ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • শান্তিনিকেতনের ছোট্ট একটি বাড়ীর দুঃখবিলাপ 

    Minakshi Mitra লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৮ মে ২০২২ | ৭১৭ বার পঠিত
  • ৬০/৭০ বছর আগে ---
                      
                                        ঘরের জানলা খুললে সূর্য ওঠে 
                                                             বারান্দাতে অস্ত যায়,
                                         দক্ষিণ হাওয়া পাগল করে 
                                                             এমন বাড়ী পাবে কোথায় ?

                                         চারদিকে মাঠ করছে ধূ ধূ 
                                                              একটা দুটো বসত বাড়ী,
                                         দুইদিকে দুই সাঁওতাল গ্রাম 
                                                              দুটো একটা গরুর গাড়ী ।

                                          বৈশাখেতে প্রচন্ড ঝড় 
                                                               আল টপকে আসে ছুটে --
                                          বাধা তো ভাই নেইকো কোনো 
                                                        (এই) বাড়ীর উপর পড়ে টুটে ।

                                          হ্যাট , হ্যাট , হ্যাট ঘুমটি ভাঙে 
                                                              গাঁয়ের চুডু লাঙল চালায়  ,
                                          বর্ষাতে সব খেত ভরে যায় 
                                                               মাছ এসে যায় বাড়ির ডাঙ্গায় ।

                                          সবুজ ধানে খেত ভরে যায় 
                                                               হাসি ফোটে চাষির মুখে,
                                          রাঙা মাটির রাস্তা বেয়ে 
                                                               গান গেয়ে যায় গভীর সুখে ।

                                       
    শান্তিনিকেতনের একেবারে প্রথম দিকের এই রূপ আস্তে আস্তে কি ভাবে বদলে গেল তা কবিতার দ্বিতীয় অংশে বলা হয়েছে --

                                           ধীরে ধীরে বদলালো সব 
                                                                লাল রাস্তা কালো হল --
                                           বাড়ী গাড়ি মানুষজনে 
                                                                ফাঁকা জায়গা ভরিয়ে দিল ।

                                           সূর্য ওঠা আড়াল হল 
                                                                 যায়না দেখা ডোবে কখন ,
                                            ধানের মাঠে ধান হয়না 
                                                                 শুধুই বাড়ী দেখবে এখন ।

                                            রাস্তা দিয়ে আর চলেনা 
                                                                  খড়ে বোঝাই গরুর গাড়ি ,
                                             মোটর লরি বাস ট্র্যাক্টর 
                                                                  তাদের ভিড়ে ছাড়ছে নাড়ি ।
     
                                 (আগে) গাছের তলায় ক্লাস ​​​​​​​হত 
                                                                  এখনও ​​​​​​​হয় ​​​​​​​সেটা ,
                                 (কিন্তু) খোয়াইগুলো গেল কোথায় 
                                                                  সবাই দেখতে যেত যেটা ?
     
                                             প্রকৃতিটা হারিয়ে গেছে 
                                                                   বাড়ী চাপা পড়ে ,
                                              গ্রামগুলো সব রইল পিছে 
                                                          (উঠল) হোটেল রেসর্ট গড়ে।

                                               বাঁধ ভেঙে দাও , বাঁধন ছাড়ো 
                                                                     গুরুদেবের মুখের বুলি ,
                                                মানছে সবাই নিষ্ঠা ভরে 
                                                                      চারিদিকে দেওয়াল তুলি ।

                                      (শান্তি) নিকেতনে শান্তি ও নেই 
                                                                      সারা দেশের খবর তো এই ,
                                                 বুড়ো হয়ে বসে আছি 
                                                                       কিছুই আমার করার তো নেই ।          
     
     
    উপরে উল্লিখিত ছোট্ট বাড়িটি আমার বাবা মার বাড়ী । চারিদিকে ধানের জমির মধ্যে এই বাড়ী । সময়টা ছিল ৪৬/৪৭। তখন শান্তিনিকেতন ছিল সত্যিই শান্তির  নিকেতন । আজকের শান্তিনিকেতনের সঙ্গে তার কোনো মিল নেই। কিন্তু আমাদের মনে সে সময়টা এমন ভাবে দাগ কেটে আছে যে কিছুতেই তাকে ভুলতে পারিনা।
     
                                             
               
     


                                          

     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • বল্লরী বাগচী | 2409:4060:2e8a:8269:dbe:a001:c91b:a47c | ১৮ মে ২০২২ ২৩:০১507815
  • খুব সুন্দর। 
     
  • শিবানী বাগচী | 2409:4060:118:da3a:444b:2d41:abe4:5ab6 | ১৮ মে ২০২২ ২৩:১৩507816
  • অপূর্ব-  পুরোনো দিনের সব ছবি চোখের সামনে ভেসে উঠলো।
  • ঝুমা বোস | 2409:4060:e84:dc80:1c07:7d09:b99:8531 | ১৯ মে ২০২২ ০৬:৩২507825
  • পুরনো দিনের শান্তিনিকেতন এর ছবি ফুটে ওঠে উঠেছে
    সুন্দর হয়েছে কবিতা টা
  • ঈশানি রায় | 103.157.183.165 | ১৯ মে ২০২২ ০৭:১৪507826
  • খুব ভাল লাগল কনা পিসি, আরো লেখো।
  • অনিরুদ্ধ চৌধুরী | 122.160.49.88 | ১৯ মে ২০২২ ০৮:০৬507827
  • খুব ভাল লাগল । দারুন☺️
  • Arun Majumder | 2401:4900:3680:96:7935:219f:afc7:afe5 | ১৯ মে ২০২২ ১০:২৫507835
  • খুব ভালো লাগলো 
  • অভিজিৎ | 2409:4060:2e97:ee42:3e21:b390:1586:d01f | ১৯ মে ২০২২ ১১:৪৯507841
  • হুম খুবই ভালো। বোঝা যাচ্ছে লেখিকা পুরাতন শান্তিনিকেতনি ভাব ধারায় অনুপ্রাণিত। 
      শান্তিনিকেতনের পরিবর্তিত রূপ মানিয়া নেওয়া টা কষ্টসাধ্য হইয়া পড়িয়াছে। 
    কবিতাটির মধ্যে পুরাতন থেকে ধিরে ধিরে শান্তিনিকেতনের নতুন রূপের পরিবর্তনের ধারা টি কে দেখাইয়া দেওয়া হইয়াছে। 
    লেখিকা কে সাধুবাদ জানাই সুন্দর কবিতা টি রচনার জন্য এবং নতুন শান্তিনিকেতনের রূপ টি  দেখাইবার জন্য 
     
  • অভিজিৎ | 2409:4060:2e97:ee42:3e21:b390:1586:d01f | ১৯ মে ২০২২ ১১:৪৯507842
  • হুম খুবই ভালো। বোঝা যাচ্ছে লেখিকা পুরাতন শান্তিনিকেতনি ভাব ধারায় অনুপ্রাণিত। 
      শান্তিনিকেতনের পরিবর্তিত রূপ মানিয়া নেওয়া টা কষ্টসাধ্য হইয়া পড়িয়াছে। 
    কবিতাটির মধ্যে পুরাতন থেকে ধিরে ধিরে শান্তিনিকেতনের নতুন রূপের পরিবর্তনের ধারা টি কে দেখাইয়া দেওয়া হইয়াছে। 
    লেখিকা কে সাধুবাদ জানাই সুন্দর কবিতা টি রচনার জন্য এবং নতুন শান্তিনিকেতনের রূপ টি  দেখাইবার জন্য 
     
  • chaitali chattaraj | ১৯ মে ২০২২ ১২:১০507845
  • পরিবর্তন খুব সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তলা হয়েছে ll অপূর্ব 
  • মিতা বসু | 122.161.67.237 | ১৯ মে ২০২২ ১৩:৩৯507846
  • খুব সুন্দর ছবি আঁকা হয়েছে। পরিবর্তন যে জগতের নিয়ম। মন ভারাক্রান্ত হলেও মেনে নিতেই হয়।
  • Sharbari sarkar | 122.162.146.244 | ১৯ মে ২০২২ ১৪:৩৭507853
  • শান্তিনিকেতন যাই নি কিন্তু মীনাক্ষীদির কবিতার মধ্যে দিয়ে পুরনো এবং এখনকার শান্তিনিকেতন কে কিছুটা জানতে পারলাম ।
  • Jahar Kanungo | ১৯ মে ২০২২ ১৬:০৮507861
  • খুব ভালো লাগলো। আরো লিখবেন
  • Shiladitya Bose | 103.16.31.246 | ১৯ মে ২০২২ ১৭:০৫507866
  • দারুন লেখা
  • Sourajit Roy Choudhury | 2401:4900:3a0b:ef0:c52c:5ab2:4ebf:cc6a | ১৯ মে ২০২২ ১৭:৫৭507867
  • খুব ভাল লাগলো 
  • রূপসা ভট্টাচার্য | 73.189.31.19 | ২০ মে ২০২২ ০৯:৫৬507876
  • খুব ভাল লাগল কবিতা, খুব সুন্দর বর্ণনা।
     
  • Sudeshna Majumdar | 47.11.203.179 | ২১ মে ২০২২ ১৭:০১507939
  • খুব ভালো লাগলো কবিতাটি . আরো  ভালো  লাগলো  এই ভেবে  যে , বাড়িটিতে অনেকবার গেছি .
  • মহুয়া সরকার (করচৌধুরি) | 2401:4900:1041:db6a:0:6d:f50:3101 | ২৩ মে ২০২২ ১৪:০৬508001
  • দোলন,কণাদির ছেলেবেলার স্মৃতি অপূর্ব ভাবে প্রকাশ  পেয়েছে ।আমি তো কত পরে ।এখন আর আমাদের সেই শান্তিনিকেতন আর নেই ।মনটা খুব খারাপ হয়ে যায় । একমাত্র  আমাদের পাড়াতে ছিল লাল মাটির রাস্তা  সেও এবার পাকিস্তান সোলো ।
    কাদির কবিতাটি খুব খুব সুন্দর  হয়েছে  ।কবিতাটা পড়ে চোখের সামনে ছেলেবেলার দিনগূলো ভেসে উঠলো ।আমরা যারা শানতিকেতন কে ভালোবাসি  তাদের সবারই কণাদির কবিতা পড়েে একই অনুভূতি  হবে ।
    কণাদিকে বলো আমার খুব ভালো লেগেছে  ।
    ভালো থেকো ।
  • মহুয়া সরকার (করচৌধুরি ) | 2401:4900:1041:db6a:0:6d:f50:3101 | ২৩ মে ২০২২ ১৪:২২508002
  • ভুল সংশোধন:
    "পাকিস্তান সোলো" 
    হবে:
    "পাকা রাস্তা  হলো"
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে মতামত দিন