আরও পড়ুন
মজারু - Guruchandali
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Sucheta Misra | 202.63.56.114 | ২৫ এপ্রিল ২০০৯ ০৫:০৬412230
  • বাবারে -
    কোথা থেকে কি
    জলভাতে ঘি!!!!

    গুরুতেরো বেশ লাগলো। কবিতাগুলো পড়লাম। একটাও ফেলনা নয়, খুব গুছোনো প্রতিটি কবিতা। অর্পণ এর কবিতাগুলো পড়ার পর বিনয় মজুমদার এর কিছু কবিতা মাথায় এলো। কেন কে জানে। বিশেষ কিছু শব্দের জন্য নয়। অদ্ভুৎ কিছুর যেন রেশ থেকে গেল মনের মধ্যে।
    রঞ্জন রায়ের লেখার মধ্যে উপন্যাসের সম্ভাবনা সহজেই চোখে পড়ে। খুব সাবলীল লেখা, দেখতে পাচ্ছিলাম সব্বাইকে চোখের সামনে।
    অন্যান্য লেখা ও গল্পগুলো পড়িনি এখনও সব। 'কাঠের সেনাপতি' নিজেই নিজেকে প্রমান করেছে, কী আর বলি!
  • Neel | 123.239.203.155 | ২৫ এপ্রিল ২০০৯ ১৪:৫৬412231
  • সবগুলো এখনো পড়া হয় নি, কিছু গল্প, ধারাবাহিকগুলো আর প্রবন্ধটা পড়া বাকি।
    অতসীদের কথা ভাল লাগল। একটু ভলগা থেকে গঙ্গার ধরন। গল্পের কাঠামো থেকে অনেককিছু কল্পনা করে নেওয়া যায়।
    জ্যাঠামশায় ও শ্রীবিলাস এর ভাব ভাল লেগেছে, কিন্তু ভাষা এবং প্রকাশভঙ্গী কিছুটা খটমট। সিরিয়াস বিষয়বস্তু সহজ ভাষায় না হলে সর্বজনবোধগম্য হয় না ঠিক!
    উত্তরবঙ্গ সুন্দর, ঝরঝরে লেখা। ভাল লাগল।
    সৈকতের কবিতাগুলো বহুত ভালো হয়েছে, কিন্তু বড্ডো কম। ওর কাছ থেকে এত কম লেখা পেলে ঠিক যেন প্রত্যশা পূর্ন হয় না। বড় তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে গেল। মেকাপ করতে সৈকত পর পর দু সপ্তাহ দুটো করে গল্প জমা দিক!

  • dipu | 121.243.161.234 | ২৫ এপ্রিল ২০০৯ ১৬:৪০412232
  • বাঙালবাড়ির কিস্‌সা গোড়া থেকে পড়লাম। খুব ভালো। তৃতীয় পর্বের জন্য যেন বেশীদিন অপেক্ষা করতে না হয়।
  • d | 117.195.38.167 | ২৫ এপ্রিল ২০০৯ ১৯:২৩412233
  • ইন্দ্রাণী,

    নারে তোর গুলাইসে। "সম্পাদকীয় নয়' কারেন্ট ইস্যুর মধ্যে কখনও দেওয়া হয় নি। শুধু প্রথম পাতায় থাকে। আর নতুন ইস্যু বেরোয় সময় পুরানোর সূচীপত্রে গুঁতো মেরে "সম্পাদকীয় নয়' নামে একটা খোঁদল বানিয়ে তাতে প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। নাহলে তো নতুন ইস্যুর লেখাটা রাখার যাবে না ---- তাই।
  • shyamal | 24.119.67.98 | ২৬ এপ্রিল ২০০৯ ০৪:৪১412234
  • রঞ্জনদা,
    প্রথমেই বলে রাখি আমি এদেশে মাস্টার্স করেছি, পি এচ ডি নয়। আর মোটেও অ্যাকাডেমিসিয়ান নই। কিন্তু সেটা দরকারী নয়।
    আমি মার্ক্স, অ্যাডাম স্মিথ, রিকার্ডো কিছুই পড়িনি। অর্থনীতি সম্বন্ধে জ্ঞান এই ম্যাগাজিন পড়ে যতটা হয় আর কি। কিন্তু আমি কোনদিন ইগোর বশে দেশোদ্ধার করতে যাইনি ও সে জন্য মানুষ মারিনি।

    আমি বলছি অনেক ছাত্ররা ১৯৬৭-৭২এ নক্সাল হয়েছিল দেশোদ্ধার করবে বলে। তারা প্রচুর মানুষ মেরেছে বা মারাকে সমর্থন করেছে ( অর্থাৎ হত্যাকারী কে জেনেও তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়নি)। তারা পুঁজিবাদী মাত্রই শ্রেনীশত্রু মনে করত। সেক্ষেত্রে এই উদ্ভট ঘৃণা করার আগে পুঁজিবাদ সম্বন্ধে পড়া কি তাদের দায়িত্ব ছিলনা? এই
    আমরা সবাই সাচ্চা মাও সে তুংএর বাচ্চা -- অ্যাটিচুডটা ছিল ভ্রান্ত। সেজন্য বাঙালিদের বহুদিন ধরে খেসারত দিতে হয়েছে।
  • indrani | 114.73.182.203 | ২৬ এপ্রিল ২০০৯ ০৫:৫৭412235
  • দ,
    তাই?
    তাই। গুলাইসে আমারই।
  • d | 117.195.34.224 | ২৬ এপ্রিল ২০০৯ ১২:১০412236
  • রঞ্জনদা,

    আপনাকেই বলি। এই বক্তব্যগুলো তো কোনোটাই গুরুচন্ডা৯ তেরো বা এমনকি বৈজয়ন্ত'র লেখার সঙ্গেও প্রাসঙ্গিক নয়। তো, এই থ্রেডটা ছাড়ান দেন না ক্যানে।
  • Bratin | 117.194.97.248 | ২৬ এপ্রিল ২০০৯ ১৮:০৯412237
  • বাইনারি দার "অতসীদের কথা" পড়লাম। ছিপছিপে মেদহীন লেখা। বাহুল্য-বর্জিত।বড় কঠিন বাস্তবের ছবি। আর তার পরিবর্তন চমৎকার চিত্রিত হয়েছে পটভুমিকার সঙ্গে সঙ্গে। একটু অন্য ধরনের লেখা।পড়ে খুব ভালো লাগল।
  • Arijit | 61.95.144.123 | ২৭ এপ্রিল ২০০৯ ০৯:৪৫412238
  • লেখক পরিচিতি এখন একটু একটু দিয়ে দেওয়া যায় কি?

    আর দুই - গোটা পত্রিকাটা একবারে পিডিএফ হিসেবে ডাউনলোডানোর ব্যবস্থা করলে খুব ভালো হয় - প্রিন্ট নিয়ে লোকজনকে পড়ানো, বা অফলাইনে নিজে পড়ার সুবিধা হয়। এখন এক এক পাতা পিডিএফ করা যায় ওই পিডিএফ লিংকটা দিয়ে।
  • d | 203.143.184.11 | ২৭ এপ্রিল ২০০৯ ১১:০৭412135
  • ১৪ থেকে লেখক পরিচিতি দেওয়া হবে। গ্রান্টি। এবারে তাড়াহুড়োয় সময় পাওয়া যায় নি।
  • h | 203.99.212.224 | ২৭ এপ্রিল ২০০৯ ১১:১১412136
  • আমার মতে লেখক পরিচিতি অপ্রয়োজনীয়। ডি: ব্যক্তিগত মত।
  • lcm | 69.236.185.230 | ২৭ এপ্রিল ২০০৯ ১১:২৪412137
  • তাই তো, লেখাই তো লেখকের পরিচয়! আবার আলাদা করে কি পরিচয় :)
    যাই হোক, দীপ্তেন-এর লেখাটা পড়লাম - তথ্যসমৃদ্ধ, সাবলীল, ইন্টারেস্টিং।
  • r | 125.18.104.1 | ২৮ এপ্রিল ২০০৯ ১২:২২412138
  • এটা ঠিক এই থ্রেডের জন্য প্রাসঙ্গিক নয়। তবে কাল মিস করে গিয়েছিলাম, আজ চোখে পড়ল বলে লিখছি।

    আমি ইকোনমিস্ট নই, কোনো অর্থেই নই। একসময় ইকোনমিক্স নিয়ে বাধ্যতামূলক পড়াশুনা করেছি। এখন পেশাদারী চাকুরে।

    ত্রিপিটকের দিব্যি, আমি নিওলিবারেলও নই। স্টিগলিৎজ বা ক্রুগম্যানদের লেখাপত্র পড়লে নিজের মতের সাথে মিল খুঁজে পাই। মধ্যপন্থী বলতে পারেন।
  • san | 12.144.134.2 | ২৮ এপ্রিল ২০০৯ ১২:৩৪412139
  • মঝঝিম পন্থা :-)))))))
  • rroy | 219.64.186.223 | ২৯ এপ্রিল ২০০৯ ১৮:৩৫412140
  • রঞ্জনদা,
    আরেকটু বেশি করে লিখুন না, প্লিজ।
  • shyamal | 24.117.212.59 | ০৮ মে ২০০৯ ০৩:০৯412141
  • রঞ্জনদার বাঙালবাড়ির কিসসা পড়ে দারুন লাগল। বাঙালদের ঘটিবাটি ফেলে দেশভাগের পর চলে আসা -- এটা যে কত ঘরে হয়েছে ইয়ত্তা নেই। আমার বাবার অবশ্য এই অভিজ্ঞতার মধ্যে যেতে হয়নি কারণ পড়াশোনা ঢাকায় হলেও চাকরির সুত্রে কলকাতা ও পশ্চিমবঙ্গের মধ্যেই ছিল। কাজেই পার্টিশনের এফেক্ট সরাসরি হয়নি। কিন্তু আমার দাদু (বাবার বাবা) ও জ্যেঠু বাবার অনেক উপরোধ সত্বেও আবেগের বশে জমিজমা ও বাড়ি বিক্রি করেনি, বসে ছিল। ফলে পার্টিশনের পর সব যায়।
    জানেন কি, মুর্শিদাবাদ জেলা ১৯৪৭ এ কয়েকঘন্টার জন্য পাকিস্তান হয়ে গিয়েছিল যেহেতু মুসলিম প্রধান। তারপর সীমারেখা বদল করা হয়।
    তবে খাটের তলায় অজস্র আম রাখা - এটা আমি ছোটবেলায় দেখেছি (৬৪-৬৫ সালে) যেহেতু আমের দেশে থাকতাম। আম কেনা হত শ হিসেবে, আর একশো আমে বারোটা ফাউ। রিক্সা করে বাবা বিশাল ঝুড়িতে নিয়ে আসত। তারপর তার স্থান হত খাটের নীচে। হিমসাগরের নাম ছিল শাদুল্লা। আরো কত আম, কোহিনুর, কোহিতুর, রানীপসন্দ, ভবানিচৌরস, আনারস, বেগমখাস, গোলাপখাস, বোম্বাই, সিঁদুরে ইত্যাদি। আমাদের স্কুলে একবার আমের এক্সিবিশন হল, তাতে প্রায় একশো জাতের আম ছিল।

    আমার কিছু আত্মীয় ময়মনসিংহে (ইংরেজরা লিখতmy men sing) থেকে গিয়েছিল কিন্তু ১৯৭১ এ প্রাণ হাতে নিয়ে পালিয়ে আসে।
    আমার এক নিউজার্সির পরিচিত দাদা বলে ১৯৬৪র দাঙ্গায় তাকে আর তার বোনকে মৃত ভেবে দাঙ্গাবাজরা চলে যায়। বেশ কিছু ছোরার আঘাতেও তারা মরেনি, রক্তের মধ্যে পড়ে ছিল। তাদের মা তাদের নিয়ে একবস্ত্রে কলকাতায় চলে আসে আর বেশ কিছুদিন শেয়ালদা স্টেশনে থাকে। এক বছর তারা বাবার খোঁজ পায়নি।
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত