এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • যেমন কাটছে দিন

    SAUMITRA BAISHYA লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৪ জুন ২০২৪ | ১৭৬ বার পঠিত
  • লালমোহনবাবুর একেবারে সম্প্রতিক খবর যারা জানেন না, তাঁদের জানিয়ে রাখি, লালমোহনবাবু তাঁর সাধের এম্বেসেডার গাড়িটি প্রাণে ধরে বিক্রি করতে পারেননি বটে, তবে একটা হন্ডা সিটি আর একটা এসইউভি গাড়ি কিনেছেন। হন্ডা সিটি গাড়িটাই সবসময় চড়েন। এসইউভি গাড়ি সম্পর্কে তাঁর অভিমত হল, ওটা চড়লে বয়সটা কমে গেছে বলে মনে হয়। তখন তিনি চক্রাবক্রা শার্ট আর প্যান্ট পরেন। আর দূরে কোথাও বেড়াতে গেলে, এসইউভি গাড়িটা তাঁর পছন্দ। ফেলুদা অবিশ্যি বলে, যে আগেকার রাজাদের ঘোড়াশালে যেমন ঘোড়া থাকত, লালমোহন বাবুর অবস্থাও হয়েছে তেমন। শুনে লালমোহন বাবু হেসে দু'কানে হাত দিয়ে বলেন, আর লজ্জা দেবেন না মশাই। তবে ইদানিং যেসব রহস্য উপন্যাস প্রকাশিত হয়, সেই বাজারে প্রখর রুদ্র আর কাটে না। তাছাড়া, একালের প্রজন্ম ভূত প্রেত, তান্ত্রিক কাহিনী বেশী পছন্দ করে। তোপসে বুদ্ধি দিল, ওটিটি চ্যানেলের জন্য রহস্য কাহিনী লিখুন। লালমোহনবাবুর কাহিনী নিয়ে কিছু সিনেমাও হয়েছিল। তাই, ওটিটি চ্যানেলের দরজা পেরোতে অসুবিধা হল না। হুলুস্থূল চ্যানেলের সাথে লালমোহনবাবুর চুক্তি হয়ে গেল। প্রথম সিরিজেই কিস্তিমাত।

    ওদিকে মগনলাল পুরোনো বেওসা ছেড়ে প্রমোটারের ব্যবসার সাথে শেয়ার বাজারেও টাকা খাটায়। ঘটনাচক্রে মগনলালের সাথে লালমোহনবাবুর দেখা হয়ে যায় এক ফিল্ম স্টুডিওর চত্বরে। লালমোহনবাবু চিনতে না পারলেও, মগনলাল ঠিক চিনে ফেলে লালমোহনবাবুকে। কী লালুবাবু, কেমন আছেন? এই কণ্ঠস্বর লালমোহনবাবু জীবনেও ভুলতে পারবেন না। চাকু ছুঁড়ে মারার দৃশ্যটা মনে পড়ে গেল। এদিকে মগনলাল তো নাছোড়বান্দা। সে লালমোহনবাবুকে চা না খাইয়ে ছাড়বে না। চা খাওয়াটা অজুহাত। আসলে, লালমোহনবাবুর যে এখন অনেক টাকা হয়েছে, সেটা মগনলাল জানত। সে বলল, লালুবাবু, টাকা ব্যাংকে ফেলে না রেখে, রিয়েল এস্টেটে লাগান। অনেক বেশী রিটার্ন পাবেন। একটা ভিজিটিং কার্ড দিয়ে বলল, এটা রাখুন। আপনার ফেলুবাবুর সাথে আলাপ করিয়ে লিবেন। আর উনাকে বলে দেবেন, আমি এখন সাদা বেওসা করি। তোপসেকে দিয়ে মগনলালকে ফোন করিয়ে নিল। আরো কিছু খবর নিয়ে ফেলুদা নিশ্চিত হল যে আগের মগনলাল বদলে গেছে। ফেলুদার পরামর্শ পেয়ে লালমোহনবাবু কিছু টাকা এম.এল. কনস্ট্রাকশনে লাগালেন। লালমোহনবাবু প্রথম দফায় বেশ ভালো লাভ পেলেন।

    সেদিন একেবারে সাত সকালেই লালমোহনবাবু গড়পার থেকে এসে হাজির। দুই চোখ লাল। ফেলুদা সদ্য কিছু ফ্রি হ্যান্ড আর যোগাসন করে, চারমিনার ধরিয়ে হিন্দু পত্রিকাটা তুলে নিয়েছে। লালমোহনবাবু রাত জেগে টিভিতে এক্সিট পোল দেখেছেন। চায়ে চুমুক দিয়ে বললেন, একটা প্রশ্ন ছিল। ফেলুদা পত্রিকা থেকে চোখ না তুলে বলল, সে তো আপনার সাত সকালে আসাতেই বুঝতে পারছি। তবে রাজনীতি নিয়ে কোনো প্রশ্ন নয়।
    লালমোহনবাবু এক গাল হেসে বলে ফেললেন, আপনি তো আর প্রধানমন্ত্রী নন।
    ফেলুদা এবার পত্রিকা নামিয়ে রেখে বলল, ছেলে ছোকরারা আপনাকে আর আমাকে নিয়ে কী সব মিম বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়েছে, সেসব দেখেছেন ? এমনকি তোপসেকেও ছাড়েনি।
    লালমোহনবাবু সহজে দমবার পাত্র নন। বললেন, আরে, এসব তো জনপ্রিয়তা বাড়ায়। কী ভাই তোপসে, তুমি তো এসব বোঝ।
    তোপসে কিছু বলার আগেই, ফেলুদা বলল -- ও কী বলবে। যা হয়েছে একদম ভালো হয়নি। ব্রডকাস্টিং বিলটা আইন হয়ে গেলে, জেলেও যেতে হতে পারে।
    লালমোহনবাবু বললেন, তাহলে একটা এন্টিসিপেটরি বেইল নিয়ে রাখলেই হয়।
    ফেলুদা এভাবে কখনো হাসে না। হাসতে হাসতে বলে, কিসের ভিত্তিতে জামিম চাইবেন? আপনি কি বায়োলজিক্যাল?
    হতভম্ব লালমোহনবাবু বললেন -- তবে কি আমরা বোটানিক্যাল?

    #যেমন_কাটছে_দিন
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সৃষ্টিছাড়া | 59.91.42.7 | ১৫ জুন ২০২৪ ০৭:৪৯533181
  • বোটানিক্যাল কি বায়োলজিক্যাল নয়? কি জানি জ্ঞান নিতান্তই কম তো
  • Prabhas Sen | ১৫ জুন ২০২৪ ০৯:২৭533183
  • আহা, ওটা তো উটের কুঁজে জল এর মত। উনি ভাল করবেন আর ফেলুদা শুধরে দেবেন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। পড়তে পড়তে প্রতিক্রিয়া দিন