পাড়া থেকে উঠে গিয়ে কলকাতা তে একটা অ্যারিস্টোক্র্যাট পাড়ায় একটা ফ্ল্যাট ভাড়া নিলো।
    অমৃতা সেখানে তে একটা নতুন দুনিয়া পেলো। অনেক বড়ো বড়ো MNC তে জব করা ছেলে দের থেকে প্রোপোজাল পেতে লাগলো অমৃতা। অপশান বেশি থাকায়, অমৃতা তন্ময় বলে একজন কে ভালোবেসে ফেললো।
    অমৃতা গ্র্যাড সাস* হবার পর। একটা নিউজপেপার কোম্পানি তে জয়েন করেছে অ্যাজ ইন্টার। অ্যান্ড তন্ময় অলরেডি একটা MNC তে ভালো পোস্ট তে ভালো স্যালারি এর জব করে।
    এই রকম ভাবে চলতে লাগলো অমৃতা অ্যান্ড তন্ময় এর। অমৃতা তন্ময় কে খুবই ভালোবাসে। অমৃতা তন্ময় কে বিয়ে করতে চায়। ছুটি এর দিন তে, মাঝে-মাঝে তারা লং ড্রাইভ তেও যেতো।
    এই রকমই এক ছুটি এর দিন তে।
    সারাদিন অমৃতা অ্যান্ড তন্ময়, তন্ময় এর ফ্ল্যাট তে দুই-জনে এক-সঙ্গে কাটালো।
    রাত তখন ৯ টা বাজে। অমৃতা এই বার নিজে এর ফ্ল্যাট তে ফিরবে।
    অ্যান্ড তখন সেই টাইম তে, অমৃতা সেই পাড়ার ৫/৬ জন ছেলে এর হাতে খুব বাজে ভাবে রেপ হলো।
    ঘন্টা এর পর ঘন্টা কেটে গেলো। বাট সেই অ্যারিস্টোক্র্যাট পাড়ার কেউ এগিয়ে এলো না অমৃতা এর দিকে তে।

    আফটার 7 ইয়ারস।

    অমৃতা বেচে গেছিলো।
    অনেক মিডিয়া অ্যান্ড অনেক পার্টি পলিটিশিয়ান রা নিজে দের TRP বাড়ানো এর জন্য অনেক পলিটিক্স খেললো। বাট অমৃতা যে কষ্ট টা পেয়েছিলো, সেটা কেউ শেয়ার করেনি তারা।
    সেটা শুধু শেয়ার করেছিলো অমৃতা এর সেই পুরনো পাড়ার লোকের রা।
    অমৃতা এর পুরনো পাড়ার লোকে রাই অমৃতা এর জন্য পুলিশ, কোর্ট etc. অনেক কিছু করেছিলো,অমৃতা দের কে অনেক সাপোর্ট করেছিলো। অ্যান্ড অমৃতা এর দিকে তে হেল্পিং হ্যান্ড বাড়িয়ে দিয়েছিলো, অমৃতা 1st যার থেকে প্রোপোজ পেয়েছিলো, সেই রিতম।
    রিতম গ্র্যাজুয়েশন সাস* হবার পর নিজে এর বাড়ি তেই সামান্য কিছু টিউশন করতো।
    তন্ময় অমৃতা কে বিয়ে করেনি। তন্ময় অন্য মেয়ে কে বিয়ে করেছিলো।
    বাট এতো কিছু হয়ে যাবার পর'ও, রিতম ডোন'ট হেজিটেট অমৃতা কেই বিয়ে করেছিলো। অ্যান্ড অমৃতা রিতম কেই সবার থেকে বেশি ভালো বেসেছিলো।
  • 8-D | 69.160.210.2 | ০৮ অক্টোবর ২০১৩ ১৫:১৭618886
  • ছেলেটার একটা মূল্যবোধ আছে। না?
  • gudm ARANO | 111.210.190.104 | ০৮ অক্টোবর ২০১৩ ২৩:৫৯618887
  • টা একটা মস্ত বলের গল্প
  • pi | 4512.139.122323.129 | ০২ জানুয়ারি ২০১৯ ১৯:৩৯618888
  • রোবুর কল্যাণে রিভিসিট :D
  • সিকি | ০২ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:০০618889
  • সাস*, কোর* - এগুলোর মানে কী?
  • SD | 340123.99.7890012.163 | ০২ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:২০618890
  • সাস* = শেষ , কোর* = Core বলে অনুমান করলাম।
  • dc | 232312.174.894523.212 | ০২ জানুয়ারি ২০১৯ ২১:০৫618891
  • "অপশান বেশি থাকায়, অমৃতা তন্ময় বলে একজন কে ভালোবেসে ফেললো"

    এখানে কবি কি কি অপশানের কথা বলেছেন?
  • | 230123.142.34900.132 | ০৩ জানুয়ারি ২০১৯ ০৮:২৩618894
  • বাঃ প্রায় শীর্ষেন্দু র মতো ভালো, অপশনদের অদ্ভুত বাড়ি।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে মতামত দিন