• টইপত্তর  অন্যান্য

  • ফরহাদ মজহার এখন নাস্তিকদের বাংলাদেশে থাকতে দিতে চাইছেন না

    কুলদা রায়
    অন্যান্য | ০১ মে ২০১৩ | ৩৯৪ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কুলদা রায় | 34.90.93.220 | ০১ মে ২০১৩ ০৯:১৪600780
  • ফরহাদ মজহার বাংলাদেশের একজন কবি, প্রাবন্ধিক এবং এনজিও মালিক। তিনি ভাবান্দোলন নামে একটা বইও লিখেছেন। চিন্তা নামে তার একটা পত্রিকাও আছে। শুরু করেছিলেন--একাত্তরে সর্বহারা পার্টির মাধ্যমে। একাত্তরে সর্বহারা পার্টির নেতা সিরাজ সিকদার যখন মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রণ করেছিলেন, তখন ফরহাদ তার বিরোধিতা করেছিলেন। ১৯৭৪ সালের সর্বহারা পারটির নেতা, কবি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হুমায়ূন কবীর হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে ফরহাদের সংযোগ ছিল। এ বিষয়ে তার গুরু আহমদ ছফা তার ডাইরীতে লিখে গিয়েছেন। এই অভিযোগ মাথায় নিয়ে ফরহাদ মার্কিন দেশে পালিয়ে যান। সেখান থেকে আশীর দশকে বাংলাদেশে ফেরেন। এনজিও খোলেন এবং চীনাপন্থী রাজনীতির সঙ্গে সম্পর্ক রাখেন।
    এ সময়কালে লালন ফকিরকে নিয়ে বই লেখেন। সুফি দার্শনিক হিসেবে পরিচয় দিতে থাকেন। নিজেকে নাস্তিক এবং কম্যুনিস্ট হিসেবেও পরিচয় দেন।
    ২০০১ সালে যখন বিএনপি এবং জামায়াত ইসলামী ক্ষমতায় আসেন, তখন থেকেই তিনি জামায়াতের পক্ষে লেখালেখি শুরু করেন। বাংলাদেশে এ বছর শাহবাগের গণজাগরণ সৃষ্টি হয় যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে--ফরহাদ মজহার এই জাগরণকে ফ্যাসীবাদী এবং নাস্তিকদের আন্দোলন হিসেবে অভিহিত করেন। তিনি এবং তার বন্ধু মাহমুদুর রহমান শাহবাগের আন্দোলনের বিরুদ্ধে মৌলবাদীদের সংগঠিত করেন। সংখ্যালঘুদের উপর নীপিড়ণের উস্কানী দেন। হেফাজতি ইসলামীর ব্যানারে মাদ্রাসার ছাত্রদের জড়ো করেন। জামায়াতী ইসলামীর অর্থএ পরিচালিত হচ্ছে এ সংগঠনটি --এ রকম অভিযোগ আছে।
    দেশে এখন সাম্প্রদায়িক শক্তি উদার, প্রগতিশীল ও ওসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিষ্বাসীদের বিরুদ্ধে যে সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থান ঘটছে ঘটছে-তার নেতা ফরহাদ মজহার।
    তার বক্তব্য পড়ুন--

    নতুন সভ্যতা প্রতিষ্ঠার জন্য এসেছি: ফরহাদ মজহার
    ৩০ এপ্রিল ২০১৩ ২১:৩১ টা ৩০ এপ্রিল ২০১৩ ২২:৩৬ টা
    ------------------------------------------------------------

    বাংলাদেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে উল্লেখ করে নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির আহবায়ক ফরহাদ মজহার বলেছেন, “সারা বিশ্বের কাছে প্রমাণ করতে হবে আমরা অনেক অগ্রসর চিন্তার অধিকারী, আমরা সাম্য, ন্যায় বিচার ও মানবিক মর্যাদায় বিশ্বাস করি। আমাদের চিন্তা ভিন্ন, আমরা ভিন্ন ধরনের জাতি, আমাদের ঈমান-আকিদা অনেক শক্তিশালী। আমরা নতুন ধরনের সভ্যতা প্রতিষ্ঠার জন্য এসেছি।”

    মঙ্গলবার চট্টগ্রামের মুসলিম হলে মানবাধিকার লঙ্ঘন, রাষ্ট্রীয় সম্পদের লুন্ঠন ও দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মুক্তির দাবিতে ‘নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটি চট্টগ্রাম’ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।
    তিনি বলেন, “আমাদেরকে লক্ষ্য রাখতে হবে এই লড়াই অনেক বড়, অনেক কঠিন। সতর্ক থাকবেন কেউ যাতে আমাদের খাদে ফেলতে না পারে।”

    তিনি বলেন, “আসুন নাস্তিকদের বিরুদ্ধে লড়াই তীব্রতর করি, এই দেশ থেকে তাদের উৎখাত করি। তারা যাতে মনে না করে আফগানিস্তানে, ইরাকে যাদেরকে বোমা মেরে ঠান্ডা করে দিয়েছি তারা বাংলাদেশে মাথা তুলে দাঁড়াতে চাইছে, তাদেরকে ঠান্ডা করে দিতে হবে। সতর্ক থাকবেন, এটা যাতে হতে না পারে। আমরা সতর্ক না থাকলে তারা আমাদেরকে খাদে ফেলে দেবে।”

    তিনি আরো বলেন, “সাম্য ও ন্যায় বিচারের পক্ষে জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে, আমরা এখন নতুন ইতিহাস সৃষ্টির দ্বার প্রান্তে পৌঁছেছি। বাংলাদেশকে তালেবানী রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত করার অপচেষ্টা সফল হবেনা।”

    ইরাক, আফগানিস্তান, প্যালেষ্টইন দেখেছেন মানবতা ভূলণ্ঠিত হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, “আমাদেরকে তাদের পাশে দাঁড়াতে দেয়া হচ্ছে না। তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলে আমাদেরকে বলা হয় আমরা পশ্চাদপদ, সাম্প্রদায়িক ও মৌলবাদী।”

    ফরহাদ মজহার বলেন, “আমরা যখন নাস্তিক্যবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করি তখন এই জন্য লড়াই করিনা যে তারা আল্লাহ বিশ্বাস করে না। আল্লাহ এতই বড় যে আমরা বলি ‘বিসমিল্লাহির রাহমানির বাহিম’, আমার আল্লাহ তোমার রিযিক, খাদ্য, বাতাস বন্ধ করে দেননি। আমরা লড়াই করি কারণ তোমরা আমার নবীর মর্যাদায় আঘাত করেছো। যে সাম্যে বিশ্বাস করেনা, ন্যায় বিচারে বিশ্বাস করেনা, তারাই নাস্তিক; তাদের এই দেশ থেকে উৎখাত করতে হবে।”

    আলোচনা সভায় আগতদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “ইসলামের যুক্তিপূর্ণ ব্যাখ্যা সবার কাছে তুলে ধরুন, সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও ইনসাফ প্রতিষ্ঠার যে লড়াই শুরু করেছি, তা হযরত মুহাম্মদই (সা.) শুরু করেছিলেন। এই তিনটি নীতির জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, এই নীতিগুলো ইসলামেরই নীতি।”

    চট্টগ্রামবাসীকে বীরের জাতি হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এই জেলা থেকে বাংলাদেশের সর্বত্র, উপমহাদেশের সর্বত্র সাম্যের বানী প্রচারিত হয়েছে, এটা আমাদেরকে অনেকে ভুলিয়ে দিতে চায়।”

    “রানা প্লাজায় যেভাবে নিরীহ ছেলে মেয়েগুলোকে মারা হয়েছে ইসলাম তা বরদাশত করে না, যারা এই কাজ করেছে তাদের বাংলাদেশে থাকবার অধিকার নাই” মন্তব্য করেন তিনি।

    প্রবীণ সাংবাদিক ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজে’র সহ-সভাপতি ইস্কানদার আলী চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় আরো বক্তব্য রাখেন নাগরিক অধিকার ফোরামের সদস্য সচিব ও সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমীন গাজী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক ড. মামুন আহমেদ, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব চাষী নজরুল ইসলাম ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আবদাল আহমদ।

    আলোচনা সভায় বক্তারা অবিলম্বে দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মুক্তি দাবি করা হয়।

    http://www.poriborton.com/article_details.php?article_id=18750&fb_comment_id=fbc_355656734535734_1790323_355787877855953#f3d7efb0bfb13a
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। কল্পনাতীত প্রতিক্রিয়া দিন