• খেরোর খাতা

  • কবি জয় গোস্বামীর জন্মদিনে 

    Chirasree Debnath লেখকের গ্রাহক হোন
    অন্য যৌনতা | ১১ নভেম্বর ২০২০ | ১৬৮ বার পঠিত | ২ জন)
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  • শুভ জন্মদিন ...জয় গোস্বামী 


    জয় গোস্বামীর কবিতা আমার খুব প্রিয়। কয়েকজন প্রিয় কবিদের কবিতা পড়লে, কিছু আবছা মতো ছায়াঘোর ঘনায়। যেন খরের ঘর হলো। এবার হালকা কুয়াশা পড়া শুরু হবে। ধানগাছের শুকনো শরীরে পা দিয়ে দিয়ে অনুভব করতে হবে শীতঋতুর ঘাম, তাতে কেটে যাবে গোড়ালির ত্বক। ঘরে ফিরে আমিও লিখতে পারব তখন হেমন্তকাল নিয়ে দু চারটি ঝরা পাতার চিঠি। আমার চোখ বিষাদ নিয়ে নেমে আসুক আশ্চর্য সব প্রেমের কবিতায়। তাই সমস্ত শব্দহীনতা এবং লেখাশূন্য দিনে আমি জয় গোস্বামীর কবিতা পড়ি। তারপর কবিতাগুলো কোথাও একটা ছেড়ে দেয় আমাকে, এই ছেড়ে দেওয়াটা ব্যাপক মুশকিলের, পোকার মত অসহ্য, চোখে মুখে অস্থিরতা, যেন কিছু একটা হবে , কাল্পনিক কেউ হাতছানি দিচ্ছে দূর থেকে,

    "ছায়াচ্ছন্ন গ্রাম, ছায়াচ্ছন্ন বাড়ি, ছায়াচ্ছন্ন বয়স, তার তলা দিয়েএকজন আসছে, পায়ে ভাঙছে শুকনো পাতা, শাড়িতে কাঁটা লাগছে, গায়ে লাগছে গাছের ডাল, জঙ্গুলে-পোকা উড়ছে মাথার উপর, একজন আসছে, চুলে কুটো, কপালে কাঁচপোকা, নাকে ঘাম,

    বুকে ওঠা-পড়া, জঙ্গলের মাথায় ভরদুপুর, জঙ্গলের ভেতর বিকেল, ছায়াচ্ছন্ন জঙ্গল, ছায়াচ্ছন্ন বাঁশঝাড়, ছায়াচ্ছন্ন বয়স,

    তার তলা দিয়ে একজন কুলত্যাগ করছে..

    সবুজ হলুদ সর-পড়া একটা পুকুর থেকে লক্ষ্মী উঠে ঝাঁপিটা হাতে দিয়ে বললেন, 'সাবধানে যাস!'
    -------- "জয় গোস্বামী "

    একটি কথা খুব হৃদয় দিয়ে অনুভব করি কবিতা পড়তে হয়, না হলে কবিতার যাতায়াত স্তব্ধ হয়ে যায়। অসংখ্য ভালো কবিতা পড়ার পর হতাশা আসে। হাত গুটিয়ে বসে থাকি। এই হতাশা এবং আলোড়ন সুগন্ধির মতো। ভেতরে জমা থাকে, তারপর হঠাৎ খুব হাবিজাবি সময়ে লাইনগুলো ভেসে আসে কোথা থেকে যেন। হয়তো এটাই সেই প্রভাব। প্রভাবিত না হয়ে কে কবে লিখেছেন !

    কলেজে থাকতে পড়েছিলাম, "যারা বৃষ্টিতে ভিজেছিল "। সেই মুগ্ধতা কবেই মরেছে। ততদিনে তার আরো এমন সব কবিতা পড়ে ফেলেছি, যেগুলোর মুগ্ধতাটা আরো কিছুকাল চলবে। তারপর সেই বিস্ময় কী শেষ হয়ে যাবে।

    বিস্ময় আর মুগ্ধতা হারিয়ে মরা নদীর সাঁকো পেরিয়ে চলে যাবো, না লেখার দেশে।

    "আমাদের নীল মৃত্যুকাল
    আমাদের সাদা সন্তরণ
    আমাদের ঢেউগুচ্ছ
    আমাদের এই নিচু জীবন
    জলে ফেলে দেওয়া শান্ত ঢিল
    ক্ষমাশীল ঢেউগুচ্ছ

    গায়ে গায়ে ঘষা কালো জীবন
    হাতে মুখে হাতে মেখে নেওয়া
    ঈর্ষার কাঁচা রক্ত
    আমাদের এই আলোজীবন
    কারো কাছে কিছু নেবে না আর
    জ্বালিয়ে পুড়িয়ে শান্তি"
    ...( জয় গোস্বামী)

    আকুতি আর আবেগের গদগদে মিশ্রণে গলা ডুবিয়ে এই কথাটি কেন যেন অনায়াসে বলতে পারি,

    "সংকোচে জানাই আজ: একবার মুগ্ধ হতে চাই।
    তাকিয়েছি দূর থেকে। এতদিন প্রকাশ্যে বলিনি।
    এতদিন সাহস ছিল না কোনো ঝর্ণাজলে লুণ্ঠিত হবার -
    আজ দেখি অবগাহনের কাল পেরিয়ে চলেছি দিনে দিনে …"
    -- জয় গোস্বামী।

    কবিতা হলো অনিয়মের ঝাড়বাতি। যেখানে নিয়ম, কবিতা সেখান থেকে পালিয়ে আসে। কবিকে ক্রমাগত ভুল বুঝো, তাকে অসম্মান করো, তাকে আঘাত করো, তার কাছ থেকে দূরে চলে যাক প্রিয় ভালোবাসা, তত সে লেখার কাছে চলে আসবে, সুখ কী আদৌ কোনদিন চেয়েছে কবি? পুরস্কার পাওয়ার সন্ধ্যেটিকে ভুলে যেতে না পারলে কবিতাও তাকে ফেলে চলে যায় অন্য কোনও জংশনে ।

    "পাখিটি আমাকে ডেকে বলল তার ডানার জখম
    বলল যে কীভাবে তার পালকে সংসার পোড়া ছ্যাঁকা
    কীভাবে পায়ের মধ্যে ফুটো করে ঢুকে এল চেন
    ঠোঁট দিয়ে খাঁচার শিক কাটতে গিয়ে ঠোঁটের জখম
    দ্যাখালো,
    বাইরে থেকে আমি নিজ ওষ্ঠ থেকে ওম দিলাম, খাঁচার দরজা খুলে তাকে “বাঁচবি যদি আয়’,বলে বার করে এনে রাখলাম আর একটা খাঁচায় সেখানে দুজনে বন্দি পরস্পর দোষারোপ করি,
    দোষারোপ করতে করতে বৃষ্টি আসে, সন্ধে হয়ে যায় …"
    ...জয় গোস্বামী

    কবিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা রইল আমার। সুস্থ থাকুন তিনি।

    "যেভাবে বৃষ্টির জল তোড়ে বয়ে যায়
    ঢালুদিকে
    সেইভাবে, আমার জীবন
    আজ অধোগামী।

    সালোয়ার একটু উঁচু ক’রে
    তুমি সেই জল ভেঙে ভেঙে রাস্তা পার হয়ে গেলে—
    এত যত্নে, সাবধানে, যেন বা জলের গায়ে
    আঘাত না লাগে!

    পড়ন্ত জীবন শুধু মনে রাখবে অপরূপ চলে যাওয়াটিকে।"
    ...জয় গোস্বামী

    @ চিরশ্রী দেবনাথ
    #কবিজয়গোস্বামী
  • বিভাগ : অন্য যৌনতা | ১১ নভেম্বর ২০২০ | ১৬৮ বার পঠিত | ২ জন)
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন গ্রাহক পুনঃপ্রচার
আরও পড়ুন
হাই  - kiju transgirl
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Debajit Ghosh | ১২ নভেম্বর ২০২০ ০০:১৪99934
  • খুব গুছিয়ে লিখেছেন দিদি। জয় গোস্বামী সংক্রান্ত একটু কথা ছিল আপনার সঙ্গে। যদি আপনি সম্মত থাকেন, তাহলে আপনার সঙ্গে যোগাযোগের কোনও একটি মাধ্যম আমাকে দিলে খুব বাধিত হতাম।

  • চিরশ্রী দেবনাথ | 47.29.54.133 | ১৩ জানুয়ারি ২০২১ ০০:৩৪101663
  • chirasree.debnath @gmail.com

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লাজুক না হয়ে প্রতিক্রিয়া দিন