এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • হরিদাস পাল  ব্লগ

  • 'বাহুবলী' প্রসঙ্গে

    Parichay Patra লেখকের গ্রাহক হোন
    ব্লগ | ১৯ জুলাই ২০১৫ | ১৩৮৩ বার পঠিত
  • ‘বাহুবলী’ দেখলাম, তামিল ভার্সনটি দেখতে হল, দ্বিভাষিক ছবির তেলুগু ভার্সন মেলবোর্নের সিনেমা চেন থেকে সরিয়ে নিয়ে তামিলটাই দেখান শুরু করেছে। দুর্ভাগ্যজনক, তবে আশা করছি তেলুগুটা পরে দেখার সুযোগ পাওয়া যাবে। তেলুগু দেখতে চাওয়ার কারণ কেবলমাত্র এই নয় যে পরিচালক এস এস রাজামৌলী এবং অভিনেতাদের প্রধান অংশ মূলত তেলুগুভাষী, বরং এটাও যে এই জঁরটাই distinctively তেলুগু। চল্লিশ থেকে ষাটের দশক পর্যন্ত তেলুগু ছবিতে বিশেষ জনপ্রিয় ছিল একটি জঁর (লুজলি ব্যবহার করছি, আদতে ভারতীয় ছবিতে জঁরের ধারণা জটিল এবং গোলমেলে), যার নাম ফোকলোর ফিল্ম। এই জাতের ছবির সঙ্গে লোকসাহিত্যের সে অর্থে যোগাযোগ নেই, রয়েছে হলিউডের ওরিয়েন্টালিস্ট ছবি এবং ডগলাস ফেয়ারব্যাঙ্ক ঘরানার stunt ফিল্মের। এ সম্পর্কে বিশদে জানতে বেশ কয়েক বছর আগে ‘ডীপ ফোকাস’ জার্নালে প্রকাশিত বিশিষ্ট তেলুগু সিনেমা গবেষক এসভি শ্রীনিবাসের রচনাটি দ্রষ্টব্য। শ্রীনিবাস দেখিয়েছেন সেসময়ের জনপ্রিয় তেলুগু সাহিত্যে কিভাবে এজাতীয় ‘ইনঅথেনটিক ফোকটেল’ আর ডিটেকটিভ ফিকশন বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছিল, এবং সিনেমার জগতে তা প্রসারিত হয়েছিল। একটা উদাহরণ তিনি দিয়েছেন যা বাঙালি দর্শকের কাছেও সহজবোধ্য হওয়া উচিত। ‘চাঁদমামা’ নামক শিশু-কিশোর পাঠ্য ফোকটেল নির্ভর ম্যাগাজিন এই চল্লিশের দশকেই শুরু হয় তেলুগু ভাষায়, প্রকাশক ছিলেন বম্মিরেড্ডি নাগিরেড্ডি ও আলুরি চক্রপাণি। এই দুজনেই তেলুগু সিনেমার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত ছিলেন, বিজয়া-বৌহিনী স্টুডিও এবং বিজয়া পিকচার্স এঁদেরই সংস্থা, যেখান থেকে তেলুগু সিনেমার ইতিহাসের অবিসংবাদিতভাবে শ্রেষ্ঠ ফোকলোর ফিল্ম এনটিআর অভিনীত ‘পাতালা ভৈরবী’ (১৯৫১) নির্মিত হয়। মিথোলজিক্যাল, কোয়াসি হিস্টোরিক্যাল, ফোকলোর ফিল্ম তেলুগু সিনেমাতিহাসে ‘বাস্তবধর্মী’ সোশ্যালের সঙ্গে শুরু থেকেই সহাবস্থান করেছে, এই আলুরি চক্রপাণিই শরৎচন্দ্রের প্রায় সব উপন্যাসের তেলুগু অনুবাদক (বিশদে জানতে শ্রীনিবাসের ২০১৩তে পার্মানেন্ট ব্ল্যাক থেকে প্রকাশিত ‘পলিটিক্স অ্যাজ পারফর্মেন্সঃ আ সোশ্যাল হিস্ট্রি অব দ্য তেলুগু সিনেমা’ বইটি দেখা যেতে পারে), সেগুলির মধ্যে একাধিক চলচ্চিত্রে রূপায়িতও হয়েছিল, যেমন এঁদের হাতেই হয়েছিল শরদিন্দুর ছোটগল্প এবং রবীন্দ্রনাথ মৈত্রের ‘মানময়ী গার্লস স্কুল’ এর তেলুগু সিনেমানুবাদ। আজ যে 'বাহুবলী' ছবিতে অবন্তিকার (তামান্না) সিডাকশন বা কথিত ‘ধর্ষণ’ প্রসঙ্গ নিয়ে হইচই হচ্ছে তা নতুন কিছু নয়, সে যুগেও রূপবাণীর মত তেলুগু ফিল্ম ম্যাগাজিনে ফোকলোর ছবির ‘অশ্লীলতা’ নিয়ে লেখালেখি হয়েছে, ডীপ ফোকাসের রচনায় শ্রীনিবাস তা দেখিয়েছেন। আবার খাজা আহমেদ আব্বাস ছিলেন এই বিশেষ ঘরানার ছবি সমর্থক, তিনি এতে ন্যাশনাল কনশাসনেস খুঁজে পেয়েছেন।

    শ্রীনিবাস এবং মাধব প্রসাদ দুজনেই দেখিয়েছেন যে আদতে তথাকথিত বাস্তববাদী ‘সোশ্যাল’ এর সঙ্গে ফোকলোর বা মিথোলজিক্যালের খুব বেশি ফারাক নেই। বিশেষ করে তেলুগু ছবিতে এই জঁরগুলি দীর্ঘকাল টিকে ছিল, সাত-আটের দশকেও ছিল মিথোলজিক্যাল, যেখানে অন্য প্রদেশের ছবিতে তা অনেককাল বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ‘বায়স্কোপ’ জার্নালে প্রকাশিত একটি রচনায় মাধব প্রসাদ দেখিয়েছেন কিভাবে এই প্রাক-সিনেম্যাটিক জঁর (প্রসাদের ভাষায় ফাউণ্ড জঁর, যা সিনেমা নামক পশ্চিমী মাধ্যম আসার আগেই জনসংস্কৃতিতে ছিল) সারভাইভ করতে নিজেকে খাপ খাইয়ে নেয় সোশ্যালের বাস্তববাদে সেটিংয়ে, নান্দনিকতায়। এই জঁর মিক্সিংকেই প্রসাদ আখ্যায়িত করেছেন ক্রিয়েটিভ ফ্যাব্রিকেশন নামে। অন্যদিকে তেলুগু ছবিতে সচেতনভাবে এই ফোকলোর ফিল্মের অতীতকে রেফার করার প্রবণতা উল্লেখ্য, মহেশ বাবু অভিনীত ‘ওক্কাডু’ (গুণশেখর, ২০০৩) এক অংশে এনটিআরের ‘পাতালা ভৈরবী’ কে রেফার করে, যদিচ ‘ওক্কাডু’ সম্পূর্ণ অন্য ঘরানার ছবি, ফ্যাকশনিস্ট ফিল্ম।

    এস এস রাজামৌলী ইতিপূর্বে নানা ধরনের ছবি করেছেন। ‘মাগধীরা’র মত আধুনিক সোশ্যালের সেটিং এ কোয়াসি হিস্টোরিক্যাল/ফোকলোর ছবি বা ‘ছত্রপতি’র মত ‘স্কারফেস’ অনুপ্রাণিত গ্যাংস্টার ছবি থেকে ‘বিক্রমার্কডু’র মত সুপারকপ ফিল্ম, যাতে পিকারেস্ক ন্যারেটিভের আদল রয়েছে। ‘বাহুবলী’ নিঃসন্দেহে তেলুগু সিনেমার ইতিহাসে বাণিজ্যিকভাবে সফলতম ‘ফোকলোর’ ফিল্ম হতে চলেছে, যদিও তাতে নানা জঁরের মিশ্রণও উল্লেখ্য, যেটা, প্রসাদের তত্ত্বায়নে, স্বাভাবিক। এ ছবি সচেতনভাবেই তথাকথিত বাস্তববাদী সেটিংকে ন্যারেটিভে রাখে না, কিন্তু তার স্টার প্রোট্যাগনিস্টকে সে তেলুগু স্টার ভেহিকলের নির্দিষ্ট পদ্ধতিতেই পরিচিত করায়। প্রসঙ্গত প্রভাসের তেলুগু সিনেমা জগতে অন্যতম পরিচিতি তার জ্যেষ্ঠতাত কৃষ্ণম রাজুর সূত্রেও, যিনি একদা স্টার, যার কিছু অভিধা প্রভাস বর্তমানে বহন করছে এবং তেলুগু চলচ্চিত্রে এই উত্তরাধিকারের প্রয়োজনও থাকে অনেক ক্ষেত্রেই। এই ছবি প্রভাসের কেরিয়ারের মাইলফলক হয়ে থাকবে এতে সন্দেহ নেই।

    মাইক ম্যাককাহিল গার্ডিয়ানের রিভিউটিতে ঝ্যাং ইমুর নাম এনেছেন। আমার বিবেচনায় চীনের পঞ্চম প্রজন্মের পরিচালকরা, ইমু বা চেন কাইগে যেমন, যে ধরনের wu xia ছবি করেছেন, স্পেকট্যাকল নির্ভর বড় বাজেটের ছবি করে গেছেন, তার সঙ্গে ‘বাহুবলী’র গুণগত পার্থক্য তেমন নেই (অবশ্যই ইমু বা কাইগে এর বাইরেও ছবি করেছেন, কিন্তু সেটা এখানে বিবেচ্য নয়)। তফাত এই যে ‘বাহুবলী’ এই ছবিশরীরটিকে প্রোথিত করে ভারতীয় পপুলারের ফর্মে, ললিতা গোপালনের ভাষায় যাকে আমরা, তার বিচিত্র এপিসোডিক ন্যারেটিভ, সঙ্গীতবাহুল্য আর বিরতি নিয়ে, ‘সিনেমা অব ইন্টারাপশনস’ নামে জানি।

    শেষে একটাই আক্ষেপ। জঁর উপযুক্ত অতরের (auteur) হাতে পড়ে অন্য চেহারা নেয়। চীনের ফিউডালিজম এবং হারেম সংস্কৃতি নিয়ে ঝ্যাং ইমু ‘রেজ দ্য রেড ল্যানটার্ন’ করেই খালাস, হো সিয়াও সিয়েনই পারেন প্রায় অনুরূপ বিষয় নিয়ে ‘ফ্লাওয়ারস অব সাংহাই’ করতে। হোর wu xia এপিক, কানে পুরস্কৃত ‘অ্যাসাসিন’ দেখব মেলবোর্ন ফেস্টিভ্যালে, যা, অনেকের মতেই, জঁরটিকেই নতুনভাবে পরীক্ষা করে, অতরের চিহ্ন মুদ্রিত করে দেয়। আমাদের জঁর আছে, অতর নেই।
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • ব্লগ | ১৯ জুলাই ২০১৫ | ১৩৮৩ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Ekak | 24.99.55.152 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০১:২৫69140
  • পরিচয় বাবুর লেখার স্টাইলটি দুর্দান্ত লাগে । ভেবে দেখুন এই লেখাটায় সিনেমা-পরিচালক-জঁর এগুলো হায়পার্লিঁক এনেবল হলেই চোখের সামনে বেশ একটা স্ট্রাকচারড গ্রাফিকাল' ইনফরমেশন পাবেন । এবং ক্রিটিকাল এনালিসিস ও । চার্ট ও দেখানো যাবে ।খুবই ডিজিটাল ফ্রেন্ডলি ভাষা ।
  • PM | 233.223.157.113 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৩:২২69141
  • এই লেখাটার জঁর ঠিক কি? এটা কি বাহুবলীর সিনেমা সমালোচনা? নাকি তেলেগু ফোকলোর বিষয়ক এসে?

    তবে বাহুবলী নিয়ে এরকম লেখা নামাতে ক্যাপা লাগে , নিঃসন্দেহে।
  • sch | 113.42.159.50 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৪:২১69142
  • এদ্দিনে আঁতেল শব্দটার মানে সম্যক বুঝলাম
  • Atoz | 161.141.84.176 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৭:১৮69143
  • কিছুই তেমন বুঝলাম না। অবশ্য তাতে কীই বা যায় আসে? ঃ-)
  • - | 109.133.152.163 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৭:২৯69144
  • কোন্টা বুঝলেন্না, আতোজ? সিনিমার পরিচয়্টা নাকি পরিচয়ের (ভাষায়) সিনিমাটা?

    সচকে একটা বিশাল বড় আর ভারী ক্ক ঃ-)
  • Atoz | 161.141.84.176 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৮:০৪69145
  • কোনোটাই না, ড্যাশ। ঃ-)
    হামি গরীব আদমি আছি।
  • Atoz | 161.141.84.176 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৮:০৭69146
  • তাড়াতাড়িচ্চোটে আমি আবার শেষে পড়লাম, "আমাদের জ্বর আছে, আতর নাই।"
    আতর দিয়ে জ্বরের কী হবে ভেবে টাল খেয়ে গেলাম। কেজানে হয়তো কোনো দেশে আতর মাখিয়ে জ্বর সারায়। প্রেমজ্বর টেমজ্বর হলে সারাতেই পারে অবশ্য।
    ঃ-)
  • he he party | 91.145.165.209 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ০৯:৩৭69147
  • তো ??
  • Parichay Patra | 128.138.12.3 (*) | ১৯ জুলাই ২০১৫ ১২:৪৯69139
  • সোশ্যালের বাস্তববাদী সেটিংয়ে হবে, বাস্তববাদে হয়ে গিয়েছে।
  • a x | 138.249.1.202 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ০৩:২০69151
  • আমার পরিচয়ের লেখা পড়তে বেশ অসুবিধে হয়। ভাষা নিয়ে আগেও বলেছি, ফ্লুইডিটি নেই। রেফারেন্স ও ক্রস রেফারেন্স পূর্ণ, কিন্তু সামারি নাই, এরকম মনে হয়। তারমধ্যে থেকেও খুঁটে খাবার সামগ্রী আছে বলে এই লেখা স্বাগত।
  • h | 213.99.211.133 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ০৫:৩৭69148
  • এই প্রবন্ধটা আমার খুব ভালো লেগেছে। থ্যাংক ইউ লেখক কে।
  • shibir | 113.16.71.17 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ০৫:৪২69149
  • অনেকেই দেখি এই আঁতেল শব্দটা ব্যবহার করেন । আজ অব্দি এই শব্দটার মানে বুঝলামনা । sch বা - একটু আলোকপাত করবেন ?
  • পরিচয় | 128.138.12.3 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ০৬:৩৪69152
  • সব রেফারেন্স দেওয়া আছে মোটামুটি। দেখুন। আর স্পেসিফিক কিছু চাইলে বলুন, এখানে দেব। আর আঁতেল কথাটা ফরাসী অঁতেলেকতুয়েল থেকে এসেছে মনে হয়।
  • roddur roy | 227.44.42.2 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ১০:১৩69153
  • এই তো আমার সমোগোত্রিয়ো কাউকে পেয়েচি
    এই না হোলে চিত্রোবোদ্ধা?
    আরে তিরিশ বোচোর আগে এই লেখা বাজারে পোর্লে লোকে লোম্বু মানিক আর মাতাল ঘতক কে থোরি মান্যি কোর্তো?

    এ হোলো আসোল মোখ্ক্ষ ঘরানা

    বুকে আসুন দাদা আর আমার গান গুলো য়ূ তুবে শুনে নিন
  • riddhi | 79.64.8.100 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ১০:৩৫69154
  • @শিবির, খুব সম্ভবত http://www.dictionarist.com/entel এখান থেকে এসেছে।
  • riddhi. | 79.64.8.100 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ১০:৩৬69155
  • 'আর আঁতেল কথাটা ফরাসী অঁতেলেকতুয়েল থেকে এসেছে মনে হয়।' হ্যাঁ, এটাই কারণ।
  • 0 | 132.163.15.24 (*) | ২০ জুলাই ২০১৫ ১১:৩০69150
  • পড়লাম। তথ্যের রেফারেন্স্‌ও সঙ্গে দেওয়া থাকলে ভালো হত।
  • পরিচয় | 128.138.12.3 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৩:০১69159
  • ঋত্বিকের নামের বানান ভুল করলে আমি ঠিক করে দিতে পারব না দাদা, সে আমি অথরিটি হই বা না হই।
  • R | 131.241.218.132 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৪:২৩69160
  • কিন্তু, এই লেখাটাতে বাহুবলী নিয়ে তো কিছুই লেখা হল না। তবে "বাহুবলী প্রসঙ্গে" কেন?

    নাকি এরও একটা কনক্লুডিং পার্ট আছে। ২০১৬ তে আসছে?
  • shibir | 113.16.71.17 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৫:৩৩69156
  • @riddhi লিংক দেখে যা মনে হলো আঁতেল মানে ইন্টেলেকচুয়াল । কিন্তু বাংলায় মনে হয় সিউডো ইন্টেলেকচুয়াল বোঝাতে ব্যবহার করা হয় ।
  • sumeru | 127.194.80.245 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৭:০৮69157
  • পড়লাম। পরিচয়ের লেখা আমার বেশ লাগে। তবে আমি সিনেমার লেখা হিসাবে পড়ি না।
  • pi | 192.66.9.184 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৭:৪০69162
  • গার্ডিয়ান আজকাল বাজারী বলে রেফারড হয় ? তা বেশ ঃ)
  • AD | 160.129.64.209 (*) | ২১ জুলাই ২০১৫ ০৮:০৯69158
  • পরিচয় এর এই লেখা তে দুটো জিনিস অনুপস্থিত - ১। উনি একবার ও জানান নি যে উনি ঋত্তিক ঘটক এর ব্যাপারে একজন অথরিটি , আর ২। অনার ইউনিভার্সিটি র নাম টা ও একবার ও দেখলাম না ।।।।

    এই দুটো হলমার্ক না থাকাতে ইটা পরিচয় এর লেখা কিনা সে ব্যাপারে সন্দেহের অবকাশ থেকে যায়
  • PM | 11.187.178.9 (*) | ২৩ জুলাই ২০১৫ ০৪:০৩69163
  • পরিচয় যে লেভেল-এ খেলছেন সেই রেফারেন্স ফ্রেমে গার্ডিয়ানকে বাজারী বলা ছাড়া উপায় নেই ঃ)
  • তাপস দাশ | 126.203.154.248 (*) | ২৬ জুলাই ২০১৫ ০৬:১৭69165
  • লেখাটা বেশ লাগল। সিনিমা রিভিউ বলতে যে গদ্গদ পনা আজকাল চালু সে নিয়ে কিছু বলার নেই। ব্যক্তিগত পাঠ থাকতেই পারে। কিন্তু এ ধরনের রিভিউয়ের সঙ্গে পাঠক ক্রমশ অপরিচিত হয়ে পড়ছে। যা কাম্য নয়।
  • Ujbuk | 96.159.140.53 (*) | ০১ আগস্ট ২০১৫ ০৭:৩২69166
  • নদী পাহাড় থেকে নামে, সমুদ্রে যায় । নদীর পাশে নদীর পার থাকে। সেই পারে অনেক অনেক সবুজ সবুজ ঘাস গজায়। সেই ঘাস খেতে দলে দলে গরু আসে। গরু চতুস্পদ প্রাণী । তার দুটি শিং, চারটি ক্ষুর এবং একটি লেজ আছে । গরু দুধ দেয় আর সেই দুধ থেকে দই, ছানা , ক্ষীর প্রভৃতি তৈরী হয় । গরুর অনেক জঁর ,,,,,
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খারাপ-ভাল মতামত দিন